Logo
শিরোনাম
বাউল ছালমা হলেন বরিশাল বিভাগের শ্রেষ্ঠ "জয়িতা" পাংশায় মাদক সহ ৯ মামলার আসামী গ্রেফতার ১৬৩ টাকায় তেল বিক্রির ব্যত্যয় ঘটলে ব্যবস্থা নেয়া হবে: ভোক্তার মহাপরিচালক দুর্গাপুরে বালুবাহী হ্যান্ডট্রলির চাপায় প্রাণ গেল শিক্ষার্থীর নওগাঁ জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবু বক্কর, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত নওগাঁয় প্রাইভেটকার তল্লাসি, ৭২ কেজি গাঁজা সহ যুবক আটক রূপগঞ্জে প্রাইভেটকার চাপায় গৃহবধু নিহত রাঙ্গামাটির বড়ইছড়ি নির্মাণ শ্রমিক বোঝাই ট্রাক খাদে নিহত-২, আহত-২০ মুসলিমদেরকে সঠিক পথ থেকে বিচ্যুত করার জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্র চলছে নওগাঁয় কম্পিউটার ব্যবসার অন্তরালে অশ্লিল ভিডিও বিক্রি করায় ৩ যুবক আটক

নওগাঁর ৬টি আসনে ২২ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

জাতীয় সংসদ নির্বাচন, নওগাঁর ৬টি সংসদীয় আসনে ২২ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। নওগাঁর জেলা প্রশাসক ও ৬টি আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক গোলাম মওলা নানা অসঙ্গগতির কারনে এসব প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর যাচাই-বাছাই শেষে সোমবার সকাল ৯টা থেকে নওগাঁ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বৈধ ও বাতিল হওয়া প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হয়। এসময় ৩৩ জনের মনোনয় পত্র বৈধ্য ঘোষণা করা হয়। বিকেল ৪টা পর্যন্ত এই কার্যক্রম শেষ হয় জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক গোলাম মওলা এই ঘোষণা দেন।   

নওগাঁ-১ (নিয়ামতপুর, পোরশা ও সাপাহার) ৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ আসনে বৈধ্য প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, স্বতন্ত্র জামেদ আলী, জাতীয় পার্টির আকবর আলী কালু, জাকের পার্টির মোহাম্মদ আলী।

বাতিল হওয়া প্রার্থীদের মধ্যে নিয়ামতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য খালেকুজ্জামান তোতা ও সোহরাব হোসেনের পক্ষে সংসদীয় এলাকার ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষরসংবলিত সমর্থনসূচক তালিকায় ত্রুটিযুক্ত স্বাক্ষর ও মামলার তথ্য গোপন রাখায় তাঁদের মনোনয়ন ফরম বাতিল করা হয়। 

নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামইরহাট) আসনে ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেওয়া ৬ জন প্রার্থীর-ই মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে। ঋণ খেলাপী হওয়া, মামলার তথ্য গোপন রাখা ও সংসদীয় এলাকার ১ শতাংশ  ভোটারের স্বাক্ষর সংবলিত সমর্থন সূচক তালিকায় ত্রুটিযুক্ত স্বাক্ষর সহ বিভিন্ন অসঙ্গতির কারণে তাঁদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

বাতিল ৬ প্রার্থী হলেন, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আইয়ুব হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক আমিনুল হক, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক এইচএম আখতারুল আলম, নজিপুর পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজল চন্দ্র দাস, ধামইরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আজিজার রহমান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মেজবাহুল আলম। 

বৈধ্য প্রার্থীরা হলেন নওগাঁ-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শহীদুজ্জামান সরকার, জাতীয় পার্টির অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন, জাকের পার্টির এম আর ফারুক।

নওগাঁ-৩ (মহাদেবপুর ও বদলগাছী) আসনে ১১ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক আমলা সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, স্বতন্ত্র প্রার্থী সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদার, মাহফুজা আকরাম চৌধুরী মায়া, জাতীয় পার্টির মাসুদ রানা, জাকের পার্টির আলম হোসেনের মনোনয়ন ফরম বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। 

