Logo
শিরোনাম

অনিবন্ধিত ক্লিনিক আর থাকছে না

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

দেশের কোথাও কোনো অনিবন্ধিত ক্লিনিক না রাখার ঘোষণা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সংস্থাটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির বলেছেন, আমাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় সরকারি বলেন আর বেসরকারি বলেন একটি ন্যূনতম স্বাস্থ্যসেবা যদি না থাকে, সেই প্রতিষ্ঠান মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করবে সেটা আমরা সহ্য করতে পারব না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) ইউএসএআইডির ‘মামনি’ ও নবজাতক স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় (ইপিআই) এই কর্মশালায় তিনি একথা বলেন ।

অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির বলেন, ‘অনিবন্ধিত ক্লিনিক এবং যারা প্রতারণা করছে স্বাস্থ্যসেবার নামে সেগুলো কিন্তু প্রায় সবই বন্ধ করে দিয়েছি এবং বলেছি যে অনিবন্ধিত কোনো ক্লিনিক বাংলাদেশে থাকতে পারবে না। এটি একটি খুবই প্রিমেটিভ কাজ, তবে তার মানে এই নয় আমরা খুব ভালো কাজ করে ফেলেছি। যদি কেউ নিবন্ধন নম্বর তাদের প্রতিষ্ঠানে না টাঙিয়ে রাখেন তাহলে অনিবন্ধিত হিসেবেই ধরে নেওয়া হবে।

ডা. আহমেদুল কবির আরো বলেন, আমরা আপনাদের খুব স্ট্রং মেসেজ দিতে চাই। আপনাদের জেলায় কোনো অনিবন্ধিত ক্লিনিক থাকতে পারবে না। এটি একটি পরিষ্কার বার্তা। অনিবন্ধিত ক্লিনিকের অস্তিত্ব বাংলাদেশের মাটিতে থাকতে পারবে না। প্রতিপক্ষ যত শক্তিশালী হোক। দ্বিতীয়ত নিবন্ধিত ক্লিনিক মানেই মানুষের সেবা করছে, সেটাও বলার সুযোগ নেই। এরই মধ্যে আমি হাসপাতাল শাখার পরিচালককে বলেছি, স্বাস্থ্যসেবার ক্যাটাগরাইজেশন করার জন্য একটি স্ট্যান্ডার্ড সেটআপ তৈরি করতে।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েই চলেছে

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েই চলেছে। কয়েক দিনের বৃষ্টিতে এডিস মশার প্রকোপ আরো বাড়ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, রোববার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ৩৯৯ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যা এবছর একদিনে সর্বোচ্চ। এই সময়ে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এনিয়ে চলতি বছরে ডেঙ্গুতে প্রাণ হারালেন ৪৫ জন। এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সর্বোচ্চ ৩৯১ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। ৬ সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে পাঁচজনের মারা যান। এটি এবছরের একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা। 


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




জামালগঞ্জে বিএনপি'র বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

স্টাফ রিপোর্টার:

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে বিএনপি'র কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে,উপজেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৪সেপ্টেম্বর (বুধবার)বিকেলে উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সংগঠনের আয়োজনে বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। মিছিল শেষে জামালগঞ্জ সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

মিছিলে নেতৃত্বে ছিলেন, জামালগঞ্জ উপজেলা বিএনপির স্থগিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক   শাহ মোঃ শাহজাহান মিয়া, স্থগিত কমিটির সহ সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ শফিকুর রহমান শফিক ও মোঃ ফরিদ মিয়া তালুকদার, উপজেলা বিএনপির স্থগিত কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, জুলফিকার চৌধুরী রানা ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফরাজী, উপজেলা বিএনপি নেতা ও সাচনা বাজার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মাসুক মিয়া, শামছুজ্জামান ধন মিয়া, মোঃ মাসুম মাহমুদ তালুকদার,সাবেক মেম্বর আবু সায়েম,

উপজেলা মৎস্যজীবী দলের সভাপতি মোঃ জয়নাল আবেদীন, লিয়াকত আলী শাহ, মাহমুদুল হাসান তাহের, ছাত্রনেতা জাকি, মেহেদী হাসান বাবর, পারভেজ, নাদিম, মিনহাজ। মফিজুল ইসলাম, কৃষকদল আহবায়ক মোবারক হোসেন, যুবদল নেতা শাহজাহান সিরাজী, যুবদল নেতা লিকন, আবু বক্কর, আবুল কালাম আজাদ, মোছাদ্দর আলী, রাসেল, মুজাহিদ, 

যুবদল নেতা শহিদুল ইসলাম তালুকদার প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ভোটার বিহীন এই আওয়ামীলীগ সরকার দেশের মানুষের ভোটাধিকার হরন করে জোড়ে দিনের ভোট-রাতে দিয়ে পৈচাশিক কায়দায় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আছে। এই সরকার দেশের মানুষের গনতান্ত্রিক অধিকার হরন করে বিরোধী দলের মত প্রকাশের স্বাধীনতা কেড়ে নিতে চায়। গণমাধ্যম, সাংবাদিক, সাধারণ মানুষও আজ নিরাপত্তাহীন। জোর করে বেশী দিন ক্ষমতায় থাকা যায় না।

