Logo
শিরোনাম

যশোরে আট জনের শরীরে এইডস শনাক্ত

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মাত্র ৩৫ দিনের মধ্যে যশোরে আট জনের শরীরে এইচআইভি ভাইরাস -এইডস শনাক্ত হয়েছে। এই নিয়ে তিন বছরে যশোর জেনারেল হাসপাতালের পরীক্ষা কেন্দ্রে মোট ১৭ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়। চলতি বছরে শনাক্ত হয়েছে ১০ জন। 

যশোর জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের আগস্ট মাসে যশোর হাসপাতালের পরীক্ষাকেন্দ্রে চার জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়। আর সেপ্টেম্বরের প্রথম চার দিনে আরও চার জনের দেহে ভাইরাসটি ধরা পড়ে। এই নিয়ে ৩৫ দিনে আট জন আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। হাসপাতালের এইচটিসিতে (এইচআইভি টেস্টিং অ্যান্ড কাউন্সেলিং সেন্টার) ১৬২ জনের রক্ত ও লালা পরীক্ষায় আট জনের শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। যার মধ্যে পুরুষ পাঁচ ও নারী তিন জন। তাদের বয়স ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে। আক্রান্তরা ভারত ও বাংলাদেশ উভয় দেশেই বসবাস করেন।

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যশোর জেনারেল হাসপাতালে এইচটিসি চালু হয়। সে বছর শনাক্ত হয় তিন জন। পরের বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে চার ও ২০২২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১০ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়।

যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, যেভাবে এইডস আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে তা আমাদের জন্যে একটি সতর্কবার্তা।

তিনি জানান, সারা দেশে এইচআইভি-এইডস পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ২৩ টি সেন্টার ও চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য সাতটি সেন্টার রয়েছে। খুব শিগগিরই আরও পাঁচটি কেন্দ্র চালু হবে। যার মধ্যে যশোর জেনারেল হাসপাতালেও হবে।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




মুকুট নিয়ে আজ ফিরছে বাঘিনীরা

প্রকাশিত:বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সব অপেক্ষার অবসান ঘটছে। হিমালয়ের দেশ থেকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট নিয়ে দেশে ফিরছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল।  দুপুরে ট্রফি নিয়ে ঢাকায় পা রাখবেন সাফজয়ী লাল-সবুজের মেয়েরা।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি নিয়ে ছাদখোলা বাসে ঘরে ফিরতে চেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবলাররা। তাঁদের সেই স্বপ্ন পূরণ করতে যাচ্ছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। সাফজয়ী মেয়েদের জন্য ছাদখোলা বাসের ব্যবস্থা করেছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

বুধবার কাঠমান্ডু থেকে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় বাংলাদেশের বিমানের একটি ফ্লাইটে করে ঢাকায় রওনা হবে বাংলাদেশ নারী দল। দুপুর দেড়টা নাগাদ ঢাকায় পা রাখবেন সাবিনারা।

ঢাকায় পা রেখে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা পাবেন চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা। এরপর সেখানে তাদের ফেরার জন্য অপেক্ষায় থাকবে ছাদখোলা বাস। যাতে চড়ে বাফুফে ভবনে ফিরবেন সানজিদা-কৃষ্ণারা।

বিমানবন্দর থেকে সাবিনাদের বাস এয়ারপোর্ট, কাকলী, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়, বিজয় সরণি ফ্লাইওভার, তেজগাঁও, মগবাজার হয়ে মৌচাক-কাকরাইল-ফকিরাপুল-মতিঝিল হয়ে পৌঁছাবে বাফুফে ভবনে। এরপর সেখানে মতিঝিলে বাফুফে ভবনে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা দেবেন।


আরও খবর

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২




অস্তিত্ব সংকটে শীতলক্ষ্যা

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রবিবার বিশ্ব নদী দিবস। প্রতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের শেষ রবিবার সারা বিশ্বে দিবসটি পালিত হয়। বাংলাদেশেও নানা আয়োজন থাকে। বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত সব নদ-নদীকে জীবন্ত সত্তা ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট। তুরাগ নদ রক্ষায় মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের করা এক রিটের চূড়ান্ত শুনানি নিয়ে ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ওই রায় দেয় হাইকোর্ট।

