Logo
শিরোনাম

শ্রীনগর উপজেলা প্রশাসনের সংবাদ বর্জন প্রেসক্লাবে জরুরী সভা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৮৪জন দেখেছেন
Image

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:

শ্রীনগর উপজেলা প্রশাসনের সংবাদ বর্জনে শ্রীনগর প্রেস ক্লাবে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১১ টায় শ্রীনগর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। শ্রীনগর প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. নজরুল ইসলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রয়েলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠিত জরুরী সভায় এই মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, শ্রীনগর প্রেস ক্লাবের স্বার্থ বিরোধী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ইতিপূর্বে কয়েকজন সদস্যকে বহিস্কৃত করে প্রেস ক্লাব থেকে চিঠির মাধ্যমে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হয়। পরবর্তীতে বহিস্কৃতরা শ্রীনগর উপজেলা প্রেস ক্লাব নামে দেউলভোগ বাজারে ভিন্ন একটি সংগঠন দাড় করায়। উপজেলা প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহন না করে উল্টো উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষ স্বাধীনতা দিবসের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে তাদেরকে স্বীকৃতি স্বরূপ উৎসাহ প্রদান করেন। যা একটি উপজেলায় প্রশাসনের দিক থেকে কোনভাবেই কাম্য নয়। এতে দৈত সংগঠন সৃষ্টির ইন্ধন জোগানোর পাশাপাশি সাংবাদিকদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পায়তারা করা হয়েছে। তাই এ বিষয়ে শ্রীনগর প্রেস ক্লাবের সকল সদস্যগণ ঐক্যমতের ভিত্তিতে জরুরী সভায় মিলিত হয়ে ইউএনও প্রণব কুমার ঘোষের এহেন বিতর্কিত কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাবসহ উপজেলা প্রসাশনের সংবাদ বর্জনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।


আরও খবর



সেনা দিবসে ইসরায়েলকে হুঁশিয়ারি ইরানের

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ২১৮জন দেখেছেন
Image

সেনাদিবসে ইসরায়েলকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সোমবার ইরানের সেনা দিবসে সশস্ত্র বাহিনীর দেশীয় সমরাস্ত্র এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্রদর্শনীতে ইসরায়েলকে এই হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।   

ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি বলেন, ইহুদি শাসনের প্রতি আমাদের বার্তা হলো— এই অঞ্চলে তোমরা কিছু দেশের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করলেও, তোমাদের সামান্য গতিবিধিও আমাদের গোয়েন্দা, নিরাপত্তা এবং সশস্ত্র বাহিনীর জ্ঞানের বাইরে নেই। 

তিনি আরও বলেন,  ইরানের বিরুদ্ধে তোমাদের সামান্য চাল আমাদের সেনাবাহিনীর লক্ষ্য হবে তোমাদের শাসনের কেন্দ্রস্থল, তোমাদের অবশ্যই এটা জানা উচিত।  

গত মাসে ইরান ইরাকের ইরবিলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করে। তেহরান দাবি করেছিল, যে স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করা হয় তা ইসরায়েল ব্যবহার করছিল। যদিও স্বশাসিত কুর্দিস্তানের গভর্নর ইসরায়েলের উপস্থিত থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন । 


আরও খবর



নওগাঁয় জেএমবি’র মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি, নওগাঁ 

নাম পরিবর্তন করে ১০ বছর আত্নগোপন করেও রক্ষা পেলেন না নিষিদ্ধ ঘোষিত জামায়াতুল মজাহিদিন বাংলাদেশ জেএমবি’র ইসাবা (সামরিক ) শাখার মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী সানোয়ার হোসেন ওরফে আব্দুর রউফ (৪৪)। শনিবার সন্ধ্যা রাতে নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার ছোট চাঁদপুর গ্রাম থেকে এন্টি টেররিজম ইউনিট এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। 

ছোট চাঁদপুর গ্রামে সানোয়ার হোসেন ওরফে আব্দুর রউফ নামটি পরিবর্তন করে আব্দুল্লাহ নামে আত্মগোপন করে ছিলেন এবং তিনি রাজমিস্ত্রি হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি ভেড়া লালন পালন করতেন। তিনি গত ১০ বছর ধরে আত্মগোপন করে ছিলেন বলে জানিয়েছের এন্টি টেররিজম ইউনিটএর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আখিউল ইসলাম। রোববার দুপুরে নওগাঁ পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এই সব তথ্য তুলে ধরেন।

গ্রেপ্তারকৃত সানোয়ার হোসেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল থানার চাঁদপাড়া গ্রামের এরশাদ আলীর ছেলে।  

