Logo
শিরোনাম

নওগাঁয় পুকুরের পানি থেকে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

নওগাঁয় পুকুরের পানি থেকে সাগর উড়াও নামে এক যুবকের ক্ষত-বিক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে একই গ্রামের মৎস্য চাষি একটি পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চেরাগপুর গ্রামে।

নিহত সাগর উড়াও মহাদেবপুর উপজেলার চেরাগপুর আদিবাসীপাড়া গ্রামের 

অনিল উড়াও এর ছেলে।

নিহতের স্বজন ও স্থানিয় সুত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত ৮ টারদিকে চেরাগপুর মোড় থেকে পুকুরে মোটর সেট করে পানি সেচ দেওয়ার কথা বলে সাগর উড়াও কে ডেকে নিয়ে যান চেরাগপুর ফকিরপাড়া গ্রামের আব্বাস আলী মন্ডল এর ছেলে মৎস্য চাষি বেলাল হোসেন (৩৮)। পরেদিন শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর সকালে চেরাগপুর গ্রামের মোড়ের পার্শ্বে অপর একটি পুকুরের পানিতে একটি মৃতদেহ ভাসতে দেখতে পান স্থানিয়রা। মহূর্তের মধ্যে ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে পুকুর পাড়ে লোকজন ভীর জমান। খবর দেওয়া হয় থানা পুলিশে। খবর পাওয়া মাত্র মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফ্ফর হোসেন সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানিয়দের সহায়তায় পুকুরের পানি থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করার পর মৃতদেহটি সাগর উড়াও এর বলে সনাক্ত করেন স্বজনরা। ঘটনাটি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে জানান ওসি। খবর পেয়ে মহাদেবপুর (সার্কেল) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়ব্রত পাল ও নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

এরপর দুপুরে ঘটনাস্থলে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে ময়না তদন্তের জন্য ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন পুলিশ।

স্থানিয়রা ও থানা পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার দিনগত রাত আনুঃ ৮ টারদিকে

মৎস্য চাষি বেলাল হোসেন তার মাছ চাষের পুকুরের পানি বিদ্যুৎ চালিত মোটর দিয়ে সেচ দিবেন জানিয়ে গ্রামের মোড় থেকে সাগর উড়াও কে ডেকে নিয়ে যায় এবং পরের দিন শুক্রবার মৎস্য চাষি বেলাল হোসেন এর পুকুরের পার্শ্ববর্তী এলাকায় পদ্দপুকুর নামক অপর একটি পুকুর থেকে পিঠের নিচে কোমরের কাছে বিশাল ক্ষত অবস্থায় সাগর উড়াও এর মৃতদেহ উদ্ধার করেন পুলিশ।

ঘটনার পর থেকে মৎস্য চাষি বেলাল হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক থাকার ঘটনাটি থানা পুলিশকে স্থানিয়রা অবগত করলে সাথে সাথে পুলিশ প্রথমে বেলাল হোসেন এর মাছ চাষকৃত পুকুরে গিয়ে পানি সেচ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে স্থানিয়দের উপস্থিতিতে বেলাল হোসেন এর বাড়ি থেকে পুকুরে পানি সেচ কাজে ব্যবহারীত কাঁদা-মাটি মাখা বিদ্যুতের তার উদ্ধার করেন। পুকুরের পানি সেচ দিতে  অবৈধ্যভাবে নিজ বাড়ি থেকে তার টেনে পুকুরে নিয়ে মোটরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার সময় সেখানে বিদ্যুৎ পিষ্ট হয়ে সাগর উড়াও এর মৃত্যু হয়েছে এবং সু-চতুর মৎস্য চাষি বেলাল হোসেন নিজেকে ঘটনার দায় থেকে রক্ষা করতে তার পুকুর পাড় থেকে মৃতদেহটি রাতের কোন এক সময় তুলে এনে পার্শ্বের অপর এক জনের পুকুরের পানিতে ফেলে দেওয়ার পর সে ও তার পরিবারের লোকজন গাঁ-ঢাকা দিয়েছেন বলেই স্থানিয় লোকজন বলাবলি করছেন।

মৃতদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফ্ফর হোসেন প্রতিবেদক কে জানান, ঘটনার খবর পাওয়া মাত্র দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে মৃতদেহটি উদ্ধার পূর্বক ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি মৃত্যু রহস্য উদঘার্টনে পুলিশ তৎপর রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এঘটনায় আইনানুগ পক্রিয়া চলমান রয়েছে। 


