Logo
শিরোনাম

যেসব কর্মকর্তারা নির্বাচনকে বিতর্ক করার মিশন নিয়ে নেমেছিল তাদের তদন্ত করতে হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ |
Image

কু‌মিল্লা জেলা প্রতিনিধি ঃ

কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি বলেছেন,নতুন নির্বাচন কমিশনের অধীনে প্রথম নির্বাচন ‘কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন’ সফল-সার্থক ভাবে করতে সক্ষম হয়েছে। আমরা এ নির্বাচনকে অত্যন্ত ধৈর্য্যরে সাথে মোকাবেলা করেছি। এতে আপনাদের সন্তান কুমিল্লার বাহার আরেকটি ইতিহাস সৃষ্টি করল বাংলাদেশে। এ সূষ্ঠ নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে কিছু অসাধু কর্মকর্তা বিশেষ মিশন নিয়ে নেমেছিল। তারা শুধু নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করার পাশাপাশি আন্তরজাতিক ভাবে প্রমাণ করাতে চেয়েছেলি বাংলাদেশে সূষ্ঠু নির্বাচন হয় না। যারা এ কাজ করেছে  তারা হয় স্বাধীনতা বিরোধী লোক নতুবা বিশাল টাকার বিনিময়ে এ কাজ করেছে। এসব অসাধু কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে হবে।

 বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নবাগত মেয়র-কাউন্সিলরদের পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এসময় নবনির্বাচিত মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, এমপি বাহারের সহধর্মেনী নারী নেত্রী মেহেরুন্নেসা বাহার, নবনির্বাচিত মেয়র পতœী অধ্যাপিকা ফারহানা হক শিল্পী ,মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিকুল্লাহ খোকন, জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল¬াহ আল মাহমুদ সহিদ, আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম টুটুল, জাগ্রত মানবিকতার চেয়ারম্যান তাহসিন বাহার সূচনা ও বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে নব নির্বাচিত কাউন্সিলরগণ, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 হাজী বাহার এমপি আরও বলেন, কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে সাড়ে তিন হাজার পুলিশ সদস্য কাজ করেছেন। দূর্নীতিগ্রস্থ ৭/৮ জন কর্মকর্তা নির্বাচন নসাৎ করার চেষ্টা করেছে। সব কর্মকর্তা এক রকম না। কুমিল্লা পুলিশ সুপার একজন সৎ মানুষ। তাকে নিয়ে কারো কোন অভিযোগ নেই। আমি ব্যক্তিগতভাবেও তাকে পছন্দ করি। কিন্তু বাতির নিচের অন্ধকার থাকে। এমনই একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার। সে যেখানে নৌকার ব্যাজ পড়া লোক পেয়েছে সেখানে অকারণে নৌকা কর্মীদের পিটিয়েছে। নৌকার ব্যাজ ধরে টানাটানি করেছেন। নৌকার কর্মীদের গালিগালাজ করেছে। আমাদের কর্মীদের পিটিয়ে বেহুশ করে দিয়েছেন। সে একজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সন্তান।  এক সময়  তার বিরুদ্ধে তদন্ত হয়েছিল। তখন সে আমার  সরাপন্ন হয়েছিল। এ নির্বাচনে তার কর্মকান্ডে দেখে বুঝলাম সে ভূয়া মুক্তিযুদ্ধার সন্তান। মুুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ বিনা কারণে নৌকার ব্যাজ ছিড়তে পারে না। নৌকার কর্মীদের পিটাতে পারেনা। নৌকার কর্মীদের গালাগালি করতে পারে না। তার আবারো তদন্ত হওয়া দরকার। নির্বাচনে কয়েকজন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্যাট এমন আচরণ করেছে আল্লাহর পরে সবচেয়ে বেশি ক্ষমতা প্রয়োগ করেছে আমাদের সাথে। একজন ম্যাজিস্ট্যাট বিনা কারণে নৌকার চিফ এজেন্ট আতিকুল্লাহ খোকনের সাথে সাথে বাাজে আচরণ করেছে। ভোটারদের হয়রানী করেছেন। নির্বাচনে আচরন বিধি লংঘনের দায়ে ১২ জন লোককে জেল দেওয়া হয়েছে।  সবাই নৌকার লোক। নৌকা ছাড়া একজন লোকও নেই। ৪৫ জন ম্যাজিস্ট্যাট এ কাজ করে নাই। যারা নির্বাচনকে বিতর্কিত করতে চেয়েছিল তাদের তদন্ত করতে হবে। সাক্কু সাব অহেতুক অভিযোগে তিন টা চিঠি দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। চক্রান্ত করে আমার নামে একটা আশালীল ছিঠি ইস্যু করা হয়েছিল নির্বাচন কমিশন থেকে। তারা চক্রান্ত করে কুমিল্লা থেকে ত্যাগ করাতে চেয়েছিল। যেন কুমিল্লায় নির্বাচেেনর পরিবেশ নষ্ট হয়। নির্বাচনে লাশ পড়ে। আমি যদি কুমিল্লায় না থাকতাম তাহলে লাশ পড়ত। আমি সকল কর্মীদের বলেছিলাম তারা ধৈর্য্য ধরে নির্বাচনে কাজ করে। আমরা ধৈর্য্য ধরার কারণে কোন অঘটন ঘটেনি।

