Logo
শিরোনাম

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের শেষ ধাপের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ |
Image

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৫ হাজার সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় ও শেষ ধাপের পরীক্ষার তারিখ পেছানো হয়েছে। ২৭ মে’র পরিবর্তে ৩ জুন হবে এই পরীক্ষা। আজ বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল ২৭মে। একই দিন ৪৪তম বিসিএসের প্রিলি পরীক্ষাও হবে। সে কারণেই প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, প্রথম ধাপের পরীক্ষা আগামীকাল শুক্রবার (২২ এপ্রিল) থেকে শুরু হবে। দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা হবে ২০ মে এবং শেষ ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ জুন। উল্লেখ্য, আবেদনকারীর নিজ নিজ জেলায় সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর



বেলকুচিতে জনপ্রতিনিধিদের উপর হামলার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আক্তার হামিদ কর্তৃক উপজেলার ভাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ভূঁইয়া ও ইউপি সদস্য আব্দুল কাদের তালুকদারের উপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে বেলকুচি প্রেসক্লাবে প্রাঙ্গনে স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি ফোরামের  আয়োজনে এ  সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলনে, উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সরকার ফোরামের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা  জনপ্রতিনিধি হয়ে যদি নিরাপত্তা না থাকে তাহলে আমরা জনগণকে কিভাবে নিরাপত্তা  দেব। তিনি আরো বলেন, সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের নিরাপত্তার জন্য আনসার ও পুলিশ সদস্য দেওয়া হলেও আমাদের নিরাপত্তা কোথায়। জনগণ তাদের ভোট দিয়ে  আমাদের নির্বাচিত করছেন তাদের সেবা করার জন্য। আর সেই সেবা করতে গিয়ে আমাদের যদি সন্ত্রাসীদের হামলার স্বীকার হতে হয় তাহলে আমরা কিভাবে মানুষের সেবা করবো। আর উন্নয়ন কাজ বা করবো কেমন করে।

তাই আমি দেশনেত্রী  প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা নিকট আকুল আবেদন করছি যেন আমাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন। সেই সাথে জনপ্রতিনিধিদের উপরে সন্ত্রাসী হামলা মুল হোতাদের  আইনের আওতায় এনে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করছি। যদি এই জনপ্রতিনিধিদের হত্যার উদ্দেশ্যে হামলার বিচার  দ্রুত না হয় তাহলে স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি ফোরামের  সকল সদস্য আগামী রবিবার থেকে কলম কর্মবিরতি পালন করবো।

সংবাদ সম্মেলনে ভাঙ্গাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ভূইয়া, বড়ধূল ইউপি চেয়ারম্যান আছের উদ্দিন মোল্লা, বেলকুচি সদর ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা সোলাইমান হোসেন, ভাঙ্গাবাড়ি ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের সহ আরো অনেকেই বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, সিরাজগঞ্জেরর  বেলকুচিতে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আক্তার হামিদের বিরুদ্ধে ভাঙ্গাবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল ইসলাম ভূইয়া ও প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের তালুকদারের উপরে হামলার হয়েছে। এ ঘটনায় গত রোববার রাতে  পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আক্তার হামিদসহ তার সহযোগী ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।


আরও খবর



সীতাকুণ্ডে যানজটে অতিষ্ট এলাকাবাসীর মানববন্ধন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

যানজট থেকে রক্ষা পেতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাড়কের সীতাকুণ্ডে কুমিরা ও সোনাইছড়ির আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসীর।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাড়কের সীতাকুণ্ড অংশের বিভিন্নস্থানে সড়কের পাশে গড়ে উঠা একাধিক কন্টেইনার ডিপোর কারণে প্রায় প্রতিদিন তীব্র যানজটে অস্থির হয়ে উঠেছে সাধারণ মানুষ ও মহাসড়ক দিয়ে যাতায়াত করা হাজারো দূর-দূরান্তের যাত্রীরা

