Logo
শিরোনাম

ইয়াসির আলির চোটে কপাল খুললো বিজয়ের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ |
Image

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ব্যাট হাতে রানের ফোয়ারা ছুটিয়েছেন এনামুল হক বিজয়। রানের বিশ্বরেকর্ড গড়েন এই উইকেট কিপার ব্যাটার। বিশ্বের ঘরোয়া লিগ ইতিহাসে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে লিস্ট ‘এ’ ফরম্যাটের এক মৌসুমে গড়েছেন এক হাজার রানের কীর্তি।

এবার পেলেন সেসবের পুরস্কারও। বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের একদিন আগে এনামুল হক বিজয়কে টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্ত করল বিসিবি। মূলত ইয়াসির আলি রাব্বির চোটে কপাল খুলেছে তার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে থাকলেও টেস্টে ছিলেন না বিজয়।

অবশ্য প্রথম টেস্টে খেলার কোনো সুযোগ নেই বিজয়ের। দীর্ঘ ৮ বছর পর সাদা পোশাকের দলে ফিরে শুক্রবার দেশ ছাড়বেন তিনি। দ্বিতীয় টেস্ট থেকে তাকে পাবে বাংলাদেশ।

অ্যান্টিগায় স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে ১৬ জুন। দ্বিতীয় টেস্টে অবশ্য খেলার সম্ভাবনা আছে ২৯ বছর বয়সী বিজয়ের।

সর্বশেষ ২০১৪ সালে দেশের হয়ে টেস্ট ফরম্যাটে মাঠে নেমেছিলেন বিজয়।



আরও খবর

এশিয়া কাপের দল ঘোষণা ভারতের

মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২




জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনে ইসির নতুন নির্দেশনা

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সংশোধনে অযৌক্তিক দলিলাদি না চাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন । একই সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সংশোধনের আবেদন অনিষ্পন্ন রাখা থেকেও বিরত থাকার নির্দেশনা দিয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) ইসির এনআইডি অনুবিভাগের পরিচালক (অপারেশন্স) মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা দেশের সব আঞ্চলিক, জেলা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের পাঠিয়েছেন। এতে এনআইডি সেবা তরান্বিত করে নাগরিকদের ভোগান্তি কমাতে মাঠপর্যায়ে ১২টি নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, জাতীয় পরিচয়পত্র সেবা বিকেন্দ্রীকরণের লক্ষ্যই ছিল নাগরিক সেবা আরও সহজ ও গতিশীল করা। সে লক্ষ্যে মাঠপর্যায়ে ক, খ, ও গ ক্যাটাগরির সংশোধনের আবেদনসমূহ সংযুক্ত দলিলাদি যাচাই-বাছাই ও প্রয়োজনানুসারে তদন্ত করে আবেদন নিষ্পত্তি (অনুমোদন/বাতিল) করে নাগরিক সেবাকে গতিশীল করার নিমিত্ত নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল। এ ক্ষেত্রে নাগরিকদের দুর্ভোগ লাঘবে বিষয়টি সামনে রেখেই এনআইডি সংশোধনের আবেদন নিষ্পত্তি করতে হবে।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা তার আওতাভুক্ত ক্যাটাগরির আবেদন পরীক্ষা করে নিজেই নিষ্পত্তি করবে। এ জন্য যথাযথ শিক্ষাসনদ, জন্মসনদ বা অন্য যৌক্তিক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থাকার পরও অযৌক্তিকভাবে কোনো কাগজপত্র চাওয়া যাবে না।

নির্দেশনাগুলো হলো :

১. নাগরিকদের দুর্ভোগ লাঘবে বিষয়টি লক্ষ্য রেখে জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধনের আবেদন নিষ্পত্তি করতে হবে।

২. দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ তার আওতাভুক্ত (ক, খ, গ) ক্যাটাগরির আবেদনসমূহ পরীক্ষান্তে নিজেই নিষ্পত্তি (অনুমোদন/বাতিল) করতে পারবেন।

৩. যথাযথ শিক্ষা সনদ, জন্ম সনদ বা অন্যান্য যৌক্তিক প্রয়োজনীয় দলিলাদি থাকা সত্ত্বেও অযৌক্তিকভাবে অতিরিক্ত দলিলাদি চাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

৪. দীর্ঘদিন ধরে সংশোধনের আবেদন অনিষ্পন্ন রাখা হতে বিরত থাকতে হবে। প্রয়োজনে শুনানি গ্রহণ ও দাখিল করা যৌক্তিক কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে ১৫ কার্য দিবসের মধ্যে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা তার আওতাধীন আবেদনসমূহ নিষ্পত্তি (অনুমোদন/বাতিল) করতে হবে।

