Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক স্থানান্তর

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন :

নওগাঁর মান্দায় ঐতিহাসিক কুসুম্বা মসজিদে যাতায়াতের রাস্তার ধারে থাকা সাংস্কৃতিক অঙ্গনের কালো পাথরের প্রাচীন নিদর্শনটি ''সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক বা শিরোনা'' স্থানান্তর করা হয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের উদ্যোগ ও স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় শনিবার ২১ জানুয়ারী দুপুরে কুসুম্বা মসজিদের উত্তর পাশে তেঁতুলতলায় এটি সরিয়ে নেওয়া হয়।

এসময় প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক ড. নাহিদ সুলতানা, প্রত্নতাত্ত্বিক যাদুঘর মহাস্থানগড়ের কাষ্টোডিয়ান রাজিয়া সুলতানা, প্রত্নতাত্ত্বিক যাদুঘর পাহাড়পুরের কাষ্টোডিয়ান ফজলুল করিম, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের গবেষনা সহকারী হাসানাত বিন ইসলাম, মান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু বাক্কার সিদ্দিক, উপজেলা প্রকৌশলী শাইদুল ইসলাম মিয়া, কুসুম্বা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নওফেল আলী মণ্ডল, কুসুম্বা শাহী মসজিদের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক ড. নাহিদ সুলতানা বলেন, কালো পাথরের খণ্ডটি সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রাচীন একটি নিদর্শন। এটি সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের কবর ফলক বা শিরোনা কিনা বলা যাচ্ছে না। লিপিটার পাঠোদ্ধার হলেই বিস্তারিত জানা যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জনশ্রুতি আছে সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহের স্ত্রী কুসুম বিবি সেই সময় মান্দার কুসুম্বা গ্রামে অবস্থান করতেন। সেই সুবাদে শেষ বয়সে সুলতান কুসুম্বা গ্রামে স্ত্রীর কাছে অবস্থান করাও বিচিত্র নয়। যেহেতু সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহ মৃত্যুর সময় কোথায় অবস্থান করছিলেন প্রচলিত গ্রন্থে তার উল্লেখ না থাকায় ধরে নেওয়া যায় তিনি কুসুম্বাতে সমাহিত রয়েছেন। প্রাচীন এ নিদর্শন সম্পর্কে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ইমরুল কায়েস চৌধুরী ‘কালান্তরে নওগাঁ’ গ্রন্থে উল্লেখ করেন লিপিযুক্ত প্রস্তর খণ্ডটি সুলতান আলাউদ-দীন হোসাইন শাহ্রে কবর ফলক বা শিরোনা।


আরও খবর



সোনারগাঁওয়ে ৫১ তম জাতীয় স্কুল ও মাদ্রাসা খেলাধুলার পুরস্কার বিতরন

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

শাহাদাৎ হোসেন সায়মন (সোনারগাঁও প্রতিনিধি) :

সোনারগাঁও উপজেলার মেঘনা শিল্প নগরী স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে বাংলাদেশের ৫১ তম জাতীয় স্কুল মাদ্রাসা খেলাধুলার পুরস্কার বিতরনী অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্টানে এডঃ সামসুল ইসলাম ভূইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয়  সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রেজাওয়ান উল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার, সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান মাসুম, জেলা পরিষদ সদস্য আবু নাইম ইকবাল, নোওয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুল ইসলাম সামসু। এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন কর্মকর্তাগন বিভিন্ন স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষকগণ এবং ছাত্রছাত্রীবৃন্দসহ প্রিন্ট ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন। এসময় খেলাধুলায় বিজয়ীদের হাতে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ পুরষ্কার তুলে দেন।

সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, মাদক সন্ত্রাস ইভটিজিং জঙ্গিবাদ থেকে নিজেদের সন্তান এবং নিজেদেরকে বাঁচিয়ে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে সুস্থ দেহের জীবন-যাপন করা প্রতিটি শিক্ষার্থীর উচিত লেখাপড়ার পাশাপাশি ক্রীড়া সংস্কৃতিতে মনযোগী হওয়া।  নিজের প্রতিভাকে কাজে লাগিয়ে নিজেকে পৃথিবীতে শ্রেষ্ঠ মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।

