Logo
শিরোনাম

মিয়ানমারে জান্তার গোলায় নিহত ২ শিশু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 |
Image

মিয়ানমারের রাখাইনের উত্তরাঞ্চলে সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে সাত বছরের দুই শিশু নিহত হয়েছে। সরকারি সেনাদের সাথে আরাকান আর্মির চলমান সংঘাতের মধ্যে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

ইরাবতীর খবরে বলা হয়েছে, রোববার রাতে কিয়ায়ুকতাউ সেনাবাহিনীর ঘাঁটি থেকে মর্টার শেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। কোনও কারণ ছাড়াই বেসামরিক লক্ষ্যবস্তুতে এই হামলা চালানো হয়। এতে না গা ইয়ার গ্রামে একটি বাড়িতে সরাসরি আঘাত হানে মর্টারের গোলা। এতে, পিঠে আঘাত প্রাপ্তের তিন ঘণ্টা পর এক শিশুর মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও একজন। এছাড়া, বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী বুথিডাউং টাউনশিপে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে সাত বছর বয়সী এক মুসলিম শিশু নিহত হয়েছে। উরুতে আঘাত পাওয়া ছেলেটি কয়েকদিন পর হাসপাতালে মারা গেছে। 


আরও খবর

স্পেনে ইউক্রেন দূতাবাসে বোমা বিস্ফোরণ

বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২

থাইল্যান্ডে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর 20২২




বিপ্লব ও সংহতি দিবসে ফখরুল

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ |
Image

 হারিয়ে যাওয়া গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে, বিএনপি ঐক্যবদ্ধ লড়াই করছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন না হওয়া পর্যন্ত বিএনপির আন্দোলন কর্মসূচি যেভাবে চলছে তা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

বিপ্লব ও সংহতি দিবসে, জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা জানিয়ে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। এসময় তিনি আরো বলেন, আজকের এই দিন সমগ্র জাতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, তাই জিয়াউর রহমানের আদর্শে জনগণ জেগে উঠেছে। তার আদর্শ বাস্তবায়ন ও ভোটের অধিকার নিয়েই ঘরে ফিরবে তারা। মিথ্যা মামলায় করা বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্ত করতে লড়াইকে বিএনপি চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যাবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



নওগাঁয় আওয়ামীলীগের কার্যালয় ভাঙচুর

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 |
Image
বিএনপি নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর পৌর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে বিস্ফোরণ ও ভাঙচুরের ঘটনায় বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের ৯ জন নেতা-কর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ১০/১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার ২০ নভেম্বর দিনগত রাতে নজিপুর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রাণেশ্বর হালদার বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইন ও দণ্ডবিধি-১৮৬০-এর ১৪৩, ৪৪৮, ৪২৭, ১১৪ ও ৩৪ ধারায় পত্নীতলা থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

পত্নীতলা থানার ওসি সেলিম রেজা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তবে এই মামলায় এখন পর্যন্ত "সংবাদ সংগ্রহকালে" কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

উল্লেখ্য- শনিবার দিবাগত রাতে নজিপুর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের মামুদপুর মোড়ে অবস্থিত পৌর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এ হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আবু তাহের, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক বায়েজিদ হোসেন, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল কাদের, পত্নীতলা ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে বিএনপি'র ২০ থেকে ২৫ জন নেতা-কর্মী এ হামলায় অংশ নেন। এ সময় তারা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের তালা ভেঙে কার্যালয়ের ভেতর ঢুকে চেয়ার, টেবিল ও টিভি ভাঙচুর করেন। এছাড়া আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য অফিসের ভেতরে বিস্ফোরণ ঘটানো হয় বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নজিপুর পৌরসভার মেয়র রেজাউল কবীর চৌধুরী জানান, বিএনপি-জামায়াত ত্রাস সৃষ্টি করার জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

এব্যাপারে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা নিজেরাই দলীয় অফিসে ভাঙচুর চালিয়ে বিএনপির নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছেন। যাতে করে আগামী ৩ ডিসেম্বর বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে নেতা-কর্মীরা যেন অংশ নিতে না পারেন, সে জন্য আওয়ামী লীগ এই মিথ্যা মামলা সাজিয়েছে। সমাবেশে যেতে বাধাগ্রস্ত করতে আরো নতুন নতুন চক্রান্ত করা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন তিনি।


