Logo
শিরোনাম

টাকা ছিনিয়ে নিয়ে ভিক্ষুককে বাস থেকে ফেলে দিলো দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
Image
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে শুকুর আলী (৬০) নামে তার সারাদিনের ভিক্ষার
রোজগারের ৬শ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে বিবস্ত্র করে বাস থেকে ফেলে দিয়েছে
দুর্বৃত্তরা। এমন অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়া থেকে ঢাকাগামী বনলতা এন্টার
প্রাইজ নামে যাত্রীবাহী বাসে।

শুক্রবার (১৩ মে) রাত ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জ শহরের বাজার স্টেশন এলাকায় ওই
বৃদ্ধ ভিক্ষুককে বাস থেকে ফেলে দেওয়া হয়।

অসুস্থ্য ভিক্ষুক শুকুর আলী বগুড়া জেলা সদরের চক সূত্রাপুর গ্রামের
বাসিন্দা বলে জানা যায়। বর্তমানে শুকুর আলী সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অসুস্থ ও বিবস্ত্র অবস্থায় বৃদ্ধ শুকুর আলীকে দেখতে পেয়ে সিরাজগঞ্জ পুলিশ
লাইন্সে কর্মরত সহকারী উপ-পরিদর্শক হাফিজ এবং স্থানীয় যুবক হাবিল ও
মুন্না রহমানসহ কয়েকজন তাকে উদ্ধার করেন। এ সময় অসুস্থ বৃদ্ধ হাঁটতে ও
দাঁড়াতে পারছিলেন না।

শনিবার (১৪ মে) দুপুরে শুকুর আলী জানান, ভিক্ষা করার জন্য বগুড়া থেকে
ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বনলতা এন্টার প্রাইজ নামে একটি বাসে উঠে। ভিক্ষা
করার কিছুদূর আসার পর কয়েকজন ব্যক্তি তাকে খাবার দেয়। সেই খাবার খাওয়ার
পর অজ্ঞান হয়ে পড়েন তিনি। তারপরের ঘটনা মনে নাই। জ্ঞান ফিরে দেখেন তিনি
বিবস্ত্র অবস্থায় রাস্তার পাশে পড়ে আছেন। পকেটে ভিক্ষার ৬শ টাকা ছিল। সে
টাকাগুলো নাই।

উপ-পরিদর্শক হাফিজ (এএসআই) হাফিজ বলেন, রাত ১১টার দিকে ওই বৃদ্ধকে
বিবস্ত্র অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। পরে স্থানীয় কয়েকজন যুবকের সহযোগিতায়
তাকে লুঙ্গি পরিয়ে দিয়ে খাবার খাওয়াই। এরপর তাকে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা
বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা
হয়।

সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল
হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ফয়সাল আহমেদ জানান, অসুস্থ্য
অবস্থায় বৃদ্ধকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে দেখা যায় ওই বৃদ্ধকে
নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে অজ্ঞান করা হয়েছিল। তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
বর্তমানে তিনি আশঙ্কামুক্ত রয়েছে।

আরও খবর



গাজীপুরের রাস্তায় গার্মেন্টস শ্রমিকদের ঢল

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৭জন দেখেছেন
Image

সদরুল আইন,গাজীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

ঈদের আগে কারখানা ছুটির পর মানুষের ঢল নেমেছে গাজীপুরের রাস্তায়।

 গাড়ির অভাবে আর যানজটে দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে লাখ লাখ মানুষকে।

শনিবার থেকে রোববার  দুপুর পর্যন্ত গাজীপুরে ঢাকা-ময়মমনসিংহ মহাসড়ক ও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ঘরমুখো মানুষের চাপ বাড়ে।

শেষ পর্যন্ত বাস না পেয়ে যাত্রীরা অতিরিক্ত ভাড়ায় মিনিবাসে, মাইক্রোবাসে, ট্রাকে, মোটরসাইকেলে, পিকআপে করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রওনা হয়েছেন গন্তব্যের উদ্দেশে।প্রিয়জনের সাথে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে এ যেন হিমালয় আরোহন।

