Logo
শিরোনাম

টাঙ্গাইলে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ; নিহত বাস চালক

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image
মোঃ সিরাজ আল মাসুদঃ টাঙ্গাইলের মধুপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসচালক নিহত হয়েছে। নিহত চালক শামীম (৪৫)  টাঙ্গাইল সদর এলাকার বাসিন্দা ।

শনিবার (১৪ মে) সকাল ৮ টার দিকে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কের মধুপুর উপজেলার গাংগাইর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই বাসের অন্ততপক্ষে ২৫ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। পুলিশ -ফায়ারসার্ভিস কর্মী ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মধুপুর থানার উপ পরিদর্শক মামুনুর রশিদ। 

তিনি বলেন,ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা প্রান্তিক পরিবহন ও টাঙ্গাইলের দিক থেকে ছেড়ে আসা মাহি পরিবহন গাংগাইর এলাকায় পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে দুটি বাসই ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসময় দুই বাসের চালকসহ অনেক যাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরে পুলিশ ও ফায়ারসার্ভিস কর্মীরা স্থানীয়দের সহায়তায় আহত ২৫ জনকে উদ্ধার করে মধুপুর, টাঙ্গাইল ময়মনসিংহ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদের মধ্যে থেকে প্রান্তিক পরিবহনের চালক শামীম টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।


আরও খবর



লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে বিকাশ এজেন্টকে রাতের আধারে গলা কেটে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১০৪জন দেখেছেন
Image

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে এক বিকাশ এজেন্ট ও মোবাইল রিচার্জ ব্যবসায়িকে ছিনতাইকারীরা ছুরিকাঘাতে হত্যা করে টাকা ছিনতাই করেছে।

নিহত ব্যবসায়ী আইয়ুব আলী (৪০) উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের হাড়িশ্বর এলাকার আব্দুল মতিনের ছেলে। বুধবার মধ্যরাতে চাপারহাটের বিকাশ ব্যাবসায়ী-আয়য়ুবকে কুটিরপারস্থ রাস্তায় কুপিয়ে হত্যা করেছেন দুর্বিত্তরা

জানা যায়, আইয়ুব আলী চাপারহাট বাজারে বিকাশ ও মোবাইল রিচার্জের ব্যবসা করতেন। বাজারের দোকান বন্ধ করে রাত ১টার দিকে ব্যবসার টাকা ব্যাগে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার সময় চন্দ্রপুর ইউনিয়নের বত্রিশ হাজারী গ্রামের ধনঞ্জয় কেচুর বাড়িসংলগ্ন কাঁচা রাস্তায় পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তারপথ রোধ করে টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালয়।

এতে আইয়ুব আলী মোটরসাইকেল থেকে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত রামদা ঘটনাস্থলে ফেলে রেখেই টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়। আইয়ুব আলী ঘটনাস্থলেই মারা যান।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম রসূল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমি এখন ঘটনা স্থলেই রয়েছি।’


আরও খবর



টিসিবির পণ্য বিক্রি স্থগিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | জন দেখেছেন
Image

দেশে দরিদ্র পরিবারগুলোর জন্য সোমবার (১৬ মে) থেকে ১১০ টাকা লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি কর‌ার ঘোষণা দিলেও হঠাৎ করে সেই সিদ্ধান্ত থেকে পিছু হটল টিসিবি।

রবিবার (১৫ মে) রাত সাড়ে ৯টায় ন্যায্যমূল্যে তেল বিক্রির এ কার্যক্রম স্থগিত ক‌রা হ‌য়ে‌ছে ব‌লে এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায় সংস্থাটি।

প্রকাশিত বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে টিসিবি জানায়, বিক্রয় কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা এবং প্রকৃত সুবিধাভোগীর কাছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকার নীতিগতভাবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য (ভোজ্য তেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে ফ্যামিলি কার্ড প্রণয়ন ও বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হওয়ার পর শুধুমাত্র ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমেই টিসিবির পণ্য সামগ্রীর বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তাই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য চলতি মাসের ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত স্বল্প পরিসরে সাধারণ ট্রাকসেল কার্যক্রম স্থগিত করা হল। আগামী জুন মাসে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি নিম্ন আয়ের পরিবারের নিকট টিসিবি কর্তৃক ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য (ভোজ্য তেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রয় করা হবে।

