Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

মাওলানা জালাল উদ্দিন রুমির জন্ম দিন উপলক্ষে আলোচনা সভা

প্রকাশিত:Friday ৩০ September ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

সৈকত শতদল,রাজবাড়ী জেলা প্রতিানধিঃ

রাজবাড়ীর পাংশায় সাহিত্যিক এয়াকুব আলী চৌধুরী স্মৃতি পাঠাগারে ৩০ সেপ্টেম্বর বিকেলে পাংশা ও কালুখালী সাহিত্য পরিষদ (পাকাসাপ) এর আয়োজনে জগৎ বিখ্যাত মুসলিম কবি , আইনজ্ঞ, ইসলামিক ব্যক্তিত্ব সুফি মাওলানা জালাল উদ্দিন রুমির জন্ম দিন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে মাওলানা জালাল উদ্দিন কর্ম ও জীবন নিয়ে মূল আলোচনা উপস্থাপন করেন খন্দকার হাফিজুল ইসলাম । অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করেন পাংশা সাহিত্য উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি কবি ফিরোজ হায়দার,হাজারী আবুল হাসেম, বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ কায়কোবাদ, কবি মোল্লা মাজেদ, এবাদত আলী সেখ , পাংশা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস এম রাসেল কবির প্রমুখ। 

প্রবন্ধিক ও গবেষক শেখ মোঃ সবুর উদ্দিন এর উপস্থাপনায় আলোচনা শেষে কবিতা পাঠের আসরে কবিতা পাঠ করেন  কবি ষড়জিৎ বিষ্নু শ্যাম, সন্ধ্যা রানী কুন্ডু, আফরোজা সম্পা মেসকাতুল আববার,  সহ সংগঠনে কবি ও লেখক গণ। 

উল্লেখ্য মাওলানা জালাল উদ্দিন রুমি ১২০৭ খি. ৩০ সেপ্টেম্বর বর্তমান আফগানস্থিনের বালখ শহরে জন্ম গ্রহন করেন।  ১২৭৩ খি. এই মহান ব্যাক্তি ইন্তেকাল করেন।


আরও খবর



সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ওয়ান স্টপ সার্ভিস

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সি সার্ভিস চালুর পর থেকে রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি কমতে শুরু করেছে। হাসপাতাল পরিচালক বলছেন, জরুরি রোগীর সেবায় ল্যাব সাপোর্ট, আলট্রাসনোগ্রাম, পোর্টেবল এক্সরেসহ প্রায় সব ধরনের সুবিধা রয়েছে। সেবা চলমান রাখতে চিকিৎসক, সেবিকা ও মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট প্রয়োজন।

সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সি সার্ভিস চালুর পর থেকে জরুরী রোগীদের ভীড় বেড়েই চলেছে ।

প্রথমে একজন রোগী এলেই শুরু হয় ডাটা এন্ট্রি।এরপর রোগের উপসর্গ ভেদে শুরু হয় চিকিৎসা।সামান্য রোগ নিয়ে আসা রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ী ফেরত পাঠানো হয় ।আর, রোগী জটিল হলে শুরু হয় চুড়ান্ত চিকিৎসা।সহজে সেবা পেয়ে খুশি সাধারণ মানুস

সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বলছেন, যে কোনও রোগী দিন-রাত ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসা নিতে পারবেন। জরুরি রোগীর সেবায় অত্যাধুনিক ল্যাব সাপোর্ট, আলট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি, পোর্টেবল এক্সরেসহ প্রায় সব ধরনের ডায়াগনস্টিক সুবিধা রয়েছে এই সার্ভিসে। প্রয়োজনে জরুরি অপারেশনের সুবিধাও মিলবে। আছে আইসিইউ সাপোর্টও।

পরিচালক বলছেন, এই মুহুর্তে জরুরী ভাবে হাসপাতালে রোগীর চাহিদা অনুযায়ী আরো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, সেবিকা ও স্বাস্থ্যকর্মী প্রয়োজন। সেই চাহিদা পত্র নিয়ে অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়ে আলোচনা চলছে

 


আরও খবর



বাড়তে শুরু করেছে প্রবাসী আয়

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

নতুন বছরের শুরুতেই বাড়তে শুরু করেছে প্রবাসী আয়। জানুয়ারি মাসের প্রথম ১৩ দিনে রেমিটেন্স এসেছে ৯২ কোটি ৮৬ লাখ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা।

এদিকে গেল বছরের ডিসেম্বরে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৫৯ কোটি ৪৭ লাখ মার্কিন ডলার। যা ২০২১ সালের ডিসেম্বরের চেয়ে প্রায় ৭ কোটি ডলার বেশি। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক তাদের প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানায়। প্রতিবেদন বলছে এ সময় প্রবাসীরা সবচেয়ে বেশি ৭৭ কোটি ১৩ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে। অন্যদিকে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ১২ কোটি ৯২ লাখ মার্কিন ডলার। তবে এ সময়ে সাত ব্যাংক থেকে আসেনি কোনো প্রবাসী আয়। 