বিভিন্ন অসঙ্গতির কারণে কৌতুক অভিনেতা শামীনুর রহমান ওরফে চিকন আলী ও আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী ডিএম মাহবুব-উল মান্নাফ সহ ৫ জনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। মনোনয়ন বাতিল হওয়া অপর তিন প্রার্থী হলেন, বিএনএমের প্রার্থী জাবেদ আলী, এনপিপির প্রার্থী স্বপন কুমার দাস ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজ হোসেন। এছাড়া তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী সোহেল কবির চৌধুরীর মনোনয়ন ফরম স্থগিত রাখা হয়েছে।

নওগাঁ-৪ (মান্দা) আসনে ১০ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। এদের মধ্যে বিভিন্ন অসঙ্গতির কারণে ৪ জনের মনোনয়ন ফরম বাতিল করা হয়েছে। 

বৈধ্য প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাহিদ মোর্শেদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক এসএম ব্রুহানী সুলতান মামুদ (গামা), জাতীয় পার্টির আলতাফ হোসেন, জাকের পার্টির দেলোয়ার হোসেন, বাংলাদেশ কনগ্রেস এর আব্দুর রহমান। 

বিভিন্ন অসঙ্গতি সম্বলিত কাগজ পত্র জমা দেয়ায় মনোনয়ন পত্র বাতিল হওয়া ৪ প্রার্থীরা হলেন, দলীয় সুপারিশপত্র না থাকায় বাংলাদেশ কংগ্রেসের প্রার্থী কামাল পারভেজ, সংসদীয় এলাকায় ১ শতাংশ ত্রুটিযুক্ত স্বাক্ষর কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থী আফজাল হোসেন, স্বতন্ত্র আব্দুস সামাদ ও স্বতন্ত্র জিয়াউল হকের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে।

নওগাঁ-৫ (সদর) আসনে ৭ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। এদের মধ্যে এক জনের ছাড়া বাঁকিদের মনোনয়নপত্র বৈধ্য ঘোষণা করা হয়। 

বৈধ্যরা হলেন, আওয়ামী লীগের বর্তমান সাংসদ ব্যারিষ্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, দেওয়ান ছেকার আহম্মেদ শিষাণ, জাতীয় পার্টির ইফতেখারুল ইসলাম বকুল, জাসদ এর এসএম আজাদ হোসেন মুরাদ এবং জাকের পার্টির মশিউর রহমান এর প্রার্থীতা বৈধ্য ঘোষণা করা হয়। 

হলফনামায় স্বাক্ষর না থাকায় এনপিপি’র খন্দকার আমিনুর রহমান এর প্রার্থীতা বাতিল করা হয়।

নওগাঁ-৬ আসনে ১২ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। যাচাই-বাছাই শেষে ৮ জনের প্রার্থী বৈধ্য ঘোষণা করা হয়। 

বৈধ্য প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগের আনোয়ার হোসেন হেলাল, স্বতন্ত্র ওমর ফারুক সুমন, স্বতন্ত্র প্রার্থী নওশের আলী, স্বতন্ত্র জাহিদুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির আবু বেলাল হোসেন, তৃণমূল বিএনপির পিকে আব্দুর রব, বাংলাদেশ কনগ্রেস এর আব্দুস ছাত্তার, জাকের পার্টির রবি রায়হান।

বিভিন্ন অসংগতি থাকায় ৪ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। এদের মধ্যে মামলায় খালাস পাওয়ার পরও ৬টি মামলার তথ্য গোপন করা, সম্পদ বিবরণী ফরম ফাঁকা রাখায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদ ইসলাম বিপ্লব, ২১ নং ফরম পূরণ না করা এবং নির্বাচনী সংসদীয় এলাকায় ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর সম্বলিত সমর্থনসূচক তালিকায় ত্রুটিযুক্ত থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী এম এ রতন, ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর সম্বলিত সমর্থনসূচক তালিকায় ত্রুটিযুক্ত থাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ জালাল উদ্দিন এবং হলফনামায় স্বাক্ষর না থাকায় এনপিপি’র খন্দকার ইস্তেখাব আলমের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়। 

নওগাঁর ৬টি আসন থেকে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, স্বতন্ত্র সহ অন্যন্যা দলের মোট ৫৫ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে স্বতন্ত্র ৩১জন এবং অন্যান্য দলের ২৪ জন মনোনয়ন পত্র জমা দেন।


