Logo
শিরোনাম
বিক্ষোভ দমাতে গুলির নির্দেশ

শ্রীলঙ্কায় লুটপাট ও ভাঙচুর

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

স্মরণকালের ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে থাকা শ্রীলঙ্কা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ সহিংসতায় রূপ নিয়েছে। সরকারবিরোধী এ বিক্ষোভ দমাতে নিরাপত্তাবাহিনীকে লুটপাট ও ভাঙচুরকারীদের বিরুদ্ধে গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে এ নির্দেশনা দিয়েছে লঙ্কান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নলিন হেরাথ বলেছেন, কাউকে সরকারি সম্পত্তি লুটপাট বা মানবজীবনের ক্ষতি করতে দেখলে নিরাপত্তা বাহিনীকে গুলি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় এক এমপির অপমৃত্যু, আরেকজনের ওপর হামলা এবং মন্ত্রী-প্রধানমন্ত্রীসহ অর্ধশতাধিক নেতার বাড়িতে অগ্নিসংযোগের পরের দিনই এমন কঠোর নির্দেশনা দিলো লঙ্কান কর্তৃপক্ষ।

গত কয়েক মাস ধরেই শ্রীলঙ্কার অর্থনীতিতে চরম মন্দা পরিস্থিতি বিরাজ করছে। বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভ তলানিতে, মুদ্রাস্ফীতিও আকাশছোঁয়া। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী কিনতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে মানুষ।

এ অবস্থায় ক্ষোভ দানা বাঁধতে শুরু করে দেশটির সাধারণ নাগরিকদের মধ্যে। এক পর্যায়ে রাজাপাকসে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হয়।

বিক্ষোভ দমাতে এপ্রিলের শুরুতে রাষ্ট্রীয় জরুরি অবস্থা জারি করেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। কিন্তু প্রেসিডেন্টের এমন পদক্ষেপ বিক্ষোভ দমাতে ব্যর্থ হয়। উল্টো মাত্রা আরও তীব্র হয়।


আরও খবর



স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছেন দ্বীপ রাঙ্গাবালীর পাঁচ শতাধিক পরিবার

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৮৮জন দেখেছেন
Image

কামরুল হাসান, জেলা প্রতিনিধি  পটুয়াখালী ঃ

মাথা গোঁজার একটু ঠাঁই, আর পাকা একটি ঘর ছিল যাদের দু’চোখের স্বপ্ন। তারাই পাচ্ছেন স্বপ্নের ঠিকানা, হচ্ছে নিজের বাড়ি। মুজিববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গলবার পটুয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা রাঙ্গাবালীর পাঁচ শতাধিক পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। সঙ্গে দুই শতক জমি। 

প্রশাসনের তথ্যমতে, গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায় এ উপজেলায় নির্মাণাধীন ৬১৮টি ঘরের মধ্যে নির্মিত ৫২০টি ঘর এবার হস্তান্তর করা হবে । মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সারাদেশে জমি ও ঘর প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধনের পর রাঙ্গাবালীতে উপকারভোগীদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেওয়া হবে ঘরের চাবি ও জমির দলিলসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র।  

ঈদের আগেই উপহারের এসব ঘর পাওয়া ওইসব পরিবারগুলোর ঈদ আনন্দে  নতুন মাত্রা যুক্ত হবে বলে মনে করছেন প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা। উপকারভোগীরা বলছেন, মুজিববর্ষে তাদের স্থায়ী ঠিকানা হয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তারা। দীর্ঘায়ু কামনা করেছেন প্রধানমন্ত্রীর। 

এ প্রসঙ্গে কথা হয় উপকারভোগীদেরই একজনের সঙ্গে, নাম নার্গিস বেগম (৪০)। পেশায় গৃহকর্মী। যার ছিল না এক টুকরো জমি কিংবা মাথা গোঁজার জন্য ঘর। অন্যের বাড়ি আর ভাড়া বাসায়ই কেটেছে জীবন। তিনি এ পর্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাহেরচর আশ্রয়ণ প্রকল্পে নির্মিত একটি ঘর পেয়েছেন। তার অনুভূতি জানতে চাইলে আনন্দঅশ্রæ চোখে নার্গিস বেগম বলেন, ‘মানুষের বাসায় কাজ করতাম। নিজের কোন জায়গা জমি ঘর আছিল না। ভাড়া ঘরে থাকতাম। ছেলে সন্তান নিয়া অনেক কষ্ট করছি। ওদের (সন্তানদের) মন ছোট থাকতো। এখন প্রধানমন্ত্রী আমারে ঘর দিছে। আমি অনেক খুশি।’   