সারাদেশে সরকার দলীয় সন্ত্রাসী ও পুলিশ দিয়ে হামলা, মিথ্যা মামলা করিয়ে পুলিশ কে জনগণের প্রতিপক্ষ বানাচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল নেতা শাওনকে শান্তিপ্রিয় মিছিলে পুলিশ কর্তৃক গুলি চালিয়ে পৈশাচিক ভাবে হত্যার করিয়েছে।

দেশের মানুষকে স্বৈরশাসন থেকে মুক্তি দিতে, মানুষের গণতন্ত্র অধিকার ফিরিয়ে দিতে আমরা মাঠে থেকে শান্তি প্রিয় আন্দোলন সংগ্রাম করে যাবো। পুলিশ দিয়ে আর আমাদের দাবিয়ে রাখা যাবে না। অবিলম্বে এই অবৈধ সরকারের পতন নিশ্চিত করে র্নিদলীয় তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রদানের দাবী জানান তারা।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




আল-জাজিরার প্রতিবেদন

আজারবাইজানের সাথে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করল আর্মেনিয়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে আবারও যুদ্ধে জড়িয়েছে প্রতিবেশী দুই দেশ আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান। ইতোমধ্যে এই লড়াই উভয় পক্ষের ১৫৫ জন সেনা নিহত হয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে উভয় দেশের মধ্যে যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছানোর ঘোষণা দিয়েছে আর্মেনিয়া। যদিও এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি আজারবাইজান।

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আর্মেনিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা আরমেন গ্রিগরিয়ান টেলিভিশনে যুদ্ধ বিরতির ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, গতকাল বুধবার স্থানীয় সময় রাত ৮টা থেকে এটি কার্যকর হয়েছে। আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়া আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, রাশিয়ার মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতি হয়েছে। গ্রিগরিয়ানের ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা আগে আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল গোলাগুলি বন্ধ হয়ে গেছে। তবে, তখন যুদ্ধবিরতির চুক্তির কথা উল্লেখ করা হয়নি। চুক্তির বিষয়ে আজারবাইজানের রাজধানী বাকু থেকে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে ৬ সপ্তাহের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে জড়ায় প্রতিবেশী দুই দেশ। এতে আর্মেনিয়ার বিপুল ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানি হয়। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ‘সিক্স ডে ওয়ার’ নামে পরিচিত ওই ঘটনায় ৬ হাজার ৭০০ মানুষ নিহত হন।


আরও খবর

চিকিৎসাবিজ্ঞানের নোবেল ঘোষণা

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




শতাধিক নদী সংস্কার করবে পাউবো

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

নদীর স্রোতধারা ফিরিয়ে আনতে দেশের মৃত শতাধিক নদী সংস্কারের কথা ভাবছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। পার্বত্য তিন জেলা বাদে জেলাওয়ারি দুটি নদী চিহ্নিত করে এ সংস্কার কর্মযজ্ঞ চালাবে সংস্থাটি। 

এরই মধ্যে বিশাল এই কর্মযজ্ঞ সফল করতে জেলা পর্যায়ে পাউবোর প্রকৌশলীর নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সম্পৃক্ত করা হয়েছে। নদী পাড়ের স্টেকহোল্ডারদের অংশীজন হিসেবে মতামত নেওয়ার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। 

জানতে চাইলে পাউবোর একজন অতিরিক্ত সচিব নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, জেলায় দুটি করে নদী সংস্কারের নিমিত্তে একটি প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। এই প্রকল্পের প্রধান অংশীজন হওয়া দরকার কৃষক। তাদের মতামত নিয়ে কীভাবে নদী সংস্কার করা হলে সরকারের অর্থের যথার্থ ব্যবহার হবে তা নিশ্চিত করা। কিন্তু যাদের সম্পৃক্ততা নেই, এমন ব্যক্তিদের অন্তর্ভুক্ত করে মতামত নেওয়া হয়। ফলে মোটা অঙ্কের অর্থ ব্যয় করে নদী সংস্কার করা হলেও প্রকৃত উপকারভোগীরা সুবিধা পান না। তাই এ ধরনের প্রকল্প নেওয়ার আগে সব দিক বিবেচনা করাই শ্রেয়। তবে প্রকল্প প্রেজেন্টেশনের দিন বোঝা যাবে কীভাবে করা হবে নদীর সংস্কার কাজ।