আরও খবর

বাউল ছালমা হলেন বরিশাল বিভাগের শ্রেষ্ঠ "জয়িতা"

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাংশায় মাদক সহ ৯ মামলার আসামী গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার বশিরের করা মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলা! ডিবি কর্মকর্তার মনগড়া প্রতিবেদন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ |

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাহিদা মতো ঘুষ না দেওয়ায় চাঁদাবাজি কেন্দ্রীক আদালতে গায়েবি ও হাস্যকর প্রতিবেদন দাখিলের অভিযোগ উঠেছে গিয়াস উদ্দিন নামে এক তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে করা মামলায় ১০ লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে ‘তিন সংবাদকর্মীসহ চার জন ১০০ ব্যাগ সিমেন্ট ও দুই টন রড নিয়ে গেছে’ উল্লেখ করে তদন্ত প্রতিবেদন দিয়ে রীতিমত হাস্যরসের জন্ম দিয়েছেন। অভিযুক্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন কক্সবাজার গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ইন্সপেক্টর হিসেবে কর্মরত। তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন ‘দৈনিক খোলা কাগজ’ পত্রিকার উখিয়া প্রতিনিধি মুসলিম উদ্দিন। তার অভিযোগ, জমি সংক্রান্ত জেরে একটি চাঁদাবাজি মামলার বিষয়ে ডিবি কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন তার কাছ থেকে এক লাখ টাকা অফিস খরচ দাবি করেন। ৩০ হাজার টাকা পরিশোধ করার পর, বাকি টাকা না পেয়ে ‘রড-সিমেন্ট নিয়ে গেছে’ বলে মনগড়া প্রতিবেদন দিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে প্রতিকার পেতে তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আইজিপি ও ডিআইজিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে তিনি দাবি করেন, দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার, রাষ্ট্রদ্রোহী, হত্যা, সন্ত্রাসী, নাশকতা, বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলাসহ দেশজুড়ে অগণিত মামলায় অভিযুক্ত আসামি বশির আহমদ ওরফে বশির মাহমুদ, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে, গত ৩১ডিসেম্বর চারজনের নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে কক্সবাজার আদালতে একটি মিথ্যা মামালা দায়ের করেন।

আদালত ওই মামলা জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে তদন্তের দায়িত্ব দিলে তদন্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন বাদী বশিরের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে তাদের নামে মিথ্যা, বানোয়াট, বিতর্কিত একটি গায়েবি রিপোর্ট আদালতে দাখিল করে আদালত পাড়ায় হস্যরসের জন্ম দিয়েছেন। অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার বশির আহমদ ওরফে বশির মাহমুদ একটি সাজানো চাঁদাবাজি মামলা দাখিল করেছেন।

ভুক্তভোগীদের পক্ষে সাংবাদিক মুসলিম উদ্দিন জানান, তদন্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন আমাকে তার কার্যালয়ে ডেকে অফিস খরচের কথা বলে টাকার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসিয়ে রেখে সেখানে নানা ধরণের বেআইনী প্রস্তাব দেন। তিনি তদন্ত প্রতিবেদন আমাদের পক্ষে দেবেন মর্মে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন। ওই সময় তিনি বলেন, ‘টাকা না দিলে চাঁদাবাজির প্রতিবেদন দাখিল করলে মামলায় আট বছর থেকে সর্বনিম্ন পাঁচ বছর সাজা হবে। কি করবেন দেখেন, অন্যথায় এক মাসের মধ্যে জেলের ভাত খাওয়াবে’ মর্মে টাকার জন্য হুমকি দেন। 

কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন উক্ত প্রতিবেদনে আমাদের পূর্বের মামলার আসামিদের ‘নিরপেক্ষ সাক্ষী’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। প্রতিবেদনটিতে বাদীর আর্জির পূণরাবৃত্তি করেছেন। বাদী তার আর্জিতে অভিযোগ করেছে, আমরা নাকি বাদীর কাছে চাঁদা না পেয়ে রাত ১১টায় বাদীর বসতঘর থেকে দুই টন রড আর ১০০ ব্যাগ সিমেন্ট নিয়ে এসেছি। যা হাস্যকর কথা। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে যাদের নিরপেক্ষ সাক্ষী বানানো হয়েছে তারা মামলার অভিযুক্ত মুসলিম উদ্দিনের দায়ের করা জিআর-৪৮৩/১৯ইং ও তার বাবা বাদী হয়ে দায়ের করা জিআর-৩৮৯/১৯ইং মামলার আসামি।