গাজীপুরের কোনাবাড়ী এলাকার একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক জাকির হোসেন। ঈদে স্ত্রী হালিমা বেগম আর মেয়ে জুলেখাকে নিয়ে দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার মুকুন্দপুরে গ্রামের বাড়িতে যাবেন।

 তিনি বলেন, ভোর ৫টা থেকে কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা ত্রিমোড়ে বাসের অপেক্ষায় থাকলেও সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত কোনো বাসে উঠতে পারেননি তারা।

দু-একটি বাস পেলেও তিনজনের জন্য তিন হাজার টাকা ভাড়া চাওয়া হয় বলে অভিযোগ জাকিরের। নিরুপায় হয়ে বসে থেকে পরে একটি পিকআপে ৫০০ টাকায় বগুড়া পর্যন্ত যাওয়ার জন্য রওনা দেন তারা।

গাজীপুর থেকে ময়মনসিংহ পর্যন্ত ভাড়া ১০০ থেকে ১৫০ টাকা হলেও দ্বিগুণেরও বেশি নেওয়ার অভিযোগ করেন ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, “যার যেমন খুশি তেমন ভাড়া নিচ্ছে। কাউকে কিছু বলারও সুযোগ নেই।”

তাদের মতই হাজার হাজার ঘরমুখো মানুষকে চন্দ্রা ত্রিমোড়ে যানবাহনের অপেক্ষায় থাকতে দেখা যায় রাত ৯টার দিকে। বাসগুলো ইচ্ছেমতো অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে বলে অভিযোগ তাদের।

চন্দ্রা এলাকায় দায়িত্ব পালন করেন কোনাবাড়ী হাইওয়ে থানার ওসি ফিরোজ হোসেন।তিনি বলেন, শনিবার থেকে আজ দুপুর পর্যন্ত অধিকাংশ কারখানা ছুটি হলে দুপুরে চন্দ্রা এলাকায় মানুষের ঢল নামে।

 গাড়িগুলো স্বাভাবিক গতিতে চলতে না পারায় দীর্ঘ লাইন পড়ে যায়। চন্দ্রা মোড়ে হাজার হাজার মানুষ বাসে ওঠার জন্য অপেক্ষা করছে। এ কারণেও যান চলাচল কিছুটা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

অধিকসংখ্যক যাত্রী একসঙ্গে রওনা হওয়ায় গাড়ির অভাব পড়ে বলে জানান গাজীপুর সিটি পুলিশের উপ-কমিশনার আব্দুল্লাহ আল মামুন।

তিনি বলেন, “শনিবার দুপুরে অধিকাংশ পোশাক কারখানা ছুটি হলে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন এলাকায় ঘরমুখো মানুষের ঢল নামে। এতে গাড়ির সংকট দেখা দেয়। গাড়ির তুলনায় যাত্রী বেশি হওয়ায় অনেকেই ট্রাক ও পিকআপে করে রওনা হন।

“তিন দিন আগে এসব গাড়ি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলেও গাড়ির অভাবের কারণে আটকানো হচ্ছে না। আটকালে জট লাগতে পারে।”

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সড়কে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

সাভার ও আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলেও একই পরিস্থিতি। বেশির ভাগ কারখানা একযোগে বন্ধ হওয়ায় বাসের অভাব পড়ে। ঘরমুখী মানুষ পিকআপে, ট্রাকে ও মোটরসাইকেলে করে বাড়ি ফিরতে শুরু করে। এতে বিভিন্ন জায়গায় দেখা দেয় যানজট।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে বাইপাইল এলাকায় অপেক্ষা করছিলেন পোশাক শ্রমিক জুলেখা বেগম। তিনি নাটোরে বাড়ি যাওয়ার জন্য পরিবার নিয়ে রওনা হয়েছেন।

জুলেখা বলেন, “যানজটের কারণে এখন বিরক্ত হচ্ছি। আবার মানুষের ঢল বেশি হওয়ায় সুযোগ নিচ্ছে বাস মালিকরা। তারা ইচ্ছামত ভাড়া বাড়াচ্ছে।”

পুলিশ যানজট নিরসনে সচেষ্ট থকলেও ভাড়া বেশি নেওয়ার বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারছে না।