চেয়াম্যান মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, তোমারা ফেইজবুক কম ব্যবহার করবে তাহলে তোমার লেখাপড়া এগিয়ে নিয়ে যেতে পাড়বে।তোমাদের তোমার মা বাবার আশা তোমরা সুশিক্ষিত হও। তোমাদের খেলাধুলার জন্য যা কিছু দরকার আমি যতদিন আছি তোমাদের পাশে থাকবো।


আরও খবর



গজারিয়ায় শেখ কামাল আন্ত:স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:Monday ১৬ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

মো: আবুল হোসেন :

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় শেখ কামাল আন্ত:স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৬ (জানুয়ারি) সোমবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার গজারিয়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ এ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সহযোগিতায় ও উপজেলা প্রশাসন ও ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক, জাতীয় সংসদ সদস্য, মুন্সীগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা এডভোকেট মৃনাল কান্তি দাস। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জিএম রাসেদুল ইসলাম, গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শফিউল্লাহ, বাউশিয়া ইউনিয়ন পরিষদের জনবান্ধব চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান প্রধান, ইমামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুজ্জামান খান জিতু, টেঙ্গারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: কামরুল হাসান ফরাজী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ তৌফিক এলাহি নূর, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ তাজুল ইসলাম, প্রমুখ। 


আরও খবর



সদরপুরে ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও হত্যা মামলার আসামী মোঃ রফিকুল ইসলাম

প্রকাশিত:Wednesday ১৮ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

সদরপুর (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

ফরিদপুরের সদরপুরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় রফিকুল ইসলাম ঢাকা অবস্থান করার পরেও তাকে মিথ্যে হত্যা মামলার আসামী করা হয়েছে।

ফরিদপুরের সদরপুরে কৃষ্টপুর ইউনিয়নের হাটকৃষ্ণপুর বাজারে গত বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থক গিয়াস তালুকদার নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করে বর্তমান চেয়ারম্যান আকতারুজ্জামান তিতাসের সমর্থকরা পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তার শারিরীক অবস্থায় অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আহত গিয়াস উদ্দিন তালুকদার একই ইউনিয়নের যাত্রাবাড়ি গ্রামের নয়ন তালুকদারের পুত্র।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিকেলে উভয় গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পাল্টাপাল্টি হামলা ও সংঘর্ষের সময় বেশ কিছু বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়। এতে আহত হন কমপক্ষে ১৫ জন।

পরে গত (১৭ নভেম্বর) বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর পযর্ন্ত সদরপুর উপজেলার যাত্রাবাড়ী এালাকায় কৃষ্টপুর ইউনিয়নের সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ হয় । এ সময় সংঘর্ষে জালাল ফকির নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। পরবতিতে নিহত জালালের ফকিরের ভাই দেলোয়ার ফকির বাদী হয়ে ৫১ জনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

কিন্তু ঘটনা স্থলে উপস্থিত না থেকেও বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নিদেশে মামলার ৩৯ নং আসামী করা হয় রফিকুল ইসলামকে । যিনি ঐসময়ে ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন, আর, বি, সি, কমার্শিয়াল ব্যাংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলেন। যা ব্যাংকের সিসি টিভি ফুটেজে স্পষ্ট ফুটে উঠেছে।

অথচ ঘটনার দিন রফিকুল ইসলামের ঘটনাস্থলে উপস্থিত না থাকার বিষয়টা সদরপুর থানার ওসি ও মামলার তদন্ত অফিসার কৃষ্ণ বিশ্বাসকে জানানো হলেও এই মিথ্যা মামলা থেকে রেহাই পায়নি।

