Logo
শিরোনাম

সুফীবাদের মূলনীতি

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

 

সুফী শব্দটি (পশম) থেকে উদগত হয়েছে। কারণ, সুফীরা সাধারণ জীবন যাপনের জন্যে পশমী কাপড় পরিধান করতেন- . রোনাল্ড নিকলসনের মতে পশমী পোষাক পরিচ্ছেদ পরিধানও আত্মার বিশুদ্ধতার জন্য জরুরী এবং সূফীরা তা পরতেন বিধায় তারা সুফী নামে পরিচিতি।

আবার কেউ কেউ বলেন, সুফী শব্দটি গ্রীক সাফিয়া শব্দ থেকে উদ্ভাবিত। সাফিয়া অর্থ জ্ঞান। সুফীরা আধ্যাত্মিক জ্ঞানের অধিকারী বলে নামে খ্যাত।

মারূফ আল-কারখী বলেন, “সুফীবাদ ঐশী সত্তার উপলব্ধি।জুনায়েদ বাগদাদী বলেন, “জীবন, মৃত্যু অন্য সমস্ত ব্যাপারে আল্লাহর ওপর নির্ভরতাই সুফীবাদ।কারো কারো মতে,“ পরমত্মার সাথে জীবাত্মার মিল সাধন।

সুফীবাদের মূলনীতিসমূহ :

. তাওবা : অন্যায় পাপের ওপর আন্তরিক অনুশোচনা, অন্যায়ের স্বীকৃতি ভবিষ্যতে কাজ না করার দীপ্ত শপথ। তাওবা হচ্ছে সুফী মতবাদের প্রথম মূলনীতি।

. তাওয়াক্কুল : সর্বাবস্থায় দয়াময় আল্লাহ তায়ালার ওপর ভরসা করাই তাওয়াক্কুল।

. পরিবর্জন: প্রসঙ্গে নিজামুদ্দীন আওলীয়া বলেন, “স্বল্প আহার, স্বল্প কথন, স্বল্প মেলামেশা, স্বল্প নিদ্রার মধ্যেই নিহিত আছে মানুষের পূর্ণতা।

. সবর : যে কোন অবস্থায় অস্থির না হয়ে আল্লাহর সিদ্ধান্তকে মাথা পেতে মেনে নেয়াই সবরের একমাত্র দাবী।

. আত্মসমর্পণ : গুরুও কাছে নিজ আত্মাকে সোপর্দ করে দিতে হবে।

. ইখলাস : নিছক আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে সব কাজ করতে হবে।

. আল্লাহর প্রেম : অন্তরে পার্থিব জগতের কোনকিছুর প্রেম মোহ থাকতে পারে না। সর্বক্ষণ আল্লাহকে পাওয়ার চিন্তায় মগ্ন থাকতে হবে।

. আল্লাহর যিকর : আধ্যাত্মিক উন্নতি সাধন অন্তরকে পরিশুদ্ধি করার জন্য সর্বদা আল্লাহর যিকর

. শুকুর : আল্লাহর অফুরন্ত নেয়ামতের স্বীকৃতি প্রদান আনুগত্যকরণ শুকর বলা হয়।

১০. কাশফ : সুফীগণ যখন আধ্যাত্মিক সাধনার চরম পর্যায়ে উপনীত হন তখন তার অন্তদৃষ্টি খুলে যায় এবং তার সামনে গোপনীয় সকল রহস্যদ্বার খুলে যায়। এক পর্যায়ে তিনি আল্লাহর অসীমতার মাঝে নিজেকে হারিয়ে ফেলেন।

১১. ফানা বাকা : ফানা ফিল্লাহ এবং বাকাবিল্লাহ হচ্ছে সুফী সাধনার সর্বোচ্চ স্তর। স্তরে পৌঁছলে সুফী নিজের ব্যক্তিগত চেতনাকে মুছে দিয়ে ঐশী চেতনায় উন্নীত হন। ব্যক্তিগত চৈতন্য খোদার ধ্যান প্রেমে সমাহিত হয়। তাই আত্মচেতনার অবলুপ্তিকেই বলা হয় ফানা।


আরও খবর

তরিকা সমূহের বর্ণনা, তরিকা কি ?