তবে শনিবারের তুলনায় আজ এসব সড়কসমুহে যানজট সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে।ঈদ মঙ্গলবার হবে এমন খবরে অনেকেই ধীরে সুস্থে বুঝে শুনে তাড়াহুড়ো না করে গ্রামের বাড়িতে রওনা হচ্ছেন।ফলে শনিবারের তুলনায় আজ গাজীপুর থেকে উত্তরবঙ্গ ও মযমনসিংহগামী পরিবহনগুলোতে তেমন চাপ পরিলক্ষিত হয়নি।


আরও খবর



গাজীপুর জেলা আ.লীগের কমিটি নিয়ে শ্রীপুরে নয়া গুঞ্জণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১১৩জন দেখেছেন
Image

সদরুল আইনঃ আগামি ১৯ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রাজধানী সংলগ্ন গুরুত্বপূর্ণ শিল্প জেলা গাজীপুর জেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলণ। এই সম্মেলণকে সফল করতে গত ২১ শে এপ্রিল জেলা আ.লীগের বর্তমান সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ,ক,ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক ও গাজীপুর-৩ আসনের এমপি ইকবাল হোসেন সবুজ'র সঞ্চালণায় বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয় জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে। এই বর্ধিত সভায় ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি,ইকবাল হোসেন অপু,বঙ্গতাজ কন্যা সিমিন হোসেন রিমি এমপি,মেহের আফরোজ চুমকি এমপি সহ অনেক কেন্দ্রিয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলণ অনুষ্ঠিত হওয়ার আগেই জেলার সাধারন সম্পাদক ও সভাপতি পদে পরিবর্তন আসছে একজন বিশেষ প্রার্থির অনুসারিদের পক্ষ থেকে ব্যাপক অনানুষ্ঠানিক গুঞ্জণ ছড়িয়ে দেওয়া হয়।এতে বিভ্রান্তি তৈরি হলেও বেশিরভাগ মানুষ তার লাগামহীন কথা, উগ্র আহামরি আত্মপ্রচারকে পাত্তা দেয়নি। গত কয়েকদিন হলো সেই নেতার বিশেষ অনুসারিরা বিভিন্ন জনপদে,মাঠে ময়দানে বলছেন, ১৯ মে'র সম্মেলণে বর্তমান সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের দুটি শীর্ষ পদেই পরিবর্তন আসছে। তারা অনেকটাই আত্মবিশ্বাসের সাথে বলছেন, আসন্ন সম্মেলণে সভাপতি হচ্ছেন, বঙ্গতাজ তনয় সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ এবং সাধারন সম্পাদক হচ্ছেন গাজীপুর-৩ আসনের প্রয়াত এমপি সাবেক মন্ত্রী এ্যাড রহমত আলীর পুত্র এ্যাড জামিল হাসান দুর্জয়। এছাড়া গাজীপুর-৩ আসন জুড়ে গুঞ্জণ ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে যে আসন্ন কমিটিতে সোহেল তাজ- দুর্জয় কমিটির ঘোষণা সময়ের ব্যাপার মাত্র। তারা বলছেন ১৯ মে যে কমিটি গঠিত হতে যাচ্ছে সেই কমিটিতে বর্তমান সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ এমপিকে ১ নং সহসভাপতির পদ প্রদান করা হচ্ছে এবং দ্বাদ্বশ সংসদ নির্বাচনে তাকে গাজীপুর-৩ আসন থেকে আ.লীগের পূণঃমনোনয়ন প্রাপ্তির নিশ্চয়তা সম্বলিত গ্রীন সিগন্যালও দেওয়া হবে। এছাড়া তারা বলছেন, জেলা কমিটির তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক সম্পাদকের পদটিতে বর্তমান নেতৃত্ব অপরিবর্তিত থাকছে।তবে জেলা কমিটির অন্যান্য পদে আংশিক বা পূর্ণ পরিবর্তন আসতে পারে। গাজীপুর জেলা কমিটি নিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রপাগন্ডা গাজীপুর-৩ আসনে ছড়ানো হলেও জেলার অপর উপজেলাগুলোতে এর কোন ভিত্তি নেই।আলোচনায়ও নেই এসব নেতাদের নামসমুহ। গাজীপুর-৩ আসন এলাকায় এসব গুঞ্জণ ছড়িয়ে দেওয়ার পিছনে কোন মহলের রাজনৈতিক দুরাভিসন্ধি থাকতে পারে বলে মনে করছেন জেলার শীর্ষ নেতারা। তারা বলেছেন, গাজীপুর জেলা আ.লীগের বর্তমান কমিটি অপরিবর্তিত থাকা বাঞ্চনীয়।কারন তাদের সফলতার ঝুলি সমৃদ্ধ। তবে আসন্ন সম্মেলণের মাধ্যমে বর্তমান কমিটি অপরিবর্তিত থাকবে না শীর্ষ পদে পরিবর্তন আসবে তা নির্ভর করছে দলিয় প্রধান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছা ও মানসিকতার উপর। তিনি যাকে যেখানে যোগ্য মনে করবেন তার দিক নির্দেশণায় সেভাবেই কমিটি গঠন করা হবে।এ ব্যাপারে যে বা যারা অগ্রীম পদ প্রাপ্তির গল্প ছড়াচ্ছেন এটা তাদের রাজনৈতিক চতুরতা ও স্ট্যান্ডবাজি ছাড়া আর কিছুই নয়।


