Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে কোকোর মৃত্যু

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

বিএনপি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপির চলমান আন্দোলন সফল হবে জানিয়ে তিনি বলেন, আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারের পতন ঘটানো হবে।

খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুবার্ষিকীতে, বনানীতে তার কবরে শ্রদ্ধা জানিয়ে এসব কথা বলেন ফখরুল। এ সময় বিশেষ দোয়ায় অংশ নেন দলের নেতারা। ফখরুল বলেন, কোকো কোন রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না, তারপরও প্রতিহিংসার শিকার হয়েছেন। দেশের মানুষ গণতন্ত্র উদ্ধারে আন্দোলন করে যাচ্ছে। আন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা হবে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই নেতা।  


আরও খবর



টানা ৭ দিন বায়ু দূষণের শীর্ষে ঢাকা

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

টানা সাতদিন বায়ু দূষণের শীর্ষে রাজধানী ঢাকা। যানবাহনের কালো ধোঁয়া ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ধুলায় ঢাকা পড়ছে রাজধানীর আকাশ। গাড়ির কালো ধোঁয়া নিয়ন্ত্রণে কার্যকর উদ্যোগ নেই। প্রকল্পে দূষণ কমানোর জন্য অর্থ বরাদ্দ থাকলেও নেই নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা। এনিয়ে দুঃখ প্রকাশ করে বন ও পরিবেশমন্ত্রী আশ্বস্ত করলেন যে, দূষণ নিয়ন্ত্রণে কাজ চলছে।

কুয়াশাচ্ছন্ন রাজধানীর আকাশ। তবে আসলে এটি শীতের কুয়াশা নয়। বরং গাড়ির কালো ধোয়া ও ধুলার কারনেই আকাশে তৈরী হয়েছে কুয়াসার মতো আবরন।

কালো ধোয়া ছড়ানো গাড়ির চলাচলে আইনে নিষিদ্ধ হয়েছে অনেক আগেই। কিন্তু এখনও রাজধানীর গণপরিহনে কালো ধোয়ার দাপট। প্রতিদিন আইন শৃংখলা রক্ষাকারি বাহিনীর সামনেই রাস্তায় চলছে বায়ু দূষণকারি এসব পরিবহন।

বিএসটিআই মান অনুযায়ী দেশের গণপরিবহণ ও ট্রাকে ব্যবহৃত ডিজেলে সালফারের পরিমাণ থাকার কথা ৫০ পিপিএম। কিন্তু বাস্তবে তা দু’শ থেকে তিন’শ পিপিএম। বায়ু দূষণের অন্যতম উপাদান এই সালফার।

রাজধানী জুড়ে চলছে নানা রকম উন্নয়ন কর্মকাণ্ড। দূষণ রোধে প্রতিটি প্রকল্পেই আছে অর্থ বরাদ্দ। কিন্তু সেই অর্থ প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা কতোটা ব্যয় করেন; তা নিয়েও নেই কোন নজরদারি। কিন্তু পরিণতিটা ভোগ করতে হচ্ছে নগরবাসিবে। বাতাসে ভাসা দূষিত সুক্ষ বা অতি সুক্ষ কণা রক্তের সাথে মিশে পৌছে যাচ্ছে মানুষের মস্তিকে। ফলাফল শ্বাস কষ্ট, উচ্চ রক্ত চাপ, কিডনী, বা হৃদরোগ।

আন্তর্জাতিক জরিপে টানা গেলো সাতদিন ধরে দেশের বায়ুর বিশ্বের সবচে দূষিত বলে উঠে আসছে। যা নিয়ে দু:খ প্রকাশ করে বন ও পরিবেশমন্ত্রী বলেছেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে নোটিশ দেয়া হয়েছে কিন্তু কাজ হচ্ছে না। এই অবস্থা থেকে বের হয়ে আসাকে কঠিন চ্যালেঞ্জ বলে স্বীকার করলেন মন্ত্রী। 


আরও খবর



মানবতার আরেক নাম, ডা. ফেরদৌস খন্দকার

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

রোকসানা মনোয়ার :নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. ফেরদৌস খন্দকার।নিউ ইয়র্কে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলে অনেক চিকিৎসক চেম্বার বন্ধ রাখেন। কিন্তু সেখানে ব্যতিক্রম ছিলেন ডা. ফেরদৌস। দুঃসময়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন ডা. ফেরদৌস। চেম্বার খোলা রেখে করোনা আক্রান্ত মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে গেছেন। মনস্থির করলেন নিজের মাতৃভূমিতে এসে নিজেকে বিলিয়ে দিবেন দেশের মানুষের স্বার্থে।