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২




টানা যানজটের কবলে রাজধানী

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

বৃষ্টির ভোগান্তির সাথে যানজট মিলে, প্রায় অচল হয়ে পড়েছে পুরো রাজধানী। রাত থেকে টানা বৃষ্টিতে সড়কের বিভিন্ন জায়গায় জমেছে পানি। এতে যানজট আরো তীব্র আকারে রূপ নিয়েছে।

কর্মস্থলের উদ্দেশে বের হয়ে যানজটে পড়ে নাকাল হতে হয়েছে অনেককেই। রাজধানীর ফার্মগেট থেকে কারওয়ান বাজার, পান্থপথ থেকে তেজগাঁও এবং বিজয় সরণী এলাকায় যানবাহনের প্রচুর চাপ রয়েছে। এছাড়া কল্যাণপুর এবং মিরপুর সড়কেও রয়েছে যানজট। এদিকে, গাজীপুর থেকে বিমানবন্দর সড়কে বিআরটি প্রকল্প ও মেট্রোরেলের কাজ চলার কারণে গত কদিন ধরেই তীব্র যানজট তৈরি হচ্ছে। আজও এর ব্যতিক্রম দেখা যায়নি। যানজটে আটকা পড়ে, ফ্লাইট মিস করার মতো ঘটনাও ঘটছে কদিন ধরে 


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




বিক্রামপুর ভূইয়া মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীদের নবীনববণ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগরে বিক্রামপুর ভূইয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিক্ষার্থীদের নবীনববণ (বিবিঃ ০৮) ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১২ টা সময় প্রতিষ্ঠানে মাঠে নবীনববণ (বিবিঃ ০৮) ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। ফোরেসিক মেডিসিন অধ্যাপক ডাঃ এ. কে. এম শামসুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বিক্রামপুর ভূইয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুজ্জামান ভূইয়া। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বিক্রামপুর ভূইয়া মেডিকেল কলেজের ভাইস চেয়ারম্যান ও মুন্সীগঞ্জ বিক্রামপুর সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ মনিরুজ্জামান ভূইয়া, বিক্রামপুর ভূইয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাবেক স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূইয়া, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক ডাঃ আবিদা সুলতানা। ।এ ছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ডাঃ শরীফ হাসান (সার্জারী), সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ রোকসানা আফরোজ, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ আবিদ হাসান, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ সামাওয়াত নায়ের শহিদসহ অন্যান্য ডাক্তরবৃন্ধ ও সকল ছাত্রছাত্রী,কর্মকর্তা -কর্মচারী উপস্থিত ছিল।


আরও খবর

১১০০ শিক্ষকের সনদ জাল

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২




সীমান্তে কাঁটাতার নির্মাণে কাজ করবে দুই দেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

বাংলাদেশ-ভারতের ত্রিপুরা থেকে শুরু করে সীমান্তের কাঁটাতারবিহীন অংশে কাঁটাতার নির্মাণের কাজ শেষ করার বিষয়ে একমত হয়েছে দুই দেশ। এছাড়া সীমান্ত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বিজিবি বিএসএফের পদক্ষেপের মাধ্যমে সীমান্তে মৃত্যু কমিয়ে আনা, অস্ত্র, মাদক ও জাল টাকার চোরাচালান এবং পাচার রোধে পারস্পরিক সহযোগিতাও প্রশংসিত হয়েছে। ভারতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাষ্ট্রীয় সফরে দুই দেশের মধ্যে যৌথ সম্মতিতে নেওয়া হয়েছে সিদ্ধান্তগুলো। কূটনৈতিক সূত্রগুলো এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে লড়াইয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ : উভয় নেতাই সন্ত্রাসবাদের সব রূপ ও অভিব্যক্তি নির্মূলে তাদের দৃঢ় অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন। এই অঞ্চল ও এর বাইরে সন্ত্রাসবাদ, সহিংস চরমপন্থা এবং মৌলবাদের বিস্তার প্রতিরোধে ও সে সম্পর্কিত পদক্ষেপে সহযোগিতা আরো জোরদার করার বিষয়ে সম্মত হয়েছে।