মঙ্গলবার (২৮ জুন) বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২ পর্যন্ত মানববন্ধন এর মাধ্যমে প্রতিবাদ জানিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন সংগঠন।

এসময় বক্তব্য দেন-সীতাকুণ্ড উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল্লাহ আল বাকের ভুঁইয়া, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য আ.ম.ম দিলসাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন, আ’লীগ নেতা আব্দুল মতিন, হারুন অর রশিদ, খায়রুল আজম জসিম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ জিলান, মো. ইউছুফসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধন থেকে এলাকাবাসী যানজট নিরসনে ৬টি প্রস্তাবনা সম্বলিত স্মারকলিপি প্রদান করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সীতাকুণ্ড মডেল থানা, বার আউলিয়া হাইওয়ে থানা ও প্রেস ক্লাব বরাবরে।


আরও খবর



১২ বছর পর বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন পিকে-শাকিরা

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

দীর্ঘ একযুগের সম্পর্কের অবসান ঘটেছে। বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন জনপ্রিয় পপ গায়িকা শাকিরা এবং তার সঙ্গী তারকা ফুটবল খেলোয়াড় জেরার্ড পিকে। তাদের দুটি সন্তান রয়েছে। বার্তা সংস্থা এএফপি শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এক যৌথ বিবৃতিতে সদ্য বিচ্ছেদের পথে হাঁটা এই তারকা জুটি জানান, আমরা দুঃখিত যে আমরা আমাদের বিচ্ছেদের বিষয়টি নিশ্চিত করছি। আমাদের সর্বাধিক অগ্রাধিকার, আমাদের সন্তান। তাদের ভালোর জন্য আমরা আমাদের গোপনীয়তাকে সম্মান জানানোর অনুরোধ করছি।

অবশ্য যতটা সোজাসাপ্টা ভাবে তারা বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন, বিষয়টা মোটেও ততটা সহজ নয়।  শোনা যাচ্ছে পিকের পরকীয়াই বিচ্ছেদের পর্দা টেনে দিয়েছে এই যুগলের মাঝে। এমনকি বিচ্ছেদের কারণে শাকিরাকে ‘অ্যাংজাইটি অ্যাটাক’ কারণে হাসপাতালে পর্যন্ত যেতে হয়। অ্যাম্বুলেন্সে উঠার সময়ও নাকি জনপ্রিয় এই তারকা কাঁদছিলেন!

পিকে আর শাকিরার গল্পের শুরুটা ২০১০ সালে। সে বছর বিশ্বকাপ ফুটবলের থিম সং গেয়েছিলেন এই পপ তারকা। বিশ্ব আক্রান্ত হয়েছিল শাকিরা জ্বরে। সেই আঁচ লেগেছিল স্প্যানিয়ার্ড ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকেরও। ১০ বছরের বড় শাকিরার সঙ্গে প্রণয়ে জড়ান তিনি। এরপর একই ছাদের নিচে কেটে গেছে ১২টি বছর। দুই সন্তানও রয়েছে এই দম্পতির। তবে টান কমে যাবে ভেবে বিয়ের পিঁড়িতে না বসলেও বন্ধনটা শেষমেস টুটেই গেল।

সম্প্রতি শাকিরার একটি গানে তাদের বিচ্ছেদের ইঙ্গিত ছিল। শাকিরা গানের নতুন অ্যালবামের কাজ নিয়ে ব্যস্ত। একটি নাচের অনুষ্ঠানের বিচারকও তিনি। পিকে বার্সেলোনার হয়ে খেলছেন ২০০৮ সাল থেকে। তিনি রক্ষণভাগের ফুটবলার হলেও বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় ২৯টি গোল করেছেন।


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২




পথশিশুদের জন্ম নিবন্ধনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

প্রকাশিত:রবিবার ১২ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ |
Image

নানা জটিলতায় দেশে পথশিশুসহ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্মসনদ পাওয়ার সুযোগ হচ্ছে না। কর্তৃপক্ষ সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্ম নিবন্ধনের সুযোগ আছে বললেও বাস্তবে এমন কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই দেশের দুই লাখ পথশিশুকে জন্ম নিবন্ধনের আওতায় আনার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