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আখিউল ইসলাম জানান, জেএমবির আন্ত: কলোহের জের ধরে সে সময়ের স্বঘোষিত আমির সালমানকে কৌশলে ২০১২ সালের ২৬ এপ্রিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল থানার খুশকি বোরিয়া আম বাগানে ডেকে নেন। এরপর সানোয়ার ও তার সহযোগিরা সালমানকে মাথা থেকে দেহ বিচ্ছিন্ন করে হত্যা করে। এ মামলায় গ্রেপ্তারকৃত আসামী আব্দুস শাকুর ও জাহাঙ্গীরের দেয়া তথ্য মতে পুলিশ মহান্দা নদীর তীর থেকে পুতেঁ রাখা সালমানের মাথা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় নাচোল থানায় দায়েরকৃত হত্যা মামলায় গত ২০১৯ সালের ২৫ নভেম্বর সানোয়ারসহ ৩ জনের মৃত্যুদন্ডের রায় দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

গ্রেপ্তারকৃত সানোয়ার হোসেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁ জেলার বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে থেকে জেএমবিকে সক্রীয় করার কাজে লিপ্ত ছিলেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল থানার সন্ত্রাস বিরোধী (মৃত্যুদ-প্রাপ্ত) ছাড়াও আর দুটি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মুলতবি আছে বলেও জানান এন্টি টেররিজম ইউনিটএর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আখিউল ইসলাম। 

এ সময় তার সাথে নওগাঁ পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নানসহ পুলিশের উধ্বর্তন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



রাঙ্গামাটির লংগদু ও বরকল সীমান্তে সন্ত্রাসীদের গুলিতে গ্রামবাসি নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

উচিংছা রাখাইন,রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি

রাঙ্গামাটির লংগদু ও বরকল সীমান্ত এলাকায় দূবর্িৃত্তের গুলিতে গ্রামবাসি

লক্ষি কুমার চাকমা (৪৫) নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে ) রাত ১টা ৪৫ মিনিটে নিজ বাড়িতে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা

ঘটে। নিহত লক্ষী চন্দ্র চাকমা বরকল উপজেলার সুবলং এলাকার বাসিন্দা বলে

জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১২মে) দুপুরে এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বরকল থানার

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দীন বলেন, সুবলং ইউনিয়নের শিলছড়ি

এলাকায় নিজ ঘরে বুধবার দিনগত রাতে দূর্বৃত্তরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি করে

পালিয়ে যায়। কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা

যাচ্ছে না।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিনগত রাতে বরকল উপজেলার সুবলং

ইউনিয়নের শিলছড়ি (উখছড়ি) এলাকায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা লক্ষী চন্দ্র চাকমা

নামের এক স্থানীয় ব্যক্তির নিজ বাড়িতে এসে তাকে গুলি করে হত্যা নিশ্চিত

করে পালিয়ে যায়। লক্ষী চন্দ্র চাকমা অতীতে আঞ্চলিক দল ইউপিডিএফ

গণতান্ত্রিক দলের কর্মী ছিলেন। বর্তমানে তিনি সবকিছু ছেড়ে পারিবারিক কৃষি

কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

তাকে হত্যা করার মূল কারণ হিসেবে স্থানীয়দের ধারণা লক্ষী চন্দ্র ইউপিডিএফ

গণতান্ত্রিক গ্রুপের সাথে এখনো যোগাযোগ রাখছেন এবং তাদের হয়ে তথ্য সরবরাহ

করছেন।

বরকল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দিন বলেন, মরদেহটি

উদ্ধারে বরকল পুলিশ ঘটনাস্থলে রওনা করেছে। তারা ফিরে আসলে পরে বিস্তারিত

জানা যাবে।


আরও খবর



ঠাকুরগাঁওয়ে মাটি ছাড়াই অভিনব পদ্ধতিতে শাক-সবজি চাষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৯৯জন দেখেছেন
Image