শেখ রাসেল ফাউন্ডেশন (ইউএসএ) ইনক'র সভাপতি মানবিক মানুষ ডা. ফেরদৌস খন্দকার , তার মুল লক্ষ্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ সন্তান শেখ রাসেলকে বিশ্ব বাসির কাছে পরিচিত করে দেওয়া এবং স্কুল কলেজ এর ছাত্র, ছাত্রীদের মাঝে তার মূল্যায়ন গড়ে তোলা তিনি বলেন দেশ আজ দুই ভাগে বিভক্ত- একটি পক্ষ স্বাধীনতার পক্ষে আর একটি স্বাধীনতা বিরোধী, তাই এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে দেশ, জন্মভূমি এবং স্বাধীনতার পক্ষে থাকবে নাকি ভুল সিদ্ধান্ত নিবে। 

শেখ রাসেল ফাউন্ডেশন ইউএসএ শাখার নামে তিনি দেশে বিদেশে নানা রকম মানব কল্যাণ মূলক কাজ করে থাকেন ডাঃ ফেরদৌস খন্দকার ।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের মধ্যে একজন সফল চিকিৎসক হিসেবে পরিচিত ডা. ফেরদৌস খন্দকার। জন্মগ্রহণ করেছেন কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বারে। বাবা ফয়েজ আহমেদ খন্দকার বিমান বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা। মা আনোয়ারা বেগম খন্দকার গৃহিনী। তিন ভাইবোনের মধ্যে ডা. ফেরদৌস বড়।
ডাক্তার ফেরদৌসের মায়ের পরিবার দেবিদ্বারের পাশের মুরাদনগরের কেষ্টপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার নানা সামরিক বাহিনীতে অ্যাকাউন্টস ডিপার্টমেন্টে কাজ করতেন। সহজ-সরল মানুষ। উনার ছয় ছেলে, এক মেয়ে। তার প্রথম ছেলে খুরশিদ আনোয়ার সাহেব, উনি একজন মুক্তিযোদ্ধা। ওই সময় সেই এলাকার মুক্তিযোদ্ধার কমান্ডার ছিলেন তিনি। পরে ফার্মাসিস্ট হয়ে বিদেশে চলে গিয়েছেন। দ্বিতীয় জনও মুক্তিযোদ্ধা, অ্যাকাউন্টেন্ট।
ছোটবেলা থেকেই স্বেচ্ছাসেবী কাজ করতে পছন্দ করতেন ডাক্তার ফেরদৌস। গ্রামে এবং নিজের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নানা স্বেচ্ছাসেবী কাজের সাথে জড়িত ছিলেন এই মেডিসিন বিশেষজ্ঞ।  তিনি ১৯৯৮ সালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে ইন্টার্নিশিপসহ মেডিসিনে স্নাতক সম্পন্ন করেন। তারপর পরিবার সহ পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানকার নিউইয়র্ক মেডিকেল কলেজ থেকে প্রশিক্ষণসহ চিকিৎসাশাস্ত্রে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। ধীরে ধীরে বাংলাদেশিদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন ডাক্তার ফেরদৌস। পাশাপাশি জীবন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েন এই মেডিসিন বিশেষজ্ঞ। 

 ডাক্তার ফেরদৌস কোন কাজকেই ছোট মনে করেননি। একসময় আমেরিকায় ট্যাক্সি ক্যাব চালিয়েছেন।   এমনও অনেক দিন গেছে টানা ১৯ ঘন্টা তিনি ট্যাক্সি চালিয়েছেন।  দশজন সাধারণ অভিবাসীর মতই তিনি ঘুরেছিলেন এই শহরে ভাগ্যের অন্বষনে। যুক্তরাষ্ট্রে ডাক্তারী পেশার জন্য প্রাকটিস সনদ পরিক্ষার খরচ যুগিয়েছিলেন এবং শেষ দিকে এসে যখন এই ডাক্তারী অফিসটি ভাড়া নিয়েছিলেন, সেটার ভাড়া আর কর্মচারীদের বেতন তুলে চলতেন।


লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য নিজের পরিশ্রম আর অধ্যবসায়কে বেছে নিয়েছেন ডাক্তার ফেরদৌস। নিজের পরিশ্রম আর অধ্যবসায়ের মাধ্যমে ডাক্তার ফেরদৌস হয়ে উঠলেন সফলদের একজন। 
তিনি জ্যাকসন হাইটসের ব্যস্ততম ৩৭ স্ট্রিটে ওয়েস্টার্ন কেয়ার মেডিকেল কেয়ার পিসি নামে একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন সমমনাদের নিয়ে। সেখানে দেশি বিদেশি ৭ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার বসেন। নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের মূর্তমান বিশ্বস্ততার প্রতিক হয়ে উঠলেন ডাক্তার ফেরদৌস।

 

একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ হিসেবে বাংলাদেশী, ভারতীয় এবং পাকিস্থানী নাগরিকদের মধ্যে যথেষ্ট খ্যাতি কুড়িয়েছেন । নিউইয়র্কের অলাভজনক সংস্থা দি অপটিমিস্টের ভাইস চেয়ারম্যান তিনি। রোগিদের আস্থা আর তাদের প্রতি সেবাকে আরো বিস্তৃত করতে নতুন একটি মেডিকেল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেছেন ফেরদৌস খন্দকার। জ্যাকসান হাইটস এর ৭০-৩৮ ব্রডওয়েতে এই চিকিৎসা কেন্দ্রটি অবস্থিত। মানুষজন বিক্ষিপ্তভাবে এদিক সেদিক না গিয়ে যাতে এক ছাদের নিছে সেবা পায় সেজন্যই তার এই প্রচেষ্টা। 

 

ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার চেম্বারে নিয়মিত রোগী দেখার পাশাপাশি, ফেসবুক এবং ইউটিউবে নিয়মিত স্বাস্থ্য সম্পর্কিত নানা পরামর্শ দিয়ে থাকেন। স্যোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে মানুষকে রোগ প্রতিরোধ সম্পর্কে সচেতন করাই তার প্রধান লক্ষ্য। তিনি চান মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য বিষয়ক জ্ঞানের পরিধি বিস্তার হোক।
বিদেশে থাকলেও স্বদেশের প্রতি তাঁর দায়বদ্ধতার কথা অকপটে স্বীকার করলেন। মেডিকেলের শিক্ষার্থী হিসেবে সেনাবাহিনীর বৃত্তি পেয়েছিলেন। অর্থ-বিত্তে সাফল্যে পৌঁছার শুরুতেই তিনি সেই বৃত্তি ফেরত দিয়েছেন। নানাভাবে তাঁর দায় পরিশোধের উদ্যোগের কথা জানালেন। নিজের অর্থ ব্যয়ে গ্রামে হাসপাতাল ও বৃদ্ধাশ্রম করছেন। এসব কাজ করতে গিয়ে নানা বাধাবিপত্তির মোকাবিলা করেছেন।

বছরে অন্তত চারবার দেশে আসেন ডা. ফেরদৌস খন্দকার। নিজের এলাকার জন্য, দেশের মানুষের জন্য কিছু করার তাড়না থেকেই আসেন তিনি। অর্থনৈতিকভাবে বেশ সফল হলেও ভ্রমণের সময় বাড়তি ব্যয় করেন না। বেঁচে যাওয়া সেই অর্থ বরং মানুষের কল্যাণে ব্যয় করেন। 


আরও খবর



নির্বাচনী দ্বন্দ্বে কুমিল্লায় আ'লীগ সভাপতির গাড়ি ভাঙচুর !

প্রকাশিত:Sunday ২৯ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো :

ইউপি নির্বাচনী দ্বন্দ্বে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রহুল আ‌মি‌নের গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার দাউদকান্দি উপজেলার ইউনিয়নের সম্বুরদিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।     

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্থানীয় ব্যক্তি জানান, 'গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে দাউদকান্দির বর্তমান চেয়ারম্যান মহিন উদ্দিনের সমর্থক ও উত্তর জেলা-উপজেলা নেতাকর্মীদের মাঝে দ্বন্দ্ব তৈরী। অভিযোগ আছে টাকা নিয়েও নির্বাচনে মহিন উদ্দিনের পক্ষে কাজ করেননি আওয়ামী লীগ নেতারা। ফলে দুই পক্ষের মধ্যে তৈরী হয় ক্ষোভ। শনিবার দাউদকান্দি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াতে যান কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রুহুলামিন। বিকেলে সেখান থেকে ফেরার পথে বিক্ষুব্ধ ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকরা হামলা চালান জেলা সভাপতির গাড়িতে। 

এসময় গাড়িতে ছিলেন, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. রুহুল আ‌মিন, দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান হাবিব লিল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিঃ মহিউদ্দিন সিকদার, জেলা সভাপতির ব্যক্তিগত সহকারী ও গাড়ির চালক। ঘটনায় জেলা সভাপতির গাড়ি ভাঙচুর করা হলেও, কেউ আহত হননি। 

দাউদকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিঃ মহিউদ্দিন সরকার জানান, বিয়ের দাওয়াত থেকে আসার পথে শুণি ইউপি চেয়ারম্যান মহিন উদ্দিনের সমর্থকরা আমাদের উপর হামলা করবে। এসময় আমরা দ্রুত এলাকা ত্যাগ করতে চেস্টা করি। কিন্তু তারা আমাদের গাড়িকে লক্ষ্য করে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। জেলা সভাপতির গাড়িটি ভেঙে ফেলে ও জেলা সভাপতিসহ আমাদের আঘাতের চেস্টা করে। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় প্রাণে বেঁচে যায় নেতাকর্মীরা। 