৫. মাঠপর্যায়ে সব ক্যাটাগরির আবেদন নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সপ্তাহে ২ (দুই) দিন শুনানি গ্রহণের ব্যবস্থা করতে হবে। শুনানি প্রদানের তারিখের পরবর্তী ১০ কার্য দিবসের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে।

৬. ক্যাটাগরি বিভাজনের পর হতে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা তার এখতিয়ারভুক্ত সংশোধনের আবেদনগুলো ক্যাটাগরি 'ক' ৭ কার্য দিবস, ক্যাটাগরি 'খ' ১৫ কার্য দিবস ও ক্যাটাগরি ‘গ’ ৩০ কার্য দিবসের মধ্যে নিষ্পন্ন করবেন।

৭. আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তারা তার আওতাধীন যে সব আবেদনসমূহ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ব্যর্থ হবেন, সে সব আবেদনসমূহের সংশ্লিষ্ট দলিলাদি, তদন্ত প্রতিবেদন এবং আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তারা সুস্পষ্ট মতামতসহ আবেদনসমূহ নিষ্পত্তির জন্য মহাপরিচালক, জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ বরাবর প্রেরণ করবেন। এক্ষেত্রে বিদ্যমান প্রজ্ঞাপনের আলোকে ‘গ’ ক্যাটাগরি থেকে 'ঘ' ক্যাটাগরিতে স্থানান্তরের সুপারিশ করতে পারবেন।

৮. দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদেরকে তার কার্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যারে ইউজার অ্যাকাউন্টটি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে ব্যবহার করতে হবে। সংশোধনের আবেদন নিষ্পন্নের বিষয়টি জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে পর্যবেক্ষণের আওতায় থাকবে। সব প্রকার লগ এনআইডি কেন্দ্রীয় ডাটাবেজে সংরক্ষিত থাকে, এতে প্রত্যেক ইউজার তার কর্মকাণ্ডের জন্য জবাবদিহিতার আওতায় থাকবে।

৯. যে সব নাগরিক অনলাইনে আবেদন করতে অসমর্থ হবেন তাদের উপজেলা/থানা নির্বাচন অফিসে অনলাইনে আবেদনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করতে হবে। হেল্প ডেস্ক অনলাইন আবেদন সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহ ও সংশোধন সংশ্লিষ্ট যৌক্তিক দলিলাদির বিষয়ে তথ্য সরবরাহ করবে।

১০. এ ছাড়া জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে আবেদনের ক্যাটাগরি বিভাজন করার ক্ষেত্রে অঞ্চল ভিত্তিক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সচেষ্ট থাকতে হবে।


আরও খবর

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস

মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২




গাজীপুরে বাসচাপায় অটোচালকসহ নিহত ৫

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় বাসচাপায় অটোরিকশাচালকসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (৩০ জুলাই) রাত ১১টায় উপজেলার টিএনটি বটতলা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, অটোরিকশাচালক টাঙ্গাইলের ভূয়াপুর থানার শেখ বাড়ী গ্রামের আয়ুব আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম, বরগুনা জেলার সদর থানার আংগারপাড়া গ্রামের মমিন উদ্দিন সিকদারের ছেলে মেহেদী হাসান বাবলু, গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানার হিজলতলী গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে আতিকুল ইসলাম, একই উপজেলার লতিফপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে সাইদুল ইসলাম রুবেল ও যশোরের দহর গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে শাহিন উদ্দিন।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাহাত বলেন, চার যাত্রী রাতে কাজ শেষে চন্দ্রা থেকে অটোরিকশায় বাড়ি ফিরছিলেন। উপজেলার মাহিষবাথান এলাকায় পৌঁছালে পেছন থেকে কেপি পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশায় ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশার যাত্রীরা সড়কে পড়ে যান। এ সময় কালিয়াকৈর থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতগতির ইতিহাস পরিবহন সড়কে পড়ে থাকা যাত্রীদের চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলে দুই জনের মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে আরও তিন জনের মৃত্যু হয়। ইতিহাস পরিবহনের বাসটি আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।


আরও খবর



রাজবাড়ীতে অগ্নিকান্ডে কোটি টাকার মালামাল ভস্মিভূত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি.রাজবাড়ী ঃ

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলায় অগ্নিকান্ডে একটি মার্কেটে কোটি টাকার মালামাল ভস্মিভূত হয়েছে বলে দাবী করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ্য ব্যাবসায়ীরা। আগুনে ৮টি দোকানের মালামাল পুড়ে ছাই হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) বিকেলে বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর বাজারের খান মার্কেটের আবুল বাসারের তুলার গোডাউন থেকে ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে বলে জানাগেছে। 

