Logo
শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে জেলের ৩ লাখ টাকার জাল পুড়িয়ে দিলো দুবৃর্ত্তরা

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

শেখ-ফরিদ, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বারদী ইউনিয়নের নাকুরিয়াহাটি গ্রামের এক জেলের তিন লাখ টাকার জাল পুড়িয়ে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা। এতে ওই জেলে নি:স্ব হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। গত শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। 

থানায় দায়ের করা লিখিত অভিযোগপত্রে জসিম উদ্দিন উল্লেখ করেন, তিনি উপজেলার বারদী ইউনিয়নের নাকুরিয়াহাটি গ্রামের বাসিন্দা ও মৃত সামাদ ফকিরের ছেলে। গত শুক্রবার রাতে আমার বৃদ্ধ মা ঘরে একা ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় কে বা কারা ঘরে আগুন দিয়ে চলে যায়। পরে প্রতিবেশীরা আগুন দেখে আমার অসুস্থ মাকে উদ্ধার করে পানি দিয়ে আগুন নেভায়। এ সময় তার ঘরে থাকা তিন লাখ টাকার জাল আগুনে পুড়ে যায়।    

জসিম উদ্দিন বলেন, আমি এনজিও থেকে ঋন নিয়ে এবং আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে ধার করে তিন লাখ টাকার জাল ক্রয় করি। জাল গুলো পুড়ে যাওয়ায় নি:স্ব হয়ে পড়েছেন তিনি। তিনি আরো বলেন, ঋনের বোঝা মাথায় নিয়ে কি করে সংসার চালাবো এ কথা বলেই তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। 

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। বিষয়টির তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে স্বামী-স্ত্রী হত্যার দায়ে ৬ জনের ফাঁসি

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

নারায়ণগঞ্জে স্বামী-স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ছয়জনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন সুমন, লোকমান, শফিক, সুমন-২, আরিফ ও জামাল। তাদের মধ্যে সুমন, লোকমান ও শফিক পলাতক রয়েছেন।

মামলা সূত্র জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১১ আগস্ট রাতে রাস্তা থেকে খাদিজা নামের এক নারী ও তার স্বামী আবদুর রহমানকে তুলে নিয়ে যান আসামিরা। স্বামীকে বেঁধে তারা খাদিজাকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করেন। পরে দুজনকে হত্যা করে রাস্তার পাশের ডোবায় ফেলে দেন। ১৬ আগস্ট দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা মামলা করেন। আদালতে ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ রায়  ঘোষণা দেয়া হয়।


আরও খবর



নোয়াখালীতে এক হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই কারবারি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২ |
Image

নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে এক হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তার করেছে।

 গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, সুবর্ণচর উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমজিদ গ্রামের মৃত হাফেজ উল্যাহর ছেলে খাইরুল ইসলাম আজাদ(৩৫) ও একই গ্রামের মো. শাহজাহানের ছেলে মো.সাজিদ হোসেন পয়েল (২৯)।

মঙ্গলবার (২১ জুন) রাত পৌনে আটটার দিকে উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নের চরমজিদ এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশ উপজেলার চরবাটা ইউনিয়নের চরমজিদ  এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে। এসময় তাদের হেফাজত থেকে ১ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ইয়াবা বিক্রয়লদ্ধ নগদ দশ হাজার তিনশত টাকা জব্দ করা হয়। 

এসপি আরো জানায়, গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে চরজব্বর থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হচ্ছে। ওই মামলায় বুধবার সকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।  


আরও খবর



পার্বত্য চট্টগ্রাম হেডম্যান সম্মেলন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ |
Image

উচিংছা রাখাইন,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি

পার্বত্য অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর রীতিনীতি গুলো আছে বলেই পার্বত্য অঞ্চলের সামাজিক সমস্যা গুলো সমাধান করা হচ্ছে। এই অলিখিত আইন গুলো সংরক্ষণ করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

তিনি বলেন সন্ত্রাস,  চাঁদাবাজি, খুন গুম করে কখনোই শান্তি ফিরে আসবে  না।  শান্তি ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৭ সালে আলোচনার মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের শান্তি ফিরিয়ে আনতে শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে।

এর পরও পার্বত্য অঞ্চলে সংঘাত, খুন, গুম, চাঁদাবাজি কখনোই মেনে নেয়া যায় না।

বৃহস্পতিবার ১৬ জুন পার্বত্য চট্টগ্রাম হেডম্যান সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এ কথা বলেন।

সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার রাজা দেবাশীষ রায়।

সিএইচটি হেডম্যান নেটওয়ার্কের সভাপতি কংজরী চৌধুরীর সভাপতিত্বে হেডম্যান সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী, বান্দরবান জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সিংইরয়ং ম্রো, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী,  খাগড়াছড়ি মং সার্কেল চীফ সাচিং প্রু চৌধুরী, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান সহ হেডম্যানরা বক্তব্য রাখেন।

সম্মেলনে তিন পার্বত্য জেলার ৩৫০ জন হেডম্যান কার্বারী অংশ গ্রহণ করেন।


আরও খবর



গজারিয়ায় মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্ট

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

 শাহাদাত হোসেন সায়মনঃ

গজারিয়ায় মধ্য ভাটেরচর স্পোটিং  ক্লাবের উদ্যোগে মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টের এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 শুক্রবার বিকাল ৪ঘটিকায় টেঙ্গারচর ইউনিয়নের ভাটেরচর দে এ মান্নান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের  মাঠে এ মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন দেশবন্ধু গ্রুপের মহা-ব্যবস্থাপক,বোর্ড অব ডিরেক্টর দেশবন্ধু পলিমার লিমিটেড প্রকৌশলী সাখাওয়াত হোসেন।

দেশবন্ধু গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় খেলায় সভাপতিত্ব করেন,মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীরপ্রতীক রফিকুল ইসলাম,

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আমির গ্রুপের মহা ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী ইউসুফ শাহরিয়ার,গজারিয়া থানার উপ পরিদর্শক মোঃ হযরত আলী,বিশিষ্ট ব্যবসায়িক ও সমাজ সেবক হাজী ছাদেকুর রহমান,বিশিষ্ট ব্যবসায়িক,সমাজ সেবক খোকন দেওয়ান, নুরুজ্জামান দেওয়ান,রেদোয়ান হোসেন মাছুম,ফয়সাল আহম্মেদ বাবু,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডারের আহবায়ক রবিউল ডালিম,সাবেক ইউপি সদস্য কামাল হোসেন প্রমুখ।

ফাইনাল খেলায় অংশগ্রহণ করেন বিজয় বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব বনাম মুক্ত বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব।উক্ত খেলায় বিজয় বাংলা স্পোর্টিং ক্লাবকে ০৪গোলে পরাজিত করে মুক্ত বাংলা স্পোর্টিং ক্লাব।

খেলা পরিচালনা করেন মোঃআল-আমিন, সহকারী ছিলেন সিফাত ও রাকিব। ধারা বিবরনীতে ছিলেন মনির হোসেন মাস্টার।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে দেশবন্ধু গ্রুপের মহা-ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সাখাওয়াত হোসেন বলেন, সমাজ থেকে কুসংস্কার, অন্যায়-অত্যাচার দূরীকরণে যেমন শিক্ষার বিকল্প নেই,তেমনি মাদকমুক্ত সমাজ গঠনেও খেলাধুলার কোনো বিকল্প নেই। লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা করার সুযোগ করে দিতে হবে।


আরও খবর



১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আযহা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

বাংলাদেশের আকাশে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সন্ধ্যায় জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে বলে জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

ফলে আগামী ১০ জুলাই রবিবার দেশে পবিত্র ঈদুল আযহা বা কোরবানির ঈদ উদযাপিত হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দ্বীনি দাওয়াত ও সংস্কৃতি বিভাগে ফোন করে ফাউন্ডেশনের শেরপুর, কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার উপ-পরিচালকরা চাঁদ দেখার সংবাদ জানান বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে।

চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক শেষে অতিরিক্ত সচিব আউয়াল হাওলাদার জানান, সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, আবহাওয়া অধিদপ্তর, মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র, দূর অনুধাবন কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের আকাশে হিজরি ১৪৪৩ সনের জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে। শুক্রবার (১ জুলাই) থেকে জিলহজ মাস গণনা শুরু হবে। আগামী ১০ জুলাই (১০ জিলহজ) রোববার দেশে ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

এ বছার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে বাংলাদেশের একদিন আগে ৯ জুলাই ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। হজ অনুষ্ঠিত হবে ৮ জুলাই।

ঈদুল আযহা অনুষ্ঠিত হওয়ার সময়ই লাখ লাখ মুসলমান সৌদি আরবের পবিত্র ভূমিতে হজব্রত পালনরত অবস্থায় থাকেন। হাজিরা ঈদের দিন সকালে কোরবানি দেন।


আরও খবর