এর আগে টিসিবি ঘোষণা দিয়েছিল ১৬ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত ১৫ দিনব্যাপী দেশের বড় বড় নগরীর পাশাপাশি জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ৩০০টি খোলা ট্রাকের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করা হবে।

ট্রাক থেকে একজন ক্রেতা ৫৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি মসুর ডাল, ১১০ টাকা দরে ২ লিটার সয়াবিন তেল কিনতে পারবেন। এছাড়া গত মাসের অবশিষ্ট ছোলা ৫০ টাকা কেজি দরে ভোক্তার চাহিদা অনুযায়ী বিক্রি করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলো টিসিবি।

এছাড়া রোজার মাসে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে গত মার্চ ও এপ্রিল মাসে সারাদেশে তালিকাভুক্ত এক কোটি পরিবারের কাছে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ন্যায্যমূল্য পণ্য বিক্রি করেছে টিসিবি।


আরও খবর

গৌতম বুদ্ধের জন্মদিন আজ

রবিবার ১৫ মে ২০২২




জামিল হাসান দুর্জয়'র যে বক্তব্য গাজীপুরে ভাইরাল

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৬০জন দেখেছেন
Image

সদরুল আইন,গাজীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

             আগামি ১৯ শে মে গাজীপুর জেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলণ। এই সম্মেলণকে সফল করতে আগামিকাল বৃহস্পতিবার(২১ এপ্রিল) বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

গাজীপুর জেলা সম্মেলণের পূর্বেই জেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জামিল হাসান দূর্জয়ের দেওয়া একটি বক্তব্য গাজীপুর তথা বিশেষ করে শ্রীপুরে ব্যাপকভাবে আলোচনা সমালোচনার জন্ম দিয়েছে এবং সর্বত্র তা আলোচিতও হচ্ছে।

সুলতান উদ্দিন মেমোরিয়াল একাডিতে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আ.লীগের সম্মেলণে তার সাধারন সম্পাদক পদ প্রাপ্তিকে প্রচ্ছন্ন ইঙ্গিত করে বলেছেন " আমি পরাজিত হওয়ার জন্য পৃথিবীতে জন্মাইনি, আমি পরাজিত হবার জন্যে পৃথিবীতে আসি নাই।"

তার এ বক্তব্যকে ঔদ্ধত্বপূর্ণ অরাজনৈতিক,অজ্ঞতাপূর্ণ এবং নিজেকে বিশেষ ব্যক্তি হিসেবে জাহির করার অপরিপক্ক মানসিকতার বর্হিপ্রকাশ বলে রাজনৈতিক সচেতন মহল মনে করছেন।

কেউ কেউ বলছেন, এ ধরনের বক্তব্য একজন অপরিপক্ক আত্ম অহমিকায় ভরা রাজনৈতিকের মুখেই মানায়।দূর-দৃষ্টিসম্পন্ন, বিচক্ষণ কোন রাজনৈতিকের মুখে এ ধরনের ঔদ্ধত্বপূর্ণ অগ্রিম বক্তব্য মানায় না।

 বেশিরভাগ মানুষ, তার এ বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বলেছেন,একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে এই নেতা প্রধানমন্ত্রী তাকে অগ্রিম মনোনয়ন দিয়ে দিয়েছেন বলে জনসভাসমুহে এবং এলাকায় মাইকিং করে বর্তমান সাংসদ ইকবাল হোসেন সবুজ'র  লাখ লাখ নেতা কর্মিদের মনোবল ভেঙ্গে দিতে যে স্ট্যান্ডবাজি ও চতুরতার আশ্রয় নিয়েছিলেন জেলা সম্মেলণে সাধারন সম্পাদক হচ্ছেন এটা তারই অগ্রীম পদধ্বনীর মত অসাড় আষাঢ়ে গল্পের মতও হতে পারে।