ব্যবসায়ী ও ক্ষতিগ্রস্থরা জানান, আগুনে ওমর আলীর বৈদ্যুতিক সরঞ্জামের দোকান, আবুল বাসারের তুলার গোডাউন, ফয়সালের অটো মেরামতের কারখানা, আব্দুল কুদ্দুসের ২ টি ভাঙ্গারীর দোকান, ওমর ফারুকের ভাঙ্গারীর দোকান, রাসেলের ডেকোরেটার দোকান, সুদেব কুমার সরকারের সুতার দোকানের মালামাল পুড়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ও স্থানীয় ব্যবসায়ী এবং এলাকাবাসী দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

বালিয়াকান্দি উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন অফিসার সৈয়দ শরাফত আলী বলেন, আগুন লাগার খবর পেয়ে ২ টি ইউনিটের সদস্যরা ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে ক্ষতিগ্রস্থরা দাবী করেছেন তাদের ১ কোটি ২৬ লাখ টাকার মালামাল ভস্মিভূত হয়েছে। 


আরও খবর



নিজের পায়ে উঠে দাঁড়াও, মেরুদণ্ডটা শক্ত করো

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৪ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরীর ফেসবুক থেকে নেয়াঃ

সারা পৃথিবী তোমার বিপক্ষে দাঁড়াতে পারে। পৃথিবীর সব মানুষ একদিকে আর তুমি আরেকদিকে ছিটকে পড়তে পারো। ভেবে দেখেছো এমনটা যদি তোমার জীবনে ঘটে সেটা তোমার জন্য কেমন হতে পারে। কেউ তোমার দিকে তাকাচ্ছে না, কোনো কথা তোমার সাথে বলছে না, সব চেনা মুখ অচেনা হয়ে গেছে। তুমি দরজা-জানালা বন্ধ করে চুপচাপ বসে আছো। কেউ সান্ত্বনা দেবার নেই, কেউ তোমাকে বোঝার মতো নেই, তোমার মাথায় হাত রাখার একটা মানুষ পর্যন্ত নেই। 

দম বন্ধ হয়ে আসছে তোমার, চারপাশটা কেমন অপরিচিত হয়ে উঠেছে। বেঁচে থেকেও মৃত মানুষের মতো জীবন তোমার, নিঃশ্বাস নেই, অক্সিজেন নেই। হাতুড়ি পেটা একটা বিপন্ন অস্থিরতা তোমাকে হাতড়িয়ে বেড়াচ্ছে। আতঙ্ক, নিস্তব্ধতা সবদিকে। তোমার ছায়াটাও সুবিধাবাদী হয়ে তোমাকে ত্যাগ করেছে। কষ্ট আর বোবা কান্নাগুলো তোমাকে কেমন যেন এলোমেলো করে দিয়েছে। 

তোমার সারাজীবনের হাসিমুখ আজ অন্ধকারে ঢেকে গেছে। তোমার সাজানো চুলগুলো এলোমেলো হয়ে বাতাসে ভাসছে। এমন দুঃসময়ে তোমার সুসময়ের বন্ধুদের কথা মনে পড়ছে, আপনজনদের কথা মনে পড়ছে। তোমার বিপক্ষে দাঁড়ানো মানুষদের কথা মনে পড়ছে। খুব ক্লান্ত তুমি। তারপরও তোমার কানে ভেসে আসছে সেই চেনা সুর, অচেনা সময়ের গান: যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলো রে... 

সবকিছু তোমার প্রতিকূলে, কেবল তুমিই তোমার অনুকূলে। তারপরও নিজের পায়ে উঠে দাঁড়াও, মেরুদণ্ডটা শক্ত করো, ঘুরে দাঁড়াও।

যেদিন সবাই তোমার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে সেদিনও তুমি তোমার বিশ্বাসকে ধরে রেখো। তোমার সাথে কেউ না থাকলেও তোমার আত্মশক্তি তোমার সাথে থাকবে । এই আত্মশক্তি অনেক মানুষের শক্তি থেকেও অনেক বড়। মনে রেখো সব সময় বীরদের একাই লড়তে হয়েছে। হোক সেটা পরিবর্তনের, হোক সেটা ভাবনার, হোক সেটা সততার। 

