Logo
শিরোনাম

মানিকগঞ্জে হজ্জে গমনেচ্ছুকদের প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্জে গমন ইচ্ছুকদের প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার জেলা কালেক্টরেট মসজিদের দ্বিতীয় তলায় এই প্রশিক্ষন কর্মশালার আয়োজন করে  জেলা প্রশাসন ও মানিকগঞ্জ ইসলামী ফাউন্ডেশন। 

কর্মশালায় ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক মুহাম্মদ জামাল হুসাইনের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আবদুল লতিফ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। 

কর্মশালায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো: সানোয়ারুল হক, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার মাওলানা মুফতি আশরাফুল আলম, হাবের প্রতিনিধি মাওলানা সেলিম হোসাইন আজাদী, মাওলানা মনিরুজ্জামান রব্বানী, মানিকগঞ্জ ন্যাশনাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউ (এনপিআই) এর অধ্যক্ষ ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, মানিকগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিসের ডাক্তার মো: হাবিবুল্লাহ খান প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষন দেন। এসময় হজ্জের ডকুমেন্টরী প্রদর্শন, হজ্জ ব্যবস্থাপনা, প্রশাসনিক বিষয় উপস্থাপনা, হজ্জে ধর্মীয় বিধি নিষেধ সম্পর্কে উপস্থাপনা, স্বাস্থ্য বিষয়ক উপস্থাপনা প্রদান করা হয়। 

এছাড়া হজ্জের আদব-কায়দা, নিয়ম-কানুন ভিডিও ফুটেজের মাধ্যমে দেখানো হয়।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অর্থায়নে কর্মশালায় নিবন্ধিত নারী-পুরুষের শতাধিক হজ্জে গমনেচ্ছুক ব্যক্তি অংশ নেন। 

পরে মোনাজাতের মাধ্যমে প্রশিক্ষন শেষ করা হয়।


আরও খবর

১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আযহা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




পরমাণু বোমা তৈরি বাড়তে পারে সামনের বছরগুলোতে: থিংক ট্যাংক

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

স্নায়ুযুদ্ধের পর এই প্রথমবারের মতো বিশ্বজুড়ে পারমাণবিক অস্ত্রাগার বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বর্তমানে বিশ্বে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ঝুঁকি কয়েক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (এসআইপিআরআই) নামের থিংকট্যাংক সোমবার (১৩ জুন) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলেছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান

বিজ্ঞপ্তিতে গবেষণা সংস্থাটি দাবি করছে, রুশ বাহিনীর ইউক্রেনে আক্রমণ এবং ইউক্রেনকে পশ্চিমাদের সমর্থন বিশ্বের ৯টি পারমাণবিক অস্ত্রধারী রাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি করেছে। ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২২ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা সামান্য হ্রাস পেয়েছিল। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশগুলো যদি কোনো পদক্ষেপ না নেয়, তবে কয়েক দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বে পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা বাড়বে। 

এসআইপিআরআইয়ের গণবিধ্বংসী অস্ত্র কর্মসূচির পরিচালক উইলফ্রেড ওয়ান বলেন, ‘বিশ্বের সমস্ত পারমাণবিক অস্ত্রধারী রাষ্ট্র তাদের অস্ত্রাগার বাড়াচ্ছে। এটি খুবই উদ্বেগজনক ঘটনা।’

ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করার তিন দিন পর রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এ হামলাকে ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ বলে অভিহিত করেছিলেন এবং এ যুদ্ধে রাশিয়া পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারে সর্বোচ্চ সতর্কতায় রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন। তিনি বারবার পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের পরিণতি সম্পর্কে সতর্ক করেছেন। 

রাশিয়ার কাছে বিশ্বের বৃহত্তম পারমাণবিক অস্ত্রাগার রয়েছে। দেশটিতে ৫ হাজার ৯৭৭টি ওয়ারহেড রয়েছে। এই সংখ্যাটি যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে ৫৫০টি বেশি। যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার কাছে বিশ্বের ৯০ শতাংশের বেশি ওয়ারহেড রয়েছে। অন্যদিকে চীনের কাছে ৩০০ টির বেশি ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে।

এসআইপিআরআই বলেছে, বিশ্বব্যাপী পরমাণু ওয়ারহেডের সংখ্যা ২০২১ সালের জানুয়ারিতে ছিল ১৩ হাজার ৮০ টি। ২০২২ সালের জানুয়ারিতে তা কমে ১২ হাজার ৭০৫টি এসে দাঁড়ায়। তবে আগামী বছর তা আবার বাড়তে পারে।


আরও খবর



যে রেকর্ডে সবার চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

সেন্ট লুসিয়া টেস্টে ১০ উইকেটের হার, দুই ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ। আর সেন্ট লুসিয়া টেস্টে হারের মধ্যে দিয়ে টেস্টে শততম হারের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ।