অন্যদিকে অনেকেই বলেছেন,একাদশ সংসদ নির্বাচনের পূর্বে এক হাজার কোটি টাকার বিনিময়ে একটি বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে মনোনয়ন কেনার যে গল্প ও প্রপাগন্ডা গাজীপুর-৩ আসনে ছড়িয়েছিলেন এটা তারই পদধ্বনী।

কোনভাবেই তার এ বক্তব্য রাজনৈতিক শিষ্টাচারের মধ্যে পড়ে না বলে মন্তব্য করেছেন বেশিরভাগ মানুষ।

কেউ কেউ বলেছেন জামিল হাসান দুর্জয় তো একাদশ সংসদ নির্বাচনে সাংসদ ইকবাল হোসেন সবুজ'র কাছে পরাজিত হয়েছেন।এর পরও তিনি পরাজিত হতে পৃথিবীতে আসেনননি,জন্মাননি এ ধরনের অহমিকাপূর্ণ অসত্য কথা জনসমুখে বলেন কি করে।তার অগ্রীম এ চরম অহমিকাপূর্ণ বক্তব্যের উৎসই বা  কি।

উল্লেখ্য, জামিল হাসান দুর্জয়ের নিকট নেতা কর্মিদের মাধ্যমে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে যে, ১৯ মে'র জেলা সম্মেলণে তিনি বর্তমান সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ এমপিকে হটিয়ে জেলার সাধারন সম্পাদক হচ্ছেন।

 আ.লীগ প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নাকি এক কেন্দ্রিয় দায়িত্বশীল নেতার মাধ্যমে তাকে এ বিষয়টি অগ্রীম জানিয়ে দিয়েছেন।এরই প্রেক্ষিতে তিনি  এ ধরনের দাম্ভিক বক্তব্য প্রদান করেছেন বলে অধিকাংশ মানুষ মন্তব্য করছেন।

এছাড়া একাদশ সংসদ নির্বাচন পরবর্তি প্রায় ৪ বছর অনেকটা পর্দার আড়ালে থাকা জামিল হাসান দুর্জয়ের শীর্ষ নেতা কর্মিরা বলতেন তিনি পরিবর্তন হয়ে গেছেন,রাজনৈতিক পরিপক্কতা অর্জন করেছেন, তাদের সেই গল্প, সেই জনশ্রুতি মিথ্যা প্রমান করে দিয়ে  দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক ঘুম ভেঙ্গে, খোলস ছেড়ে,  তিনি তার চিরায়ত চরিত্রে ফিরে গেলেন এমনটিও মনে করছেন অনেকেই।


আরও খবর



রাঙ্গাবালীতে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার জমিসহ ঘর পেল ৫২০ পরিবার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৮৩জন দেখেছেন
Image

কামরুল হাসানঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে জমিসহ ঘর পেয়েছেন পাঁচ শতাধিক পরিবার।

 মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশে এই উপহার বিতরণের উদ্বোধনের পর এ উপজেলার ৫২০টি পরিবারকে দুই শতক জমির মালিকানা কাগজপত্র ও ঘরের চাবি বুঝিয়ে দেওয়া হয়। 

এসময় প্রত্যেক পরিবারের হাতে একটি শাড়ি এবং একটি লুুঙ্গি তুলে দেওয়া হয়েছে। উপকারভোগীরা বলছেন, ঈদের আগে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়ে তাদের মধ্যে  ঈদের আমেজ ছড়িয়েছে। মাত্রা বেড়েছে ঈদ আনন্দের। 

প্রশাসনের তথ্যমতে, গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জন্য আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায় এ উপজেলায় নির্মাণাধীন ৬১৮টি ঘরের মধ্যে নির্মিত ৫২০টি ঘর হস্তান্তর করা হয় ।

এ ঘর হস্তান্তর  উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্ত¡রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, প্রধান অতিথি  পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনের এমপি মহিব্বুর রহমান মহিব, বিশেষ অতিথি পটুয়াখালী পুলিশ সুপার শহীদুল্লাহ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. জহির উদ্দিন আহম্মেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশফাকুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুজ্জামান মামুন প্রমুখ।