আরও খবর



পলিথিন কারখানায় অভিযান, আড়াই লক্ষ টাকা অর্থদন্ড

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৮৫জন দেখেছেন
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিসিকি শিল্প এলাকায় জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) নোয়াখালী শাখার তথ্যের ভিত্তিতে অবৈধ তিনটি পলিথিন তৈরীর কারখানায় অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় বিপুল  অবৈধ পলিথিন জব্দ করা হয়।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে এ অভিযান পরিচালনা করেন বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শামসুন্নাহার বেগম । এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন বেগমগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ।

এসময় সরকার নিষিদ্ধ পলিথিন তৈরীর করার অভিযোগে পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে এসপি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং কারখানাকে এক লাখ টাকা, ভাই ভাই প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিংকে এক লাখ ও আল মদিনা প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং কারখানাকে ৫০ হাজার টাকাসহ মোট দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়।এসময় উপস্থিত ছিলেন  এনএসআইয়ের যুগ্ম পরিচালক আবু তাহের মো. পারভেজ।  

বেগমগঞ্জ উপজেলা র্ন্বিাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শামসুন্ন্হাার বেগম জানান, পলিথিন কারখানার মালিকদের সর্তক করা হয়েছে। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



আজ থেকে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
Image

আসন্ন ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো যাত্রীদের জন্য ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু হবে আজ শনিবার সকাল ৮টা থেকে। চলবে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ট্রেনের অগ্রীম টিকিট বিক্রি করা হবে। ইন্টারনেটেও ই-টিকিটিংয়ের মাধ্যমে অগ্রিম টিকিট বিক্রি সকাল ৮টা থেকে শুরু হবে।

‘টিকিট যার ভ্রমণ তার’ নিশ্চিত করতে যাত্রীদের এনআইডি বা জন্ম নিবন্ধন সনদের ফটোকপি কাউন্টারে প্রদর্শন করে টিকিট কিনতে হবে। একজন যাত্রী একসঙ্গে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। ঈদের অগ্রিম বিক্রিত টিকিট ফেরৎ নেওয়া হবে না।

যাত্রীর চাপ কমানোর লক্ষ্যে ঢাকা শহরের ৫টি কেন্দ্র টিকিট বিক্রি করা হবে। স্থানগুলো হলো- কমলাপুর, ঢাকা বিমানবন্দর, তেজগাঁও, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ও ফুলবাড়িয়া (পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন)।

এর আগে গত ১৩ এপ্রিল সংবাদ সম্মেলনে রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছিলেন, প্রতিটি টিকিট বিক্রয় কেন্দ্রে মহিলা ও প্রতিবন্ধীদের জন্য একটি করে কাউন্টার থাকবে। প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেনে শুধুমাত্র মহিলা ও প্রতিবন্ধী যাত্রীদের জন্য একটি করে স্বতন্ত্র কোচ সংযোজন করা হবে।

