Logo
শিরোনাম
রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন মোরেলগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দৈন্যদশা শিক্ষার্থী ৮ শিক্ষক ২

নওগাঁয় বাঁশের তৈরী পণ্য বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন দম্পতি

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁর মহাদেবপুরে বাঁশদিয়ে আসবাব পত্র তৈরী ও বিক্রি করে সংসারে সফলতা এনেছেন উজ্জ্বল ও পুষ্প তরনী দম্পতি।

কুটির শিল্পের কারিগর এই দম্পতি বাড়িতে বাঁশের তৈরী বিভিন্ন রকম ডালা, চালুন, কুলা, ডালি, হাতপাখা, ঝাড়ুসহ নানা রকম সাংসারিক সামগ্রী তৈরী করে এসব হাটেবিক্রি করে সংসারে খরচ করেন। সংসারে স্বামীকে সহযোগিতা করার পাশাপাশি স্ত্রী নিজেই এখন বড় ব্যবসায়ী। তার দোকানে সাজানো আছে বাঁশ দিয়ে হাতের তৈরি বিভিন্ন রংয়ের কুলা, চালন, ডালি, হাতপাখা, ঝাড়ু সহ অনেক বাঁশের তৈরী আরো অনেক আসবাব পত্র। মহাদেবপুর উপজেলা সদরের সারপট্রি এলাকায় বসে এই শিল্পের ব্যবসায়ীরা বাঁশের তৈরী এসব আসবাব পত্র বিক্রিও করে থাকেন।

সরেজমিনে গিয়ে কথা হয় উজ্জ্বল তরনী দম্পতির সঙ্গে। তারা বলেন, আমরা থাকি উপজেলা সদরের কালিতলা মন্দিরের কাছে সুলতানপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার ঘরে। তিনি আরো বলেন, আমরা স্বামী স্ত্রী দুজনেই বাঁশদিয়ে নিজেরাই এসব আসবাব পত্র তৈরী করি, এছাড়াও কিছু জিনিস আমরা কিনে নিয়ে আসি। 

এসময় দেখা যায়, রঙিন গোমাই। সেগুলো বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা করে। হাঁস মুরগী ঢাকা টোপা বিক্রি হয় ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে। এছাড়া বিভিন্ন দামের বিভিন্ন শিল্প আছে এদম্পতির দোকানে।

পুষ্প তরনী বলেন, ডালি, হাতপাখা, চালন, কুলা সহ অনেক কিছু আমরা নিজেই তৈরি করি। দিনে মাঝারি ডালি ৬-৭টা, কুলা ২০টি তৈরি করা যায়। কুলার দাম ৫০-৭০ টাকা। এগুলো হাতের তৈরি আদীয় শিল্প। সারা বছর এই ব্যবসা চলে। সপ্তাহে শনি ও বুধবার হাট হলেও আমরা প্রতিদিন এখানে নিয়ে এসে বিক্রি করি। এছাড়া বাড়ি থেকেও অনেকে কিনে নিয়ে যায়। প্রকারভেদে এবং মানঅনুযায়ী ৫০ থেকে ১২০ টাকা পর্যন্ত ঝাড়ু বিক্রি হয়।

পাশাপাশি পাইকারি নিয়ে এসে বিক্রি করছে অনেক কিছু। এদম্পতি টিকিয়ে রেখেছে বাঁশের তৈরি আদীয় শিল্পকে। তারা দু'জনেই বলেন, ৪ মেয়েকে নিয়ে ভালোই আছি। এক মেয়ের বিয়ে হয়েছে। আরেক মেয়ের বিয়ের কথা চলছে। অন্য মেয়েরা পড়াশোনা করছে।

এব্যাপারে মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু হাসান মুঠোফোনে গনমাধ্যমকে বলেন, স্বামী-স্ত্রী দম্পতি হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে এটা অবশ্যই সবার জন্য একটা অনুপ্রেরণা মূলক কাজ। 

এটা আগে ছিল নিত্য প্রয়োজনীয়। তবে এখন এই শিল্পগুলো অনেক জায়গায় সৌখিন হিসেবে ব্যবহার হয়ে থাকে। তিনি বলেন, তারা যদি কোন সহযোগিতার জন্য আসে আমি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।


আরও খবর



সম্পদের দুই-তৃতীয়াংশ এক ভাগ মানুষের হাতে

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

২০২০ সাল থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বের ৯৯ ভাগ মানুষ মোট যে পরিমাণ সম্পদ অর্জন করেছে, তার প্রায় দ্বিগুণ সম্পদের মালিক হয়েছে বাকি এক শতাংশ মানুষ। এমনটিই বলছে অক্সফামের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদন।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম 'সারভাইভাল অব দ্য রিচেস্ট' শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। ১৬ জানুয়ারি সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের বার্ষিক সভায় প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়।