আরও খবর



নওগাঁয় গৃহবধূর গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

নওগাঁয় একটি চাউল কল (ধান চাতালের) ঘর থেকে লাইলী বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূ (নারী শ্রমিকের) গলা কাটা মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন নওগাঁর মহাদেবপুর থানা পুলিশ। ঘটনার পর থেকে গৃহবধূ লাইলী বেগম এর স্বামী আমজাদ হোসেন পলাতক রয়েছে। নিহত গৃহবধূ লাইলী বেগম নওগাঁর মান্দা উপজেলার কসব ( শিয়াটা) গ্রামের মৃত মজিবর রহমান প্রাং এর মেয়ে।

লাইলী বেগম এর বড় ভাই আঃ সামাদ ও সম্পর্কে মামা মোকছেদ আলী সরকার জানান, লাইলী প্রথম পক্ষের স্বামীর সাথে ঘর সংসার করাকালে তাদের এক মেয়ে সন্তান হয়। এরিমাঝে লাইলী বেগম এর প্রথম স্বামী মারা যায় এবং লাইলী বেগম এর মেয়েকে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলাতে বিয়ে দেওয়া হয়। বছর ৩-৪ পূর্বে লাইলী বেগম জানান, সে আমজাদ হোসেন নামে এক জনকে বিয়ে করেছেন।  বিয়ের পরই তারা স্বামী-স্ত্রী ধান-চাতালে কাজ করতেন। আজ রবিবার ৩ ডিসেম্বর মোবাইল ফোনে জানানো হয়, লাইলী কে হত্যা করা হয়েছে, এমন খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। এসেই শুনি লাইলীকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে।

অপরদিকে স্থানীয় ও থানা সূত্রে জানা যায়, নিহত লাইলী বেগম মহাদেবপুর থানাধীন নওহাটামোড় পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার চকগৌরী ইউনিয়ন পরিষদ এলাকার মের্সাস উজ্জল চাউল কল এর ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ী আঃ রহমান এর ধান চাতালে শ্রমিকের কাজ করতেন। কাজ করাকালে মাঝের মধ্যেই স্বামী-স্ত্রী'র মাঝে বিবাদ হতো। এরিমাঝে শনিবার ২ ডিসেম্বর দিনগত রাতে অপর নারী-পুরুষ শ্রমিকের মতো তারা স্বামী-স্ত্রীও রাতের খাবার খেয়ে তাদের ঘরে ঘুমাতে যায়। রবিবার সকালে বেলা হওয়ার পরও তারা স্বামী-স্ত্রী কেউ ঘর থেকে বের না হওয়ায় এবং বাহির থেকে ঘরের দরজায় তালা ঝুলানো অবস্থায় দেখে অপর নারী শ্রমিকদের মাঝে

সন্দেহ দেখা দেয় এবং প্রথমে ঘরের ভেতর গলাকাটা অবস্থায় লাইলী বেগম কে দু'জন নারী শ্রমিক দেখতে পেয়ে ডাক-চিৎকার দেয়। মহূর্তের মধ্যে ঘটনাটি জানাজানি হলে শত শত লোকজন এক নজর দেখার জন্য ঘটনাস্থলে ভীড় জমান। এক পর্যায়ে স্থানিয়রা ঘটনাটি নওহাটামোড় ফাঁড়ি পুলিশ কে জানালে সাথে সাথে 

নওহাটা ফাঁড়ি পুলিশের এসআই  জিয়াউর রহমান সঙ্গীয় পুলিশ সহ ঘটনাস্থলে পৌছান এবং ঘটনাটি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে জানান। খবর পেয়ে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফ্ফর হোসেন এবং ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ঘটনাস্থলে পৌছানোর পর প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে রবিবার দুপুর দেরটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার পূর্বক ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন পুলিশ।

মৃতদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোজাফফর হোসেন জানান, খবর পেয়ে সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স সহ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা হয় এবং ঘটনাস্থলে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে মৃতদেহটি উদ্ধার পূর্বক ময়না তদন্তের জন্য, নওগাঁ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। তিনি স্থানিয়দের বরাত দিয়ে বলেন,

প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্বামী-স্ত্রী'র মাঝে বিবাদ (দ্বন্দ্বের) কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে। ঘটনার পর থেকে লাইলী বেগম এর স্বামী আমজাদ হোসেন পলাতক রয়েছেন। তবে পুলিশ তৎপর রয়েছে, পলাতক স্বামী আমজাদ হোসেনকে  পেলে এহত্যা কাণ্ডের মূল রহস্য জানা যাবে। সংবাদ সংগ্রহকালে রবিবার বিকেল সারে ৪টা পর্যন্ত এবিষয়ে আইনানুগ পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



