Logo
শিরোনাম
রাজধানীর সেতু ভবনে আগুন কমপ্লিট শাটডাউন : ঢাকাসহ সারা দেশে বিজিবি মোতায়েন জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ইট বোঝায় ট্রাক খাদে কুষ্টিয়ায় আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষ -কয়েকটি মোটর সাইকেলে আগুন পুঠিয়ায় আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা লালমনিরহাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে তিস্তা সমাবেশ বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা হয়েছে ১৮ কোটি টাকার সালফিউরিক এসিড কুমারখালীতে মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, আহত-২ শরণখোলায় নার্সের চিকিৎসার অবহেলায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ শেরপুরে কোটাবিরোধী শিক্ষার্থী-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, সাংবাদিকসহ আহত-২০

রংমিস্ত্রির হাতে আলাদীনের চেরাগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ অক্টোবর ২০23 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

কক্সবাজারের উখিয়ার রুমখাপালং মাতব্বর পাড়া এলাকার একজন সাধারণ পরিবারের সন্তান ছিলেন জাহাঙ্গীর আলম। তিনি সৌদি আরবে থাকাকালীন পেশায় ছিলেন রংমিস্ত্রি। তার আগে জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনির এক পাশে বসে ফ্লাক্সিলোডের ব্যবসাও করতেন। ২০১৮ সালে সৌদি থেকে দেশে ফিরে বিয়ে করেন এক চেয়ারম্যানের মেয়েকে।

২০১৯ সালে ২৫ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। এরপরই ভাগ্যের চাকা ঘুরতে থাকে জাহাঙ্গীর আলমের। নির্বাচনি ইশতেহার মাত্র ১২ লাখ টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ দেখানো হলেও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তিনি এখন ২৬৫ কোটি টাকার সম্পদের মালিক।

সে স্থানে ৩ কোটি টাকা খরচ করে একটি বহুতল ভবন বানিয়েছেন। ওই ভবনে গত তিন বছর ধরে জাহাঙ্গীর নিজে বসবাস করে আসছেন।

উখিয়া উপজেলার ব্যয়বহুল কোটবাজার এলাকায় রত্নাপালং মৌজায় ৩৭৬৮ খতিয়ানে ৬৫ শতক জমি ক্রয় করেন যার বর্তমান বাজারমূল্য ৫ কোটি টাকার ওপরে (খতিয়ান সংযুক্ত)।

ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কোটবাজার স্টেশনে একই মৌজায় ৫৩২৩ খতিয়ানে ১৬ শতক জমি ক্রয় করে একটি বহুতল অত্যাধুনিক ভবন তৈরি করেছেন জমিসহ যার বাজারমূল্য ১০ কোটি টাকা। এ ছাড়াও উখিয়ার কোটবাজার স্টেশনে রত্নাপালং মৌজায় প্রণব রায় চৌধুরীর কাছ থেকে তিনি একসঙ্গে ২ একরের বেশি জমি ক্রয় করেন যার বর্তমান বাজারমূল্য ১৫ কোটি টাকারও বেশি।

২০১৯ সালে কক্সবাজার শহরের কলাতলির সৈকতের লাগোয়া ঝিলংজা মৌজায় যৌথভাবে তিনি একটি জমির মালিক যার বর্তমান বাজারমূল্য ৮ কোটি টাকা।

অভিযোগে বলা হয়েছে, উখিয়া উপজেলার ইনানী মৌজায় মেরিন ড্রাইভ রোডের হ্যাচারি জোন, ইনানী ও মনখালী এলাকায় ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর, তার শ্যালক শাহা আমিন ও বন্ধু জসিম উদ্দিনের নামে প্রায় ২০ কোটি টাকা মূল্যের জমি রয়েছে। এ ছাড়াও চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকায় নিজ নামে, পিতার নামে ও ভাইয়ের নামে ৪০ কোটি টাকা মূল্যের চারটি ফ্ল্যাট রয়েছে।

গত কয়েক বছরে ভাইস চেয়ারম্যান তার স্বজনদের নামে কক্সবাজারের কলাতলিতে ২টি হোটেল যার আনুমানিক মূল্য ৬০ কোটি টাকা। পাশাপাশি কক্সবাজার থেকে উখিয়া রোডে পালং স্পেশাল সার্ভিসের সভাপতিও তিনি। তার ১০টি বাস যার বাজারমূল্য ২ কোটি টাকা। এ ছাড়াও তার চারটি ট্রাক আছে যার বাজার মূল্য ৫০ লাখ টাকা।