এর আগে ২০১৭ সালে কলম্বিয়ার সাংবিধানিক আদালত ‘রিয়ো এট্রাটো’ নামক একটি নদীকে জীবন্ত সত্তা ঘোষণা করে। নদীটি সোনা আর কয়লার খনির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়াতে সেখানকার আদিবাসী সম্প্রদায় ও অন্যদের জন্য ব্যাপক সমস্যা হচ্ছিল।

নিউজিল্যান্ডের একটি নদীকেও জীবন্ত সত্তা ঘোষণা করা হয়, ওই নদীকে সেখানকার মানুষ খুবই পবিত্র মনে করে একে ঘিরে নানা উপাসনাও করত। ভারতের মধ্য প্রদেশের রাজ্য আদালত থেকে নর্মদা নদীকে জীবন্ত সত্তা ঘোষণা দেওয়া হয়।

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ২০২১ সালের এক জরিপে জানা গেছে, সারা দেশে ৬৫ হাজার ১২৭ জন নদী দখলদার রয়েছে। তবে এরমধ্যে ১৯ হাজার ৮৭৪ জন অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ রিভার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. মনির হোসেন বলেন, জেলা প্রশাসক জেলা নদী রক্ষা কমিটির সভাপতি একই সঙ্গে তিনি জেলা পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা কমিটির আহ্বায়ক। জেলা প্রশাসক পরিবেশ অধিদপ্তর, মৎস্য অফিস, কৃষি অফিস, পানি উন্নয়ন বোর্ড, বিআরডিবি, পরিবেশবাদী, জনপ্রতিনিধি, সিভিল সোসাইটি, মিডিয়ার প্রতিনিধির সমন্বয়ে নদী রক্ষার কাজকে এগিয়ে নিতে হবে। তাছাড়া জলাধার সংরক্ষণ আইন ২০০০, পানি আইন ২০১৩, বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫, বাংলাদেশ জীববৈচিত্র্য আইন ২০১৭, বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২ কঠোর প্রয়োগে সুফল আসতে পারে বলেও তিনি মনে করেন।

 শীতলক্ষ্যার পানি হাতে বা শরীরে লাগলে চর্মরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি নদী ভরাট, অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও স্থাপনা নির্মাণ করছেন।

তারা আরো জানান, উপজেলার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া শীতলক্ষ্যা নদী পাড়ের কৃষিজমিগুলো ছিল ফসলে ভরা। নদীতে ছিল নানা প্রজাতির মাছ। এখন শীতলক্ষ্যায় বিপন্ন জীববৈচিত্র্য, আর বেকার জেলে পরিবার।

তারা আরো জানান, কারখানা গড়ার আগে স্থানীয় কিছু মানুষকে সেখানে চাকরির ব্যবস্থা করা হয়। আর চাকরির কারণে স্থানীয়রাও তেমন কিছু বলেন না। মাঝে মাঝে সামাজিক ও পরিবেশবাদী সংগঠনগুলো নদী রক্ষায় আন্দোলন করে। আর নীতিনির্ধারকরা বরাবরই উদাসীন থাকেন।

ঘোড়াশাল পৌর এলাবার জামালপুর গুদারাঘাটের নৌকার মাঝি হাসমত আলী বলেন, দীর্ঘ ১৫ বছর যাবত এই ঘাটে নৌকা চলাই। নদীর পানি আগে এতটাই দূষিত যে নৌকা চালাতে ভয় হয়। ‘বাঁচাও শীতলক্ষ্যা’ আন্দোলনের সমন্বয়ক মাহবুব সৈয়দ বলেন, একটা সময় আসবে যখন দেশজুড়ে নগর-জনপদের বিপুল পানির চাহিদা পূরণ করতে হবে নদী থেকে। কারণ ভূগর্ভস্থ পানির স্তর বিপজ্জনক মাত্রায় নিচে নেমে গেছে।