ভারতের দক্ষিণাঞ্চলে বন্যা, চেন্নাইয়ে নিহত বেড়ে ১৭

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের আঘাতে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে ভারতের দক্ষিণাঞ্চল। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) প্রবল এই ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের বাপাতলা উপকূলে আঘাত হানে। এতে ভারি বৃষ্টিতে ব্যাপক বন্যা দেখা দিয়েছে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে। এছাড়াও প্রবল এই ঝড়ের প্রভাবে তামিলনাড়ুর চেন্নাইয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের বাপাতল উপকূলে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় মিগজাউম। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ভারি বৃষ্টিতে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে ব্যাপক বন্যা দেখা দিয়েছে। তলিয়ে গেছে তামিলনাড়ুর প্রাদেশিক রাজধানী চেন্নাই, কাঞ্চিপুরামসহ বিভিন্ন জেলা।

এছাড়াও ঘর-বাড়ির পাশাপাশি হাসপাতালে পানি ঢুকে পড়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন হাজার হাজার মানুষ। প্রাণহানির সংখ্যাও ক্রমেই বাড়ছে। এদিকে, বৈরি আবহাওয়া উপেক্ষা করে পানিবন্দীদের উদ্ধার করছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। দুর্গম এলাকাগুলোতে হেলিকপ্টারের সাহায্যে ত্রাণ সামগ্রী দিচ্ছে দেশটির সেনাবাহিনী।

অন্যদিকে, মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে চেন্নাই পুলিশ জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের কারণে সৃষ্ট বন্যাসহ বৃষ্টিপাতজনিত নানা কারণে ভারতের চেন্নাইয়ে ১৭ জনের প্রাণহানি হয়েছে।

এছাড়াও মিগজাউমের প্রভাবে চেন্নাই এয়ারপোর্টের বহু ফ্লাইট বাতিল করা হয়। এতে বিড়ম্বনায় পড়েন প্রায় দেড় হাজার যাত্রী।

এদিকে, দুর্যোগপূর্ণ এ আবহাওয়ার কারণে চেন্নাইয়ে আইফোন উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে তাইওয়ানের ম্যানুফ্যাকচারিং প্রতিষ্ঠান ফক্সকন।

 


আরও খবর

গাজায় গণহত্যা অব্যাহত

মঙ্গলবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩




বোতলে লুজ পেট্রোল বিক্রি নয়

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

বোতল বা ড্রামে ভরে সব ধরনের লুজ/খোলা পেট্রোল বিক্রি বন্ধ করতে পাম্প মালিকদের অনুরোধ করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার হাবিবুর রহমান।

 

ডিএমপি সদর দপ্তরের আয়োজিত পেট্রোল পাম্প মালিক সমিতির সঙ্গে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সংক্রান্ত মতবিনিময় এসব কথা বলেন ডিএমপি কমিশনার।

 

ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমান বলেন, লাইসেন্স ছাড়া ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ছাড়া যদি কেউ লুজ/খোলা পেট্রোল বিক্রি করে আর যদি সে খবর আমরা পাই তাহলে সংশ্লিষ্ট পেট্রোল পাম্পসহ বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

রাজধানীর কেরানীগঞ্জ, যাত্রাবাড়ি, ডেমরা, উত্তরখান এলাকায় অনেক লুজ/খোলা পেট্রোল বিক্রি হচ্ছে। এগুলো বন্ধ করার ক্ষেত্রে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে কিনা-সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, পেট্রোল যদি কেউ বিক্রি করে সেজন্য কিন্তু লাইসেন্স লাগে।

কেউ যদি চুপচাপ বা গোপনে খোলা পেট্রোল বিক্রি করে-আমরা জানতে পারলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। কিছুদিন আগেও বিষয়টি নিয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হতো না। এখন যাতে এই ঘটনা না ঘটে সেজন্য সব জায়গায় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।


আরও খবর

সাত ডিসেম্বর শত্রুমুক্ত হয়েছিলো নোয়াখালী

বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩




নোবিপ্রবিতে হাল্ট প্রাইজের এবারের ডিরেক্টর তাবিব ইবনে হুদা

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

মোঃ সিনান তালুকদার, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি :

পঞ্চম বারের মতো নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক উদ্যোক্তা প্রতিযোগিতা ‌‌হাল্ট প্রাইজ। প্রতিযোগিতার নোবিপ্রবি ক্যাম্পাস রাউন্ডের ক্যাম্পাস ডিরেক্টর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মোঃ তাবিব ইবনে হুদা। 