পৃথিবীর মোট সম্পদের দুই-তৃতীয়াংশই নিয়ন্ত্রণ করছে মাত্র এক ভাগ মানুষ। সোমবার 'সারভাইভাল অব দ্য রিচেস্ট' নামে এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সাল থেকে বিশ্বে নতুন করে ৪২ ট্রিলিয়ন ডলারের সম্পদ অর্জিত হয়েছে। যার প্রায় সবটাই গেছে ঐ ধনকুবেরদের পকেটে। এ সময়ে বিলিয়নিয়ারদের সম্পদ আবার প্রতিদিন বেড়েছে দুই দশমিক সাত বিলিয়ন ডলার করে।

সংস্থাটি জানিয়েছে, বিলিয়নিয়ারদের সম্পদ প্রতিদিন দুই দশমিক সাত বিলিয়ন ডলার বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিলিয়নিয়ারদের অর্ধেক এমন দেশগুলোতে বাস করেন, যেখানে উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পদের মালিক হতে কোনো ট্যাক্স দিতে হয় না।

অন্যদিকে, আয়ের সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে জিনিসপত্রের দাম। সম্পদের ব্যবধানের মতোই এই উর্ধমুখী মুল্যস্ফীতির সঙ্গে তাল মেলাতে হিমশিম খাচ্ছেন বিশ্বের ১ দশমিক ৭ বিলিয়ন কর্মী। আর বিলিয়নিয়ারদের অর্ধেক এমন দেশগুলোতে বাস করেন যেখানে উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পদের মালিক হতে কোনো ট্যাক্সই দিতে হয় না। ফলে গেল ১০ বছরে বিশ্বের সব ধনকুবেরদের সম্পদ বেড়ে হয়েছে দ্বিগুণ।

অক্সফাম বলছে, ভারতের মোট সম্পদের ৪০ ভাগ রয়েছে মাত্র এক ভাগ ধনীর হাতে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের মাত্র ১০ জন ধনী ব্যক্তির ওপর যদি ৫ শতাংশ কর আরোপ করা হয়, সেই টাকাতেই আগামী তিন বছর শিশুদের শিক্ষার ব্যায়ভার উঠে আসবে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে ভারতের ধনকুবেররা যদি তাদের সম্পূর্ণ সম্পদের উপর একবার মাত্র ২% কর দেন তবে আগামী তিন বছরের জন্য ভারতে অপুষ্টির শিকার মানুষের পুষ্টির জন্য ৪০,৪২৩ কোটি টাকার প্রয়োজন মেটাবে। ২০২২ সালে ভারতে বিলিয়নেয়ারের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬৬, যেখানে ২০২০ সালে এই সংখ্যা ছিল ১০২।

উপার্জনের পরিপ্রেক্ষিতে লিঙ্গ বৈষম্যেকেও প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে। তফসিলি জাতি এবং গ্রামীণ কর্মীদের মধ্যে পুরুষ-মহিলাদের আয়ের পার্থক্য অনেকটাই বেশি । অক্সফ্যাম আরও বলেছে যে করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে ২০২২ সালের নভেম্বর পর্যন্ত ভারতে ধনকুবেরদের সম্পদ প্রকৃত অর্থে ১২১ শতাংশ বা প্রতিদিন ৩৬০৮ কোটি টাকা বেড়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা ও এনডিটিভি


