Logo
শিরোনাম

রোজায় পানিশূন্যতা মুক্ত থাকার ৭ উপায়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৭১জন দেখেছেন
Image

রোজায় দীর্ঘ সময় পানাহার থেকে বিরত থাকতে হয়। ফলে এমনিতেই মানুষ পানিশূণ্যতাসহ নানা শারীরিক জটিলতায় আক্রান্ত হতে পারেন। তার ওপর এ বছর চৈত্র মাসের দীর্ঘ ও উত্তপ্ত দিনের বেলা রোজা রাখতে গিয়ে পনিশূন্যতায় ভোগার আশঙ্কা বেশি থাকবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের কনসালটেন্ট সাজ্জাদ হোসেন বলছেন, পানিশূন্যতার কারণে হার্ট রেট কিংবা প্রেশার কমে গুরুতর বিপত্তি হতে পারে।

‘যারা রোজা পালন করেন তাদের রোজা পালনের সাথে সাথে পানিশূন্যতা যেন কোনো ভাবে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশেষ করে বয়স্কদের। নিয়মিতো যথেষ্ট পানি পান করলে তারা এ সমস্যা থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন, বলছিলেন তিনি।

ঢাকার বেসরকারি ফরাজি হাসপাতালের পুষ্টিবিদ রুবাইয়া রীতি বলছেন এবার রোজার সময়টায় গরম পড়বে বেশি। এ কারণে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে অবশ্যই পানিশূন্যতা থেকে রক্ষা পেতে এবং ফিট থাকার জন্য দিনে আড়াই থেকে তিন লিটার পানি পান করতে হবে।

‘ইফতার থেকে সেহরি পর্যন্ত সময়ে যথেষ্ট পরিমাণ পানি পান করতে হবে। একই সাথে শরীরচর্চাও গুরুত্বপূর্ণ। এ ক্ষেত্রে যারা তারাবি নামাজ পড়েন সেটি তারা নিয়মিত পড়লে উপকৃত হবেন, বলছিলেন তিনি।

তার মতে ইফতার থেকে আরম্ভ করে সেহরি পর্যন্ত এমন খাবার নির্বাচন করতে হবে যেসব খাবারে পানির পরিমাণ বেশি থাকে। অনেকেই ইফতারের পর আর খেতে চান না। এটি ঠিক নয়। রাতের খাবার খেতে হবে পরিমিত মাত্রায় এবং সেহরিও খেতে হবে। তাহলে পানির ঘাটতি কম হবে।

রোজার সময় যারা রোজা পালন করেন তাদের দিনের বেলায় পানাহারের সুযোগ নেই বলে দীর্ঘ সময় পানি পান করতে পারেন না। অন্যদিকে ঘাম, প্রস্রাব ও শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে প্রচুর পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। এ কারণে শরীরে পানিশূন্যতার সম্ভাবনা তৈরি হয়।

চিকিৎসক সাজ্জাদ হোসেন ও পুষ্টিবিদ রুবাইয়া রীতি উভয়ই বলছেন যে, শরীর ফিট রাখতে পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে এবং এর আর কোনো বিকল্প নেই। তবে সাধারণ সময়ে প্রতি ঘণ্টায় অন্তত এক গ্লাস পানি খাওয়া উচিত একজন ব্যক্তির। ফলে তিনি যদি রোজা করেন তাহলে দিনের সময়টুকুতে না খাওয়া পানি তাকে ইফতার থেকে সেহরির সময়কালে গ্রহণ করতে হবে।

চিকিৎসকরা সাধারণত বয়স, উচ্চতা ও ওজন ভেদে এক ব্যক্তিকে দিনে বার থেকে ষোল গ্লাস পর্যন্ত পানি খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

পানিশূন্যতা কেন হয়
•দীর্ঘ সময় ধরে পানি না পান করার কারণে শরীর পানিশূন্য হয়ে পড়ে;
•খাবার তালিকায় পানিসমৃদ্ধ খাবার না রাখা;
•জ্বর বা ডায়রিয়ার মতো অসুস্থতাজনিত কারণে;
•অতিরিক্ত ভাজা পোড়া জাতীয় খাবারের কারণেও পানিশূন্যতা হতে পারে;
•ইফতার থেকে সেহরি পর্যন্ত সময়ে পর্যাপ্ত পানি পান না করা;
•ইফতারের পর অতিমাত্রায় চা কফি খেলে;
•অতিরিক্ত রোদ বা গরমে থাকার কারণে।