মোঃ মজিবর রহমান শেখ,

দ্রুত নগরায়নে কারণে কমছে কৃষি জমি। ফলে ইচ্ছে সত্বেও অনেকে বাগান কিংবা সবজি চাষ করতে পারেন না। তবে আশার কথা হচ্ছে  মাটি ছাড়াই অভিনব পদ্ধতিতে মাটির সংস্পর্শ ছাড়াই বিষ মুক্ত লেটুসসহ শাক-সবিজ ও ফল চাষ হচ্ছে ঠাকুরগাঁও জেলায় । গ্রীন হাউসের মতো বিশেষ পদ্ধতিতে উৎপাদিত নিরাপদ ও বিষমুক্ত এই সব শাক-সবজি সরবরাহ করা  হচ্ছে রাজধানী ঢাকার নামী-দামি রেস্টুরেন্ট গুলোতে। তবে সরকারি সহায়তা পেলে আরও বেশ কয়েকটি খামার গড়তে চান উদ্যোক্তারা। সরেজমিনে  ঠাকুরগাঁও  সদর উপজেলার খলিশাখুড়ি গ্রামে সবজি খামারে  গিয়ে দেখা যায়, প্লাস্টিক পাইপের মাধ্যমে ১৬টি খাদ্য উপাদান মিশ্রিত পানি অটো পাম্পের মাধ্যমে সঞ্চালন করে মাটি ছাড়া চাষাবাদ চলছে। আর পাইপ ছিদ্র করে বেড়ে উঠা লাগোনো গাছে স্বল্পপরিসরে চাষ করা হচ্ছে শসা, লাউ, মরিচ, ধনেপাতা, টমেটো, ক্যাপসিকাম, স্ট্রবেরি, পেঁয়াজ, রসুন, তরমুজ, করলাসহ আরও কয়েক ধরনের সবজি। একটি পানির পাম্প দিয়ে দিনে দুবার মাটির বিভিন্ন উপাদানমিশ্রিত পানি আদানপ্রদান করা হয়। উৎপাদিত এই সব শাক-সবজি রাজধানী সহ বিভিন্ন জেলায় বাজারজাত করছেন বাগানের  উদ্যোক্তারা । জানা যায় ২০১৭ সালে ৬০শতক জমি নিয়ে পরীা মুলক মাটি ছাড়া এই বিশেষ পদ্ধতিতে ওই  গ্রামের ৬ বন্ধু  যৌথভাবে লেটুস সহ শাক-সবজি ও ফল চাষ শুরু করেন । অভিনব এই পদ্ধতিতে আবাদ করে সফলও হয়েছেন তারা। ২০১৯ সাল থেকে  বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদিত হচ্ছে তাদের খামারে বিদেশী সবজি লেটুসসহ দেশীয় ফল ও শাক-সবিজ। হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদের এ ছয়জন উদ্যোক্তা হলেন জাফর ইবনে হাসান, নাহিদ হোসেন, আল আমিন, সাবাহ্ সাঈদ, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও শাহরিয়ার। সবজির খামারের নিয়মিত শ্রমিকেরা বলেন, অত্যাধুনিক পদ্ধতিতে চাষ করা খামারে কাজ করছি। এখানে বিষ মুক্ত সবজি উৎপাদন করা হয়।কোন বিষয়ে সীদ্ধান্ত নিতে না পারলে বসদের কথা অনুযায়ি কাজ করি। উদ্দ্যোক্তা নাহিদ হোসেন বলেন, হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদে অনেক বায়োসিকিউরিটি অনুশীলন করা হয় সে জন্য খেতে পোকা-মাকড়ের আক্রমন নেই। তাছাড়া কিছু ডিভাইস ব্যবহারের ফলে বণ্যপ্রাণী ভিতরে প্রবেশ করতে পারে না। বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে আমরা সম। আগামীতে আরও বেশি পরিমাণে লেটুসের সাথে টমোটো, শশা, মরিচ, তরমুজ চাষের পরিকল্পনা রয়েছে।

হাইড্রোপনিকের আরেক উদ্দ্যোক্তা আল আমিন বলেন, আমরা লেটুসকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি কারণ এর চাহিদা সারা বছর। তবে উৎপাদনে সফলতা আসলেও খরচের তুলনাই দাম সেই রকম পাওয়া যায় না। পরিকল্পনা রয়েছে দেশের চাহিদা পূরণ করে বিদেশে রফতানি করা কিন্তু সেই রকম যোগাযোগ পাচ্ছি না। বর্তমানে ঢাকায় বাজাবজাত করছি কিন্তু আশানুরুপ ফল পাচ্ছিনা। এ পদ্ধতিতে অল্প জায়গাতে বেশি পরিমাণ বিষ মুক্ত সবজি উৎপাদন করা সম্ভব। যার গুণগত মান অনেক বেশি। তবে এ পদ্ধতিতে উৎপাদন খরচ  বেশি। এ পদ্ধতিতে বীজ বোপণ থেকে লেটুসপাতা উৎপাদন পর্যন্ত সময় লাগে ৩৫-৩৮ দিন। এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আবু হোসেন বলেন, উপজেলার ভূল্লী এলাকায় নিজস্ব উদ্দ্যোগে বৃহৎ আকারে বানিজ্যিক ভাবে হাইড্রোপনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ শুরু হয়েছে। সনাতন পদ্ধতি বর্তমানে দেশে যে হারে আবাদি জমি কমছে তাতে অনেকে চাইলেই এই পদ্ধতিতে চাষাবাদ করে সারা বছর সবজি- ফলমুল উৎপাদন করতে পারে।


আরও খবর



প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের শেষ ধাপের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১১২জন দেখেছেন
Image

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৫ হাজার সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় ও শেষ ধাপের পরীক্ষার তারিখ পেছানো হয়েছে। ২৭ মে’র পরিবর্তে ৩ জুন হবে এই পরীক্ষা। আজ বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল ২৭মে। একই দিন ৪৪তম বিসিএসের প্রিলি পরীক্ষাও হবে। সে কারণেই প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, প্রথম ধাপের পরীক্ষা আগামীকাল শুক্রবার (২২ এপ্রিল) থেকে শুরু হবে। দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা হবে ২০ মে এবং শেষ ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ জুন। উল্লেখ্য, আবেদনকারীর নিজ নিজ জেলায় সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।


আরও খবর