আরও খবর



নওগাঁর আত্রাই নদী পরিযায়ী পাখিকে ঘিরে হতে পারে পর্যটন কেন্দ্র

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

শীত এলেই ওরা চলে আসে। আসে একেবারে দলবেঁধে। সকাল এর স্নিগ্ধ কুয়াশা আর মৃদু রোদের ফাঁক দিয়ে যেন ভেসে আসে কিচিরমিচির শব্দ। নদীর স্বচ্ছ পানিতে পরিযায়ী পাখির জলকেলি সেই সাথে কলকাকলিতে মুখরিত হয়ে থাকে নদীর দুই পাড়। তাদের আগমনে প্রকৃতি যেন নতুন করে প্রাণ ফিরে পায়। পাখিকে ঘিরে এলাকাটি পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার দাবী জানিয়েছেন স্থানিয় সচেতন মহল সহ পর্যটকরা।

গত কয়েক বছর ধরে শীতের শুরুতে দল বেঁধে আসতে শুরু করে পরিযায়ী পাখি। আবাস গড়ে তোলে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার আত্রাই নদীর তীরের পুরো কুঞ্জবন এলাকাজুড়ে। নদীর স্বচ্ছ পানিতে চোখ পড়লেই দেখা মিলবে হাজারো পরিযায়ী পাখির। চলতি শীত মৌসুমে বালিহাঁস, সরালি হাঁস, পানকৌড়ি, রাতচোরাসহ বিভিন্ন প্রজাতির পরিযায়ী পাখির বিচরণ ঘটেছে এখানে। এছাড়া পিয়াং হাঁস, পাতি সরালি, লেঙজাহাঁস, বালিহাঁস, পাতিকুট, শামুকখোল, পানকৌড়ি, ছন্নি হাঁস সহ প্রায় ১২জাতের দেশি পাখির দেখা মিলবে। এসব পরিযায়ী পাখি প্রতিদিন ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নদীর স্বচ্ছ পানিতে করছে জলকেলি। কখনও জলে ভাসতে ভাসতে আবার কখনও দল বেঁধে উড়ছে নদীর চারপাশে। একসঙ্গে ওঠানামা করতে গিয়ে পা আর পাখার ঝাপটায় চারদিকে ছিটকে পড়া পানিতে সৃষ্টি হচ্ছে এক অপরূপ দৃশ্য। সারাদিন নদীতে থাকলেও রাতে পাখিগুলো ফিরে যায় পাশের রামচন্দ্রপুর ও মধুবন সহ এলাকার বিভিন্ন গাছে। ভোরে আবারও ফিরে আসে আত্রাই নদীতে। মনোমুগ্ধকর এই দৃশ্য দেখতে দুর দূরান্ত থেকে আসছেন পাখি প্রেমিরা। নিরাপদে পাখিগুলোর বসবাসের জন্য আবাস করে দিতে উদ্যোগ নিয়েছে স্থানীয় সামাজিক সংগঠন।

পাখি দেখতে আসা দর্শনার্থী আব্দুল হাকিম, খবির উদ্দিন সাজ্জাদ হোসেন মন্ডল সহ অনেকেই বলেন, এখানে এসে অতিথি পাখি দেখে মনটা ভরে যায়। খুব সুন্দর পরিবেশ ও মনোমুগ্ধকর এই জায়গা। অতিথি পাখির অবাধ বিচরণ। এলাকাটিতে যদি পাখির অভয়ারণ্য গড়ে তোলা যায় সেক্ষেত্রে প্রতি বছর এখানে পরিযায়ী পাখি আরো বেশি করে আসতো। এসব পাখিকে ঘিরে এলাকাটি পর্যটন কেন্দ্র গড়ে উঠতে পারে। ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি উড়ে এসে পানিতে পড়ছে। আবার কেউ বাঁশের ওপর বসে আরাম করছে। এখানে যাতে কোনক্রমেই ভীতিকর অবস্থা সৃষ্টি না হয় সেদিকে প্রশাসন ও স্থানীয়দের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

সামাজিক সংগঠন নিরাপদ নওগাঁর চেয়ারম্যান ও গনমাধ্যম কর্মী এম সাখাওয়াত হোসেন বলেন, এখানে আগত অতিথি পাখিদের নিরাপত্তা প্রদানে আমরা কাজ করে আসছি। পাখিদের বিচরন স্থান গুলোকে অভয়ারন্য হিসেবে ঘোষনা করতে প্রশাসনের সঙ্গে একাত্ত হয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। শুধু অতিথি পাখিই নয় পুরো দেশের পরিবেশে ও জীব বৈচিত্র্য রক্ষায় আমরা বদ্ধ পরিকর। মহাদেবপুর উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাকসুদুর রহমান বলেন, আত্রাই নদীতে যেসব স্থান পাখিদের অবাধ বিচরণ আছে সেই সব স্থানে যাতে কেউ নৌকা দিয়ে মাছ শিকার করার কারণে পাখিদের অবাধ বিচরণে বাধাগ্রস্থ না হয় এবং কেউ যেন পাখি শিকার করতে না পারে সে বিষয়ে মৎস্য অফিসের পক্ষ থেকে নজরদারি রয়েছে। এছাড়া কেউ যদি পাখি শিকার করে, আমরা জানতে পারলে বনবিভাগের সাথে সমন্বয় করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু হাসান বলেন, আত্রাই নদীতে যেসব স্থান পাখিদের অবাধ বিচরণ আছে সেই সব স্থানে যাতে কেউ নৌকা দিয়ে মাছ শিকার করার কারণে পাখিদের অবাধ বিচরণে বাধাগ্রস্ত না হয় এবং কেউ যেন পাখি শিকার করতে না পারে সেই বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। অতিথি পাখিদের আবাসস্থলকে নিরাপদ করে অভয়ারন্যে পরিণত করে পর্যটকমুখি করতে গৃহিত পদক্ষেপগুলো দ্রুতই বাস্তবায়ন করা হবে।


