Logo
শিরোনাম
প্রফেসর ডা: প্রাণ গোপাল দত্ত এর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল

সাবেক প্রতিমন্ত্রী রেদোয়ান’র শাস্তির দাবীতে প্রতিবাদে উত্তাল

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

  জেলা প্রতিবেদক, কুমিল্লা

ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মী কে গুলি করে আহত করার ঘটনায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে উত্তাল চান্দিনা। 

বুধবার (১১ মে) দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের আয়োজনে চান্দিনা উপজেলা পরিষদ এর সামনের সড়কে মানববন্ধন  ও বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। পরে  বেলা ১১টায়‘রেদোয়ান এর শাস্তি চাই’ শ্লোগানে মুখরিত এক বিক্ষোভ  মিছিল চান্দিনার প্রধান প্রধান সড়ক  প্রদক্ষিণ করে। এসময় উপজেলার বিভিন্ন এলাকার নেতা-কর্মীরা অংশ নেয়। 

পথ প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন-কুমিল্লা ৭ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা: প্রাণ গোপাল দত্ত। এসময় চান্দিনা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা তপন কুমার বকশি, মাইজখার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম প্রধান, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার সহ আওয়ামীলীগ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

প্রতিবাদ সমাবেশে এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে অধ্যাপক ডাক্তার প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন খুনী রেদোয়ান কিলার রসিদের উত্তারার্ধীকার। চান্দিনায় অশান্তি বিরাজ করার পরিকল্পনাই ছিলো রেদোয়ানের। চান্দিনাকে অশান্তি করা যাবেনা। দৃষ্টান্ত শূলক শাস্তির দাবি করেন।

 উল্লেখ্য যে , গত সোমবার (৯ মে) বিকাল ৪টায় চান্দিনা রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ মমতাজ আহমেদ ভবন এ কলেজ ছাত্রলীগ ও পৌর এলডিপি পাল্টাপাল্টি ঈদপুনর্মিলনীর আয়োজন করেন। দুপুর ১টার পর থেকে ছাত্রলীগের আয়োজনে স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও যুবলীগ নেতা-কর্মীরা অনুষ্ঠান স্থলে উপস্থিত হতে শুরু করে। দুপুর আড়াইটায় এলডিপি মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ কলেজ ক্যাম্পাস-২ প্রধান ফটকের সামনে গেলে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাদের সাথে কথা হয়। এসময় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতৃবৃন্দ একই স্থানে এলডিপি’র প্রোগ্রাম করতে নিষেধ করেন এবং ছাত্রলীগও প্রোগ্রাম করবেন না বলে জানান। এসময় তিনি গাড়ি নিয়ে ফিরে যাওয়ার সময় কোন এক ছাত্রলীগ কর্মী রেদোয়ান আহমেদ এর গাড়িতে তরমুজ দিয়ে ঢিল ছুড়ে। এসময় রেদোয়ান আহমেদ গাড়ির জানালা খুলে পরপর দুইটি গুলি করেন। এতে ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের দুই কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা কাজী আখলাকুর রহমান জুয়েল বাদী হয়ে ১৫জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় রেদোয়ান আহমেদসহ চারজনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়।


আরও খবর



ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেড়েছে

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

মোঃ সিরাজ আল মাসুদ, টাঙ্গাইলঃ

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেড়ে গেলেও কোথাও যানজট নেই। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় মহাসড়কের টাঙ্গাইল অংশের বিভিন্ন স্থানে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ঈদকে কেন্দ্র করে রাজধানী ছাড়ছে ঘরমুখো মানুষ। এ কারণে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। তবে চাপ থাকলেও কোথাও যানজটের খবর পাওয়া যায়নি। তবে গতরাতে উত্তরবঙ্গমুখী লেনে যানবাহনের চাপে সড়কে ধীরগতি ছিল। কয়েক ঘণ্টা ধীরগতির পর সড়ক আবার স্বাভাবিক হয়। ফলে ভোর থেকেই মহাসড়কে যানবাহন স্বাভাবিক গতিতেই চলাচল করছে। ফলে ভোগান্তি ছাড়াই স্বস্তিতে মানুষ গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন।এদিকে, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমপাড় গোলচত্বর থেকে সায়দাবাদ পর্যন্ত গাড়ির দীর্ঘ সারি রয়েছে। এ কারণে  সেখানে গাড়ির কিছুটা ধীরগতি লক্ষ্য করা গেছে।

টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, মহাসড়কে এখনও যানবাহন স্বাভাবিক গতিতেই চলাচল করছে। তবে যানবাহনের বাড়তি চাপ রয়েছে। যানজট নিরসনে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মহাসড়কে কাজ করছে। ঈদের চাঁদরাত পর্যন্ত যানজট নিরসনে আমরা কাজ করবো।