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




সাড়ে ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান বাকি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

রোকসানা মনোয়ার :  বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার জানিয়েছেন প্রায় সাড়ে ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান বাকি রয়েছে। করোনাভাইরাসের সময় স্মার্ট ড্রাইভিং কার্ডের জন্য ৩ বার দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে এবং মামলার কারণে লাইসেন্স বিতরণে দীর্ঘসূত্রিতা হয়েছে বলে তিনি জানান।


স্মার্ট ড্রাইভিং লাইসেন্সে যাবতীয় তথ্য অন্তর্ভুক্ত থাকলে বিদেশে চাকরি বা ভ্রমণের ক্ষেত্রে খুবই কাজে লাগবে। তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। শুধুমাত্র যানবাহনের অতিরিক্ত গতির কারণে দুর্ঘটনা ঘটছে না, সড়কে শৃঙ্খলার অভাবে সবকিছু প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে যাচ্ছে। সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার বিষয়ে বিদ্যমান আইন রয়েছে, যা যথাযথভাবে প্রয়োগের অভাবে কোন রাস্তায় কোন যানবাহন চলাচল করবে, সে ব্যাপারে তদন্ত সলিসি নির্ধারণের প্রয়োজন রয়েছে।

তিনি ১৯৮০ সালে নির্মিত গাড়ি ঢাকা শহরে চলাচল করার বিষয়ে প্রশ্ন তুলেন আরও বলেন, এক্ষেত্রে গাড়ির ফিটনেন্স দেওয়ার ক্ষেত্রে আরও সতকর্তা অবলম্বন করার প্রতি বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন। ঢাকা শহরে ফিটনেসবিহীন গাড়ি বন্ধের লক্ষ্যে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের প্রস্তাব করেন।


সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বলেন, বিআরটিএ থেকে দীর্ঘদিন যাবত স্মার্ট ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্তির ক্ষেত্রে গ্রাহকরা চরম ভোগান্তির মধ্যে রয়েছে এবং যে কোনো সেবা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে দালালের মাধ্যমে নিতে হয়। ১২ লাখ ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং নবায়নযোগ্য ২৫ লাখ লাইসেন্স ছাপানোর অপেক্ষায় রয়েছে। দীর্ঘদিন যাবত স্মার্ট ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাপানোর কার্যক্রম ধীর গতিতে হওয়ায় সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। ফলে তাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। বিষয়টি নিরসন হওয়া দরকার বলে তিনি মনে করেন। ড্রাইভিং লাইলেন্স প্রদানে বিলম্ব হওয়ায় পেশাদার ও অপেশাদার ড্রাইভারগণ গাড়ি চালাচ্ছে। এ সুযোগে অপেশাদার ব্যক্তি গাড়ি চালানোর ফলে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা বাড়ছে ফলে মানুষের মৃত্যুর মিছিলও বৃদ্ধি পাচ্ছে।


এ বিষয়ে সভাপতি সভায় অবহিত করেন প্রধানমন্ত্রী, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী মহোদয় বরাবর একটি আবেদন করা হয়েছে, যার কপি সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতিকে দেওয়া হয়েছে। যা পর্যালোচনা করলে দেখা যায় এটি একটি উন্নত প্রযুক্তি সম্বলিত সমাধান। যা জার্মান প্রযুক্তির মাধ্যমে পরিকল্পনা করা হয়েছে। এটি অত্যন্ত কম খরচে গ্রাহক পর্যায়ে পৌঁছানো সম্ভব। এতে সরকারের কোনো আর্থিক সংশ্লিষ্ঠ বিষয় থাকবে না। এটির সাথে গাড়ি এবং চালক সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাবলি থাকবে। ইহা ছাড়াও এ প্রযুক্তিতে আইডি কার্ড জন্ম নিবন্ধনসহ ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যসমূহ থাকবে। এটি কোনোক্রমেই নকল করা সম্ভব হবে না। এ প্রযুক্তিটি পরবর্তীতে ডিজিটাল প্রেডেনশিয়াল তৈরিতে সহায়তা করবে।