২০০০ সালে টেস্ট অভিষেক বাংলাদেশের, প্রায় দুই যুগের যাত্রায় বাংলাদেশ খেলে ফেলেছে ১৩৪টি টেস্ট। যার মধ্যে ১০০টিতেই হেরেছে টাইগাররা।

এই বাংলাদেশ জয় পেয়েছে ১৬ টেস্টে, ড্র হয়েছে ১৮টি। ১৩৪ ম্যাচ খেলেই ১০০তম হারের দেখা পাওয়ার ঘটনা এটাই প্রথম, টেস্ট ইতিহাসে আর কোনো দলের এত কম ম্যাচ হারের শতক ছোঁয়ার রেকর্ড নেই।

বাংলাদেশের আগে এই রেকর্ড ছিল নিউজিল্যান্ডের দখলে। ৮ ডিসেম্বর ১৯৯৫ সালে শুরু হওয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট হেরে ‘শতক’ পূর্ণ করেছিল কিউইরা। ওই সময়ের মধ্যে তারা খেলেছিল ২৪১টি টেস্ট। তার মধ্যে ৩৩টিতে জয় ছিল তাদের।

শততম হারের আগে সবচেয়ে বেশি জয়, এমন রেকর্ডটি অস্ট্রেলিয়ার। ১৮৭৭ সালে ইতিহাসের প্রথম টেস্টের প্রায় ১০০ বছর পর ১৯৭৮ সালে যখন শততম হার আসে অস্ট্রেলিয়ার, এর মধ্যে খেলা ৩৭৪টি টেস্টের ১৭০টিই জিতেছিল তারা। 

ভারতের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টেই হেরেছিল বাংলাদেশ। এরপর ২০০১ সালে ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বৃষ্টির সৌজন্যে প্রথম ড্র, তারপর ২০০৪ পর্যন্ত টানা ২১ হার। টেস্টে সেটিই টানা হারের রেকর্ড। 


আরও খবর



পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন সতর্ক থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভায় পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন নেতাকর্মীদের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (৮ জুন) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে দক্ষিণাঞ্চলের জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এক ক্ষুদেবার্তায় (এসএমএস) তিনি এ নির্দেশ দেন।

সভায় প্রধানমন্ত্রীর এ ক্ষুদেবার্তা পড়ে শোনান আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনাদের জন্য একটি মেসেজ দিয়েছেন। আমি পড়ে শোনাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সবাই যেন সাবধানে চলাফেরা করে। গাড়ি যেন ওভারটেক না করে। ভলান্টিয়াররা সক্রিয় থাকবে। ষড়যন্ত্র তো আছেই। কোনো দুর্ঘটনা আনন্দ মাটি করে দিতে পারে। সাবধানে থাকতে হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সভায় দক্ষিণাঞ্চলের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওইদিন বেলা ১১টায় কাঁঠালবাড়ি প্রান্তে সমাবেশ করবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াও দিনব্যাপী সেখানে নানান আয়োজন থাকবে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন আওয়ামী লীগের এ সমাবেশে ১০ লাখের বেশি মানুষের সমাগম ঘটবে বলে প্রত্যাশা করছে ক্ষমতাসীন দলটি।

এরই মধ্যে পদ্মা সেতু দিয়ে পারাপারের জন্য অনুমোদিত যানবাহনের টোল নির্ধারণ করেছে সরকার। পদ্মা সেতু পারাপারে মোটরসাইকেলে ১০০ টাকা, কার ও জিপে ৭৫০ টাকা, পিকআপে এক হাজার ২০০ টাকা, মাইক্রোবাসে এক হাজার ৩০০ টাকা টোল পরিশোধ করতে হবে। বাসের ক্ষেত্রে ছোট বাস (৩১ আসন) এক হাজার ৪০০ টাকা, মাঝারি বাস (৩২ আসন বা এর বেশি) দুই হাজার টাকা, বড় বাসকে (থ্রি-এক্সেল) দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল দিতে হবে।

এছাড়া ছোট ট্রাককে (পাঁচ টন পর্যন্ত) এক হাজার ৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাকে (পাঁচ টনের বেশি ও সর্বোচ্চ আট টন পর্যন্ত) দুই হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (আট টনের বেশি ও সর্বোচ্চ ১১ টন) দুই হাজার ৮০০ টাকা, ট্রাকে (থ্রি-এক্সেল পর্যন্ত) পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, ট্রেইলার (ফোর-এক্সেল পর্যন্ত) ছয় হাজার টাকা। ট্রেইলার (ফোর-এক্সেলের অধিক) ছয় হাজারের সঙ্গে প্রতি এক্সেলের জন্য এক হাজার ৫০০ টাকা যুক্ত হবে।


আরও খবর



বন্যাকবলিত মানুষের পাশে আছি: শাকিব খান

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ |
Image

চেরাপুঞ্জির রেকর্ড বৃষ্টিতে সৃষ্ট পাহাড়ি ঢলে সিলেট, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে আকস্মিক বন্যায় জনদুর্ভোগ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। 