অভিযোগকারী অভিযোগ করেন, উখিয়ার রত্নাপালং, রুমখাপালং ও জালিয়াপালং মৌজা, রামুর উপজেলার খুনিয়াপালং, হিমছড়ি, পেঁচারদ্বীপ মৌজা এবং নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় নিজের নামে, স্ত্রীর নামে এবং শ্যালকের নামে আরও প্রায় ১০০ কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে। যার সবকিছুই অবৈধ উপায়ের মাধ্যমে গত সাড়ে চার বছরে তিনি অর্জন করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর ও তার চাচার যৌথ মালিকানাধীন কোটবাজার স্টেশনে রয়েছে একটি গ্যাস পাম্প যার বাজারমূল্য ২ কোটি টাকা। সৌদি প্রবাসী একজন রংমিস্ত্রি ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর ১২ লাখ টাকার সম্পদ থেকে এখন প্রায় আড়াইশ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক বনে যাওয়ায় হতভম্ব খোদ এলাকাবাসী। অভিযোগে আরও বলা হয়, এসব স্থাবর সম্পদ ছাড়াও বিভিন্ন ব্যাংকে নিজের নামে, স্ত্রী ও দুই শ্যালকের নামে অঢেল অর্থ জমা আছে।

কক্সবাজারের সদর, রামু ও উখিয়া সাব রেজিস্ট্রার অফিসের পাশাপাশি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায়ও তার অবৈধ সম্পদের তথ্য পাওয়া যাবে বলে তিনি অভিযোগে উল্লেখ করে

তবে অভিযুক্ত ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম সময়ের আলোকে বলেন, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। আমার পরিবারের মধ্যে ১৭ জন চেয়ারম্যান রয়েছে। চাচা সরকারের সাবেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ উঠেছে তার সবই মিথ্যা। ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর সাড়ে চার হাজার টাকার সম্পদও আমি বানাইনি। তবে বিদেশে লোক পাঠানোর কথা স্বীকার করেন তিনি। কিন্তু রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরি করে দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি জানান, তার ও তার ভাইয়ের নামে যে সম্পদ রয়েছে তার সবই গড়েছেন বিদেশ থাকাকালীন।

নির্বাচনি ইশতেহারে ১২ লাখ টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের তথ্য উল্লেখ করার কথা বলা হলে তিনি বলেন, এসব বিষয় নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে।


আরও খবর



সাপাহারে কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও কৃষি প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ |

Image


উত্তম কুমার সরকার সাপাহার (নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ নওগাঁর সাপাহারে কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ও কুষি প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় খাদ্যমন্ত্রী বাবু সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি।

রবিবার বেলা ১১টার দিকে সাপাহার উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর কর্তৃক আয়োজিত কৃষি প্রযুক্তি মেলার শুভ উদ্বোধন শেষে কৃষি প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় খাদ্যমন্ত্রী বাবু সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি । অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহজাহান হোসেন, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার শাপলা খাতুন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নঈমুদ্দীন , মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাইমা খাতুন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রেজা সারোয়ার প্রমুখ। 

এর পর প্রধান অতিথি দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও বাইসাইকেল প্রদান করেন। বেলা ২টা ৩০মিনিটে উপজেলা হাসপাতাল ব্যাবস্থাপনা কমিটির সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান এবং বিকেল সাড়ে ৩টায় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল খেলার শুভ উদ্বোধন ঘোভনা করেন।

আরও খবর



নওগাঁয় বিয়ের আগের দিন সড়কেই ঝরলো এক যুবকের প্রাণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২০ জুলাই ২০24 |

Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, সিনিয়র রিপোর্টার :

বিয়ে করার জন্য মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফেরার পথে সড়কেই ঝরলো জসিম উদ্দিন (২৩) নামে এক এনজিও কর্মীর প্রাণ।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার খাজুর ইউপির দেবীপুর মোড়  নামক স্থানে দুটি মোটরসাইকেল এর মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটলে এদূর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত জসিম উদ্দীন নওগাঁর পাশ্ববর্তী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার বেগম-নগর গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে ও প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির মহাদেবপুর উপজেলার মহিষবাথান শাখার প্রশিক্ষণার্থী জুনিয়র অফিসার ছিলেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন জানান, নিহত জসিম উদ্দীনের আগামীকাল শুক্রবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিলো। তিনি বিবাহ করার জন্যই অফিস ছুটি নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে  নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। ফেরার পথে দেবীপুর মোড় নামক স্থানে পৌঁছালে এসময় গ্রামের ভেতর থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেলের সাথে তার মোটরসাইকেল (দুটি মোটরসাইকেল) সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। জসিম উদ্দিন এর মৃত্যুর খবর তার গ্রামে পৌছার পর থেকে এলাকা জুড়ে লোকজনের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছাঁয়া। দূর্ঘটনার পর পরই নিহতের অফিসের সহকর্মী ও স্বজনরা দূর্ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ বাড়িতে যায়।