এসবের উত্তরে বিআরটিএ আরও বলেন, তবে যারা মাঠপর্যায়ে পরীক্ষা দিচ্ছে তারা যথাসময়ে লাইসেন্স পেয়ে যাচ্ছে। যাদের লাইসেন্স রয়েছে, তাদের অস্থায়ীভাবে লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে বলে জানান। ডিপিএম পদ্ধতি লাইসেন্স তৈরি করার জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে দেওয়া হয়েছে, এক্ষেত্রে কোভিডের কারণে জার্মান থেকে মেশিন সরবরাহে বিলম্ব হচ্ছে। ১২ লাখ ৪৫ হাজার লাইসেন্সের মধ্যে ৪ লাখ ইতোমধ্যে প্রিন্ট সম্পন্ন হয়েছে। গ্রাহকের ভোগান্তি দূর করার লক্ষ্যে প্রায় ৭০ শতাংশ কাজ ডিজিটালাইজড হয়েছে। কিন্তু ডিজিটালাইজডের বিষয়টি অনেকে অবহিত নয়, এক্ষেত্রে প্রায় গ্রাহক দালালের শরণাপন্ন হয়ে থাকে।


বৈঠকে মানুষের জীবন নিরাপত্তা নিশ্চিত করে সকল প্রকার অবকাঠামো নির্মাণ এবং মহাসড়কে জনগণের জীবনের নিরাপত্তা বিধান ও নিরাপদ রাখা লক্ষ্যে নসিমন, করিমন, সিএনজি চালিত অটোরিকশা, ইঞ্জিনচালিত রিকশা চলাচল বন্ধ করার ব্যপারে ৮টি বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার, ডিআইজি, অতিরিক্ত আইজিপি (হাইওয়ে) এর সমন্বয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে পুনরায় সুপারিশ করা হয়।


বৈঠকে স্মার্ট ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাপানো ও বিতরণে দীর্ঘসূত্রিতায় অসন্তোষ প্রকাশ করে এবং আবেদনকারীদের নিকট দ্রুত বিতরণের ব্যবস্থা নেওয়া হবে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য জানানোর জন্য কমিটি সুপারিশ করে।


 


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




মোরেলগঞ্জে দূর্গাপূজা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

 বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সোমবার সকালে শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বী নেতৃত্বের সাথে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা  অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট -৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. আমিরুল আলম মিলন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক পিপি এম।  বক্ততা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল মামুন,উপজেলা  চেয়ারম্যান আ্যাড. শাহ-ই- আলম বাচ্চু, পৌর মেয়র আ্যাড. মনিরুল হক তালুকদার, থানা অফিসার ইন চার্জ মো. সাইদুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক মোজাম,  মুক্তিযোদ্ধা নীহার রঞ্জন হালদার, কাউন্সিলর শংকর কুমার রায়, প্রভাষক বেদান্ত কুমার  হালদার প্রমুখ।


আরও খবর



কুমিল্লায় সুজন হত্যার বিচার দাবিতে মানব বন্ধন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

কু‌মিল্লা ব্যুরো ঃ

কুমিল্লায় সুজন হত্যার বিচার দাবি করে সংবাদ সম্মেলন ও মানব বন্ধন করেছে এলাকাবাসী ও তার পরিবার।                   বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর ঠাকুরপাড়া এলাকায় তার নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে সুজনের পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিকদের বলেন, ১২সেপ্টেম্বর  জিলানী সুজনকে তার নিজ বাসা থেকে রিপন ও তার সহযোগীরা ডেকে নিয়ে হত্যা করে। এবিষয়ে মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নেয়নি পরে আদালতে মামলা করা হয়। বতর্মানে আসামীরা বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। এঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করছি। পরে ঠাকুরপাড়া সড়কে মানববন্ধন কর্মসূ‌চি পালন ক‌রে নিহ‌তের প‌রিবারসহ এলাকাবাসী।


আরও খবর