আরও খবর



নওগাঁয় ১২ দফা দাবিতে ইনসাফের মানববন্ধন

প্রকাশিত:Thursday ১৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁয় ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন বাংলাদেশ (ইনসাফ) এর ১২ দফা দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বুধবার ১৮ জানুযারি নওগাঁ জেলা শহরের ডিগ্রী মোড়ে ইনসাফ জেলা শাখার আয়োজনে ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচী পালিত হয়। এসময় সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা শাখার সভাপতি মো. মাহবুব আলম এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সদস্য আতোয়ারুল ইসলাম জুয়েল, আনোয়ার হোসেন ও জহুরুল হক স্বপন এবং পৌর কমিটির সভাপতি ফিরোজ মন্ডল ও সাধারন সম্পাদক খায়রুল বাসার। মানববন্ধনে প্রায় শতাধিক নির্মাণ শ্রমিকের নারী-পুরুষ অংশ নেয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নির্মাণ শ্রমিকদের দাবি দিবস উপলক্ষে ২০২৩-২৪ অর্থ বছরে বাজেটে অর্থ বরাদ্দ করে মৌলিক অধিকারসহ ১২ দফা দাবী বাস্তবায়ন করা হোক। সেই সাথে সরকারি উদ্যোগে রাজধানী ঢাকা শহরে থানা ও ওয়ার্ড ভিত্তিক এবং সারাদেশে জেলা ও উপজেলা ভিত্তিক নির্মাণ কলোনী স্থাপন করে সুলভ মূল্যে দীর্ঘ  মেয়াদী লীজ প্রদানের মাধ্যমে নির্মাণ শ্রমিকদের বাসস্থান নিশ্চিত করতে হবে। কলোনীতে শ্রমিকদের ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ার জন্য স্কুল এবং চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের বোর্ড সভা প্রতিমাসে একবার এবং তহবিল থেকে নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য ব্যাপক কল্যাণমুখী কর্মসূচি গ্রহণ ও সাহায্যের আবেদন ফরমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী কর্মকর্তার সুপারিশ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে। এছাড়াও শ্রমিকদের পূর্ণ অধিকার নিশ্চিত করে রেশনিং ব্যবস্থা, পেনশন স্কীম চালু, দুর্ঘটনায় নিহত এবং আহত বা আজীবন পঙ্গুত্ব বরণকারী শ্রমিকের ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে বলেও বক্তব্যে দাবি করেন বক্তারা।


আরও খবর



র‌্যাবের অভিযান-ফেন্সিডিল সহ এক যুবক আটক

প্রকাশিত:Wednesday ০১ February ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট কাম্পের মাদক বিরোধী অভিযানে ৩০২ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাদক কারবারি এক যুবক হাতেনাতে আটক।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব কাম্প থেকে প্রতিবেদক কে জানানো হয়, র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি চৌকশ অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান এর নেতৃত্বে মঙ্গলবার রাত পনে ৩ টারদিকে দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর থানাধীন রিকাবি চকচকা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩০২ বোতল ফেন্সিডিল সহ মাহফুজার রহমান ওরফে সাবু (৩৭) নামের এক মাদক কারবারী যুবককে হাতেনাতে আটক করা হয়।

আটককৃত মাদক কারবারী যুবক হলেন, দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর উপজেলার রিকাবি চকচকা গ্রামের মোঃ মতিয়ার রহমানের ছেলে মাহফুজার রহমান ওরফে সাবু।

র‌্যাব আরো জানায়, আটককৃত মাদক কারবারী জলেন (রিকাবী চকচোকা) এলাকার একজন বড় মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনার সময় সে পার্বতীপুর সীমান্ত এলাকা থেকে ফেন্সিডিলের বড় চালান আনছে এবং ভোরে সেই মাদক ফেন্সিডিল খুচড়া পাটিদের মাঝে বিক্রি করা হবে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫, সিপিসি-৩ (জয়পুরহাট) এর একটি চৌকশ অপারেশন দল ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার করেন।

এব্যাপারে নিকটস্থ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুসারে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছে র‌্যাব।


আরও খবর



নওগাঁয় খাদ্যমন্ত্রী

শেখ হাসিনা সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের আধুনিকায়নের উদ্যোগ নিয়েছেন

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ন্যায়ের পথে কাজ করে যাচ্ছেন। সকল সম্প্রদায়ের উন্নয়নে তিনি নিবেদিত প্রাণ বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।

তিনি সোমবার ১৬ জানুয়ারী সকালে ২য় পর্যায়ে সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে ভার্চুয়ালিতে যুক্ত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের জন্য  ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর সুযোগ্য কন্যার নেত্রীত্বে সারা দেশে মডেল মসজিদ নির্মিত হচ্ছে। তিনি সকল ধর্মের উন্নয়নে কাজ করেন। তিনি বিশ্বাস করেন ধর্ম যার যার, রাষ্ট্র সবার।

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অগ্রগতি হয়েছে। পৃথিবীর অনেক শক্তিশালী দেশের চেয়েও এখন বাংলাদেশের জিডিপি ও এসডিজির অগ্রগতি ভালো। প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য নেত্রীত্বে বাংলাদেশ করোনা মোকাবিলায় বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন অবকাঠামো ও রাষ্ট্রীয় উন্নয়নের পাশাপাশি দেশরত্ন শেখ হাসিনা ধর্মীয় ও নৈতিক উন্নয়নের দিকেও নজর দিয়েছেন। 

পিতার দেখানো পথ ধরে তিনি সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের আধুনিকায়নের উদ্যোগ নিয়েছেন।

