Logo
শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

নিজস্ব প্রতিনিধি,সোনারগাঁ ঃ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বিদুতের তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে রাব্বি মিয়া (১৩) নামে এক মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্র চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি অবস্থায় মৃত্যু হয়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাবিবপুর আনোয়ারা হাফিজিয়া মাদ্রাসায়।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যৃবরন করেন।

নিহত রাব্বি মিয়া ( ১৩) হাবিবপুর গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে। হাবিবপুর আনোয়ারা হাফিজিয়া মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র।

নিহতের স্বজনরা জানান, রাব্বি হাবিবুর ঈদগাহ  সংলগ্ন আলি ইসলামের ছাদের উপর ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে ১১ হাজার ভোল্টের ইলেকট্রিক তারেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে প্রায় ৫০% অগ্নিদগ্ধ হয়ে শরীর পুড়ে যায়।

তারপর স্থানীয়রা প্রথমে তাঁকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করে। আজ সোমবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ।


আরও খবর



সরকার ও মিল মালিক একে অপরের পরিপূরক

প্রকাশিত:রবিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সরকার ও মিল মালিক একে অপরের পরিপূরক, প্রতিপক্ষ নয় বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।  বাংলাদেশ অটো মেজর এ্যান্ড হাসকিং মিল মালিক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মিল মালিকেরা কখন, কোথায় এবং কতটুকু চাল বিক্রি করেন তারা ছাড়া কেউ জানে না। খুচরা বিক্রেতারা চালের দাম বাড়িয়ে সরাসরি মিল মালিকদের উপরে দায় চাপিয়ে পার পেয়ে যায়। খুচরা বিক্রেতাদের অভিযোগ খন্ডন না করে আপনারা (মিল মালিক) চুপ করে থাকেন, কোন প্রতিবাদ করেন না। এর ফলে সবার মধ্যে ধারনা কাজ করে যে মিল মালিকরা দাম বাড়াচ্ছে।

সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের বাজারে মিনিকেট নামে চাল নেই। অনেকে বলেন মিলাররা চাল কেটে সরু করেন। এটা সত্য নয়। চাল সরু করতে গেলে ভেঙ্গে যায়। তবে বিভিন্ন মেশিনের মাধ্যমে পোলিশ করে চকচকে করা হয়। এ সময় তিনি ধান চালের দাম নির্ধারণে মিলারদের প্রতিনিধি রাখার অনুরোধ জানান।

খাদ্য সচিব ইসমাইল হোসেন বলেন, মিলারদের প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভোক্তাদের কাছে জানিয়ে দিতে হবে যে, মিলগেটে আজ কত টাকা দামে চাল বিক্রয় হলো। তাহলে খুচরা বিক্রেতা যে দাম বাড়ানোর জন্য মিলারদের দোষ দেয়, সেটা থেকে মিলাররা মুক্তি পাবে।


আরও খবর

পুলিশের পক্ষে বললেন খামেনি

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




আমি ভালো আছি। শরীর একদম ঠিকঠাক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সাংবাদিক রাজিব নুরের ফেসবুক ওয়াল থেকে ঃ

আমি ভালো আছি। শরীর একদম ঠিকঠাক। একটু অবসন্ন। অনেকখানি ট্রমাটাইজড হয়ে আছি।

হামলাটা আমার ওপর যতখানি হয়েছে, তার চেয়ে অনেক বেশি হয়েছে আলমগীর রেজার ওপর। সেলফিটা ওরই তোলা। 

আলমগীরের সঙ্গে আমার ওই দিন, ১১ সেপ্টেম্বরেই প্রথম পরিচয় হয়েছে। ও ‘দেশসেবা’ পত্রিকার বানিয়াচং উপজেলা প্রতিনিধি। তবে প্রথম পরিচয়ে আমাকে বলেছিল, সে আর্টিস্ট। টুকটাক আঁকাআঁকি এবং কম্পিউটার গ্রাফিকস করে জীবিকা নির্বাহ করে। বেশির ভাগ উপজেলা প্রতিনিধিরই বিশাল সহায়সম্পত্তি না থাকলে তা-ই করতে হয়।

আলমগীরকে ইট দিয়ে মারতে গিয়েছিল ওয়াহেদের ছেলে ওয়ালিদ। ও গ্রেপ্তার হয়েছে। মোশাহেদ পেছন থেকে ওয়ালিদকে আটকাতে না পারলে হয়তো আলমগীরের জন্য বাকি জীবন আমার অনুশোচনা করতে হতো।

