Logo
শিরোনাম

মিয়ানমারে আবারও জান্তার তাণ্ডব

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মিয়ানমারের উত্তর সালিঙ্গি টাউনশিপ ও সাগাইং অঞ্চলে নতুন করে আবার তাণ্ডব চালিয়েছে দেশটির সামরিক জান্তা।এছাড়া এসব এলাকার অসংখ্য গ্রামে অগ্নিসংযোগ করে সেনাবাহিনী। এতে আতঙ্কে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে প্রায় সহস্রাধিক মানুষ।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) এ ঘটনা ঘটে বলে খবর প্রকাশ করে মিয়ানমারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইরাবতী।

খবরে বলা হয়, ইয়ে খার এবং শ্বে হতাউক গ্রামের বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ করেছে প্রায় ১৫০ জন সেনা সদস্য। সালিঙ্গির এক বাসিন্দা বলেন, গত মাসে জান্তা বাহিনী এখানে ব্যাপক অভিযান চালিয়েছিল। যারা প্রাণ নিয়ে পালাতে পেরেছিলেন তারা ক'দিন আগেই ফিরেছেন। এরমধ্যে আবারও হামলা চালালো সেনারা।

খবরে বলা আরো হয়েছে, ইয়ে খার এবং শ্বে হতাউকে সব মিলিয়ে আড়াই শতাধিক ঘর আছে। সেনা সদস্যদের লাগানো আগুনে কতগুলো ঘরে পুড়ে গেছে, তাৎক্ষণিকভাবে বের করতে পারেনি গ্রামবাসী। তবে এলাক ১০টি গ্রাম পরিত্যাক্ত হয়েছে। সেখানকার ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দাদের জন্য দ্রুত খাদ্য সহযোগিতা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন অনেকে।

গত জুনেও সালিঙ্গির গ্রামে সামরিক অভিযানে কয়েক হাজার বেসামরিক লোক নিজেদের বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যায়। যাদের অনেকে এখনও নিজ বাড়িতে ফিরতে পারেনি।

সালিঙ্গিকে মিয়ানমারের প্রতিরোধ যোদ্ধাদের শক্ত ঘাঁটি বলে ধারণা করা হচ্ছে। সু চি’র সরকার ক্ষমতাচ্যুতের পর থেকেই দেশটির সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে ছোট বড় বিভিন্ন গোষ্ঠী। সাবেক সেনা, পুলিশ ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে গঠন হওয়া এসব গোষ্ঠীগুলো প্রায় সময় সেনা বহরে হামলা চালিয়ে আসছে।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচ) তথ্য অনুযায়ী, ২০২১ সালের অভ্যুত্থানের পর সাগাইং অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি মানুষ বাস্তচ্যুত হয়েছেন। অভ্যুত্থানের আগে মিয়ানমারে অনেক বাস্তুচ্যুত জনসংখ্যা ছিল এবং জাতিসংঘের সংস্থা ধারণা করছে দেশটির ১২ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, সু চি’র সরকার পতনের আগে ২০১৭ সালে রাখাইনে সামরিক বাহিনীর দমন-পীড়নে সাড়ে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। সব মিলিয়ে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশের কক্সবাজার, উখিয়াসহ সীমান্তবর্তী এলাকায় শরণার্থী শিবিরে অবস্থান করছে। সূত্র: ইরাবতী


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




কাবুলে খুলল ৫ বালিকা বিদ্যালয়

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলের পাকতিয়া প্রদেশে সরকারি পাঁচটি বালিকা বিদ্যালয়ে পুনরায় পাঠদান শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রাদেশটির এক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আফগানিস্তানের শত শত নারী শিক্ষার্থীর পুনরায় পাঠদান শুরুর দাবির মুখে মেয়েদের জন্য এই পাঁচটি স্কুলের পাঠদান আবার শুরু হয়েছে।প্রদেশের গারদেজ এলাকার শাসগার উচ্চবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ওয়ালি বলেন, ওই স্কুলে আনুমানিক ৩০০ জন শিক্ষার্থী আবার শ্রেণিকক্ষে ফিরেছেন। তবে, আফগানিস্তানে নারীদের জন্য স্কুল খুলে দেয়া নিয়ে তালেবান সরকারের নীতিতে এখনো কোনো পরিবর্তন আসেনি। মেয়েদের খুলে দেয়া পাঁচ মধ্যে চারটি পাকতিয়া প্রদেশের রাজধানী গারদেজে অবস্থিত। অরেকটির অবস্থান সামকানি শহরে। 


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




সুনামগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি দুই মেয়ে, বাড়িতে ৪ গরু চুরি

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শফিউল আলম,স্টাফ রিপোর্টার:

'মরার উপর খাড়ার ঘা' সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে দুই মেয়ে বাড়িতে ৪ গরু চুরির এমনই ঘটনা ঘটেছে 

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নে রামজীবনপুর গ্রামে। ১৫ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে হতদরিদ্র কৃষক

 বোরহান উদ্দিন'র ৪ টি গরু চুরি হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,বোরহান উদ্দিনের পরিবারের ২ জন সদস্য সহ গ্রামের দু'পরিবারের ৭ জন মানুষ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে  সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।এদিকে বাড়ি খালি থাকায় বোরহান উদ্দিন'র প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকা মূল্যের ৪ টি গরু চুরি হয়েছে।রামজীবনপুরের রিয়াদ তালুকদার বলেন, বোরহান উদ্দিন উনার পরিবারের দুই সদস্য সহ গ্রামের ৭ জন মানুষ পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়ে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তারা আমার আত্মীয় স্বজন,  গ্রামের মানুষ তাই ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে সার্বক্ষণিক তাদের পাশে মেডিকেলে আছি।