স্পোর্টস ফর হোপ অ্যান্ড ইনডিপেনডেন্ট সংগঠনের পক্ষে গত সপ্তাহে ব্যারিস্টার তাপস কান্তি বল এ রিট আবেদন দায়ের করেন। রিটে নারী ও শিশু মন্ত্রণালয়ের সচিব, জন্ম নিবন্ধন অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট আবেদন করা হয় বলে রবিবার (১২ জুন) গণমাধ্যমকে জানান রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার তাপস কান্তি বল। হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে শুনানি হতে পারে।

রিটের বিষয়ে আইনজীবী জানান, বাস্তবতা হলো, শিশুর পিতা-মাতার পরিচয় ও ঠিকানা না থাকা, শিশুর ধর্ম নির্ধারণ করতে না পারা, নিবন্ধন নিয়ে শিশুর অজ্ঞতা ও ফি দিতে না পারায় তাদের নিবন্ধন করা হয়ে ওঠে না। আবার নিবন্ধন ফরমে নাম, পিতা-মাতার নাম, স্থায়ী ঠিকানা, বর্তমান ঠিকানার জন্য পৃথক ক্রম থাকলেও পথশিশুদের তথ্যসংবলিত কোনো ক্রম রাখা হয়নি। যারা পথশিশু তাদের অনেকের পরিচয় ও বাসস্থান নেই।


আরও খবর



কুমিল্লা বরুড়ার আলম হত্যা মামলায়

৩ আসামীর যাবজ্জীবন দন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা

হত্যাকান্ডের দীর্ঘ ১৪ বছর পর কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার দক্ষিণ শিলমুড়ির শিয়ামোড়া গ্রামে জমি বিরোধের জের ২০০৮সালের আলম হত্যা মামলায় ৮ আসামীর তিনজনের যাবজ্জীবনসহ ৫ জনকে খালাস দেয় আদালত । সোমবার (২৭ জুন) কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ আদালত অতিরিক্ত-২ এর বিচারক নাছরিন জাহান এ রায় প্রদান করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী আবু কালাম ও আয়েশা ছিদ্দিকা ভূঁইয়া। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন— মামলার ১ নম্বর আসামি ফজলুল হককে যাবজ্জীবন, ৩ নম্বর আসামি আবিদ আলীকে যাবজ্জীবন ও অতিরিক্ত এক বছরের কারাদণ্ড, ৪ নম্বর আসামি আবুল খায়েরকে যাবজ্জীবন ও অতিরিক্ত ৫ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। মামলার বিবরণ থেকে এড আবু কালাম জানান-, ২০০৮ সালের ২০ মার্চ কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার দক্ষিণ শিলমু্ড়ি ইউনিয়নের শিয়ালোড়া গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে মো. আলম ও তার বড় ভাই আলী নেওয়াজকে জায়গা জমির বিরোধে একই গ্রামের ফজলুল হক, আবু তাহের, আবিদ আলী, আবুল খায়ের, মো. জসীম, সোহেল মিয়া, সুমন, জয়নব বিবি ও মো. সুমনসহ কয়েকজন মারধর করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় আলম ও আলীকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হসপিটালে ভর্তি করা হলে আলমের অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসা জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হসপিটালে নেয়া হয়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুই দিন পর ২২ মার্চ সকালবেলা আলম মারা যায়। তারপর ওই দিন সন্ধ্যায় নিহতের মা মাছুমা বেগম বাদী হয়ে বরুড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার বাদী মাছুমা বেগম বলেন, আমি মামলার রায়ে সন্তুষ্ট নই। আমরা সবার ফাঁসি চাই। আমি উচ্চ আদালতে যাব সবার ফাঁসির রায়ের জন্য।


আরও খবর