এছাড়াও উক্ত মামলার বাদীর সঙ্গে পূর্ব বিরোধের কারণে  মুসলিম উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরিও লিপিবদ্ধ করি। যার নং- ৬৪৪/২৪ইং। ভুক্তভোগীর এমন অভিযোগের ভিক্তিতে (ভুক্তভোগীর দাবিকৃত মিথ্যা মামলার) বাদীর ফৌঃ দরখাস্ত ও তদন্ত কর্মকর্তার প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বশির আহম্মদ বাদী হয়ে আদালতে চাঁদাবাজি ও চুরির অভিযোগ তুলে গত ৩১ ডিসেম্বর মামলাটি দায়ের করেন। তদন্তকারী বাদীর অভিযোগের সাথে মিল রেখে মাত্র ২৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন আদালতে জমা দিয়েছেন। প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন, ‘অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে’ বলে টাকা না পেয়ে বাদীর অন্যায় সুবিধা নিয়ে ভিত্তিহীন একটা প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

কথিত মামলার ঘটনাস্থলের আশেপাশে বসবাসকারী মোমেনা খাতুন, রাশেদা, ছকিনা খাতুনসহ স্থানীয়রা বলেন, এলাকায় চাঁদা দাবি কিংবা চাঁদা না পেয়ে লোহার রড-সিমেন্ট নিয়ে যাওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি। এছাড়াও ১০০ ব্যাগ সিমেন্ট ও ২ টন লোহার রড নিয়ে যেখানে ১০ থেকে ১২ জন শ্রমিকের বেগ পেতে হয়; সেখানে কেবল ৪ জনই এতো ভারী মালামাল নিয়ে যাওয়ার গল্প পাগল-শিশুও বিশ্বাস করবেনা। তাদের মতে, তদন্ত কর্মকর্তা রহস্যজনক কারণে অতি উৎসাহী হয়ে একটি সাজানো মামলার অদ্ভুত প্রতিবেদন দিয়ে হাস্যরসের জন্ম দিয়েছেন। এই ধরনের কর্মকর্তাদের কারণে ভবিষ্যতে যে কেউ যে কারো বিরুদ্ধে সাজানো মামলা করতে উদ্বুদ্ধ করবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করে তদন্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন বলেন, তিনি তদন্তে যা পেয়েছেন, তাই আদালতে জমা দিয়েছেন।


আরও খবর



জোট গঠনে মরিয়া নওয়াজ শরিফ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ |

Image

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন)। কিন্তু সরকার গঠন করতে কমপক্ষে ১৩৪ আসন দখল করতে হবে। তাই জোট গঠন করতে হবে রাজনৈতিক দলগুলোকে।

আর এ কারণেই জোট গঠন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন পিএমএল-এন সুপ্রিমো নওয়াজ শরিফ। তিনি বলেছেন, জোট সরকারের জন্য তার দল পিপিপি, এমকিউএম-পি, জেআইআই-এফের সঙ্গে যোগাযোগ করছে।

নওয়াজ শরিফ বলেছেন, তিনি তার ছোট ভাই শাহবাজকে জোট সরকার গঠনের জন্য পির আসিফ আলী জারদারি, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ফজলুর রেহমান এবং এমকিউএম-পির খালিদ মকবুল সিদ্দিকীর সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেছেন।

পিএমএল-এন নেতা আরও বলেছেন, পাকিস্তান বর্তমানে যে সমস্যার মধ্যে রয়েছে তা থেকে বের করে আনতে সব রাজনৈতিক দলের একসঙ্গে বসে সরকার গঠন করা দরকার।

পাকিস্তানকে এই সংকট থেকে বের করে আনতে দেশের সব প্রতিষ্ঠান, প্রত্যেকের একসঙ্গে ইতিবাচক ভূমিকা পালন করা উচিত উল্লেখ করে নওয়াজ বলেন, এটা সবার পাকিস্তান, শুধু পিএমএল-এনের নয়। সবার উচিত মিলেমিশে বসে পাকিস্তানকে সমস্যা থেকে বের করে আনা।