আরও খবর



পাংশা উপজেলায় মুজিব বর্ষে ঘর পেল ১শ টি ভূমিহীন পরিবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
Image

রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধিঃ মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা কতৃক মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ৩য় পর্যায়ে ভূমি হীন ও গৃহহীন ৩২ হাজান ৯ শত ৪টি পরিবারের মধ্যে ঘর ও জমি হস্তার করেছেন ।

প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফরেন্স এর মাধ্যমে গণভবন থেকে ২৬ এপ্রিল ঘর ও জমি হস্তার কার্যক্রমের শুভ উদ্ভোধন করেন।  এর মধ্যে পাংশা উপজেলায় ১০০ পরিবার কে জমি ও গৃহ প্রদান কার্য়ক্রম সম্পূর্ণ করেছে পাংশা উপজেলা প্রশাসন। 

পাংশা উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ীর সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. খোদেজা নাসরিন আক্তার হোসেন এমপি, রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক আবু কাউসার খান, পাংশা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ,পাংশা পৌর মেয়র ওয়াজেদ আলী, ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস, উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা নুজহাত তাসনীন অওন, পাংশা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান,উপজেলা সহকারী প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হেকমত আলী, ইউপি চেয়ারম্যান গণ , ইউপি সচিব গণ সাংবাদিক ও সুবিধাভোগী পরিবারের সদস্য গণ।

উল্লেখ্য পাংশা উপজেলার সরিষা ইউপিতে ৬৮ টি, কসবামাজাইল ইউপিতে ২০ টি, মৌরাট ইউপিতে ৯ টি ও হাবাসপুর ইউপিতে ৩ টি , মোট ১০০ টি ঘর নির্মান করা হয়েছে নির্দেশনা মোতাবেক। ঘরের পাশাপাশি উপকার ভোগীদের ২ শতাংশ জমি বরাদ্ধা দেওয়া হয়েছে। আজ থেকে সুবিধাভোগী পরিবার বসবাস করতে পারবে। ঈদের আগে বাড়ি ও জমি পেয়ে খুশি পরিবার গুলো। 


আরও খবর



মেহেদির রং গাঢ় করবেন যেভাবে

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

ঈদ এলেই মেহেদি লাগানোর ধুম পড়ে যায়। বাহারি ডিজাইনে মেহেদি লাগানো হয় হাতে-পায়ে। তবে অনেকেই কষ্ট করে দুই হাত ভরে মেহেদি পরলেও গাঢ় রঙের অভাবে তা সৌন্দর্য হারায়। আবার অনেক সময় সারারাত হাতে মেহেদি রাখলেও গাঢ় রং মেলে না।

তাই যে কোনো অনুষ্ঠান বা উৎসবে মেহেদি ব্যবহার করার আগে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখা জরুরি। তা হলেই পাবেন মেহেদির গাঢ় রং। জেনে নিন মেহেদির রং গাঢ় করার কৌশল—

> মেহেদি ব্যবহারের আগে হাত-পা শেভ কিংবা ওয়াক্স করবেন না। ফলে ত্বকের উপরের স্তর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই পরে ওই ত্বকে মেহেদি ব্যবহার করলে গাঢ় রং পাওয়া যায় না। মেহেদি লাগানোর অন্তত ৩-৪ দিন আগে এসব কাজ সম্পন্ন করুন।

> গাঢ় রং পেতে উৎসব বা অনুষ্ঠানের অন্তত ২৪ বা ৪৮ ঘণ্টা আগে মেহেদি ব্যবহার করুন। সেইসঙ্গে সর্বোচ্চ ৭-১২ ঘণ্টা মেহেদি হাতে রাখুন। তাহলেই পাবেন গাঢ় রং।

> মেহেদি কিছুটা শুকানোর পর একটি তুলোর বল লেবুর রস ও চিনির মিশ্রণে ডুবিয়ে ব্যবহার করুন। তারপর মেহেদি পুরোপুরি শুকিয়ে গেলে এটি ঘঁষে তুলে ফেলুন। তবে লেবু ও চিনির দ্রবণ অতিরিক্ত ব্যবহার করবেন না।

> সরিষার তেল ব্যবহার করুন মেহেদির স্থানে। তারপর একটি ব্যান্ডেজ দিয়ে স্থানটি ঢেকে ঘুমিয়ে পড়ুন রাতে। সকালে দেখবেন মেহেদির রং অনেকটাই গাঢ় হয়েছে।