এর আগে নবনির্বাচিত মেয়র আরফানুল হক রিফাত মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার ও দলীয় নব-নির্বাচিত কাউন্সিলরদের নিয়ে দলীয় কার্যলয়ের সামনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বিকেলে নগর উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর মূর‌্যালেও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আরফানুল হক রিফাত।


আরও খবর



ফের বাড়ছে করোনা, সতর্ক থাকতে বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ফের বাড়ছে। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে কোভিড কিছুটা বেড়েছে। কয়েক মাস আমরা দেখেছি দৈনিক ৩১ থেকে ৩৫ জন সংক্রমিত হচ্ছেন। রবিবার ১০৯ জন সংক্রমিত হয়েছেন, সেই তুলনায় বেশ বেড়েছে। আমাদের সতর্ক হতে হবে, মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। বিষয়টি ভুলে গেলে চলবে না। মাস্ক পরা ভুলে গেলে চলবে না, আমরা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাই।

জাহিদ মালেক বলেন, কোভিড এখনো নির্মূল হয়নি, আছে। আমরা একটা স্বাভাবিক অবস্থায় আছি, আমরা যদি অস্বাভাবিক অবস্থায় না যাই, সেই বিষয়ে সবার প্রচেষ্টা দরকার।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে মন্ত্রীরা আক্রান্ত হচ্ছেন, বিশিষ্ট ব্যক্তিরা আক্রান্ত হচ্ছেন, হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। তাই সবাইকে অনুরোধ করছি, মাস্ক পড়বেন, হাত স‌্যানিটাইজ করবেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন, টিকা না নিয়ে থাকলে টিকা নেবেন।


আরও খবর

বাড়ছে মৃত্যু, কমেছে শনাক্ত

শনিবার ০২ জুলাই 2০২2




লালমনিহাটে বাদাম চাষিদের ক্ষতি

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

লালমনিহাট জেলা প্রতিনিধি ঃ

লালমনিহাটে তিস্তাপাড়ের বাদাম চাষী জালাল উদ্দিন , আব্দুল হামিদ জন্মগতভাবে তিস্তা পাড়ের মানুষ জীবন-জীবিকা সুখ-দুঃখ হাসি-কান্না সবই এই নদী পাড়ে। বিগত বছরগুলোর ন্যায় এ বছরও স্ত্রী সন্তানের মুখে হাসি ফোটাতে বাদাম চাষ করেন তিস্তা পাড়ের জমিতে । সেই চাষ করা বাদামের ক্ষেত থেকে বাদাম ঘরে তুলতে আনতে পারেনি এখানকার বাদাম চাষীরা। যতটুকু আনতে পেরেছেন তা হয়তো রোপনের সময়ের খরচ এর চার ভাগের এক ভাগের আনতে পারেনি । সর্বনাশা তিস্তা নদী তে   আকস্মিক গেল বৃহস্পতিবার থেকে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় সুখের গুজরাটের ফাশন বিনষ্ট হয়েছে। এসকল ভুক্তভোগী কৃষকদের কৃষি বিভাগের লোকজনের কাছে আবেদন করলেও তারা কেউ সাড়া দেননি ভুক্তভোগী কৃষকদের মাঝে। এই অভিযোগ মৎস্যচাষীদের মত বাদাম চাষীদের ও। বাদাম চাষ জালালউদ্দিন ২৫ দোন মাটিতে বাদাম চাষ করেন কিন্তু ঘরে ক্ষেত থেকে নিয়ে আসতে পেরেছেন দুইদোন ক্ষেতের ফসল।

প্রতীকে কৃষক হাদী ১০ দোন মাটিতে বাদামের চাষ করেন সংসারের সবার মুখে হাসি ফোটাবেন বলে কিন্তু বাদশা যে সর্বনাশা তিস্তা নদী পানিতে তলিয়ে থাকা ফসলের ক্ষেত থেকে প্রায় দুইজন মাটির বাদাম ঘরে আনতে পেরেছেন। 

আরেকজন বাদাম চাষী জয়নাল ২৩ দোন মাটিতে বাদাম চাষ করেন কিন্তু উজানের পাহাড়ি ঢল অনবরত বৃষ্টির জলে বাদাম চাষের স্বপ্ন ধ্বংস করেছে। ২৩ দোন জমির মধ্যে মাত্র ৭ দোন জমির বাদাম খেত থেকে তুলতে পেরেছেন। এসকল ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের পাশে লালমনিরহাট জেলার সহকারী নিয়োগ প্রাপ্ত কৃষি কর্মকর্তা, ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয় সহ জেলা প্রশাসনের কাউকে পাশে পাননি তাদের এই দুঃসময়ে।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উৎসব

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ঃ

নারায়ণগঞ্জে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উৎসবে পরিনত। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলাসহ কোটি মানুষের বহুল প্রত্যাশিত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে ইতিহাস সৃষ্টি করছে বাংলাদেশ। সেই ইতিহাসের সাক্ষী হতে নারায়ণগঞ্জে পদ্মা সেতুর আদলে এঞ্চ তৈরি করে উদ্বোধন অনুষ্ঠান প্রচারের আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রসাশন।