এর আগে ইমরানপন্থি স্বতন্ত্র প্রার্থীদেরকে তার দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। নির্বাচনে জয়লাভের জন্য স্বতন্ত্র প্রার্থীদের তাদের অভিনন্দনও জানিয়েছেন নওয়াজ শরিফ।


আরও খবর



পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছেন একঝাঁক তরুন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

সিনিয়র রিপোর্টার :

পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের স্বপ্নকে পাথেয় করে ''শুরুটা এখানেই শেষ করার দায়িত্ব আপনার'' এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে নিয়ে পথচলা শুরু করেছে 'বিডি ক্লিন' রাণীনগর। পরিচ্ছন্নতা শুরু হোক আমার থেকে এমন উদ্যোগকে বুকে ধারণ করে সাবেক ছাত্র নেতা ও আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ উপজেলার একঝাঁক তরুনকে সঙ্গে নিয়ে গঠন করেছেন বিডি ক্লিন রাণীনগর নামের একটি দল। 

যে দলের মাধ্যমে গত ২ফেব্রুয়ারী থেকে রাণীনগর উপজেলার প্রধান প্রধান স্থান গুলো পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করার কাজ অব্যাহত রাখা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার উপজেলার বটতলী মোড়ে ময়লা-আবর্জনায় ভরে যাওয়া পানি চলাচলের একমাত্র সরকারি খালটি পরিস্কার করা হয়। পরিচ্ছন্নতা অভিযান শুরু করার আগে দলের সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়। এরপর তরুনরা শুরু করে খাল পরিস্কারের কাজ। সরকারি ওই খালটি ছাড়াও বটতলী এলাকার আরো কয়েকটি ময়লা আর আবর্জনায় ভরে থাকা ডোবাও পরিস্কার করা হয়। এছাড়া সাবেক ছাত্রনেতা হাসানুজ্জামান হাসান সহ আরো অনেকেই পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশ গ্রহণ করেন। 

এসময় সাবেক ছাত্র নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন এই শহর আমার, এই দেশ আমার পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্বও আমার এমন উপলব্ধি থেকেই একঝাঁক শিক্ষিত তরুনদের সঙ্গে নিয়ে শুরু করেছি আমাদের এই অভিযান। আমরা ধারাবাহিক ভাবে আমাদের এই উপজেলাকে একটি পরিস্কার ও পরিচ্ছন্ন এলাকা হিসেবে গড়ে তুলতে সবাইকে উজ্জীবিত করতেই মূলত এমন উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমি আশাবাদি সকলের কাছ থেকে যেভাবে সাড়া পাচ্ছি সেই সহযোগিতার দুয়ার খোলা থাকলে আমরা একদিন আমাদের উপজেলাকে একটি পরিস্কার ও পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হবো এবং নিজেদের চারপাশটি অন্তত পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করতে শতভাগ সফল হবো। আগামীতেও এই দলটি শুধু পরিচ্ছন্নতাই নয় বিভিন্ন সামাজিক ও সমাজের প্রতিটি মানুষের জন্য ভালো কর্ম সাধনের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখবে।


আরও খবর

বাউল ছালমা হলেন বরিশাল বিভাগের শ্রেষ্ঠ "জয়িতা"

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাংশায় মাদক সহ ৯ মামলার আসামী গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




অবৈধ মজুদকারীরা দেশের শত্রু : খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ |

Image

অবৈধ মজুত করে কৃত্রিম সংকট তৈরি করে যারা, তারা দেশের শত্রু বলে উল্লেখ করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।

নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের রাধানগরে শীবনদীর উপরে ১৯২ মিটার দীর্ঘ নবনির্মিত সেতুর চলমান কার্যক্রম পরিদর্শন ও দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন পরবর্তী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অবৈধ মজুতকারীরা বিএনপির দোসর উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, তারা শেখ হাসিনাকে উৎখাত করতে চায়-বেকায়দায় ফেলতে চায়।আমাদের দেশকে রক্ষা করতে হবে।আপনারা যে ভোট দিয়েছেন তার মর্যাদা রক্ষা করতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