আরও খবর



প্রশ্নফাঁসে ১০ বছর কারাদণ্ডের আইন পাস

প্রকাশিত:Tuesday ১৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন আইন-২০২৩ বিল’জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে। পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) অধীনে কোনো পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস করলে সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং অর্থদণ্ডের বিধান রেখে সংসদে ‘বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন আইন-২০২৩ বিল’পাস হয়। এছাড়া ভুয়া পরিচয়ে অংশ নিলে ২ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রেখে জাতীয় সংসদ একটি বিল পাস হয়েছে।

আইনে সরকারি চাকরির পরীক্ষাসংক্রান্ত বিভিন্ন অপরাধ ও তার সাজা নির্ধারণ করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি পরীক্ষার্থী না হয়েও নিজেকে পরীক্ষার্থী হিসেবে হাজির করলে বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করলে বা অন্য কোনো ব্যক্তির নামে বা কোনো কল্পিত নামে পরীক্ষায় অংশ নিলে তা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। এর শাস্তি সর্বোচ্চ ২ বছরের কারাদণ্ড বা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ড।

এর আগে বিলটির ওপর আনা জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে পাঠানো হয় এবং সংশোধনীগুলো কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। তবে জাতীয় পার্টির এমপি ফখরুল ইমামের একটি সংশোধনী গ্রহণ করা হয়।

১৯৭৭ সালে প্রণীত বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন অর্ডিন্যান্স রহিত করে নতুন এ আইন প্রণীত হয়েছে। বিলে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন অর্ডিন্যান্সের অধীন প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন এমনভাবে বহাল থাকবে, যেন এটি নতুন আইনের অধীন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। একজন সভাপতি এবং ছয় থেকে সর্বোচ্চ ১৫ জন সদস্যের সমন্বয়ে কমিশন গঠিত হবে। কমিশন প্রজাতন্ত্রের জনবল নিয়োগের উদ্দেশে সংশ্লিষ্ট আইন ও বিধিবিধান সাপেক্ষে পরীক্ষা নেওয়ার পদ্ধতি ও শর্তাবলি নির্ধারণ করতে পারবে।

বিলে প্রশ্নপত্র ফাঁস সম্পর্কে বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে পরীক্ষার জন্য প্রণীত কোনো প্রশ্ন সংবলিত কাগজ বা তথ্য, পরীক্ষার জন্য প্রণীত হয়েছে বলে মিথ্যা ধারণাদায়ক কোনো প্রশ্ন সংবলিত কাগজ বা তথ্য অথবা পরীক্ষার জন্য প্রণীত প্রশ্নের সঙ্গে হুবহু মিল রয়েছে বলে বিবেচিত হওয়ার অভিপ্রায়ে কোনো প্রশ্ন সংবলিত কাগজ বা তথ্য যেকোনো উপায়ে ফাঁস, প্রকাশ বা বিতরণ করলে তা দণ্ডনীয় অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে। এর শাস্তি সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড। এ অপরাধ আমলযোগ্য ও অজামিনযোগ্য হবে।


আরও খবর



নিয়ামতপুর প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

প্রকাশিত:Wednesday ১১ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :


নওগাঁর নিয়ামতপুর প্রেস ক্লাব এর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

সারাদেশে শীত জেঁকে বসেছে। আর এই শীতে কষ্ট পাচ্ছে হত-দরিদ্র ও বৃদ্ধ-অসহায় মানুষরা। তাদের কষ্ট নিবারণের জন্য তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে নওগাঁর নিয়ামতপুর প্রেস ক্লাব। 

মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়নের ছাতড়া বাজারে ৫০ জন দুস্থ ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে এ শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়। 

প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রেস ক্লাবের সভাপতি শাহজাহান শাজু। 

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন থানার (ওসি) মোঃ আসাদুজ্জামান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার মোসাদ্দেকুর রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক নুরুল ইসলাম। 

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সদস্য রেজাউল ইসলাম সেলিম,  সহ-সভাপতি রুহুল আমিন শেখ, সাংগঠনিক সম্পাদক সরকার শাহ আলম, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক জামিনুর ইসলাম, সদস্য নাজমুল হক, জাকির হোসেন,  মাসুদ রানা প্রমূখ। 

আলোচনা সভা শেষে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।


আরও খবর