গরু চুরির ঘটনা শোনার পর অত্যন্ত মর্মাহত হয়েছি।দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুরাদ ঘটনার সত্যতা জানিয়ে বলেন, বোরহান উদ্দিন'র ২ জন মেয়ে অসুস্থ পানিবাহিত রোগ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলে তাদের কে নিয়ে স্ব-স্ত্রীক সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে রয়েছেন। 

এমতাবস্থায় বাড়ি খালি পেয়ে চোর তার দুটি ষাঁড়ও একটি গাভী বাছুর সহ নিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, ইতিপূর্বে চুরি সংক্রান্ত বিষয়  মাসিক উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা মিটিংয়ে উত্থাপন করেছি  কিছুদিন চুরি-চামারি  বন্ধ ছিল এখন আবার শুরু হয়েছে। 

চুরি সহ সব ধরনের অপরাধ দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আহ্বান জানান তিনি।


আরও খবর



বিতর্কিত নির্বাচনের শঙ্কা টিআইবির

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মইনুল ইসলাম মিতুল : জাতীয় নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত রোডম্যাপ সংশোধন না করলে আবারও ২০১৪ ও ২০১৮ এর মতোই বিতর্কিত নির্বাচনের শঙ্কা প্রকাশ করেছেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। বলেন, ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে হবে।

আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার ‘অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন; গণতান্ত্রিক সুশাসনের চ্যালেঞ্জ উত্তরণে করণীয়’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ইসির রোডম্যাপকে চূড়ান্ত না ভেবে আবার সংশোধন করা যেতে পারে। বিশেষ করে প্রশাসনকে নিরপেক্ষ করতে উদ্যোগ নেয়ার কথা বলেন তিনি।

টিআইবির এ নির্বাহী পরিচালক জানিয়েছেন, তত্বাবধায়ক সরকার আদর্শ গণতান্ত্রিক চর্চা নয়। কিন্তু মন্ত্রিত্ব বহাল রেখে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডও তৈরি সম্ভব নয়। আইন সংস্কার করে এমপি-মন্ত্রী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ বন্ধ করার উদ্যোগ নিতে হবে ইসিকেই। নির্বাচনের সময় ইন্টারনেটের গতি হ্রাস ও গণমাধ্যম সংবাদ সংকুচিত করার নজির আছে জানিয়ে ইসিকে গণতান্ত্রিক ক্ষমতার চর্চার আহ্বান জানায় টিআইবি।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রোডম্যাপ বা কর্মপরিকল্পনা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। প্রকাশিত ২০ পৃষ্ঠার কর্মপরিকল্পনায় ২০২৩ সালের নভেম্বরে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। আর ভোট হবে ডিসেম্বরের শেষ অথবা চব্বিশ সালে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে; মোট ১৫ দিনের মধ্যে ভোটের সময় রেখে কর্মপরিকল্পনা প্রকাশ করা হয়েছে।



আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




ঘুমধুম সীমান্তে আতঙ্ক

প্রকাশিত:শনিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম তুমব্রু সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ শোনা যাচ্ছে।  ভোর থেকে মর্টার সেলের মতো ভারী অস্ত্রের গোলার শব্দ ভেসে আসছে। থেমে থেমে গোলাবর্ষণ অব্যাহত রয়েছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

শুক্রবার বিকেলে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি বিমান আকাশসীমা লঙ্ঘন করেছে বলে দাবী স্থানীয়দের। এছাড়াও শুক্রবার সীমান্তের কোনারপাড়া এলাকায় বিকেলের দিকে মিয়ানমারের থেকে ছোঁড়া একটি গুলি এসে বাংলাদেশ সিমান্তে এসে পড়ে বলে দাবী স্থানীয়দের। তাদের ধারণা গুলিটি একে-৪৭ এর। 

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সাথে তুমুল সংঘর্ষ চলছে দেশটির সেনাবাহিনীর। এরফলে সীমান্তের এপারে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

প্রসঙ্গত, ২৮ আগস্ট ঘুমধুমের তুমব্রু উত্তরপাড়া এলাকায় মিয়ানমারের ছোঁড়া দুটি মর্টার সেল এসে পড়ে। এরপর ৩ সেপ্টেম্বর বাইশফাড়ি এলাকায় আরো দুটি মর্টার সেল পড়ে বাংলাদেশে অভ্যন্তরে। দিনের পর দিন গোলাগুলি আর যুদ্ধবিমান উড়াউড়িতে ঘুমধুম সীমান্ত এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে।


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়তে যুদ্ধ, নিষেধাজ্ঞা বন্ধ করুন

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়তে অস্ত্র প্রতিযোগিতা, যুদ্ধ ও নিষেধাজ্ঞা বন্ধ করতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে বাংলায় দেয়া ভাষণে বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠার এ আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ইউক্রেন ও রাশিয়ার সংঘাতের অবসান চাই। যুদ্ধ বা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার মত বৈরীপন্থা কখনও কোন জাতির মঙ্গল বয়ে আনতে পারে না। পারস্পরিক আলাপ-আলোচনাই সঙ্কট ও বিরোধ নিষ্পত্তির সেরা উপায়। রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবাসনে জাতিসংঘ এবং বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ সমস্যা অব্যাহত থাকলে, তা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তাকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে অনেক আলোচনার পরেও একজন রোহিঙ্গাকেও তাদের মাতৃভূমিতে ফেরত পাঠানো যায়নি। মিয়ানমারে চলমান রাজনৈতিক সংঘাত বাস্তচ্যূত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনকে আরও কঠিন করে তুলেছে। আশা করি, এ বিষয়ে জাতিসংঘ কার্যকর ভূমিকা রাখবে।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২