সকাল থেকে নগরের ইসদাইরে সামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্স মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জড়ো হতে থাকেন মানুষ। মঞ্চে বক্তব্য রাখেন, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, জেলা পরিষদের প্রশাসক আনোয়ার হোসেন জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ, জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক,  আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

পরে মঞ্চে থাকা ডিজিটাল স্কিনে প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপভোগ করে ইতিহাসের সাক্ষী হল নারায়ণগঞ্জবাসী। উৎসবকে ঘিরে উচ্ছ্বাস উল্লসিত সাধারণ মানুষ।

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা উপহারের দিয়েছিলেন। আজ তারই কন্যা বাঙালি জাতিকে পদ্মা সেতু উপহার দিলেন। পদ্মা সেতুর হওয়ার কারণে ১৮ কোটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে।

আর নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন, পদ্মা সেতু হবে না, বাংলাদেশ আগাবে না, তারা চায় বাংলাদেশ যেনো মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে। সারা বিশ্বের কাছে পদ্মা সেতু অনন্য দৃষ্টান্ত হয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধু বলেছিলন বাঙ্গালী জাতিকে দাবায়ে রাখতে পারবানা তা প্রমাণ করেছে শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে।


আরও খবর



গাজীপুরে বগি লাইনচ্যুত, ঢাকা-ময়মনসিংহ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 |
Image

গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ রেল সড়কে ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে ঢাকার সঙ্গে ময়মনসিংহের সরাসরি রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশন স্টেশন মাস্টার রেজাউল ইসলাম জানান, ময়মনসিংহ থেকে ঢাকাগামী ভাওয়াল এক্সপ্রেস রাজেন্দ্রপুর স্টেশন ছাড়ার পরপরই এর একটি বগি লাইনচ্যুত হয়। 

এরপরে ওই রুটে ট্রেন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এ কারণে দুইদিকে জামালপুর কমিউটার ও মহুয়া এক্সপ্রেসসহ কয়েকটি ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে আটকা পড়ে। রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার প্রক্রিয়ার জন্য তৎপরতা শুরু হয়েছে।


আরও খবর



প্রেমের কথা জানালেন পায়েল

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ |
Image

সায়মা সাদিয়া :  বোঝেনা সে বোঝেনা’ সিনেমায় বোকাসোকা জয়িতা কিংবা ‘প্রেম আমার’-এর চটপটে রিয়া; চিরচেনা বাঙালি নারীর রূপে বরাবরই প্রশংসিত পায়েল। যদিও এই সময়ে এসে তিনি অনেকটা পরিবর্তন এনেছেন নিজের মধ্যে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যেমন খোলামেলা ছবি দেন, আবার পর্দায়ও হাজির হন সাহসী রূপে।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে পায়েল সরকারের নতুন সিনেমা ‘জালবন্দি’। এর ফাঁকে আরেকটি সিনেমা ‘এনক্রিপ্টেড’-এর প্রচার চালাচ্ছেন। সবমিলিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন অভিনেত্রী।

সিনেমার প্রচারের স্বার্থেই কলকাতার একটি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছেন পায়েল। সেখানে তিনি তার প্রথম প্রেম ও ব্রেকআপের কথা জানান। পায়েল বলেন, আমি যখন ১৫-১৬ বছর বয়সী, তখন প্রথম প্রেমে পড়েছিলাম। আবার সেটা ভেঙেও যায়। মন ভাঙার পর হতাশ না হয়ে ভেবেছি, জীবনে আরও বড় কিছু অপেক্ষা করছে। জীবনে বাধা আসবে, কিন্তু উঠে দাঁড়াতে হবে।

প্রযুক্তির এই যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এরকম প্রেম কি পায়েলের জীবনে এসেছে কখনো? উত্তরে অভিনেত্রী বলেন, একদম না। যাকে চিনি না, শুধু সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপে তার সঙ্গে ডেটে চলে গেলাম, এটা করতেই পারব না। প্রেমের জন্য আমি এত মরিয়া নই।

পায়েলের নতুন সিনেমা ‘এনক্রিপ্টেড’-এ প্রেমে বিচ্ছেদের পর তরুণদের বিপথে চলে যাওয়ার বিষয়টি রয়েছে। এ নিয়ে অভিনেত্রীর ভাষ্য, ‘আমাদের ঠিক পরের প্রজন্ম যারা, তাদের ক্ষেত্রে দেখি কিছু একটা ঘটলে, প্রেমে আঘাত কিংবা মন ভাঙলে কোনো কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে। কেন করে জানি না। তাদের কি ধৈর্য কম, নাকি সহ্যক্ষমতাই নেই? হয়তো পরিণত নয় বলে এমন সিদ্ধান্ত নেয়। এখন সোশ্যাল মিডিয়া অবশ্য একটা বড় প্রভাব ফেলছে। এ বিষয়ে একটা প্রশিক্ষণ দরকার।


আরও খবর

শিশুদের সিনেমায় মিথিলা

শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২