আরও খবর



যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, ভোগান্তি চরমে

মোরেলগঞ্জে খাল কাটা এখন গলার কাটা : কার্পেটিং রাস্তা ধস

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বলইবুনিয়া ও পুটিখালী ইউনিয়নের সিমান্তে মোল্লারজোর ৬ কিলোমিটার খাল কাটায় ২ কিলোমিটার কার্পেটিং ও  সোয়া ২ কিলোমিটার ইটসোলিং রাস্তা ভেঙ্গে ডেবে গেছে। খাল কাটা এখন গলার কাটা হয়ে দাড়িয়েছে। ৩ ইউনিয়নের মানুষের চলাচলে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। হুমকির মুখে রয়েছে ব্রীজ। এতে হাজার হাজার মানুষের ভোগান্তি এখন চরমে।

 বুধবার সরেজমিনে খোজ নিয়ে জানাগেছে, উপজেলার বিষখালী খাল হয়ে বলইবুনিয়া শ্রেনীখালী অভিমুখি পানিউন্নয়ন বোর্ড প্রকল্পের মাধ্যমে ৬.৫ কিমি. মোল্লারজোর খাল পুনঃখাননের কাজটি শুরু হওয়ার ২দিনের মাথায় ১২.৬০ কিলোমিটার বলইবুনিয়া হয়ে আমতলা, পুটিখালী ১ কোটি ৪ লাখ টাকা ব্যায়ে কার্পেটিং রাস্তাটি ভেঙ্গে ডেবে যায়। পাশেই সোয়া ২ কিলোমিটারের ইট সোলিং রাস্তাটির একই অবস্থা। জনগুরুত্বপূর্ন এ রাস্তা দুটি ভেঙ্গে পড়ায় বলইবুনিয়া, পুটিখালী ও দৈবজ্ঞহাটীর ৩ ইউনিয়নের মানুষের চলাচলে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ৮/১০টি গ্রামের মানুষের ভোগান্তি এখন চরমে। অটোভ্যান, মোটরসাইকেল, ইজিবাইক, কৃষকদের উৎপাদিত ফসল বাজারে বিক্রির জন্য বিকল্প ব্যবস্থায় নিয়ে আসতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

 ক্ষতিগ্রস্ত সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কেএম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, অপরিকল্পিত প্রকল্প কৃষকের উপকারে খালকাটা এখন গলার কাটা হয়ে দাড়িয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গনি খানের নামে একটি ইটসোলিং রাস্তা সেটিও ভেঙ্গে গিয়ে গ্রামবাসীরা দুর্ভোগে  পড়েছে। কর্তাব্যক্তিদের নেই কোন নজরদারি।


 স্থানীয় বলাইবুনিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা কৃষক আবুল কালাম খান, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য আব্দুস কুদ্দুস শেখসহ একাধিক ক্ষতিগ্রস্তরা বলেন, দুটি রাস্তা ভেঙ্গে কয়েক হাজার মানুষের ক্ষতিগ্রস্ত করছে। দুই ইউনিয়নের খালের সংযোগ ব্রীজটিও এখন হুমকির মুখে। সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের প্রতি জরুরি ভিত্তিতে জনসাধারনের দুর্ভোগ লাঘবের জন্য ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানান তারা।  

বলইবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান আলী খান বলেন, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কাজটি শুরুতেই দায়সারাভাবে করেছে। মূল ঠিকাদার স্পর্টে কখনও আসেনি। স্থানীয় এক ব্যক্তিকে দিয়ে কাজটি করানো হচ্ছে। কার্পেটিং রাস্তা ভেঙ্গে পড়ার বিষয়টি পানিউন্নয়ন বোর্ডের কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও এখনও পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা গ্রহন করেনি তারা।