মোশাহেদ মিয়া ‘কালের কণ্ঠ’ পত্রিকার বানিয়াচং প্রতিনিধি। এর আগে ছিলেন ‘প্রথম আলো’তে। আমিও তখন ‘প্রথম আলো’য় কাজ করতাম। পুরোনো সহকর্মীকে পেয়ে মোশাহেদ ছিলেন উৎফুল্ল। হবিগঞ্জ থেকে আমি সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলাম ওখানকার স্থানীয় দৈনিক সমাচারের নিজস্ব প্রতিবেদক তৌহিদ মিয়াকে।

ছবিতে আমার আর আলমগীরের মাঝে আছে তৌহিদ মিয়া।

আমরা হবিগঞ্জ থেকে রওয়ানা দেওয়ার আগেই তৌহিদ মোশাহেদকে জানিয়ে রেখেছিল। আমাদের জন্য অপেক্ষা করছিলেন মোশাহেদ।ওয়াহেদের পরিবারের লোকজন মোশাহেদ ছাড়া আমাদের সবাইকে মারধর করেছে। মোশাহেদকে বানিয়াচংয়ের গাছপালাও চেনে বলে আমার ধারণা। তাই যে বাড়ির মেয়েরাও বাইরের চার জন লোককে মারতে আসতে পারে, সেই বাড়িতেও তিনি রেহাই পেয়ে গেছেন। 

আলমগীরের তোলা সেলফিতে একটু বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকা মানুষটা হলেন মোশাহেদ মিয়া।  

আহত তিন জনের মধ্যে তুলনায় আমি কম আঘাত পেয়েছি। আমার মোবাইল কেড়ে নিতে গিয়ে হাত মচকে দিয়েছে ওয়াহেদের ছেলেরা। আমাকে ওরা বাধ্য করেছে প্যাটার্ন লক জানাতে।তখন মারধরও করেছে। 

আমার ওপর হামলার প্রতিবাদ করায় অন্যদের ওপর হামলে পড়ে ওরা। আলমগীর রেজা পাশের গ্রামের ছেলে। তাই ওর প্রতিবাদ ছিল জোরালো। ওকেই মেরেছে বেশি ওরা। ইট দিয়ে ওয়ালিদ যে আঘাতটা করতে চেয়েছিল, তাকে বোধ হয় আইনের ভাষায় ‘হত্যাচেষ্টা’ বলা চলে। 

আমার আইনজ্ঞ বন্ধুরা বলছেন, ‘মামলা শক্ত হয়নি।’  

শোরগোল তুলে আমাদের মনে যে আতঙ্ক তৈরি করা হয়েছে, তা-ও কি কম অপরাধ? আমার তখন মনে হয়েছিল, প্রাণসংশয় হতে পারে আজ। আমি ওই আতঙ্কঘোর থেকে বেরিয়ে আসতে পারছি না। ট্রমাটাইজড বাংলা কি আতঙ্কঘোর হবে? এখনও কাজে মনে দিতে পারছি না। ওয়াহেদের মতো ভয়ঙ্কর লোক আমি খুব একটা দেখিনি। মোটর সাইকেল ছেড়ে দেওয়ার পরও লোকটা আমাদের পেছন পেছন দৌড়ে আসছিলেন।

মামলা শক্ত হলো কিনা জানি না। করার দরকারও নেই। ওয়াহেদের কাছ থেকে তো রামনাথ বিশ্বাসের বাড়ি আমি দখল করে নিতে চাইনি। রামনাথ বিশ্বাস নামে একজন ভূপর্যটক, যিনি পৃথিবী ঘুরে এসে বলেছিলেন বানিয়াচং তাঁর পৃথিবী, সেই মানুষের বাড়িটা দখল হয়ে গেছে, এই খবর আমি আমাদের পাঠককে জানাতে জানাতে চেয়েছি।