আরও খবর



কোটা বিরোধী আন্দোলন না করার প্রচারণায় ফুলবাড়ী উপজেলা প্রসাশন

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ |

Image
ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) সংবাদ দাতা::



সারাদেশের চলমান কোটা বিরোধী আন্দোলনে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়িতে,সাধারণ ছাত্র,ছাত্রী সহ অভিভাবকরা যাতে আন্দোলনের নামে গুজবে কান না দেয় বা ভিন্ন ভাবে প্রভাবিত হতে না পারে তারেই লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের জনসচেতনতা মূলক প্রচার প্রচারণা।

বুধবার ১৭ (জুলাই) ফুলবাড়ী উপজেলা প্রসাশন সকালে কাশিপুর ইউনিয়নের কলেজ মোড় থেকে শুরু করে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে গিয়ে কোটা বিরোধী আন্দোলনের নামে কোন প্রকার বিশৃঙ্খলা, মানববন্ধন সমাবেশ না করার জন্য ছাত্র ছাত্রী সহ অভিভাবকদের অনুরোধ জানিয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহনুমা তারান্নুম বলেন,যে মায়ের কোল খালি হয়,সে মায়ে বোঝে তার কষ্ট।সে কথাটা বোঝেন, আমরা কেউ বুঝিনা। আমরা চাই আপনাদের কোন সন্তান যাতে কোন পক্ষের কথায় কষ্ট পাক, আহত হোক অথবা মৃত্যু বরণ করুক। এসময় তিনি ফুলবাড়ির সন্তানদের সুস্থ সুন্দর রাখতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

এসময় কোটা বিরোধী আন্দোলনে না জড়ানোর জন্য ফুলবাড়ির সকল ও ছাত্র, ছাত্রী সহ অভিভাবকদের অনুরোধ জানান,থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নত্তয়াবুর রহমান। তিনি আরও জানান,প্রসাশনের নির্দেশ অমান্য করে কোন প্রকার সভা সমাবেশ বিশৃঙ্খলা করলে আপনাদের কে এর দায় দায়িত্ব নিতে হবে। যে করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও খবর



ঝড়ে লণ্ডভণ্ড টেক্সাস, বাতিল ১৩০০ ফ্লাইট

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০২৪ |

Image

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে প্রবল শক্তি নিয়ে আঘাত হেনেছে অতি বিপজ্জনক শক্তিশালী সামুদ্রিক ঝড় হারিকেন বেরিল। এতে করে সেখানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ঘটেছে প্রাণহানির ঘটনাও। এছাড়া বেরিলের তাণ্ডবে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছেন ২৭ লক্ষাধিক মানুষ। হিউস্টনের বৃহত্তম বিমানবন্দর থেকে বাতিল করা হয়েছে ১৩০০ টিরও বেশি ফ্লাইট। এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় বেরিল দক্ষিণ-পূর্ব টেক্সাসে আঘাত হেনেছে। প্রচণ্ড বৃষ্টি এবং প্রবল বাতাসের ঝোড়ো হাওয়া নিয়ে আঘাত হানা এই ঝড়ে ২৭ লাখেরও বেশি মানুষের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ঝড়ে প্রাণ হারিয়েছন কমপক্ষে দুইজন।

বিবিসি বলছে, স্থানীয় সময় সোমবার সকালে যখন বেরিল প্রথম টেক্সাসে আঘাত হানে, তখন এটি একটি ক্যাটাগরি ওয়ান হারিকেন হিসাবে সেখানে আছড়ে পড়েছিল। কিন্তু তারপর থেকে ধীরে ধীরে শক্তি কমে এটি গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়ে পরিণত হয়েছে।

কর্মকর্তারা ধ্বংসাত্মক বাতাস, ১৫ ইঞ্চি (৩৮ সেমি) পর্যন্ত বৃষ্টি এবং জীবনের জন্য হুমকি সৃষ্টিকারী ঝড়ের বিষয়ে সতর্ক করেছেন। এছাড়া হিউস্টনের বৃহত্তম বিমানবন্দরে ১৩০০টিরও বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

অঙ্গরাজ্যটির গভর্নরের কার্যালয় বাসিন্দাদের এই ঝড়কে অবমূল্যায়ন না করার জন্য বারবারই অনুরোধ করেছে। কয়েক দিন আগে এই হ্যারিকেন ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে আঘাত হানে এবং এতে কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছিল।