পানিশূন্যতার লক্ষণ
চিকিৎসক সাজ্জাদ হোসেন বলছেন শরীর পানিশূন্য হয়ে পড়লে জিহ্বা দেখে সহজে বোঝা যায় কারণ জিহ্বা শুকিয়ে যায়।

এছাড়া অনেকের চোখ গর্তে চলে যায় এবং দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে আসে। তাছাড়া শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে ও কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা তেরি হয়।

‘পানিশূন্যতার কারণে হার্ট রেট ও প্রেশার কমে যেতে পারে," সাজ্জাদ হোসেন।পানিশূন্যতা থেকে মুক্ত থাকবেন কিভাবে

চিকিৎসক সাজ্জাদ হোসেন ও পুষ্টিবিদ রুবাইয়া রীতি পানিশূন্যতা থেকে মুক্ত থাকার জন্য করনীয় সম্পর্কে বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।

•ইফতার ও সেহরির মধ্যকার সময়ে পর্যাপ্ত পানি পান করা;
•সহজে হজম হয় এমন খাবার খাওয়া;
•ইফতারে ফলের রস ও ফলের পরিমাণ বেশি রাখা;
•সরাসরি রোদে না যাওয়া;
•অতিরিক্ত খাবার না খাওয়া;
•প্রয়োজনে ডাবের পানি বা খাবার স্যালাইন পান করা;
•হালকা শরীর চর্চা করা;

পুষ্টিবিদ রুবাইয়া রীতি বলছেন অনেকেই পানি পান করতে গিয়ে ফ্রিজ থেকে বের করা ঠাণ্ডা পানি খেয়ে থাকেন যা মোটেও ঠিক নয়।

‘অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি থেকে বিরত থাকতে হবে। যাদের চা পানের অভ্যাস আছে তারা দুধ চায়ের বদলে রং চা পান করতে পারেন পরিমিত মাত্রায়। আর পর্যাপ্ত পানির পাশাপাশি খাবারে লাউ, কুমড়ো বা পেঁপে জাতীয় খাবার বেশি রাখলে শরীর পানিশূন্যতা থেকে রক্ষা পাবে, বলছিলেন তিনি।

তবে শরীর ফিট রাখতে নিয়মিত গোসল এবং চোখে মুখে বারবার পানি দেয়ার পরামর্শও দিয়ে থাকেন অনেকে।

এরপরেও শরীরে কোনো সমস্যা বোধ করলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত বলে মনে করেন সাজ্জাদ হোসেন।


সূত্র : বিবিসি


আরও খবর



সোনারগাঁয়ে বিদ্যুৎপৃষ্টে অটোরিকসা চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের হরিহরদী গ্রামে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মোমেন মিয়া(২৮) নামে এক ব্যাটারী চালিত অটোরিকসা চালকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের হরিহরদী গ্রামেরন মৃত জামাল মিয়ার ছেলে। স্বজনরা জানান, উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের হরিহরদী গ্রামের মৃত জামাল মিয়ার ছেলে অটোরিকসা চালক মোমেন মিয়া তার গাড়ীর ব্যাচারীর চার্জ শেষ হলে গতকাল শুক্রবার বিকেলে বাসায় চার্জ দিতে যায়। চার্জে লাগিয়ে বিদ্যুতের সুইচ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময় তার স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। 


আরও খবর



কু‌মিল্লায় মাইক্রোবাস খাদে চালকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিবেদক ,কু‌মিল্লা 

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাইক্রোবাস খাদে পড়ে জাহাঙ্গীর হোসেন (৪০) নামে এক চালকের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ মে) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মহাসড়কের জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ধনুসড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জাহাঙ্গীর হোসেন জেলার নাঙ্গলকোটের ছুপুয়া গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে।

মিয়া বাজার হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুরুল হক আকন্দ  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাতে তিনি বলেন, ‘ঢাকামুখী একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্টো-চ-১৯-৩৫১৫) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ধনুসড়া এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে চালক জাহাঙ্গীর হোসেন গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে তাকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।


আরও খবর



টিসিবির পণ্য বিক্রি স্থগিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

দেশে দরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য সোমবার (১৬ মে) থেকে ১১০ টাকা লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি কর‌ার ঘোষণা দিলেও হঠাৎ করে সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটল টিসিবি।