এদিকে, ঘরের চাবি ও জমির কাগজের সঙ্গে শাড়ি-লুঙ্গি পেয়ে খুশি উপকারভোগীরা।  কথা হয় তাদেরই একজনের সঙ্গে, নাম নার্গিস বেগম (৪০)। পেশায় গৃহকর্মী। যার ছিল না এক টুকরো জমি কিংবা মাথা গোঁজার জন্য ঘর। অন্যের বাড়ি আর ভাড়া বাসায়ই কেটেছে জীবন। তিনি এ পর্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাহেরচর আশ্রয়ণ প্রকল্পে নির্মিত একটি ঘর পেয়েছেন। তার অনুভূতি জানতে চাইলে আনন্দঅশ্রæ চোখে নার্গিস বেগম বলেন, ‘মানুষের বাসায় কাজ করতাম। নিজের কোন জায়গা জমি ঘর আছিল না। ভাড়া ঘরে থাকতাম। ছেলে সন্তান নিয়া অনেক কষ্ট করছি। ওদের (সন্তানদের) মন ছোট থাকতো। এখন প্রধানমন্ত্রী আমারে ঘর দিছে। আমি অনেক খুশি।’   

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাশফাকুর রহমান বলেন, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে উপস্থিত ৪০০ জনের হাতে ঘরের চাবি ও জমির মালিকানা কাগজ তুলে দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে জেলা প্রশাসক স্যারের পক্ষ থেকে প্রত্যেককে একটি শাড়ি ও একটি লুঙ্গি উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে। বাকি ১২০ জনের চাবি ও কাগজপত্র পৌঁছে দেওয়া হবে।’ 

উল্লেখ্য, মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহহীন-ভূমিহীন পরিবারের জন্য এ উপজেলায় মোট এক হাজার ৮৮৫টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়। এরমধ্যে প্রথম পর্যায় ৪৯১, দ্বিতীয় পর্যায় ৭৭৬ ও তৃতীয় পর্যায় ৬১৮টি ঘর বরাদ্দ হয়। 



আরও খবর



শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষের চাপ

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
Image

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ঈদের পরের দিন ঘরমুখো মানুষ ও গাড়ির চাপ বেড়েছে। ঈদের আগের ৫ দিনের ন্যায় আজও শিমুলিয়া ঘাট হয়ে বাড়ি ফিরছে মানুষ। কালবৈশাখী ঝড়ের এই মৌসুমে লঞ্চে অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পদ্মা পাড়ি দিয়ে ঈদের দ্বিতীয় দিনেও বাড়ি ফিরছে মানুষ। এতে বাড়ছে দুর্ঘটনার আশঙ্কা।

ঘাটে বর্তমানে পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে ৫ শতাধিক যানবাহন। ১০টি ফেরি এই মুহূর্তে ঘাটে চলছে।

এ ছাড়া ঘাটে যাত্রী পারাপারের জন্য ৮৫টি লঞ্চ ও ১৫৪টি স্পিডবোট চলছে। সকালে ঝড় হওয়ার কারণে লঞ্চ-স্পিডবোট চলাচল আধাঘণ্টা বন্ধ রাখা হয়। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে পুনরায় স্পিডবোট ও লঞ্চ চলাচল শুরু হয়।

এ ব্যাপারে শিমুলিয়া ঘাটের এক কর্মকর্তা বলেন, ঘাটে ঘরমুখো যাত্রীদের চাপ রয়েছে। এই মুহূর্তে ঘাট হতে ৮৫টি লঞ্চ ১৫৪টি স্পিডবোট চলছে। সকালে ঝড় হওয়ার কারণে পোনে ৭টা থেকে সোয়া ৭টা পর্যন্ত আধাঘণ্টা লঞ্চ-স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল।

অতিরিক্ত যাত্রী পারাপারের বিষয়ে তিনি বলেন, যেহেতু ঘাটে চাপ আছে, সেহেতু অনেক সময় প্রশাসনের চোখ এড়িয়ে যাত্রীরা লঞ্চে বেশি উঠছে।


আরও খবর