টেক্সাসে সোমবার ৫৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তি মারা গেছেন। মূলত বাতাসের ধাক্কায় বিদ্যুতের লাইন ভেঙে পড়ায় এবং হ্যারিস কাউন্টিতে তার বাড়িতে গাছে ভেঙে পড়ে প্রাণ হারান তিনি। গাছ ভেঙে বাড়ির ওপরে পড়ার ফলে তার ছাদ ধসে পড়েছিল।

একই কাউন্টিতে হিউস্টনের কিছু অংশও রয়েছে এবং সেখানে ৭৪ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার বাড়ির ছাদে গাছ ভেঙে পড়ার পরে মারা গেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। ওই বৃদ্ধার নাতনি পুলিশকে পরে খবর দেন।

সোমবারের এই ঝড়ের পর হিউস্টনের শহরতলিতে পুলিশ ইতোমধ্যেই উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা শুরু করেছে। মার্কিন পূর্বাভাস প্রদানকারী সংস্থা অ্যাকুওয়েদারের মতে, জুলাই মাসে টেক্সাসের এই ধরনের হারিকেনের আঘাত বেশ কিছুটা বিরল।

মূলত হিউস্টন একটি নিচু উপকূলীয় শহর এবং এটি বরাবরই বন্যার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। দুর্যোগের সময় হিউস্টন এলাকায় বাতাসের একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ৭৫ মাইল বা ১২০ কিলোমটারে পৌঁছেছিল এবং ঝোড়ো বাতাসের গতিসীমা ঘণ্টায় ৮৭ মাইল বা ১৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত পৌঁছেছিল বলে জানানো হয়েছে।

এছাড়া ঝড়ের সময় মুষলধারে বৃষ্টিপাতের কারণে আকস্মিক বন্যাও দেখা দিয়েছে। মূলত যে সমস্ত এলাকায় মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ব্যাপক বৃষ্টি হয়েছে, সেসব এলাকা বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে।

অবশ্য ঝড়টি এখন শক্তি হারাবে বলে আশা করা হচ্ছে এবং ধীরে ধীরে এটি উত্তর-উত্তর-পূর্ব দিকে সরে যাচ্ছে। তবে বৃষ্টিপাতের জেরে আকস্মিক বন্যার পাশাপাশি ভারী বর্ষণের ঝুঁকি এখনও রয়ে গেছে।

পাওয়ারআউটেজ.ইউএস-এর তথ্য মতে, সোমবার বিকেল পর্যন্ত টেক্সাসের ২৭ লাখেরও বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎবিহীন রয়েছেন। এছাড়া ফ্লাইটঅ্যাওয়ার.কম-এর তথ্য অনুসারে, হিউস্টনের বৃহত্তম বিমানবন্দর বুশ ইন্টারকন্টিনেন্টাল বিমানবন্দরে ১ হাজার ৯৭টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

ঝড়টি হিউস্টন অতিক্রম করার সময় লুইসিয়ানার কয়েকটি কাউন্টিসহ ঝড়ের গতিপথে থাকা টেক্সাসের আরও কয়েক ডজন কাউন্টিতে টর্নেডো সতর্কতাও জারি করা হয়েছিল।


আরও খবর



গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা: খালেদাসহ ১৩ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন পেছাল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ |

Image

বিডি টুডেস রিপোর্ট:


গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ১৩ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য নতুন দিন ধার্য করেছেন আদালত।


 আগামী ১০ জুলাই নতুন এদিন ধার্য করা হয়েছে।


মঙ্গলবার (২৫ জুন) কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে অবস্থিত ঢাকার ৩ নম্বর বিশেষ আদালতের বিচারক আলী হোসেনের আদালতে মামলাটির অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। 


এদিন খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন তার আইনজীবীরা। তবে শুনানি শেষ না হওয়ায় আগামী ১০ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন বিচারক।


খালেদা জিয়ার আইনজীবী হান্নান ভূঁইয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী চার দলীয় জোট সরকারের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা করেন। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেপ্তার করা হয়।


ওই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি জরুরি ক্ষমতা আইনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।


মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।


মামলার ২৪ আসামির মধ্যে ১১ জনই ইতোমধ্যে মারা গেছেন। মামলার জীবিত আসামিরা হলেন- সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, প্রয়াত মন্ত্রী কর্নেল (অব.) আকবর হোসেনের স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন ও এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ, গ্লোবাল অ্যাগ্রোট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, গ্যাটকোর পরিচালক সৈয়দ তানভির আহমেদ ও সৈয়দ গালিব আহমেদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান এ এস এম শাহাদত হোসেন, বন্দরের সাবেক পরিচালক (পরিবহন) এ এম সানোয়ার হোসেন ও বন্দরের সাবেক সদস্য লুৎফুল কবীর।



আরও খবর