Logo
শিরোনাম
মেঘনা নদীতে গোসল করার সময় নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার রাজবাড়ীতে ট্রাকের সাথে সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহীর মৃত্যু রাজবাড়ীতে আবৃত্তি ও কথামালায় প্রকাশনা উৎসব নওগাঁয় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় স্কুল ছাত্র নিহত-মা ও ছোট বোন আহত মোরেলগঞ্জে শ্রমীকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন এমপি মিলন লালমনিরহাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারাগেছে স্কুলছাত্র নওগাঁয় বোরো ধান চাষের শুরুতেই বিদ্যুতের লোড শেডিং, দুঃশ্চিন্তায় কৃষকরা নওগাঁয় ৩৫ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ কুড়িগ্রামের শীতকাতর অসহায় মানুষের পাশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেত্রকোনায় বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন

ধর্মীয় মতাদর্শের অপশন সরিয়ে নিচ্ছে ফেসবুক

প্রকাশিত:Saturday ২৬ November ২০২২ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

ফেসবুক প্রোফাইলের অংশ থেকে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় মতাদর্শ অপশনগুলো সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। নতুন এ অপশনগুলো পরিবর্তনের কথা ব্যবহারকারীদের নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানিয়েছে মেটার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি। আগামী পহেলা ডিসেম্বর থেকে এ নিয়ম কার্যকর করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। নিজেদের ১১ হাজারের বেশি কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণার পরপরই এসব পরিবর্তনের কথা সামনে আনল প্রতিষ্ঠানটি। খবর ডেইলি মেইলের।

ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলেই একাধিক ব্যক্তিগত তথ্য দিতে হয়, যা বাধ্যতামূলক। এর মধ্যে অন্যতম ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গি। অনেকে রাজনৈতিক আদর্শের কথাও নিজেদের প্রোফাইলে যুক্ত করে থাকেন। এতে ব্যক্তিগত সব তথ্যই জানিয়ে দেওয়া হয় ফেসবুককে। কেউ দিতে না চাইলে বা স্কিপ করলে বারবার নোটিফিকেশনের মাধ্যমে রিমাইন্ড দিতে থাকে ফেসবুক। এতে অনেকটা বাধ্য হয়েই গুরুত্বপূর্ণ এ তথ্যগুলো ফেসবুকে শেয়ার করত ব্যবহারকারীরা। এবার এ সংক্রান্ত এক গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিল মেটার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি।

আপডেট অনুসারে প্রোফাইল থেকে রাজনৈতি ও ধর্মীয় মতাদর্শের অপশনগুলো সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে অন্যতম জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি। এতে করে নতুন করে কেউ অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে আর এ তথ্যগুলো দিতে হবে না। খবরে বলা হয়েছে, ব্যবহারকারীদের নোটিফিকেশন পাঠিয়ে এ খবর জানাচ্ছে ফেসবুক। ১ ডিসেম্বর থেকে ‘ইন্টারেস্টেড ইন’, ‘রিলিজিয়াস ভিউজ’ এবং ‘পলিটিক্যাল ভিউজ’ ঘরের তথ্যগুলো আর প্রোফাইলে দেখা যাবে না। আর বাকি যেসব তথ্য প্রোফাইলে আছে, তা থাকবে। তবে কেন ‘ইন্টারেস্টেড ইন’, ‘রিলিজিয়াস ভিউজ’ এবং ‘পলিটিক্যাল ভিউজ’ প্রোফাইলে থাকবে না, তার ব্যাখ্যা ফেসবুক দেয়নি।

তবে আরো সহজে ফেসবুক ব্যবহার করার লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়ে মেটার মুখপাত্র এমিল ভ্যাসকেজ বলেন, যাদের প্রোফাইলে এসব তথ্য দেওয়া ছিল সেগুলো তুলে নেওয়া হবে। তবে কেউ চাইলে তথ্যগুলো রাখতে পারবেন।