এ বিষয়ে রফিকুল ইসলাম দৈনিক বর্তমান দেশবাংলাকে বলেন, আমি ঘটনার দিন ঢাকার কদমতলী সাদ্দাম মার্কেট এলাকার এন আর বি সি কমার্শিয়াল ব্য্রংকে লেনদেন অবস্থায় ছিলাম। কিন্তু আমাকে বর্তমান চেয়ারম্যান তিতাসের নির্দেশে জালাল হত্যা মামলার মিথ্যা আসামি করা হয়েছে । আমি প্রশাসনের নিকট এই হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলার সুষ্ট তদন্ত দাবি করছি। সেই সাথে আমাকে এই মিথ্যা মামলা থেকে অব্যহতি দেওয়ার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

 


আরও খবর



৮ বিভাগে আ.লীগ নেতাদের দায়িত্ব বণ্টন

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

জহিরুল কবির আমজাদ :সাংগঠনিক কাজ দেখার জন্য দেশের আট বিভাগে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে দায়িত্ব বণ্টন করা হয়েছে। রবিবার  দলটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চারজন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্ব পেয়েছেন ড. হাছান মাহমুদ। মাহবুব-উল-আলম হানিফ পেয়েছেন সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্ব। আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম পালন করবেন খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দায়িত্ব। ডা. দীপু মনি পেয়েছেন ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগ।

দলটির আট সাংগঠনিক সম্পাদকের মধ্যে আহমদ হোসেন সিলেট বিভাগ, বি এম মোজাম্মেল হক খুলনা, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন চট্টগ্রাম, এস এম কামাল হোসেন রাজশাহী, মির্জা আজম ঢাকা, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বরিশাল, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ময়মনসিংহ ও সুজিত রায় নন্দী রংপুরের দায়িত্ব পেয়েছেন। রংপুরে এর আগে সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শফিক দায়িত্বে ছিলেন। তবে ২২তম সম্মেলনে তিনি সাংগঠনিক পদ থেকে বাদ পড়েন। তার স্থানে সুজিত রায় নন্দী সাংগঠনিক দায়িত্ব পান।


আরও খবর



তুমি তোমার কাজ করে যাও, থেমে যেওনা

প্রকাশিত:Tuesday ২৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরী, শিক্ষাবিদ :

তোমাকে নিয়ে মানুষ হাসছে, ঠাট্টা-বিদ্রুপ করছে, তাদের করতে দাও, বাধা দিওনা | তুমি তোমার কাজ করে যাও | থেমে যেওনা | একটা কথা সব সময় মনে রেখো, পৃথিবীতে আজ যাদের আমরা সফল মানুষ বলে জানি,  একদিন তাদের দেখেও  মানুষ হেসেছিলো, ঠাট্টা-বিদ্রুপ করেছিল | তারা থেমে যায়নি | তাদের কাজ থেকে এতটুকু  সরে যায়নি বরং মানুষের এই অবহেলা, অবজ্ঞা, অপমানকে তারা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিল, কিন্তু তাদের বুঝতেও দেয়নি | হয়তো তারা কেঁদেছিলো, নীরব যন্ত্রনায় পুড়েছিল, আঘাতের ক্ষত চিহ্ন তারা বয়ে  বেড়াচ্ছিল | কিন্তু কখনো কারো সহানুভূতি চায়নি, কারো ভালোবাসা পেতে নিজেদের ব্যক্তিত্বকে হারিয়ে ফেলেনি, কখনো কারো কাছে তাদের বুকের ভিতরে জমে থাকা কষ্টগুলো প্রকাশ করেনি | কারণ তারা জানতো, মানুষের কাছে কখনো দুর্বলতা প্রকাশ করতে নেই |  

মানুষ দুর্বলদের উপর বুভুক্ষু শুকুনির মতো ঝাঁপিয়ে পড়তে ভালোবাসে  | নিজের বড়ত্ব দেখানোর নাম করে সর্বস্ব কেড়ে নিতে এতটুকু ছাড় দেয়না |  বাস্তবতা হলো মানুষ মানুষের অসহায়ত্ব নিয়ে খেলতে ভালোবাসে, মানুষের দুঃখকে পুঁজি করে নিজের লাভটা কড়ায় গন্ডায়  বুঝে নিতে বিন্দুমাত্র কার্পণ্য করেনা  |  