রোববার (৩ ডিসেম্বর) নবনির্বাচিত ডিরেক্টর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। নবনির্বাচিত ডিরেক্টর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন সায়েন্সের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি এক বছর নোবিপ্রবি হাল্ট প্রাইজ অন ক্যাম্পাস প্রোগ্রামের অর্গানাইজিং কমিটির সাথে যুক্ত ছিলেন। 

মোঃ তাবিব ইবনে হুদা বলেন, প্রতিবছরের মত এইবছর ও হাল্ট প্রাইজের নির্ধারিত চ্যালেঞ্জ রয়েছে, তবে এবারের চ্যালেঞ্জ টি হচ্ছে "Unlimited" অর্থাৎ আপনি যেকোনো বৈশ্বিক সমস্যা (যেমনঃ দারিদ্রতা, ক্লাইমেট চেঞ্জ ইত্যাদি) সমাধানে  বিজনেস আইডিয়া প্রেজেন্ট করতে পারবেন তবে তাকে অবশ্যই Sustainable Development Goals (SDG) এর যেকোনো এক/একাধিক গোল কে পরিপূর্ণ করতে হবে। যার ফলে যেকোনো ব্যাকগ্রাউন্ড এর শিক্ষার্থীরাই খুব সহজেই তাদের সেরা আইডিয়া নিয়ে অংশ গ্রহন করতে পারবে। শিক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য বেশ কিছু সেশন এবং ওয়ার্কশপ রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছে। 


তিনি আরও বলেন, খুব দ্রুতই টিম রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে। আমরা অনেকেই নিজেদের উদ্ভাবনী আইডিয়া কাজে লাগিয়ে উদ্দোক্তা হওয়ার স্বপ্ন দেখি। হাল্ট প্রাইজ হলো তেমনই একটি আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম যেখানে আপনি নিজের দেশকে রিপ্রেজেন্ট করার মাধ্যমে নিজের আইডিয়াকে একটি আন্তর্জাতিক প্লাটফর্মে তুলে ধরার সুযোগ পাচ্ছেন। আপনার স্বপ্ন কে বাস্তবে রূপান্তরিত করার অন্যতম প্লাটফর্ম হতে পারে হাল্ট প্রাইজ। 

উল্লেখ্য, হাল্ট প্রাইজ হলো শিক্ষার্থীদের নোবেল খ্যাত বিশ্বের সবচেয়ে বড় উদ্যোক্তা প্রতিযোগিতা, যা প্রতিবছর বিশ্বের ১০০ এর অধিক দেশে হয়ে থাকে।প্রতিযোগিতাটি জাতিসংঘ, ক্লিনটন ইনিশিয়েটিভস (আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন এর সংস্থা) এবং হাল্ট ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস স্কুল যৌথভাবে আয়োজন করে থাকে। এর মাধ্যমে জাতিসংঘ চিহ্নিত সমস্যার সমাধান এবং তা বাস্তবায়নের জন্য বিজয়ীদের ১ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৮ কোটি টাকা) পুরস্কার প্রদান করা হয়।


আরও খবর



নওগাঁয় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে পিকআপের ধাক্কা, চালক নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

নওগাঁয় একটি পিকআপ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ধারের তালগাছের সাথে ধাক্কা লেগে  দূর্ঘটনাস্থলেই পিকআপ চালক রায়হান আলী (২৪) নামে এক যুবকের মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হয়েছে। নিহত পিকআপ চালক রায়হান আলী হলেন, নওগাঁর পোরশা উপজেলার নোনাহার গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে। একই দূর্ঘটনায় চালকের পাশে বসে থাকা পিকআপের মালিক একই গ্রামের মৃত আবু তালেব এর ছেলে শহিদুল ইসলাম (২৬) গুরুতর আহত হয়েছেন। মর্মান্তিক এদূর্ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোরে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চাঁন্দাশ বালিকা বিদ্যালয় মোড় নামক স্থানে।

স্থানীয়রা জানান, পিকআপটি মহাদেবপুর থেকে পোরশা যাওয়ার সময় পথিমধ্যে চাঁন্দাশ বালিকা বিদ্যালয় মোড়ে পৌছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি তালগাছের সাথে ধাক্কা লাগার পর ঘটনাস্থলেই পিকআপ চালক রায়হান আলীর মৃত্যু হয় এবং চাপা অবস্থায় থাকলে খবর পেয়ে মহাদেবপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের লিডার আশরাফুর রহমানের নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা গিয়ে পিকআপ এর দরজা কেটে রায়হান আলীর মৃতদেহ উদ্ধার করেন এবং অপর পাশের দরজা কেটে গুরুতর আহত অবস্থায় পিকআপের মালিক শহিদুল ইসলামকে উদ্ধার করে মহাদেবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন। 

দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। 


আরও খবর