একই ইউনিয়নের মাদারবুনিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর পাওয়া  মান্নান হাওলাদার (৭০) বলেন, ‘আমার আগের জীবন আছিল খুবই কষ্টের। ভাঙা ঘরে ছিলাম। আমার মা শেখ হাসিনা আমারে ঘর দেওনে (দেয়ায়) আমি খুশি। আমি তার জন্য অনেক অনেক দোয়া করি।’ নার্গিস ও মান্নানের মত এমন অনুভূতি ঘর পাওয়া অনেকেরই। তাদের ভাষ্য, একটি ঘর তাদের জীবন বদলে দিবে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশফাকুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলা পরিষদ চত্ত¡রে  তৃতীয় পর্যায় নির্মিত মুজিববর্ষের ঘরের চাবি ও জমির দলিলপত্র হস্তান্তর করা হবে।  এই  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনের এমপি এবং সভাপতিত্ব করবেন পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক স্যার।  

উল্লেখ্য, মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহহীন-ভূমিহীন পরিবারের জন্য এ উপজেলায় মোট এক হাজার ৮৮৫টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়। এরমধ্যে প্রথম পর্যায় ৪৯১, দ্বিতীয় পর্যায় ৭৭৬ ও তৃতীয় পর্যায় ৬১৮টি ঘর বরাদ্দ হয়।


আরও খবর



শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ, ৩ মামলায় আসামি ১৩০০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৯৭জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনায় তিনটি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় এক হাজার ৩০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

নিউমার্কেট থানায় তিন মামলা হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিউমার্কেট অঞ্চলের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার শরীফ মো. ফারুকুজ্জামান। 

বিস্ফোরণ, দাঙ্গা-হাঙ্গামা, জ্বালাওপোড়াও, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে দুটি মামলা করেছেন নিউমার্কেট থানার এসআই মেহেদী হাসান ও এসআই ইয়ামিন কবির। আর সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত ডেলিভারিম্যান নাহিদ মিয়ার চাচা মো. সাঈদ হত্যার অভিযোগ এনে অন্য মামলাটি করেছেন। 

নিউমার্কেট থানার পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে নাহিদ হত্যায় তাঁর চাচা মো. সাঈদ বাদী হয়ে মামলা করেন। এতে অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করা হয়।

এ ছাড়া পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে নিউমার্কেট থানার এক উপপরিদর্শক (এসআই) মেহেদী হাসান বাদী হয়ে নিউ মার্কেটের ২৪ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাতনামা ৯০০ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেন। বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা কলেজের সামনে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ১৫০-২০০ ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেন নিউ মার্কেট থানার আরেক উপপরিদর্শক (এসআই) ইয়ামিন কবির।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাতে রাজধানীর নিউমার্কেটের একটি খাবারের দোকানের কর্মীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীর কথা-কাটাকাটি হয়। এর জেরে গভীর রাতে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকানকর্মীরা। এরপর দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলতে থাকে বুধবার পর্যন্ত।

সংঘর্ষের ঘটনায় এ পর্যন্ত নাহিদ (১৮) ও মোরসালিন (২৬) নামে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় ১৫ জন সাংবাদিকসহ আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক।


আরও খবর



জুনেই খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু : কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

যানবাহন চলাচলের জন্য আগামী জুন মাসের মধ্যে পদ্মা সেতু খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (৫ মে) দুপুরে নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার নিজ বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজের পর সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, গত ১৩ বছরের ২৬ ঈদের পর বিএনপি আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েও নামতে পারেনি। এখন এসব কথা শুনলে জনগণের হাসি পায়।

তিনি বলেন, অসুস্থতা ও করোনার কারণে ৩৩ মাস পর নিজ জন্মভূমিতে এসে জনগণের সঙ্গে দেখা করতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে।