এ সর্ম্পকে বাগেরহাট জেলা পানিউন্নয়ন বোর্ডের ফিল্ড অফিসার (এসও) মোশারেফ হোসেন বলেন, কার্পেটিং রাস্তাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় উর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, এ উপজেলার বলইবুনিয়ার বাসবাড়িয়া আমতলা পুটিখালীর ১২.৬০ মিটার কার্পেটিং রাস্তাটি ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে নির্মাণ করা হয়। খাল কাটার কারনে রাস্তা ভেঙ্গে যাওয়ার বিষয়টি শুনে সরেজমিনে পরিদর্শন করে। তাৎক্ষনিক ক্ষয়-ক্ষতির বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে। 


আরও খবর



নওগাঁয় পটাশ সারের দাম বেশি নেওয়ায় জরিমানা

প্রকাশিত:সোমবার ২১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টারঃ


নওগাঁয় পটাশ সারের দাম বেশি নেওয়ায় এক সার ব্যবসায়ীর ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় আরো ৪ টি প্রতিষ্ঠান কে জরিমানা আরোপ ও আদায় করেন।

সত্যতা নিশ্চিত করে অভিযানিক কর্মকর্তা "জাতীয় ভোক্তা অধিকার" নওগাঁ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ শামীম হোসেন জানান,

জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এর মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মহোদয়ের অর্পিত ক্ষমতাবলে, নওগাঁ জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশনায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সহযোগিতায় নওগাঁ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ শামীম হোসেন এবং নওগাঁ জেলার নিরাপদ খাদ্য কর্মকর্তা জনাব চিন্ময় প্রামানিক নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার টি এন্ড টি রোড এলাকায়  যৌথ অভিযান পরিচালনা করেন। যৌথ অভিযানকালে পটাশ সারের দাম সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করায় সততা স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। এছাড়া অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি, সংরক্ষণ , নোংরা কাগজে খাবার পরিবেশন এবং খাবারে আয়োডিন বিহীন লবণ  ব্যবহারের অপরাধে ভাই বোন হোটেল কে ৫শ' টাকা এবং মুন্নী চাঁদনী হোটেল কে ১ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। এসময় অবৈধ যৌন উত্তেজক সিরাপ বিক্রয়ের অপরাধে হান্নান স্টোর কে ৫ হাজার টাকা এবং মন্ডল স্টোর কে ১০ হাজার টাকা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। 

অভিযানে দায়িত্বপ্রাপ্ত নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক জনাব আনিছুর রহমান  এবং ধামইরহাট থানা পুলিশের একটি চৌকষ টিম  সহযোগীতা করেন। 

জনস্বার্থে আগামীতেও এ ধরনের তদারকি অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান অভিযানিক কর্মকর্তা মোঃ শামীম হোসেন।


আরও খবর



আত্রাইয়ে ৫জন মাদক কারবারীসহ ৭জন আটক

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর আত্রাই থানাপুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে ৫জন মাদক কারবারীসহ ৭জনকে আটক করেছে। শনিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এসময় আটককৃতদের নিকট থেকে হেরোইন ও গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে রাতেই মাদক মামলা রুজু কওে রোববার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আত্রাই থানার ওসি তারেকুর রহমান সরকার বলেন,শনিবার রাতে গ্রেপ্ততারী পরোয়ানা তামিল করতে এবং মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উপজেলার সাহেব গঞ্জ এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে রিপনকে নারী শিশু নির্যাতন মামলায় এবং একই এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে মাসুদ শেখ (৪৫) কে আদালতের পরোয়ানা অনুযায়ী গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়া ওই রাতেই উপজেলার রসুলপুর গ্রামের নারায়ন হালদারের ছেলে নয়ন হালদার (৪৫), নৈমদ্দীনের ছেলে আব্দুর রহমান রতন (৩৫),সাহেব গঞ্জ এলাকার আছির উদ্দীনের ছেলে রবিন (৩০),আফছার আলীর ছেলে তোহা হোসেন (৩৩) এবং আব্দুর রহমানের ছেলে রুহুল আমিন (৩৫) কে আটক করা হয়। আটককৃতদের নিকট থেকে মোট ৬গ্রাম হেরোইন এবং ২৫গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় রাতেই মাদক মামলা রুজু করে রোববার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।


আরও খবর