অভিযোগের বিষয়ের দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহিন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতাদের সাথে কিছু বিষয় নিয়ে ক্ষোভ তৈরী হয়, এটা সঠিক। তবে শনিবারের ঘটনার বিষয়ে আমি কিছুই জানতাম না, এলাকায়ও ছিলাম না। আমি শুনেছি ঘটনার এক ঘন্টা পর। এই ঘটনার জন্য আমি অনুতপ্ত।

হামলার স্বীকার কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রুহুল আমিন জানান, দাউদকান্দির দৌলতপুর ইউনিয়নে একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে গেলে উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বসির উল্লাহ মিয়াজী কে খোঁজার জন্য স্থানীয় কয়েকজন ধাওয়া করে। না বুঝে আমার গাড়ী ও আমার সাথে থাকা লোকজনের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। মনোনয়ন বাণিজ্যের বিষয়ে জানতে চাইলে উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের এই নেতা অভিযোগ অস্বীকার করেন। 

কেন হামলা করা হলো গাড়িতে?  এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,'ইউপি নির্বাচন নিয়ে হয়তো থানা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সাথে ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকদের দ্বন্দ্ব ছিল। বিষয়টা আমি পরে জেনেছি৷ সেই ক্ষোভ থেকেই ওদের খোঁজতে গিয়ে আমার গাড়িতে হামলা করা হয়েছে। 

দাউদকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলমগীর ভূইয়াঁ জানান, ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামীদের গ্রেপ্তারে পু‌লি‌শের অভিযান চলমান র‌য়ে‌ছে।                      এ‌দি‌কে দাউদকা‌ন্দি উপ‌জেলা আওয়ামীলীলী‌গের সভাপ‌তি ও সাধারণ সম্পাদক এ ঘটনায় প্রেসবার্তায় তীব্র নিন্দা জা‌নি‌য়ে দুস্কৃ‌তিকারী‌দের গ্রেপ্তা‌রের দাবী জানান।


আরও খবর



স্মার্ট বাংলাদেশ-৪র্থ শিল্প বিপ্লব ..প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

ডিজিটাল বাংলাদেশের পর ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকালে, গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে একযোগে ১১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করে একথা বলেন তিনি।

 এসময় তিনি ১৪ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে মানুষকে মনে রাখার অনুরোধ জানান। সেইসঙ্গে, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্যও সবাইকে প্রস্তুত হতে বলেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করা প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে রেলপথে কয়েকটি রুটে ট্রেন যোগাযোগ চালু, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের মোবাইল অ্যাপস ‘পল্লী লেনদেনের’ কার্যক্রম, তিতাস নদীর ওপর ৫৭৫ মিটার দীর্ঘ পিসি গার্ডার সেতু এবং মানিকগঞ্জ-সিঙ্গাইরে কালীগঙ্গা নদীর ওপর ৪৫৬ মিটার পিসি গার্ডার সেতু। এছাড়া, বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রমসহ চট্টগ্রাম ও খুলনা পানি শোধানাগার কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।


আরও খবর



বেনাপোলে সিএন্ডএফ এজেন্টদের কর্মবিরতি

প্রকাশিত:Monday ৩০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

লাইসেন্সিং বিধিমালা সংশোধনীসহ বিভিন্ন দাবি না মানায় বেনাপোল কাস্টমস হাউস ও শুল্ক স্টেশনে সকাল থেকে দুই দিনের কর্মবিরতি শুরু হয়েছে। ফলে, বন্ধ আছে আমদানি রপ্তানি বাণিজ্য।

বেনাপোল কাস্টমস সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন জানান, কাস্টমস এজেন্ট লাইসেন্সিং বিধিমালা-২০১৬ জারির পর ফেডারেশনের পক্ষ থেকে বারবার প্রয়োজনীয় সংশোধনের জন্য অনুরোধ জানানো হলেও তা আমলে নেয়া হয়নি। এরপর কাস্টমস এজেন্ট লাইসেন্সিং বিধিমালা-২০২০ প্রণয়নের সময়েও ফেডারেশনের সঙ্গে আলোচনা না করেই বিধি জারি করা হয়েছিল। এছাড়া ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবনায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য লাইসেন্সিং রুলের কয়েকটি বিধি ও উপবিধি সংশোধনীর প্রস্তাব দেয়া হলেও বাজেট প্রস্তাবনায় কোনো সংশোধনী আনা হয়নি। আর এ কারনেই আজ ও আগামীকাল কর্মবিরতি পালন করা হবে।  


আরও খবর