প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা সহযোগিতা : বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জন্য যানবাহন সংগ্রহের পরিকল্পনাসহ ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রতিরক্ষা লাইন অব ক্রেডিটের অধীনে প্রকল্পগুলোর প্রাথমিক চূড়ান্তকরণে রাজি হয়েছে। বর্ধিত সামুদ্রিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে ২০১৯ সালে স্বাক্ষরিত উপকূলীয় রাডার সিস্টেম সমঝোতা স্মারকের প্রাথমিক কার্যকারিতা চূড়ান্তকরণ।

মানুষ ও পণ্যের স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ চলাচলের সুবিধা নিশ্চিতকরণ : আন্তর্জাতিক সীমান্তের ১৫০ গজের মধ্যে চলমান উন্নয়নমূলক কাজগুলো দ্রুত সম্পন্ন করার বিষয়ে একমত হয়েছে দুই দেশ, যার মধ্যে চার হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের বিভিন্ন ক্রসিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ অভিবাসন ও বাণিজ্য-সম্পর্কিত অবকাঠামো রয়েছে।

আঞ্চলিক সমস্যা : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে জোর করে বাস্তুচ্যুত ১০ লাখেরও বেশি মানুষকে আশ্রয় দেওয়া এবং মানবিক সহায়তা প্রদানে বাংলাদেশের উদারতার প্রশংসা করেছে ভারত। জোর করে বাস্তুচ্যুত এসব লোককে নিরাপদ, টেকসই ও দ্রুত স্বদেশ প্রত্যাবর্তন নিশ্চিতে তারা অব্যাহত প্রতিশ্রুতির ওপর জোর দিয়েছে।

উন্নয়ন সহযোগিতা : বাংলাদেশ ভারত সরকারের সঙ্গে যুক্ত লাইন অব ক্রেডিটের অধীনে, বিশেষ করে গত বছরের তহবিল বিতরণের কার্যকারিতা এবং গতির জন্য ভারতের প্রশংসা করেছে। বাংলাদেশকে প্রায় ১ দশমিক ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রেয়াতি ঋণ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ভারতের শীর্ষ উন্নয়ন সহযোগী। ভারত কর্তৃক অন্যান্য দেশকে দেওয়া সব উন্নয়ন অর্থায়নের প্রায় এক-চতুর্থাংশ বা ২৫ শতাংশ করে বাংলাদেশকে প্রদান করে।

বঙ্গবন্ধু ও ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা : বঙ্গবন্ধুর ওপর যৌথভাবে নির্মিত বায়োপিক  শিগগিরই শেষ হবে এবং আগামী বছর মুক্তি পেতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি প্রামাণ্যচিত্রের যৌথ প্রযোজনা এবং দুর্লভ ভিডিও ফুটেজের যৌথ সংকলনে সম্মত হয়েছে উভয় পক্ষ। 


আরও খবর

শিগগিরই বাড়ছে বিদ্যুতের দাম

মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২




মুকুট নিয়ে আজ ফিরছে বাঘিনীরা

প্রকাশিত:বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ |
Image

সব অপেক্ষার অবসান ঘটছে। হিমালয়ের দেশ থেকে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট নিয়ে দেশে ফিরছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল।  দুপুরে ট্রফি নিয়ে ঢাকায় পা রাখবেন সাফজয়ী লাল-সবুজের মেয়েরা।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি নিয়ে ছাদখোলা বাসে ঘরে ফিরতে চেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ফুটবলাররা। তাঁদের সেই স্বপ্ন পূরণ করতে যাচ্ছে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। সাফজয়ী মেয়েদের জন্য ছাদখোলা বাসের ব্যবস্থা করেছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়।