গত ১৬ জুন থেকে খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানি সংকটে ভুগছেন বয়স্ক, নারী ও শিশুরা।  শহর-গ্রাম নির্বিশেষে মানুষের মধ্যে হাহাকার চলছে। নিরাপদ আশ্রয় না পেয়ে নৌকায় মাথা গোঁজার ঠাঁই নিয়েছেন অশীতিপররাও।এমন পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র থেকেই বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খান। বন্যার্তদের জন্য তহবিল গঠন করছেন ঢাকাই ছবির পোস্টার বয়। 

বন্যাকবলিত এলাকার একটা ছবি শেয়ার করে শনিবার দুপুরে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন শাকিব খান। লিখেছেন, ‘এ মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্রে থাকলেও সংবাদমাধ্যম ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে জেনেছি। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ। বন্যাকবলিত মানুষের দুর্দশা আমাকে ভীষণভাবে কষ্ট দিচ্ছে। মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়া মানুষের পাশে আছি। তাদের মৌলিক চাহিদা পূরণে আমার সামর্থ্যের মধ্যে অর্থ সহায়তা পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছি।’

‘সেই সঙ্গে একটি তহবিল গঠনেরও কথা ভেবেছি, যা থেকে প্রাপ্ত অর্থ ও অন্যান্য সহায়তা পৌঁছে যাবে কষ্টে থাকা সেসব বানভাসি মানুষের সাময়িক সংকট মোকাবিলায়। বন্যাকবলিতদের যে কোনো ধরনের সহায়তা দিয়ে যারা পাশে থাকতে চান, এই ই-মেইলে যোগাযোগ করতে পারবেন [email protected]।’

সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে শাকিব খান আরও লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ ও প্রবাসে থাকা আগ্রহী বিত্তবানদের কাছে আহ্বান— আপনারাও নিজেদের সামর্থ্যের মধ্য থেকে বানভাসি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান। সৃষ্টিকর্তা আমাদের সহায় হোক। সবার জন্য প্রার্থনা।’


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




গজারিয়া দৈনিক আজকের পত্রিকা প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

শাহাদাত হোসেন সায়মনঃ:

গজারিয়া  দৈনিক আজকের পত্রিকা প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। সারা দেশের স্থানীয় দৈনিক' স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু করে আজকের পত্রিকা এখন দেশের প্রথম সারির তৃতীয় দৈনিক পত্রিকা।পত্রিকাটির দ্বিতীয় বর্ষে পদার্পণে করেছে।

দৈনিক আজকের পত্রিকা গজারিয়া প্রতিনিধি শাহাদাত হোসেন সায়মনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে সোমবার  বিকাল সাড়ে ৪টায় পত্রিকাটির ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে গজারিয়া হাইওয়ে রেস্টুরেন্ট  আলোচনা সভা ও কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  গজারিয়া  থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)রইছ উদ্দিন , বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ভবেরচর হাইওয় পুলিশ ফাড়ি ইনচার্জ  মোঃ  মনিরুজ্জামান, ভবেরচর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান সাহিদ ইঞ্জিনিয়ার লিটন,   দৈনিক দেশ রুপান্তর  প্রতিনিধি আজিজুল হক পার্থ এর সঞ্চালনা আরো উপস্থিত ছিলেন ,এস আই মো  হেলাল উদ্দিন, গজারিয়া  উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জসিম উদ্দিন 

বিজয়টিভি জেলা প্রতিনিধি আমিরুল ইসলাম নয়ন, দৈনিক সংবাদ শেখ নজরুল,আমার বার্তা  মকবুল হোসেন,সিনিয়র সাংবাদিক  শফিক ঢালী, ফাল্গুনী টিভি সোলায়মান শিকদার, সভ্যতার আলো আলমগীর হোসেন, ঢাকা প্রতিদিন গাজী পারভেজ, দৈনিক শব্দ মিছিল রাজু আহমেদ, দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার ওসমান গনি,

দৈনিক সময়ের কাগজ রাসেল মিয়া, দৈনিক জনতা মোহাম্মদ রানা সরকার,  দৈনিক একুশে সংবাদ খায়রুল ইসলাম হৃদয় প্রমুখ।

পত্রিকাটির সফলতা কামনা করে আলোচনা সভায় অতিথিরা তাদের বক্তব্যে বলেন, দৈনিক আজকের পত্রিকা টি পাঠকদের চাহিদা পূরণে সমর্থ হয়েছে। আর সে জন্যই মাত্র এক বছরের মাথা দেশের অন্যান্য পাঠকপ্রিয় পত্রিকাগুলোকে পিছনে ফেলে এখন দেশের প্রথম সারির তৃতীয় দৈনিক পত্রিকা নিয়েছে। পত্রিকাটি তার লেখনি দিয়ে আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। এসময় বক্তারা পত্রিকাটির গজারিয়া প্রতিনিধি শাহাদাত হোসেন সায়মন এর প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বক্তরা।


আরও খবর