Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

গত ২রা জুন ভার্জিনিয়ার স্প্রীংফিল্ড হলিডে ইন্ এক্সপ্রেস হোটেলের বলরুমে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের সন্মানিত সভাপতি ড.সিদ্দিকুর রহমান,ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ ,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাজী মোহান্মদ এনাম মিয়া দুলালের উপস্হিতিতে প্রথম বারের মত প্রকাশ্যে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সন্মেলনে মেট্রো ওয়াশিংটন

আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,মহিলা আওয়ামীলীগ,ছাত্রলীগের প্রায় শতাধিক নেতাকর্মী স্বতঃস্ফূর্ততার সঙ্গে অংশ গ্রহন করে। এছাড়া এলাকার বেশ কিছু বয়োজেষ্ঠ্য আওয়ামী সমর্থকের উপস্হিতি সন্মেলনের শ্রীবৃদ্ধি করে। 

শুরুতেই সন্মেলনকে কেন্দ্র করে আলাপ আলোচনার জন্য সভা শুরু হয় এবং সভায় সভাপতিত্ব করেন মেট্রো ওয়াশিংটন আঃলীগের উপদেস্টা জনাব মোহান্মদ আলমগীর,প্রধান অতিথি যুক্তরাষ্ট্র আঃলীগ সভাপতি ড.সিদ্দিকুর রহমান,প্রধান বক্তা ভারপ্রাপ্ত সাঃসম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, বিশেষ অতিথি প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাজী এনাম মিয়া দুলাল, জনাব মোহান্মদ মুজিবুল হক,জনাব গোলাম মোস্তফা মন্চে আসন গ্রহন করেন। 

যথারীতি জাতীয় সংগীত,কোরআন তেলওয়াত,গীতা ও বাইবেল পাঠ করা হয়।

আলোচনার প্রাভাম্বে সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সূচনা বক্তব্য রাখেন, এছাড়া ভারপ্রাপ্ত সাঃ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাজী মোহান্মদ এনাম দুলাল যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ নেতা সেবুল মিয়া, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুল ইসলাম, মহিলা আঃলীগ নেত্রী মহসিনা জান্নাত রিমি,মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামীলীগের ফরিদুল ইসলাম, ছাত্রলীগ সভাপতি আবু মুসা মৃধা বক্তব্য রাখেন। এই পর্বটি এম নবী বাকী পরিচালনা করেন। 

এরপর দ্বিতীয় পর্বে সন্মেলনের মূল কার্যক্রম শুরু হয়। পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত সাঃসম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, তিনি এক গুচ্ছ বেলুন উড়িয়ে পর্বটি শুরু করেন। সভাপতিত্ব করেন সভাপতি ড.সিদ্দিকুর রহমান,তিনি শুরুতেই ২০১২ সালে গঠিত মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগ কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাজী মোহান্মদ এনাম দুলাল সমন্বয়কারী হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। উপস্হিত সকলের মাঝে থেকে চল্লিশ জনকে কাউন্সিলার করা হয় এবং তারা সবাই নির্দিষ্ট ফি দিয়ে ফর্ম পূরণ করে 

কাউন্সিলার হোন। কাউন্সিলারদের মধ্যে থেকে একজনের নাম সভাপতি হিসেবে প্রস্তাব করা হয় এবং তিনজনের নাম আসে 

সাধারণ সম্পাদক হিসেবে। পরবর্তীতে পরিপূর্ণ সমঝোতা এবং কন্ঠ ভোটের মাধ্যমে সভাপতি হিসেবে মাহমুদুন নবী বাকী এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মোহান্মদ শফিকুল আযম আজাদের নাম ঘোষণা করা হয়। এছাড়া প্রথম সহসভাপতি হিসেবে মোহান্মদ মুজিবুল হক এবং অপর সহসভাপতি হিসেবে দস্তগীর জাহাঙ্গীরকে অন্তর্ভূক্ত করা হয় এবং সঙ্গে সঙ্গেই যুক্তরাষ্ট্র আঃলীগের সার্টিফাইড প্যাডে সভাপতি এবং ভারপ্রাপ্ত সাঃসম্পাদকের স্বাক্ষরে প্রেস রিলিজের মাধ্যমে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামীলীগের নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়। 

সন্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্হিত ছিলেন মেট্রো ওয়াশিংটন আঃলীগের শাহরিয়ার আলমগীর,জাহাঙ্গীর আলম,রিমন সর্দার,মাসুদ তালুকদার,শহিদুল ইসলাম,