আরও খবর



নেপালে শক্তিশালী ভূমিকম্প

প্রকাশিত:Wednesday ২৫ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো নেপাল। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৪৩ মিনিটে দেশটিতে আঘাত হানে এ ভূকম্পন। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৯ ।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, ভূমিকম্পের রেশ ছিল প্রায় ২৫ সেকেন্ড। আতঙ্কিত মানুষজন বাড়ি-ঘর ও অফিস ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসে। তবে এখন পর্যন্ত এতে কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা জানিয়েছে, ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল জুমলা শহর থেকে ৬২ কিলোমিটার উত্তর পশ্চিমে এবং ভূপৃষ্ঠ থেকে ২৫ দশমিক ২ কিলোমিটার গভীরে। শক্তিশালী এ ভূমিকম্পের প্রভাব সুদূর দিল্লিতেও অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। 


আরও খবর



গত বছর দেশে ৪৪৬ শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে

প্রকাশিত:Friday ২৭ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

২০২২ সালে দেশে স্কুল ও কলেজের ৪৪৬ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। দেশের পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরের ওপর ভিত্তি করে এই পরিসংখ্যান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে বেসরকারি সংস্থা আঁচল ফাউন্ডেশন।

শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আত্মহত্যা করা এসব শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুল ও সমমান পর্যায়ের ৩৪০ এবং কলেজ পর্যায়ে ১০৬ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে ৫৪ জন মাদরাসার শিক্ষার্থী। এসব শিক্ষার্থীদের মধ্যে নারী ২৮৫ জন এবং পুরুষ ১৬১ জন। 

এছাড়া ২০২২ সালে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তত ৮৬ জন শিক্ষার্থী আত্মহত্যার পথ বেঁছে নিয়েছেন বলেও জানিয়েছে আঁচল ফাউন্ডেশন।

এদিকে, আত্মহত্যার পেছনের কারণ হিসেবে মান-অভিমানই বেশি। ২৭ দশমিক ০৬ শতাংশ স্কুল-কলেজ শিক্ষার্থী অভিমানে আত্মহত্যা করেছে। এদের বড় অংশই অভিমান করেছিল পরিবারের সদস্যদের ওপর। 


আরও খবর



নওগাঁয় শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান

প্রকাশিত:Wednesday ০৪ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রিপোর্টার :


নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় পারমোহন ঘোষ গ্রামে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে সংবর্ধনা ও গুনীজনদের সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। বুধবার ৪ জানুয়ারি পারমোহন ঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কর্তৃক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এই সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে পারমোহন ঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি সঞ্জিত কুমার দাসের সভাপতিত্বে ও সুদরানা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক আসাদুল ইসলামের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন খাঁন, সুদরানা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অমেন্দ্রনাথ সাহা রনি, বড়সাঁওতা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক খোরশেদ আলম, পারমোহন ঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিএম আশফাকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়মীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সাইদুর রহমান শোভন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এ ১৯তম ব্যাচে মেধাতালিকায় ১০ম স্থান অধিকারী পারমোহন ঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কৃতি শিক্ষার্থী সাব্বির আহমেদকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এছাড়াও পারমোহন ঘোষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আরো ৪ জন কৃতি শিক্ষার্থী ও গুনীজনদের সম্মাননা প্রদান করা হয়।  


আরও খবর



জমে উঠেছে লোককারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব

প্রকাশিত:Monday ২৩ January 20২৩ | হালনাগাদ:Friday ০৩ February ২০২৩ |
Image

বুলবুল আহমেদ সোহেল :

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে চলছে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনে চলছে মাসব্যাপী লোককারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব। দেশের ঐহিত্যবাহী লোককারু শিল্পের নিদর্শন সংগ্রহ সংরক্ষন, প্রদর্শন ও পুনরুজ্জীবিত করে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার জন্যই প্রতি বছর এ মেলার আয়োজন। দর্শনার্থীদের কাছে সব আয়োজন ঠিকঠাক থাকলেও অভিযোগ উঠেছে মূল ভিষণ থেকে সরে যাচ্ছে ফাউন্ডেশন, চারুকারু শিল্পীদের দেয়া হয়নি পর্যাপ্ত স্টল, কনস্ট্রাকশন কাজ বিনষ্ট হচ্ছে প্রাকৃতিক রূপ।

বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের ভেতরে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন কারুশিল্প যাদুঘর এবং লোক ও কারুশিল্প যাদুঘর।  গ্রাম বাংলার ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক এ দুটি যাদুঘরে স্থান পেয়েছে প্রাচীন লোক ও কারুশিল্প।  মাসব্যাপী এ উৎসবেকে কেন্দ্র করে পুরো ফাউন্ডেশন চত্বরকে সাজানো হয়েছে বর্নিল সাজে।  প্রতিদিনই বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা প্রদর্শন করছে লোক জীবন প্রদর্শনী,গ্রাম্য নালিশ,কনে দেখা, বিয়ে,জামাইকেও পিঠা আপ্যায়নের দৃশ্য, গ্রামীন খেলা হা-ডু-ডু ও কানামাছি। 

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা কারুশিল্পীদের প্রদর্শনী,  পুতুল নাচ, বায়স্কোপ, নাগর দোলা, মুন্সিগঞ্জ ও মৌলভী বাজারের শীতল পাটি, মাগুরা ও ঝিনাইদহের শোলা শিল্প, রাজশাহীর শখের হাড়ি ও মুখোশ, চট্টগ্রামের তালপাতার হাতপাখা, রংপুরের শতরঞ্জি, সোনারগাঁওয়ের জামদানী নিয়ে অংশ গ্রহন করেছেন চারু কারু শিল্পিরা। 

এদিকে দর্শনার্থীদের বিনোদনকে আরো প্রানবন্ত করতে ফাউন্ডেশনের ভেতরের লেকে নৌকায় চড়ে ঘুরে বেড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় লোকজ এই উৎসবে থাকছে পালাগান, বাউল ও জারিসারি গানের।করোনা ভাইরাসের কারনে গত কয়েক বছর মেলা বন্ধ থাকায় এবার অন্তত একলাখ দর্শনার্থী লোকজ এ উৎসবে অংশ নেবেন বলে আশাবাদী আয়োজকরা।

মেলায় দর্শনার্থীরা গ্রামীন এসব ঐতিহ্যে দেখে ও ছেলে মেয়েদের পরিচয় করিয়ে দিতে পেরে অনেকটাই আবেগ আপ্লুত। 

এদিকে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত শিল্পিরা জানালেন প্রতিবছরই এ মেলায় অংশ গ্রহণ করেন তারা। তবে প্লাস্টিক ও বিদেশী পণ্যের দাপটে আজ বিপন্ন হওয়ার পথে এসব গ্রামীন ঐতিহ্য। বংশ পরম্পরায় অংশ গ্রহন কারী এসব শিল্পীরা বললেন সরকারী ভাবে পিষ্ট পোষকতা ছাড়া এ শিল্প ধরে রাখা যাবেনা। তারা বললেন যাদের জন্য এ মেলার আয়োজন তাদেরকেই অবমূল্যায়ন করা হয়েছে এবার। কয়েকটি স্টলেই দুজন করে শিল্পকে দেয়া হয়েছে। 