আর সে ধারাবাহিকতায় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে।

উল্লেখ্য,আধুনিক সুযোগ-সুবিধা-সংবলিত সুবিশাল এসব মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্সে নারী ও পুরুষদের পৃথক ওজু ও নামাজ আদায়ের সুবিধা, লাইব্রেরি, গবেষণা কেন্দ্র, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, পবিত্র কোরআন হেফজ বিভাগ, শিশু শিক্ষা, অতিথিশালা, বিদেশি পর্যটকদের আবাসন, মৃতদেহ গোসলের ব্যবস্থা, হজ্ব যাত্রীদের নিবন্ধন ও অটিজম সেন্টার, প্রতিবন্ধী মুসল্লিদের টয়লেট সহ নামাজের পৃথক ব্যবস্থা, গণশিক্ষা কেন্দ্র, ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র থাকবে। এ ছাড়াও ইমাম-মুয়াজ্জিনের প্রশিক্ষণ-আবাসন, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্থা এবং গাড়ি পার্কিং-সুবিধা রাখা হয়েছে।

মডেল মসজিদগুলোতে দ্বিনি দাওয়াত কার্যক্রম ও ইসলামি সংস্কৃতিচর্চার পাশাপাশি মাদক, সন্ত্রাস, যৌতুক, নারীর প্রতি সহিংসতাসহ বিভিন্ন সামাজিক ব্যাধি রোধে সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

নওগাঁ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আল মামুন হক, নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফারুক সুফিয়ান, উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ আহম্মেদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ এবং ইসলামী ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক গোলাম মোস্তফা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। 


আরও খবর



৬২ বছর পর ব্রাইটনের কাছে বিধ্বস্ত লিভারপুল

প্রকাশিত:Sunday ১৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

প্রিমিয়ার লিগে পরপর দুই ম্যাচে তিনটি করে গোল খেয়ে পরাজয়ের বৃত্তে লিভারপুল। লিগে আগের ম্যাচেই ব্রেন্টফোর্ডের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছিল লিভারপুল। এবার একই লজ্জায় অলরেডদের ডুবালো ব্রাইটন। ১৯৬১ সালের পর প্রথমবারের মতো লিগে ব্রাইটনের কাছে হারতে হল লিভারপুলকে। শনিবার (১৪ জানুয়ারি) নিজেদের মাঠে লিভারপুলকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাইটন। ম্যাচের সব কয়টি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে।

বল দখল, আক্রমণ, গোলে ও লক্ষ্যে শট- প্রতিটি ক্ষেত্রেই লিভারপুলকে টেক্কা দিয়েছে ব্রাইটন। অবশ্য শুধু টেক্কা দেয়নি, বেশ বড় ব্যবধানেই এগিয়ে ছিল ব্রাইটন। ম্যাচের অষ্টম মিনিটে ব্রাইটন এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ব্রাইটন।

ম্যাক অ্যালিস্টারের পাসে ডান দিক থেকে নিচু শট নিয়েছিলেন ব্রাইটন ফুটবলার মার্স। তবে তাতে লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার পরাস্ত হলেও গোললাইন থেকে ক্লিয়ার করে লিভারপুলের দুর্গ অক্ষত রাখেন ট্রেন্ট অ্যালেকজান্ডার-আর্নল্ড। এরপর বিরতির আগে আরও দুইটি সুযোগ হাতছাড়া করে ব্রাইটন। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে পেনাল্টি পেয়েছিল ব্রাইটন। তবে ভিএআরে দেখে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন রেফারি। তবে প্রথমার্ধে গোল না পেলেও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর আট মিনিটের মধ্যে জোড়া গোল করে লিভারপুলকে ব্যাকফুটে ফেলে দেয় ব্রাইটন।

বিরতি থেকে ফেরার পর ম্যাচের ৪৬তম মিনিটে কাছের পোস্ট থেকে দুর্দান্ত শটে ব্রাইটনকে প্রথম লিড এনে দেন মার্চ। সাত মিনিটের ব্যবধানে আবারও গোলদাতা সেই মার্চ। ফার্গুসনের পাস নিয়ে বক্সে ঢুকে বাঁ পায়ের শটে বল দূরের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। ম্যাচের ৮১তম মিনিটে লিভারপুলের কফিনে শেষ পেরেক মারেন ওয়েলবেক।

থ্রো থেকে মার্চের বাড়ানো পাসে দারুণভাবে ফ্লিক করে গোল করেন তিনি। ম্যাচের বাকি সময়ে লিভারপুল একাধিক চেষ্টা করেও গোল ব্যবধান কমাতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত অলরেডদের বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাইটন। এর আগের লেগেও লিভারপুলের বিপক্ষে ৩-১ গোলের ব্যবধানে জিতেছিল তারা।

এখন পর্যন্ত ১৮ ম্যাচে ৯ জয় ও ৩ ড্রয়ে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে এখন সাত নম্বরে রয়েছে ব্রাইটন। সমান ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে আটে আছে লিভারপুল। ১৭ ম্যাচে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে আর্সেনাল।


আরও খবর