মোহান্মদ ফাহিম,যুবলীগের সর্বজিৎ দাস তুর্য,ইমরান আহমেদ,আজহার উদ্দিন আজিম,কামরুল হাসান,শাফায়েত জামিল,রাশেদ জামান, রোকন,মহিলা আওয়ামীলীগের মহসিনা জান্নাত রিমি, ছাত্রলীগের আবু মুসা মৃধা,সুলতান আহমেদ সিয়াম,মোঃআব্দুল কাইয়ূম,মোঃ

আসিফ আহমেদ,খালিদ বিন আইয়ূব,রনক হোসাইন তালুকদার। 

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একটি উৎসব মুখর পরিবেশে সন্মেলনের সকল কার্যক্রম পরিচালিত হয় এবং এই সন্মেলনের মাধ্যমে মেট্রো ওয়াশিংটন এলাকার আওয়ামী নেতাকর্মীদের বহু দিনের চাহিদা পূরণ হয়। যুক্তরাষ্ট্র আঃলীগ নেতৃবৃন্দ তিন সপ্তাহের মধ্যে ৫১সদস্য বিশিস্ট একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে নির্দেশ দেন।


আরও খবর



সিলেট-সুনামগঞ্জে ফের বন্যার আশঙ্কা

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

বৃষ্টিপাত কমায় গত কিছুদিন ধরে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীর পানি ক্রমাগতভাবে কমে বন্যা পরিস্থিতি প্রায় স্বাভাবিক হয়ে এসেছিল। কিন্তু আগামী ৭২ ঘণ্টায় দেশের অধিকাংশ জায়গায় ভারী বর্ষণে সিলেট-সুনামগঞ্জে ফের বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়, ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীর পানির সমতল স্থিতিশীল আছে, যা আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানির সমতল বাড়ছে, যা আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া সংস্থাসমূহের তথ্য অনুযায়ী, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও তৎসংলগ্ন উজানে আগামী ২৪ ঘণ্টায় মাঝারি থেকে ভারী এবং আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টায় ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে এ সময় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নদী সমূহের পানিসমতল বৃদ্ধি পেতে পারে।

এ ছাড়া আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টায় উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সুরমা, কুশিয়ারা, পুরাতন-সুরমা, সারিগোয়াইন নদীর পানিসমতল দ্রুত বৃদ্ধি পেয়ে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার কতিপয় নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদী বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে।

এদিকে, শনিবার (২৯ জুন) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় লঘুচাপ বিরাজ করছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ বিহার, কেন্দ্রস্থল এবং বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

এ অবস্থায় রংপুর, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের অনেক জায়গায় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও ভারী বর্ষণ হতে পারে।

পাউবোর এক বার্তায় বলা হয়েছে- দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি সামগ্রিকভাবে কমছে জানিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, আবহাওয়া সংস্থাগুলোর তথ্যানুযায়ী, পূর্বাঞ্চল ও তৎসংলগ্ন উজানে আগামী সাতদিন মাঝারি থেকে ভারী এবং কখনো কখনো ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ফলে, এসময়ে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নদীর পানি বাড়তে পারে। চলতি মাসের শেষভাগ থেকে আগামী মাসের প্রথমভাগ নাগাদ উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার নদীগুলোর (সুরমা, কুশিয়ারা, পুরাতন-সুরমা, সারিগোয়াইন ইত্যাদি) পানি দ্রুত বেড়ে নিম্নাঞ্চলে বিপৎসীমা অতিক্রম করে স্বল্পমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে।

দেশের উত্তরাঞ্চলের নদীগুলোর পানি কমছে ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদ-নদীর পানি বর্তমানে স্থিতিশীল আছে। আগামী তিনদিন পর্যন্ত পানি স্থিতিশীল থাকতে পারে। পরবর্তীতে আগামী জুলাই মাসের শুরু থেকে পানি বাড়তে পারে এবং জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহের শেষ ভাগ নাগাদ সতর্কসীমায় পৌঁছাতে পারে। এ সময় দেশের উত্তরাঞ্চলের নদীগুলোর স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজমান থাকতে পারে। তবে ভারী বৃষ্টিপাতের পরিপ্রেক্ষিতে এ অঞ্চলের তিস্তা, ধরলা, দুধকুমার নদীর পানি সময় বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে।

গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি স্থিতিশীলভাবে বাড়ছে। আগামী সাতদিন, গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি স্থিতিশীলভাবে বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে। এ সময় বিপৎসীমা অতিক্রম করে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

দক্ষিণ-পূর্ব পার্বত্য অববাহিকা অঞ্চলের নদ-নদীগুলোর পানি স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজমান আছে। আবহাওয়া সংস্থাগুলোর তথ্যানুযায়ী, আগামী সাতদিন দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও তৎসংলগ্ন উজানে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাতের পরিপ্রেক্ষিতে এসময়ে এ অঞ্চলের নদীগুলোর পানি সময় বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে।

 


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

নিজস্ব প্রতিনিধি - লালমনিটহাট:


আজ বুধবার বিকেল ৩ টায়  বাংলাদেশ কৃষক সমিতি লালমনিহাট জেলা কমিটির উদ্যোগে রাজপুরে তিস্তা নদীর পাড়ে তিস্তা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় । সমাবেশের সভাপতিত্ব করেন জেলা কমিটির  সভাপতি কমরেড নজরুল হক খাজা। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন নদী গর্ভে বাড়িঘর বিলীন হওয়া সাধারণ কৃষক আজমল হোসেন, কলিতা রানী, সোবাহান আলী।

আরো বক্তব্য রাখেন যুব  নেতা বকুল রায়, সাংবাদিক হেলাল হোসেন কবির,কৃষক  সমিতির জেলা কমিটির সদস্য বাহার তালুকদার, অর্থ সম্পাদক নিরঞ্জন কুমার সিংহ, সহ-সভাপতি রঞ্জিত কুমার রায়, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সংগঠক কমরেড অ্যাডঃরফিকুল ইসলাম কৃষক সমিতির  কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড আনসার আলী, সিপিবির জেলা কমিটির সভাপতি কমরেড  অ্যাডঃ  ময়জুল ইসলাম ময়েজ সমাবেশ পরিচালনা করেন অ্যাডঃমধুসূদন রায় মধু সাধারণ সম্পাদকঃবাংলাদেশ কৃষক সমিতি লালমনিহাট জেলা কমিটি।

সভায় সংগীত পরিবেশনা করেন বেতার শিল্পী যুবনেতা অনন্ত কুমার রায়, বেতার শিল্পী রবীন্দ্রনাথ রায়। সমাবেশে বক্তাগণ তিস্তা নদীর ন্যাব্যতা কম হওয়ার কারণে প্রতিবছর হাজার হাজার মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়ছে ফসল ক্ষেত, গাছপালা, বাড়িঘর সবকিছু নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গিয়ে আজ তারা নিঃস্ব। এ কারণে বক্তাগণ দাবি জানান  বিলম্বে তিস্তা নদী ভঙ্গন রোধ করতে হবে, নদী খনন করে নদীর ন্যব্যতা বৃদ্ধি করতে হবে, তিস্তা পারের মানুষকে বন্যার কবল থেকে মুক্ত করতে হবে, উভয় পারে টেকসই বাধ নির্মাণ করতে হবে, তিস্তার  পানির ন্যায্য হিস্যা দিতে হবে, নদীগর্ভে বিলীন হওয়া ভাসমান জমি প্রকৃত কৃষকদের নামে রেকর্ড করে  দিতে হবে।

দাবি পূরণ না হলে আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রধানসহ  ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করার আহ্বান জানান।



আরও খবর



রাজাকার বলার প্রতিবাদে উত্তাল বশেমুরবিপ্রবির ক্যাম্পাস

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

মোঃ ছিপু মোল্যা - বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি::

মধ্যরাতে, তুমি কে? আমি কে? রাজাকার রাজাকার-স্লোগানে মুখরিত গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(বশেমুরবিপ্রবি) ক্যাম্পাস। কয়েক হাজার শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে বিক্ষোভ মিছিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোটা বিরোধী শিক্ষার্থীরা। এতে অংশ নেয় নারী শিক্ষার্থীরাও।

রবিবার(১৪জুলাই) রাত ১২টার দিকে আবাসিক হলের ছাত্ররা লিপুস ক্যান্টিন থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় কয়েক হাজার শিক্ষার্থী বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহন করে। এরপর রাত ১ঃ৩০ ঘটিকায় মেয়েদের আবাসিক হল থেকে আরো একটি বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।