হাওরাঞ্চলের তিন বিশ্বাস, দেবব্রত বিশ্বাস, হেমাঙ্গ বিশ্বাস আর রামনাথ বিশ্বাস আমাকে সংগীতে এবং ভ্রমণে বিশ্বস্ত হতে শিখিয়েছেন।আমি যদি নির্বাসনে বাধ্য হই, বাধ্যবাধকতা থাকে নির্বাসনদণ্ডে শুধু একজন শিল্পীকেই শুনতে হবে আমার, তবে দেবব্রতকে সঙ্গে নিয়ে যাব। ১০ জন হলে নিশ্চয়ই হেমাঙ্গ বিশ্বাসও থাকবেন সঙ্গে। পাঠক হিসেবে আমার কাছে রামনাথ বিশ্বাস অত অনিবার্য নন।তাঁর গোটা তিরিশেক ভ্রমণকাহিনি আছে, পড়েছিও বেশ কিছু।সেই কবে মনে নেই, যখন জেনেছিলাম, অনেক দিন আগে রামনাথ বিশ্বাস বাই-সাইকেলে করে পৃথিবী ঘুরে এসেছেন, তখন ভেবেছিলাম আমি হেঁটে হেঁটে ঘুরব দেশটা। হেঁটে না হলেও আমি তো ঘুরেছি দেশটা। এক বানিয়াচংয়েই অন্তত পাঁচবার গিয়েছি। আবারও যাব নিশ্চয়ই।আমি তো এখন রামনাথ বিশ্বাসের পক্ষভুক্ত হয়ে গিয়েছি।

আমাদের ওপর হামলার বিচার চেয়ে অনেক মানুষ মাঠে নেমেছেন দেখতে পাচ্ছি।আপনাদের কাছে আমার কৃতজ্ঞতার সীমা নেই। আমিও বিচার চাই আমাদের ওপর হামলার। আইনানুযায়ী যতটা শাস্তি ওয়াহেদ ও তাঁর ছেলেদের পাওনা হয়, তার চেয়ে একটু যেন কম না হয় বিচারটা। সেই সঙ্গে চাই, সবাই যেন রামনাথ বিশ্বাসের দখল হয়ে যাওয়া বাড়িটি উদ্ধার করে সংরক্ষণের দাবি জানান।

বানিয়াচংয়ে কমলারাণীর সাগরদীঘি বলে একটা দীঘি আছে। পুরানকথার সেই দীঘির পাড়ে আমাদের চারজনের এই ছবিটা তোলা হয়েছিল।


আরও খবর



বুবলীর মা হওয়ার খবর, আলোচনায় শাকিবের আবেগঘন পোস্ট

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মঙ্গলবার বিকেল থেকে আলোচনা কেন্দ্রে ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। ফেসবুকে তার বেবি বাম্প প্রকাশ্যে এসেছে। এমনকি একই দিনে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে আলোচনায় ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান।

মূলত সন্তানের জন্মদিনে আবেগঘন স্টাটাস দিয়েছেন ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান। বুধবার দুপুরে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে সেই স্ট্যাটাস শেয়ার করেন তিনি।

২০১৬ সালের আজকের দিনে কলকাতার একটি হাসপাতালে জয় জন্মগ্রহণ করে। সেই হিসেবে আজ জয় পা রাখলো সপ্তম বছরে। বাবা শাকিব খানের সঙ্গে জয়ের সম্পর্ক আজও অধরা; প্রকাশ্যে খুব একটা দেখা মেলে না বাবা-ছেলের। তবে জন্মদিনে ছেলেকে নিয়ে অন্তর্জালে শুভেচ্ছা বার্তা দিয়ে থাকেন শাকিব।

এবারের জন্মদিনে শাকিব লিখেছেন, আমার ছোট্ট আব্রাম তার জীবনে নতুন বছরে পা রাখলো। প্রতিনিয়ত খেয়াল করছি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তুমি মানুষের মতো মানুষ হতে এগিয়ে যাচ্ছো। হয়তো একটা সময় গিয়ে বুঝবে তোমার বাবা আছে বলেই জীবন এতো সুন্দর। বাবারা কখনও শো অফ করে না, তারা দেখিয়ে দেয়! তোমার প্রতি আমার স্নেহ, আদর, দোয়া ও মঙ্গলকর দায়িত্ব সারাজীবন থাকবে। শুভ জন্মদিন রাজকুমার।

অন্যদিকে ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলী মঙ্গলবার নিজের ফেসবুক পেজে দুটি ছবি প্রকাশ করেছেন। যেখানে নায়িকার বেবি বাম্প দেখা গেছে। ছবির ক্যাপশনে বুবলী লিখেছেন, মি উইথ মাই লাইফ। এরপর অনেকগুলো ভালোবাসার ইমোজি। তার ওপরে হ্যাশট্যাগে লেখা থ্রোব্যাক আমেরিকা

বুবলীর পোস্ট থেকেই স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে এই বেবি বাম্পটি অনেক আগের। যখন তিনি যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন। এ নিয়ে নেটিজেনদের মনে তৈরি হয়েছে নানা প্রশ্ন। তবে কী মা হয়েছিলেন নায়িকা বুবলী? তাহলে বাবা কে?