যেদিন তুমি একা হবে সেদিন তুমি বুঝবে তোমার পথ সঠিক পথ ছিল। অন্যদের পথ সঠিক ছিলো না । তুমি একা, এটাই তোমার শক্তি। তোমার সাথে কেউ নেই, তুমি তোমার সাথে আছো, তোমার নিজের চিন্তার সাথে আছো- এটাই তোমার শক্তি। তুমি যা ভেবেছো, অন্যরা তার ঠিক উল্টো ভেবেছে, এটাই তোমার শক্তি। পৃথিবীতে বেশিরভাগ মানুষ পরিবর্তন আনতে পারে না, কেউ কেউ পারে। তুমি সে পরিবর্তন এনেছো বলে তুমি আজ একা হয়ে পড়েছো। এটা সাময়িক, সুদীর্ঘকালের জন্য হতে পারে না। ফেলে আসা সময় আর ইতিহাস এমন সাক্ষীই দিচ্ছে।  

জেগে উঠো আপন শক্তিতে, ঘর থেকে বের হয়ে সারা পৃথিবীকে  চিৎকার করে জানিয়ে দাও তোমার ব্যক্তিসত্তার কথা, তোমার ভিতরের জ্বলে উঠা ঘুমন্ত শক্তির কথা । গুন্ গুন্ করে সে মহাদুর্যোগেও গেয়ে উঠো জীবনের জয়গান: সঙ্কোচের বিহ্বলতা, নিজেরে অপমান, সঙ্কটের কল্পনাতে হয়ো না ম্রিয়মান। মুক্ত করো ভয়, আপন মাঝে শক্তি ধরো, নিজেরে করো জয়।


আরও খবর

পরাজয় মানুষকে আপন-পর চেনাতে শেখায়

বৃহস্পতিবার ০৪ আগস্ট ২০২২




ধর্ষণ মামলায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহন

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল নারায়ণগঞ্জ ঃ

ধর্ষণ মামলায় হেফাজতে ইসলামের সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হককের বিরুদ্ধে পঞ্চম দফা সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে তোলা হয় মামুনুলকে৷ পরে আদালতে তার বিরুদ্ধে স্বাক্ষ্য দেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি সোহাগ রনি ও সোনারগাঁয়ের বাসিন্দা রতন মিয়া ।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুঁলি আইনজীবী রকিব উদ্দিন জানান, স্বাক্ষীরা আদালতকে জানিয়েছেন ঘটনার দিন তারা যা দেখেছে। স্বাক্ষীরা আদালতে বলেছে, মামুনুল হক পুলিশের কাছে মামলার বাদীকে স্ত্রী পরিচয় দেয় তবে জান্নাত আরা ঝর্ণা জানায় সে তার স্ত্রী নয় তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। আদালত স্বাক্ষীদের এই স্বাক্ষ্য গ্রহন করেছেন। তিনি জানান, মামলার মোট ৪৩ জন স্বাক্ষীর মধ্যে এ নিয়ে ১২ স্বাক্ষী তাদের স্বাক্ষ্য প্রদান করেছেন।

নারায়ণগঞ্জ আদালত পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ধর্ষণ মামলায় পঞ্চম দফায় সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য কঠোর নিরাপত্তায় কাশিমপুর কারাগার থেকে মামুনুলকে নারায়ণগঞ্জের আদালতে আনা হয়। স্বাক্ষ্য শেষে দুপুরে তাকে পূর্ণরায় কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, এর আগে মামলার বাদী জান্নাত আরা ঝর্না, সোনারগাঁ রয়্যাল রিসোর্টের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও নিরাপত্ত কর্মী সহ সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও ছাত্রলীগ নেতা সোহাগ রনি সহ স্বাক্ষ্য প্রদান করেছেন।

গত বছরের ৩ এপ্রিল সোনারগাঁয়ে রয়েল রিসোর্টের একটি কক্ষে নারীসহ স্থানীয়দের হাতে অবরুদ্ধ হন মামুনুল হক। সে সময় তিনি বিব্রতকর অবস্থায় পড়লে হেফাজতের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে যান। তখন আওয়ামী লীগের কার্যালয়, স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে বেপরোয়া ভাঙচুর চালান হেফাজতের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা। হামলা ও ভাঙচুর করা হয় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দুই শতাধিক যানবাহন। রয়েল রিসোর্ট কাণ্ডের ২৭ দিন পর ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় হাজির হয়ে কথিত স্ত্রী জান্নাত আরা নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন। ১০ সেপ্টেম্বর মামুনুল হকের বিরুদ্ধে জান্নাত আরাকে ধর্ষণের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। ৩ নভেম্বর মামুনুল হকের বিরুদ্ধে জান্নাত আরার দায়ের করা ধর্ষণের মামলায় অভিযোগ গঠন করেন আদালত।


আরও খবর