বিক্ষোভ মিছিলগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন চত্ত্বর ঘুরে এসে প্রধান ফটকের সামনে শেষ হয়। এসময় শিক্ষার্থীরা 'তুমি কে? আমি কে? রাজাকার রাজাকার' 'চেয়েছিলাম অধিকার হয়ে গেলাম রাজাকার' স্লোগান নিয়ে বিক্ষোভ মিছিলে অংশগ্রহন করে।

জানা যায়, গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হয় 'শিক্ষার্থীদের কোটা বিরোধী আন্দোলনে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন কথায় মুক্তিযোদ্ধাদের  আপমানিত হচ্ছেন এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা আপনার কাছে তারা সমাধান চায়'। এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি বলেন, আমরা কোটা রেখেছি নারী পুরুষের সমন্বয় করার জন্য। সংবাদ সম্মেলনের এক পর্যায়ে তিনি বলেন যারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে দেশ স্বাধীন করেছে কোটা তাদের নাতি নাতনিরা পাবে না তো কি রাজাকারদের নাতি নাতনিরা পাবে।

প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের উপর ভিত্তি করে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাজপথে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বশেমুরবিপ্রবিতেও মধ্যরাতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে কোটা বিরোধী শিক্ষার্থীরা।

হাবিবুর রহমান নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, আমরা কোটা সংস্কারের দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আমাদের দাবি মেনে না নিয়ে আমাদেরকেই রাজাকার বানিয়ে দিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক শিক্ষার্থী বলেন, আমরা যৌক্তিক দাবি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিলাম। আমরা আমাদের অধিকার চেয়েছিলাম। কিন্তু বিনিময়ে রাজাকারের ট্যাগ পেলাম।


আরও খবর



আজ খুলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ |

Image



সদরুল আইন:


ঈদুল আজহা ও গ্রীষ্মকালীন ছুটি শেষে আজ (৩ জুলাই) খুলে দেওয়া হলো দেশের সব প্রাথমিক স্কুল। গত ১৩ জুন থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ ছিল এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।


প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন বলেন, ঈদ ও গ্রীষ্মকালীন ২০ দিনের ছুটি শেষে প্রাথমিক বিদ্যালয় খুলছে। বন্যা ও অতিবৃষ্টির কারণে স্কুলের ছুটি বাড়ানোর কোনো সিদ্ধান্ত নেই।


এর আগে, শিখন ঘাটতি পূরণে মাধ্যমিকে ঘোষিত ছুটি এক সপ্তাহ কমিয়ে গত ২৬ জুন থেকে খুলে দেওয়া হয় স্কুল-কলেজ। তবে প্রাথমিকে পূর্ব ঘোষিত ছুটি বহাল রাখা হয়। 



এদিকে মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে সারাদেশে মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে। বন্যার কবলে পড়েছে সিলেট। এ পরিস্থিতির মধ্যেই খুলছে প্রাথমিক স্কুল


শিক্ষা মন্ত্রণালয় বছরের শুরুতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা, বিভিন্ন পরীক্ষা ও মূল্যায়নের সূচি ঘোষণা করে। 



মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে স্কুল এবং কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির তালিকা প্রকাশ করা হয়।



অন্যদিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর ছুটির তালিকা, বিভিন্ন পরীক্ষা ও মূল্যায়নের সূচি জানানো হয়।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




সংসদে অর্থ বিল উঠছে আজ, বাজেট পাস রোববার

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ |

Image



বিডি টুডেস ডেস্ক:



নানান আলোচনা-সমালোচনার পরও কালো টাকা সাদা করার সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটছে না সরকার।



 কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রেখেই রোববার (৩০ জুন) জাতীয় সংসদে পাস হচ্ছে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট। নতুন এই বাজেট কার্যকর হবে ১ জুলাই থেকে।



বড় কোনো সংশোধনী ছাড়াই জাতীয় সংসদে অর্থ বিল উত্থাপন হচ্ছে আজ শনিবার (২৯ জুন)। এর আগে ৬ জুন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনে আসন্ন অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করেছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। 


চলতি সংসদ অধিবেশনেই সংসদ সদস্যরা বিধানের তীব্র সমালোচনা করেন।



অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রস্তাবিত বাজেটে ছোটখাটো দু-একটি বিষয় ছাড়া তেমন কোনো বড় সংশোধনীর সম্ভাবনা নেই।