নদীমাতৃক বাংলাদেশে নদীর সংখ্যা নিয়ে নানা মত রয়েছে। শিশু একাডেমির শিশু বিশ্বকোষের তথ্যনুযায়ী, বাংলাদেশে নদীর সংখ্যা বলা হয়েছে ৭০০-এর অধিক। অশোক বিশ্বাস নদীকোষ গ্রন্থে একই সংখ্যা উল্লেখ করেছেন। তবে, মোকারম হোসেন বাংলাদেশের নদী গ্রন্থে দেশে নদ-নদীর সংখ্যা ১০০০-এর কথা বলা হলেও সৈয়দ শামসুল হক তার কবিতায় এ সংখ্যা ১৩০০টি উল্লেখ করেন। 

তবে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সর্বশেষ তথ্যনুযায়ী বাংলাদেশের নদীর সংখ্যা ৪০৫টি। একই মত দিয়েছেন নদী গবেষক মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক। নদী কর্তৃপক্ষ পাউবোর তথ্যমতে, ৪০৫টি নদীর মধ্যে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের নদীর সংখ্যা ১০২টি, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ১১৫টি, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ৮৭টি, উত্তর-কেন্দ্রীয় অঞ্চলে ৬১টি, পূর্ব-পাহাড়ি অঞ্চলের নদী ১৬টি এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের নদীর সংখ্যা ২৪টি।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, ঢাকা জেলায় ১৫টি নদী রয়েছে। রাজধানীর আশপাশের গত ৫০ বছরে পাঁচটি নদী হারিয়ে গেছে। বেড়িবাঁধের মাধ্যমে নদীর প্রবাহ নষ্ট করা হয়েছে। এরপর আবার বেড়িবাঁধের দুপাশই দখল করা হয়েছে। ঢাকার আশপাশের নদীগুলোর অনেক শাখা নদী ছিল, সেগুলো দখল হয়ে গেছে। আর হারিয়ে যাওয়া নদী চেষ্টা করলেও পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে পারে না সরকার।

সারা দেশের নদ-নদীর পূর্বের-বর্তমান অবস্থা বিশ্লেষণে দেখা গেছে, রাজধানীর নিকটবর্তী জেলা মানিকগঞ্জে নদীর সংখ্যা ১৬টি আর খাল ১১৭টি; দখলদারের সংখ্যা ১ হাজার ৩৯৯ জন। ফরিদপুর জেলায় ১৩টি নদী ও ১৫টি খাল রয়েছে; দখলদারের সংখ্যা ১ হাজার ৮৩৪ জন। টাঙ্গাইল জেলায় নদী দখলদারের সংখ্যা ১ হাজার ৭৮৮ জন। নদী কমিশনের প্রতিবেদনে বলা হয়, ৬৪ জেলায় মোট ৫৭ হাজার ৩৯০ জন নদী দখলদারের ১৮ হাজার ৫৭৯টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। তবে পর্যাপ্ত অর্থায়ন ও সক্ষমতা না থাকার কারণে জেলা প্রশাসন পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রত্যাশিত উচ্ছেদ অভিযান চালাতে পারছে না।

তবে মৃত প্রায় নদীগুলোকে স্বরূপে ফেরাতে ফের সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এতে ৬১ জেলার শতাধিক নদীকে সংস্কার করা হবে। 


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




সব রেকর্ড ভেঙে সর্বোচ্চ দামে সোনা

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

দেশের বাজারে আবারও সোনার দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি। ভালো মানের সোনার দাম ভরিতে এক হাজার ২৮৩ টাকা বাড়ানো হয়েছে। ফ‌লে ২২ ক্যারেটের প্রতি ভ‌রি সোনার দাম দাঁড়াচ্ছে ৮৪ হাজার ৫৬৪ টাকায়, যা ছিল ৮৩ হাজার ২৮১ টাকা।

বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। রবিবার থেকে সোনার এই নতুন দাম কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছে বাজুস। এর আগে কখনো দেশের বাজারে সোনার এতো দাম হয়নি।

নতুন দাম অনুযায়ী, ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ভালো মানের ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ১ হাজার ২৮৩ টাকা বাড়িয়ে ৮৪ হাজার ৫৬৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর আগে, দেশের বাজারে ভালো মানের প্রতি ভরি সোনার সর্বোচ্চ দাম ৮৪ হাজার ৩৩১ টাকা হয়েছিল। সে হিসাবে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে রোববার থেকে সর্বোচ্চ দামে সোনা বেচাকেনা হবে।

এ ছাড়া, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ২২৫ টাকা বাড়িয়ে ৮০ হাজার ৭১৫ টাকা করা হয়েছে। ১৮ ক্যারেটের দাম বেড়েছে ১ হাজার ৫০ টাকা, এখন বিক্রি হবে ৬৯ হাজার ১৬৮ টাকায়। সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৭ টাকা বাড়িয়ে বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৭ হাজার ৩৮৭ টাকা।

তবে রুপার দাম অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। ক্যাটাগরি অনুযায়ী, ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার দাম ১ হাজার ৫১৬ টাকা। ২১ ক্যারেটের রুপার দাম ১ হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের রুপার দাম ১ হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম ৯৩৩ টাকা অপরিবর্তিত আছে।


আরও খবর

লিটারে ১৪ টাকা কমল সয়াবিন তেলের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২