রবিবার (১৫ মে) রাত সাড়ে ৯টায় ন্যায্যমূল্যে তেল বিক্রির এ কার্যক্রম স্থগিত ক‌রা হ‌য়ে‌ছে ব‌লে এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায় সংস্থাটি।

প্রকাশিত বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে টিসিবি জানায়, বিক্রয় কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা এবং প্রকৃত সুবিধাভোগীর কাছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকার নীতিগতভাবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য (ভোজ্য তেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে ফ্যামিলি কার্ড প্রণয়ন ও বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হওয়ার পর শুধুমাত্র ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমেই টিসিবির পণ্য সামগ্রীর বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তাই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য চলতি মাসের ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত স্বল্প পরিসরে সাধারণ ট্রাকসেল কার্যক্রম স্থগিত করা হল। আগামী জুন মাসে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি নিম্ন আয়ের পরিবারের নিকট টিসিবি কর্তৃক ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য (ভোজ্য তেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রয় করা হবে।

এর আগে টিসিবি ঘোষণা দিয়েছিল ১৬ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত ১৫ দিনব্যাপী দেশের বড় বড় নগরীর পাশাপাশি জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ৩০০টি খোলা ট্রাকের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করা হবে।

ট্রাক থেকে একজন ক্রেতা ৫৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি মসুর ডাল, ১১০ টাকা দরে ২ লিটার সয়াবিন তেল কিনতে পারবেন। এছাড়া গত মাসের অবশিষ্ট ছোলা ৫০ টাকা কেজি দরে ভোক্তার চাহিদা অনুযায়ী বিক্রি করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলো টিসিবি।

এছাড়া রোজার মাসে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে গত মার্চ ও এপ্রিল মাসে সারাদেশে তালিকাভুক্ত এক কোটি পরিবারের কাছে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ন্যায্যমূল্য পণ্য বিক্রি করেছে টিসিবি।


আরও খবর

গৌতম বুদ্ধের জন্মদিন আজ

রবিবার ১৫ মে ২০২২




টাঙ্গাইলে চাচার বিরুদ্ধে ভাতিজিকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
Image

মোঃ সিরাজ আল মাসুদ, টাঙ্গাইলঃ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে চাচার বিরুদ্ধে ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া ভাতিজিকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের শিকার ওই শিশু স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী।

গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) দুপুরে দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের কয়েড়া গ্রামের পশ্চিমপাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় লম্পট চাচা আব্বাস আলীকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সে পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রী।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশুটির বাড়িতে কেউ ছিল না। সে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাথরুমে গেলে আগে থেকে সেখানে থাকা চাচা আব্বাস বাথরুমে প্রবেশ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এ সময় ডাক-চিৎকারে লোকজন এগিয়ে গেলে পালিয়ে যায় আব্বাস। পরে মেয়েটির মা বাড়িতে এসে ঘটনা শুনে স্থানীয় মাতব্বর ও জনপ্রতিনিধিদের বিষয়টি অবগত করেন। পরে তাদের পরামর্শেই আব্বাসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন মেয়েটির মা। পুলিশ রাতেই আব্বাসকে গ্রেপ্তার করে।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফরিদুল ইসলাম জানান, শিশুটির মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে মামলা দায়ের করেন। অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আব্বাসকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আব্বাসকে শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইল জেলহাজতে এবং শিশুটিকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



মানিকগঞ্জে ইসলামী ব্যাংকের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ১২৯জন দেখেছেন
Image

মনিরুল ইসলাম মিহিরঃ মানিকগঞ্জে ইসলামী ব্যাংকে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে ব্যাংকের নিজ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত “সার্বজনীন কল্যানে মাহে রমজান” শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের ঢাকা নর্থ জোন প্রধান ও সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস-প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ সাঈদ উল্লাহ।

প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জ পৌর সভার মেয়র মোঃ রমজান আলী ও বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও জেলা ডায়বেটিকস সমিতির সাধারন সম্পাদক আ,ফ,ম, সুলতানুল আজম খান আপেল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ হাবিবুর রহমান ।মূল আলোচনা করেন, আমিন বাজার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুহাম্মদ ফখর উদ্দিন।অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার জুলফিকার আহম্মেদ।

জেলার বিশিষ্ট নাগরিক ও বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার মানুষ এ ইফতার মাহফিলে অংশগহন করেন।


আরও খবর