তিনি বলেন, ঢাকা হতে বর্হিগামী ট্রেনে প্রতিদিন মোট আসন সংখ্যা হবে ২৬ হাজার ৬৬৩টি, যার অর্ধেক টিকিট কাউন্টারে এবং অর্ধেক টিকিট অনলাইনে বিক্রি করা হবে। ঢাকা হতে ২টি ঈদ স্পেশাল ট্রেনের আরও ১৫০০ আসনের টিকিট কাউন্টারে বিক্রি হবে।

ভ্রমণের সুবিধার্থে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়। পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের সাত দিন পূর্বে ২৫ এপ্রিল থেকে ঈদের পূর্ব দিন পর্যন্ত আন্তঃনগর ট্রেনসমূহের অফ-ডে থাকবে না এবং ঈদ পরবর্তীতে যথারীতি অফ-ডে কার্যকর করা হবে। অফ-ডে প্রত্যাহারের ফলে অতিরিক্ত ৯২টি আন্তঃনগর ট্রেন বিশেষ টিপ হিসেবে পরিচালিত হবে। ঈদুল ফিতরের দিন কোনো আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করবে না।

ঈদ পরবর্তী টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১ মে, চলবে ৪ মে পর্যন্ত। ২, ৩ ও ৪ মে এর অগ্রিম টিকিট বিক্রি চাঁদ দেখার ওপর নির্ধারণ করা হবে। ঈদ উপলক্ষে অতিরিক্ত চাহিদা মেটানোর জন্য মোট ৯২টি যাত্রীবাহী কোচ সার্ভিসে অন্তর্ভুক্ত করা এবং ২১৮টি লোকোমোটিভ যাত্রীবাহী ট্রেনে ব্যবহারের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধে পুলিশ এবং র‌্যাব সার্বক্ষণিক পাহারায় থাকেবে। এছাড়া জেলা প্রশাসকদের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।


আরও খবর



কমলাপুরে উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রির আগের দিনেই রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে উপচেপড়া ভিড়। আগেভাগে পরিবারের সদস্যদের বাড়ি পাঠাচ্ছেন অনেকে।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানায়, এ বছর বিগত দু'বছরের তুলনায় চাপ বেশি থাকবে। কারণ গত বছর করোনার কারণে ট্রেন চলাচলে বিধি-নিষেধ থাকায় অগ্রিম টিকিট বিক্রি বন্ধ ছিল। কিন্তু এবার প্রেক্ষাপট ভিন্ন। এবছর পুরোদমেই টিকিট বিক্রি কার্যক্রম চলবে এবং সবগুলো ট্রেনেই চলবে।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ আরও জানায়, এবছর ৫০ শতাংশ টিকিট দেয়া হবে অনলাইনে এবং ৫০ শতাংশ টিকিট দেয়া হবে কাউন্টারে।

এর আগে আগামীকাল ২৩ এপ্রিল থেকে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করবে বলে জানায় রেল কর্তৃপক্ষ। সেই হিসেবে ২৭ এপ্রিলের টিকিট ২৩, ২৮ এপ্রিলের টিকিট ২৪, ২৯ এপ্রিলের টিকিট ২৫, ৩০ এপ্রিলের টিকিট ২৬ ও ১ মের টিকিট ২৭ এপ্রিল বিক্রি করা হবে। অগ্রিম টিকিট বিক্রি নির্ধারিত দিনে সকাল ৮টায় শুরু হবে। যেসব স্টেশনে টিকিট বিক্রি করা হবে, তার সবগুলোতে নারী ও প্রতিবন্ধীদের জন্য পৃথক কাউন্টার থাকবে।

ঈদের অগ্রিম টিকিট পাওয়া যাবে পাঁচটি রেলস্টেশন থেকে। কেন্দ্রগুলো হলো-কমলাপুরে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ও খুলনাগামী স্পেশাল ট্রেন, ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশনে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন, তেজগাঁও স্টেশনে ময়মনসিংহ, জামালপুরগামী ও দেওয়ানগঞ্জ স্পেশালসহ সব আন্তঃনগর ট্রেন, মোহনগঞ্জগামী মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেসের টিকেট ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন, ফুলবাড়ীয়া পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট দেয়া হবে।

এদিকে ফিরতি যাত্রার টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১ মে থেকে।


আরও খবর