পরে দুপুর আড়াইটায় বসুরহাট ডাকবাংলোয় কাদের মির্জাবিরোধী উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনীতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সেতুমন্ত্রী।

এসময় তিনি বলেন, গত দেড় বছরে স্থানীয় আওয়ামী লীগের হানাহানিতে দুটি প্রাণ ঝরেছে। আমি এসেছি, সমঝোতার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আশা করছি অচিরেই শান্তি ফিরে আসবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশিদ মঞ্জু, ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজিস সালেহীন রিমন, ওবায়দুল কাদেরের ভাগনে ফখরুল ইসলাম রাহাতসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে দুপুর পৌনে ১২টায় নিজ বাড়িতে পৌঁছলে তাকে গার্ড অব অনার দেয় পুলিশ। এসময় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা মন্ত্রীকে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ স্বর্ণপদক ক্রেস্ট দেন।

বিকেলে ওবায়দুল কাদেরের কবিরহাট ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়ের কথা রয়েছে।


আরও খবর



সিঙ্গাপুর গেছেন ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৯৮জন দেখেছেন
Image

নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার অংশ হিসেবে সিঙ্গাপুর গেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) সকালে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তিনি ঢাকা ছাড়েন।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (আইন শাখা) আবু নাছের টিপু জানান, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের কাদের আজ সকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার অংশ হিসেবে তিনি সিঙ্গাপুর গেছেন।

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে শিগগিরই তিনি ঢাকায় ফিরবেন।

গত ২১ ফেব্রুয়ারি রুটিন চেকআপের জন্য ভারতের দিল্লি যান ওবায়দুল কাদের। দিল্লির মেজেন্টা হাসপাতালে তার শারীরিক চেকআপ করা হয়।


আরও খবর



নোয়াখালীতে গ্রেফতারকৃত জামায়াতের ৪৫ নেতাকর্মীকে কারাগারে প্রেরণ

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সদরে একটি স্কুল থেকে গ্রেফতারকৃত জামায়াত ইসলামীর ৪৫ নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। পুলিশ বলছে, তারা ওই একাডেমি ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি শ্রেণি কক্ষে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, সোনাইমুড়ী উপজেলা জামায়াতের আমির মোহাম্মদ হানিফ (৫২) চাটখিল উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি মাওলানা ওমর ফারুক (৫২) সেনবাগ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি মো.নুরুল আফসার (৫০) চাটখিল উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর মহিউদ্দীন হাসান (৪৮)  কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি বেলায়েত হোসেন (৫২) সহ ৪৫জন নেতাকর্মী।

রোববার (১৫ মে) বিকেল পৌনে ৬টার দিকে আটককৃত আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ। পরে আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। এর আগে একই দিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নোয়াখালী পৌরসভার ৪নম্বর ওয়ার্ডের জয়কৃঞ্চপুর এলাকার আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলা থেকে তাদের আটক করা হয়।  

বিষয়টি নিশ্চিত করেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম বলেন, রোববার দুপুর ১২টার দিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলার জামায়াত ইসলামীর নেতাকর্মিরা সুধারাম থানা এলাকার মাইজদী আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলায় সরকার বিরোধী গোপন বৈঠক করার জন্য একত্রিত হয়। বৈঠক চলাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল ও সুধারাম থানার ওসি আল ফারুক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ৪৫ জন জামায়াত ইসলামী নেতাকর্মিকে গ্রেফতার করে।

তিনি আরো জানান, এ সময় আটকৃতদের কাছে থাকা ধর্মীয় উগ্রতা সৃষ্টিকারী বিভিন্ন ধরনের বই উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক ভাবে জানা যায় যে,ধর্মীয় উগ্রতাকে পুঁজি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষে সরকার বিরোধী ক্ষতিকারক বেআইনী  কার্যকলাপের প্রস্তুতিমূলক অংশ হিসেবে এই গোপন বৈঠকের  আয়োজন করা হয়েছিল।  

এসপি জানায়,গ্রেফতারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।  ওই মামলায় তাদেরকে গ্রেফতার দেখিয়ে নোয়াখালী চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।


আরও খবর