> অন্যদিকে সাবান পানি দিয়ে কখনো মেহেদি তুলবেন না। এমনকি মেহেদি তুলে ফেলার পরও কমপক্ষে ১২ ঘণ্টা ওখানে পানি লাগাবেন না।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে ইটভাটার বিষাক্ত গ্যাসে ধান পুড়ে যাওয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
Image

মোঃ সিরাজ আল মাসুদ, টাঙ্গাইলঃ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ৩০০ বিঘা জমির আধপাকা ধান ইটভাটা থেকে নির্গত বিষাক্ত গ্যাসে পুড়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন কৃষকেরা। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা এ ঘটনায় ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

কৃষক আয়নাল হক জানান,   চলতি বোরো মৌসুমে ১১ শতাংশ জমিতে ইরি ধান চাষ করেছেন। কয়েক সপ্তাহ পর ধান কেটে ঘরে তুলতেন। ফলনে তিনি যে ধান পেতেন তাতে তার পরিবারের চার সদসস্যের প্রায় সারা বছরের খোরাক হতো। কিন্তু ধোয়ায় সব পুড়ে গেছে।

তিনি আরও  বলেন, ‘এই ক্ষেত থেকে সারা বছরের খোরাক পেতাম। কিন্তু আমার ধান ইটভাটার গ্যাসে পুড়ে গেছে। সারা বছর কি খাবো সেই চিন্তায় আছি।’

শুধু আয়নাল হক নন, তার মতো বিল গৌরিশ্বর, গৌরিশ্বর ও দশানী বকশিয়া গ্রামের শতাধিক কৃষকের ৩০০ বিঘা জমি ধান পুড়ে গেছে।  ইটভাটা বন্ধ ও ক্ষতিপূরণের দাবিতে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছেন।

ভুক্তভোগী কৃষকরা জানান, ফসলি জমি ঘেঁষে স্থাপন করা হয়েছে ইটভাটা।  ভাটা স্থাপনের যে নীতিমালা রয়েছে তা কোনোটিই মানা হয়নি।  ভাটার নির্গত বিষাক্ত গ্যাসে পুড়ে নষ্ট হয়েছে গেছে ওই এলাকার শতাধিক কৃষকের প্রায় তিনশ বিঘা জমির বোরো ধান। ইউএনওর কাছে এর প্রতিকার চেয়ে আবেদনে স্বাক্ষর করেছেন ১০৫ জন কৃষক।

সেচ পাম্প মালিক আতোয়ার হোসেন বলেন, কষ্টে ফলানো ফসলের এমন দৃশ্য দেখে বুক ফেঁটে কান্না আসে। তিনশ বিঘা জমির ফলন হওয়ার কথা ৬ হাজার মণ।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. তৌকির আহমেদ বলেন, এমএসটি ইটভাটা ফসলি জমির পাশে প্রযোজ্য নয়। ধানের পাতা উপর থেকে লাল হয়ে নিচের দিকে পড়ে যাচ্ছে। এছাড়া ঘাসও পুড়ে লাল হয়ে গেছে। ওই এলাকায় বিঘাতে ৩০-৩৫ মণ ধান হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দিলশাদ জাহান বলেন, ইটভাটার গ্যাসে ধান পুড়ে গেছে। এই ধানের কোন দানা হবে না। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা প্রশাসনের সাথেও যোগাযোগ হয়েছে। এ ঘটনায় আমরা কৃষকদের পাশে আছি।

ইউএনও মুনিয়া চৌধুরী বলেন, বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ; নিহত বাস চালক

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image
মোঃ সিরাজ আল মাসুদঃ টাঙ্গাইলের মধুপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসচালক নিহত হয়েছে। নিহত চালক শামীম (৪৫)  টাঙ্গাইল সদর এলাকার বাসিন্দা ।

শনিবার (১৪ মে) সকাল ৮ টার দিকে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার গাংগাইর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই বাসের অন্ততপক্ষে ২৫ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। পুলিশ -ফায়ারসার্ভিস কর্মী ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মধুপুর থানার উপ পরিদর্শক মামুনুর রশিদ। 

তিনি বলেন,ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা প্রান্তিক পরিবহন ও টাঙ্গাইলের দিক থেকে ছেড়ে আসা মাহি পরিবহন গাংগাইর এলাকায় পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে দুটি বাসই ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসময় দুই বাসের চালকসহ অনেক যাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরে পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিস কর্মীরা স্থানীয়দের সহায়তায় আহত ২৫ জনকে উদ্ধার করে মধুপুর, টাঙ্গাইল ময়মনসিংহ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদের মধ্যে থেকে প্রান্তিক পরিবহনের চালক শামীম টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।


আরও খবর