মেলা পরিদর্শনে আসা কবি শাহেদ কায়েস বলেন, ফাউন্ডেশনের মূল  উদ্দেশ্য থেকে সরে যাচ্ছে। চারু কারুশিল্পীদের প্রমোট করা,আর্থিকভাবে স্বচ্ছল করা ও গবেষণা কেন্দ্র গড়ে তোলার লক্ষেই জয়নুল আবেদিন প্রতিষ্ঠা করেছিল এ ফাউন্ডেশন। প্রতিবছর মেলার আয়োজন ছাড়া তেমন কোন কার্যক্রমই চোখে পড়েনা। আবার যাদের জন্য এ মেলার আয়োজন তাদেরকেও অবহেলা করা হচ্ছে। ১শটি স্টলের মধ্যে ৩২ স্টল বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে শিল্পীদের। কোন কোন স্টলে দুজন শিল্পীকে বরাদ্ধ দেয়া হচ্ছে। এখানেতো অন্তত ৬৪ জেলার জন্য ৬৪টি স্টল বরাদ্ধ দিয়ে দেশের সব প্রান্ত থেকে অন্তত একজন করে শিল্পীকে জড়োকরা সম্ভব। তা না করে বেশীরভাগ স্টল দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন ব্যাবসায়ীদের। যারা এখানে প্লাস্টিক ও চায়না প্রডাক্ট বিক্রি করে লাভবান হচ্ছে।  কোটি টাকার বাজেটে বিভিন্ন ভবন তৈরী হচ্ছে। যা এখানকার প্রাকৃতিক পরিবেশ বিনিষ্ট করা হচ্ছে।

এসব ব্যাপারে ফাউন্ডেশনের পরিচালক এস এম রেজাউল করিম বলেন,তিনি মাত্র একমাস হয়েছে দায়িত্বে বসেছেন। অভিযোগ গুলো তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেবেন। এ বছর কর্মরত কারুশিল্পীদের প্রদর্শনীর জন্য ৩২টি স্টল সহ ১০০টি স্টল বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে। মেলা চলবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত।


আরও খবর



তরুণ তরুণীকে দেখে ফেলায় স্কুল ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত:Tuesday ১০ January ২০২৩ | হালনাগাদ:Thursday ০২ February 2০২3 |
Image

কুমিল্লা ব্যুরো :

কুমিল্লায় তরুণ তরুণীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখে ফেলায় রায়হান খান নামে এক স্কুল ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রোববার (৮ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১১ টায় জেলার বুড়িচং উপজেলার শংকুচাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সোমবার বেলা ১১ টার দিকে  বিষয়টি নিশ্চিত করেন বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ রহমান।

রায়হান খান (১৫) শংকুচাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে শংকুচাইল গ্রামের হাফিজ মেম্বারের বাড়ির সৌদি প্রবাসী গিয়াস খানের ছেলে।

 ওসি মারুফ বলেন, রোববার দুপুরে রায়হান খান সহপাঠীদের সাথে পূর্ণমতি সড়ক এলাকায় সেচ পাম্পে গোসল করছিলো। এ সময় দুইটি মোটরসাইকেলে করে অজ্ঞাত ছেলেরা দুই মেয়েকে নিয়ে ওই সড়কে ঘুরতে আসে। এ সময় সড়কের পাশে বাইক আরোহী ছেলেগুলো তাদের সাথে থাকা মেয়েদের সাথে অন্তরঙ্গ হয়। এ দৃশ্য দেখে রায়হান ও তার সহপাঠীরা  হাসাহাসি করে। বাইকে থাকা ছেলেরা এসে হাসাহাসি কেন করলো তা জিজ্ঞেস করলে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। পরে বাইক আরোহীরা মোবাইল ফোনে খবর দিয়ে অন্যদের ঘটনাস্থলে আসতে বলে। খবর পেয়ে বাইক আরোহীরা দলবদ্ধ হয়ে লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে রায়হানকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেয়। অতর্কিত হামলায় রায়হানের মাথায় প্রচন্ড আঘাত করে। পরে আহত অবস্থায় তাকে পাশের ঘুংগুর নদীতে ফেলে দেয়।

 স্থানীয়রা আহত রায়হানকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকাতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। ঢাকা যাওয়ার পথে যাত্রাবাড়ী এলাকায় পৌঁছলে রায়হান মারা যায়।

নিহত রায়হানের  মা রোজিনা আক্তার বলেন, তুচ্ছ ঘটনায় আমার ছেলেকে খুন করেছে। আমি আমার ছেলের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান ।

ওসি মারুফ রহমান জানান, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এখন মামলা দায়ের প্রক্রিয়ার্ধীন রয়েছে।। অভিযুক্তদের আটকে অভিযান চলছে বলে জানান ওসি।


আরও খবর