মানুষ অভিনয় করে হয়তো মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে সহানুভূতি, আবেগ, ভালোবাসা দেখানোর চেষ্টা করবে | সেটা মেরুদন্ড ভেঙে দেবার একটা কৌশল, সেটা মানুষের ভিতর জেগে উঠা স্বপ্নকে মুছে ফেলার একধরণের সুপ্ত কূটনীতি  | কূটনীতি থেকে মানুষকে গিনিপিগ বানানোর রাজনীতিও হয়ে উঠতে পারে সেটা | সহানুভূতি, আবেগ, ভালোবাসা কখনো কখনো আত্মঘাতী হয়, মানুষকে তার লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত করে |  মিথ্যে ভালোবাসায় লোকদেখানো অতি আবেগ থাকে, ভালোবাসা সত্য হলে সেখানে আগুনে পোড়া রুটির মতো কঠিন বাস্তবতা থাকে |  

তোমার মনকে শক্ত করো, মাটিকে খড়কুটোর মতো  আঁকড়ে ধরো, প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়তে লড়তে তোমার স্বপ্নকে অতিক্রম করতে শেখো | মনে রেখো স্বপ্নের পিছনে ছোটা মানে স্বপ্নের কাছে পরাজয় মেনে নেওয়া, তোমাকে এমনভাবে ভেঙে ভেঙে গড়ে তুলো যাতে স্বপ্ন তোমার পিছনে ছুটতে  ছুটতে  ক্লান্ত হয়ে পড়ে  |  যেদিন দেখবে তুমি তোমার স্বপ্নের চেয়েও এগিয়ে গেছো  সেদিন তোমার কাছে স্বপ্নগুলো বাস্তবতা হয়ে হার মানতে বাধ্য হবে | তুমি তোমাকে চেনো, তোমার ভিতরের ঘুমন্ত মানুষটাকে চেনো, তাকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তোলো | হয়তো তখন দেখবে তুমি এমন কিছু সৃষ্টি করেছো যা ইতিহাসের সব সৃষ্টিকে হার মানিয়েছে, সময়কেও তোমার পিছনে ফেলে দিয়েছে |   

এই পৃথিবীতে বড় হতে হলে অনেক ছোট হতে হয়, সবার পিছনে দাঁড়িয়ে নিজের পিছিয়ে পরার কষ্টটাকে আনন্দ  বানাতে হয়, অবহেলা, অযত্নকে মেনে নিয়ে নিজের ভিতরের অমিত শক্তিটাকে খুঁজতে হয় |  মনে রেখো এই পৃথিবীতে তুমি কখনো হাত ধরে উপরে তোলার মানুষ পাবেনা, তোমার বড় হয়ে উঠার কঠিন লড়াইকে কেউ মেনে নিতে চাইবেনা, তুমি যতই নিজেকে প্রমান করো না কেন মানুষ তা কখনো স্বীকার করে নেবেনা | 

তারপরও তুমি তোমার হাত ছেড়োনা, তুমি তোমার লড়াইটা থামিয়ে দিওনা, তুমি তোমাকে প্রমান করার চেষ্টাটা বন্ধ করোনা | মনে রেখো পৃথিবীটা খুব নির্মম | পৃথিবীর মানুষের বিচারে তুমি যদি ফেল করো তাহলে বুঝে নিও  তুমি পাশ করেছো | কারণ মানুষ যা ভাবে তা বলেনা, মানুষ যা বলেনা মানুষ সেটাই ভাবে | 

তুমি তোমাকে বিচার করতে শেখো, নিজেকে বিচার করতে শিখলে মানুষের বিচারের জন্য কখনো বসে থাকতে হয়না | আর একটা কথা সব সময় মনে রেখো  যে  মানুষরা তোমাকে দেখে একদিন  হেসেছিলো, অপমান করার খেলায় মেতেছিলো সময়ের স্রোতে  তারা ভেসে যাবে একদিন, ইতিহাসও  তাদের কখনো মনে রাখেনি, রাখবেনা কোনোদিনও  |


আরও খবর