বুধবার কাঠমান্ডু থেকে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় বাংলাদেশের বিমানের একটি ফ্লাইটে করে ঢাকায় রওনা হবে বাংলাদেশ নারী দল। দুপুর দেড়টা নাগাদ ঢাকায় পা রাখবেন সাবিনারা।

ঢাকায় পা রেখে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা পাবেন চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা। এরপর সেখানে তাদের ফেরার জন্য অপেক্ষায় থাকবে ছাদখোলা বাস। যাতে চড়ে বাফুফে ভবনে ফিরবেন সানজিদা-কৃষ্ণারা।

বিমানবন্দর থেকে সাবিনাদের বাস এয়ারপোর্ট, কাকলী, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়, বিজয় সরণি ফ্লাইওভার, তেজগাঁও, মগবাজার হয়ে মৌচাক-কাকরাইল-ফকিরাপুল-মতিঝিল হয়ে পৌঁছাবে বাফুফে ভবনে। এরপর সেখানে মতিঝিলে বাফুফে ভবনে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা দেবেন।


আরও খবর

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

রবিবার ০২ অক্টোবর 2০২2

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেট

শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২




মাধবদীতে ডাকাতির প্রস্তুতকলে অস্ত্রসহ ৮ ডাকাত আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ |
Image

মাধবদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি ঃ 

নরসিংদীর মাধবদীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে নরসিংদীর জেলা গোয়েন্দা শাখা ও মাধবী থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৮ জন সদস্যকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। 

পুলিশ জানায়,  গত সোমবার রাত ১.২৫ মিনিটে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাধবদী থানা এলাকা মেহের পাড়া ইউনিয়নের চৌয়া গ্রামে একটি কালভার্টের উপর হতে তাদেরকে আটক করা হয় । এ সময় তাদের সাথে থাকা একটি বিদেশি পিস্তল ,একটি ম্যাগজিন ও ২ রাউন্ড গুলি এবং১টি চাপাতি ,১টি রামদা ,১ টি কাটার, লোহার পাইপ সহ ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি পিকআপ ভ্যান উদ্ধার করা হয়।

আটকৃত প্রত্যেক এই আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সদস্য বলে জানায় পুলিশ । আটককৃতরা হলেন মাধবদী থানা সাগরদি গ্রামের মতি মিয়ার পুত্র মোঃ ইব্রাহিম, ডৌকাদি গ্রামের জমির আলীর পুত্র ইউনুস ,নরসিংদী থানার বানিয়াছল  এর আবু তাহের পুত্র রুবেল ,মাধবদী থানার বালাপুর এর জাবেদ আলীর পুত্র আইউব, বিরামপুরের আব্দুল হালিমের পুত্র শাহিন, সাগরদী গ্রামের বাসেত পুত্র শফিকুল ইসলাম বাদল ,আড়াইহাজার থানার শালমদী গ্রামের জালালের পুত্র মোঃ শাহিন ,যশোর কোতয়ালী থানা আব্দুল সাত্তার এর পুত্র জাহাঙ্গীর, পুলিশ জানায় তাদের নামে একাধিক মামলা রয়েছে তারা বিদেশি ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ডাকাতি করার জন্য বের হয়েছিল । নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা শাখা ইনচার্জ মোঃ আবুল বাশার বিপিএম-বার এর নেতৃত্বে মাধবদী থানা অফিসার ইনচার্জ রোকনুজ্জামান এর সহযোগিতায় এস আই নইমুল ইসলাম মোস্তাক,এস আই মোফাজ্জল হোসেন, সজিব খান ,রাহুল মজুমদার ,ফরহাদ,রুবেল, হামিদুল ,মান্নান, তুষার সহ আরো বেশ কয়েকজন অভিযানে অংশগ্রহণ করেন । উক্ত বিষয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে মাধবদী থানায় পেনাল কোড ৩৯৯/৪০২ ধারায় এবং ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯অ/১৯(ঋ) ধারায় পৃথক পৃথক এজাহার দাখিল করা হয়েছে।


আরও খবর