 


আরও খবর

ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিতের বিয়ে

শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২




উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনোয়ার হোসেন

ফকিরহাটের জন্য সম্মান বয়ে আনলেন

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ |
Image

 এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস-২০২২ উপলক্ষে উপজেলা ক্যাটাগরিতে তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় ফকিরহাট উপজেলার  উপজেলা নিবার্হী অফিসার মো. মনোয়ার হোসেনকে তথ্য অধিকার পুরস্কার -২০২২ এ পুরস্কৃত করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় । আজ ২৮ সেপ্টেম্বর  তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ডা. হাসান মাহমুদ তার হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। এ সময় তথ্য কমিশনের মাননীয় সচিব জিএম আব্দুল কাদেরসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন। মনোয়ার হোসেন এর পূর্বে শরীয়তপুর জেলার আরডিসি, গোপালগঞ্জ সদর  উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও মাদারীপুর জেলার এনডিসি হিসেবে  সততা, নিষ্ঠা ,কর্ম দক্ষতা ও স্বচ্ছতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর



বিশ্বকাপ নিশ্চিত নারী ক্রিকেট দলের

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

ইয়াশফি রহমান : বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে থাইল্যান্ডকে ১১ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। সেমিফাইনাল ম্যাচে এই জয়ের ফলে ফাইনালের সঙ্গে আগামী বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিটও নিশ্চিত করলো বাংলাদেশ।

শুক্রবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৩৪ রানের উদ্বোধনী জুটি পায় টাইগ্রেসরা।

এদিন খেলার শুরুতে ১৭ বলে ১১ রান করে আউট হন ফারজানা হক। আরেক ওপেনার মুর্শিদা খাতুন ২ চারে ৩৫ বলে ২৬ রান করে সাজঘরে ফেরেন। অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি ২ চারে ২৪ বলে ১৭ রান করে বিদায় নেন। শেষ পর্যন্ত রুমানা হকের ২৪ বলে ২৮ ও রিতু মণির ১০ বলে ১৭ রানের ইনিংসের কল্যাণে নির্ধারিত ২০ ওভার ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান করতে পারে বাংলাদেশ।

১১৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই কঠিন চাপে পড়ে যায় থাইল্যান্ড। ইনিংসের পাঁচ ওভারের মধ্যে মাত্র ১৩ রানে সাজঘরে ফিরে যান তিন ব্যাটার। সেখান থেকে প্রতিরোধ গড়ে চতুর্থ উইকেটে ৩২ রান যোগ করেন নারুমল চাওয়াই ও নাত্থাকাম চান্থাম। অধিনায়ক নারুমল ইনিংসের ১৩তম ওভারে দলীয় ৪৫ রানে আউট হওয়ার আগে খেলেন ২৭ বলে ১২ রানের ইনিংস।

এরপর আহত অবসর হন চানিদা সুত্থিরুয়াং। তার জায়গায় নামা সোনারিন টিপোচকে নিয়ে শেষ চেষ্টা চালান চান্থাম। বিশেষ করে শেষ তিন ওভারে ৫১ রানের চাহিদায় ১৮তম ওভারে ১৬ রান ও ১৯তম ওভারে ১৩ রান নিয়ে খেলা জমানোর আভাস দেন তিনি। কিন্তু ইনিংসের শেষ ওভারে অভিজ্ঞ অফস্পিনার সালমা খাতুনের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হওয়ার আগে চারটি চার ও তিনটি ছয়ের মারে ৫১ বলে ৬৪ রান করেন ২৬ বছর বয়সী চাত্থাকাম। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে ১০২ রান করে থাইল্যান্ড। বাংলাদেশের পক্ষে ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান খরচায় ৩ উইকেট নেন সালমা। এছাড়া মেঘলা দুই ও নাহিদা আখতারের শিকার এক উইকেট।


আরও খবর

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২