এমপিদের শুল্কমুক্ত গাড়ি আমদানির সুবিধা প্রত্যাহার নিয়েও ছিল আলোচনা-সমালোচনা। নানান জল্পনা কল্পনা শেষে এমপিদের গাড়ি আমদানিতে ৪০ শতাংশ কর বসানোর প্রস্তাব করা হয় ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে।



এছাড়া কর অবকাশ সুবিধার পাশাপাশি শর্ত সাপেক্ষে ইকোনমিক জোন ও হাইটেক পার্কের বিনিয়োগকারীদের ক্যাপিটাল মেশিনারি আমদানিতে আগের মতোই জিরো ডিউটি সুবিধা বহাল থাকতে পারে।


প্রস্তাবিত বাজেটে সংসদ সদস্যদের আমদানি করা গাড়ির ওপর শুল্ক আরোপের আহ্বান জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী আবু হাসান মাহমুদ আলী। তবে শেষ পর্যন্ত তা কার্যকর নাও হতে পারে বলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তাদের সূত্রে জানা গেছে।


সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সংসদ সদস্যদের গাড়ি আমদানিতে বিদ্যমান আদেশ সংশোধনের কোনো উদ্যোগ এখন পর্যন্ত নেওয়া হয়নি। ফলে আগের মতো এবারও এমপিরা শুল্কমুক্ত কর সুবিধা ভোগ করতে পারেন।


এনবিআর সূত্র জানায়, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এসব বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। এ সময় প্রধানমন্ত্রী কিছু দিকনির্দেশনা দিয়েছেন।



 পরে মঙ্গলবার (২৬ জুন) বাজেট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান।


সংশ্লিষ্টরা জানান, পর্যায়ক্রমে কর অব্যাহতি কমিয়ে কর জিডিপি অনুপাত বাড়ানোর পরামর্শ দিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল(আইএমএফ)। পাশাপাশি আর্থিক খাত সংস্কারের পরামর্শ ও দিয়েছে সংস্থাটি।


আন্তর্জাতিক এ সংস্থার পরামর্শ অনুযায়ী, আইন প্রণেতাদের গাড়ি আমদানিতে থাকা কর অব্যাহতি তুলে নেওয়ার মাধ্যমে এ কার্যক্রম জোরদার করতে চেয়েছিল অর্থ মন্ত্রণালয়। কিন্তু আইনি জটিলতার কারণে সংসদ সদস্যদের এ সুবিধা পর্যায়ক্রমে বন্ধ করার প্রস্তাবটি পাস না হওয়ার সম্ভাবনা আছে।


প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের আগে আইন প্রণেতাদের গাড়ি আমদানিতে ২৫ শতাংশ শুল্ক ও ১৫ শতাংশ ভ্যাট বসানোর প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিল আইন মন্ত্রণালয়।


জানা গেছে, কর অবকাশ সুবিধার পাশাপাশি কিছু শর্ত সাপেক্ষে ইকোনমিক জোন ও হাই-টেক পার্কের বিনিয়োগকারীদের ক্যাপিটাল মেশিনারি আমদানিতে আগের মতই জিরো ডিউটি সুবিধা বহাল থাকতে পারে।



 এছাড়া শেয়ারবাজারে ক্যাপিটাল গেইনের উপর নতুন করে আরোপ করা ট্যাক্স অব্যাহত থাকতে পারে।


অর্থনীতিবিদ, রাজনীতিবিদের প্রবল সমালোচনার মুখেও কালো টাকা সাদা করার বিধান থেকে সরছে না সরকার। এ সুযোগ বহাল থাকলে আগামী ১ জুলাই থেকে ১৫ শতাংশ কর প্রদানের মাধ্যমে ব্যক্তি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যাচাই-বাছাই ছাড়াই কালো টাকা সাদা করতে পারবেন। সরকারি কোনো নিয়ন্ত্রক সংস্থা ওই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে প্রশ্ন করতে পারবে না।


নতুন বিধান অনুযায়ী, কোনো করদাতা ফ্ল্যাট ও জমির মতো স্থাবর সম্পত্তির জন্য নির্ধারিত হারে কর প্রদান করলে এবং নগদ, সিকিউরিটিজ, ব্যাংক আমানত ও সঞ্চয় স্কিমসহ অন্যান্য সম্পদের ওপর ১৫ শতাংশ কর দিলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার সম্পত্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারবে না।


আরও খবর

রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