নির্বাচনের দুই দিন আগে হটাৎ করে অসৎ ব্যবসায়ীরা চালের দাম ৮/১০ টাকা বাড়িয়ে দেয়। তারা মনে করেছিলো অন্য কেউ খাদ্যমন্ত্রী হলে বুঝতে বুঝতে একমাস পার হয়ে যাবে। যখন তারা দেখেছে মন্ত্রী সাধন মজুমদার হয়েছে তখন তারা বেকায়দায় পড়েছে আমাদেরও বেকায়দায় ফেলেছে।চালের বাজার ঠিক রাখতে জেলায় জেলায় বৈঠক করতে হয়েছে। মজুত বিরোধী অভিযানও চালাতে হয়েছে বলে উল্লেখ করেন খাদ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাস করে। ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে জনগণ সে চেতনার পক্ষে রায় দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছেন। নিজেকে অসাম্প্রদায়িক চেতনার লোক দাবী করে তিনি বলেন,আমি যেখানে মন্দির করেছি তার পাশে মসজিদও তৈরি করেছি।আমি মানবের সেবা করি-মানব ধর্ম করি।


আরও খবর

গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ, দগ্ধ সাত

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নওগাঁয় কম্পিউটার ব্যবসার অন্তরালে অশ্লিল ভিডিও বিক্রি করায় ৩ যুবক আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ |

Image

নওগাঁয় কম্পিউটার ব্যবসার অন্তরালে পর্নোগ্রাফি ভিডিও বিক্রি করায় ৩ যুবককে আটক করেছে র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, এর চৌকস অভিযানিক দল। সোমবার দিনগত রাত ৮ টারদিকে নওগাঁর ধামুরহাট উপজেলার মঙ্গলবাড়ী বাজারে অভিযান চালিয়ে

তাদের নিজ নিজ দোকান থেকে আটক করা হয়।

আটককৃত ৩ জন যুবক হলেন, নওগাঁর মুকুন্দপুর গ্রামের নৃপেন্দ্র নাথ সরকার এর ছেলে শ্রী নিত্য সরকার (২৪) এবং পার্শ্ববর্তী জয়পুরহাট জেলাধীন বিল্লা গ্রামের আজিজুল ইসলাম এর ছেলে শহিদ হোসেন (২২) ও দোগাছী গ্রামের আবু হানিফ এর ছেলে সিফাত হোসেন (১৮)।

সত্যতা নিশ্চিক করে মঙ্গলবার র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট কাম্প থেকে জানানো হয়, তরুণ ও যুব সমাজের মূল্যবোধের অবক্ষয়ের অন্যতম প্রধান কারণ পর্নোগ্রাফি (অশ্লিল ভিডিও)। আটককৃতরা মঙ্গলবাড়ী বাজারে তাদের কম্পিউটার ব্যবসা (দোকানের) অন্তরালে তারা তাদেন নিজস্ব কম্পিউটারের হার্ডডিস্কে সিনেমা ও গানের পাশাপাশি পর্নোগ্রাফি (অশ্লিল) ভিডিও সংরক্ষণ করে টাকার বিনিময়ে পর্নোগ্রাফি ভিডিও গুলো বিভিন্ন ইলেকট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে স্থানীয় কিশোর ও যুব সমাজ সহ স্কুল পডুয়া শিক্ষার্থীদের মাঝে সরবরাহ করত। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের গোয়েন্দা দল অশ্লিল সিনেমা ও গানের ভিডিও ক্লিপ আপলোড ব্যবসার পাশাপাশি পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহের বিষয়টি তদন্ত শুরু করে এর সত্যতা পায়। এরপর র‌্যাবের অভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে তাদের হাতেনাতে আটক পূর্বক নওগাঁর ধামইরহাট থানায় হস্তান্তর করা হয়।

পরে মঙ্গলবার আটককৃত ৩ জনকে আদালতের মাধ্যমে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করেন ধামইরহাট থানা পুলিশ।


আরও খবর

বাউল ছালমা হলেন বরিশাল বিভাগের শ্রেষ্ঠ "জয়িতা"

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাংশায় মাদক সহ ৯ মামলার আসামী গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