Logo
শিরোনাম

আবারও সংক্রমণ বাড়ার শঙ্কা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১২৪জন দেখেছেন
Image

রোকসানা মনোয়ার:  দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে থাকলেও প্রতিবেশী দেশসহ এশিয়া এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে সংক্রমণ আবার বাড়ছে। ভাইরাসের এই ঊর্ধ্বমুখীকে উদ্বেগজনক বলে জানিয়েছে সরকারের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। একইসঙ্গে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারকে ছয় দফা সুপারিশ জানিয়েছেন তারা।

সোমবার কারিগরি পরামর্শক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ সহিদুল্লার সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই উদ্বেগ জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ৫৭তম সভা গত রবিবার রাত সাড়ে ১০টায় অনলাইনে হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা। সভাপতি জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির নতুন সদস্যদের স্বাগত জানান এবং বিদায়ী সদস্যদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করেন।

সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ইউরোপ ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ার কারণ এবং দেশে সংক্রমণের হার ভবিষ্যতে নিয়ন্ত্রণে রাখতে করণীয় বিষয়ে কারিগরি পরামর্শক কমিটির মতামত জানতে চেয়েছে বলে জানানো হয়। এ বিষয়ে সভায় কমিটির সব সদস্যের উপস্থিতিতে বিস্তারিত আলোচনা শেষে সুপারিশগুলো তুলে ধরা হয়।

সুপারিশে পরামর্শক কমিটি জানায়, বাংলাদেশে কোভিড-১৯-এর সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও পার্শ্ববর্তী দেশসহ এশিয়া এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বর্তমানে সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। যা উদ্বেগজনক। এখন থেকেই সতর্ক না হলে বাংলাদেশেও সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হতে পারে বলে আশঙ্কা জাতীয় কারিগরি কমিটির। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সব ক্ষেত্রে শতভাগ সঠিকভাবে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করাসহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের সুপারিশ করা হয়। সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে প্রচার-প্রচারণা বাড়ানোর সুপারিশ করে কমিটি। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাজার ও কেনাকাটা এবং ঘরমুখী মানুষের যাতায়াতের সময় মাস্ক পরা নিশ্চিত করার সুপারিশ করা হয়।

এ ছাড়া তারাবির নামাজ ও ঈদ জামাতে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় কমিটি। এ ছাড়াও কোভিড-১৯ মোকাবিলায় হাসপাতালগুলোকে সতর্ক করার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় হাসপাতালগুলোর সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে সভা আয়োজন করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেওয়ার সুপারিশ করা হয়। একইসঙ্গে কোভিড-১৯ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির মাধ্যমে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের মধ্যে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা আয়োজন করে সবাইকে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সতর্ক অবস্থানে থাকার সুপারিশ করা হয়েছে।

জিনোম সিকোয়েন্সিং ও সার্ভেলিয়েন্স জোরদার করার সুপারিশ করেছে জাতীয় পরামর্শক কমিটি। গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে চীনে বাড়ছে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার। এরই মধ্যে গত কয়েক দিন ধরে প্রতিবেশী দেশ ভারতেও করোনার সংক্রমণ বেড়েছে। ইউরোপের দেশগুলোতেও নতুন করে হানা দিচ্ছে করোনা। বাংলাদেশেও নতুন করে করোনার সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে এরই মধ্যে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সংক্রমণ মোকাবিলায় সবাইকে সচেতন হওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তিনি।


আরও খবর



নোয়াখালীতে জামায়াতের ৪৫ নেতাকর্মী গ্রেফতার

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

অনুপ সিংহ,নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

নোয়াখালীর সদর উপজেলায় একটি প্রাইভেট স্কুলে অভিযান চালিয়ে জামায়াত ইসলামীর ৪৫ নেতাকর্মিকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, তারা ওই একাডেমি ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি শ্রেণি কক্ষে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন।

রোববার (১৫ মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা শহর মাইজদীর সংলগ্ন আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলা থেকে তাদের আটক করা হয়। তবে তাৎক্ষণিক আটককৃতদের নাম ঠিকানা জানা যায় নি।  

বিষয়টি নিশ্চিত করেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম। তিনি জানান, রোববার দুপুর ১২টার দিকে জেলার বিভিন্ন উপজেলার জামায়াত ইসলামীর নেতাকর্মিরা সুধারাম থানা এলাকার মাইজদী আল ফারুক একাডেমির দ্বিতীয় তলায় সরকার বিরোধী গোপন বৈঠক করার জন্য একত্রিত হয়। বৈঠক চলাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল ও সুধারাম থানার ওসি আল ফারুক একাডেমিতে অভিযান চালিয়ে ৪৫ জন জামায়াত ইসলামী নেতাকর্মিকে গ্রেফতার করে।

এসপি আরো জানায়, এ সময় আটকৃতদের কাছে থাকা ধর্মীয় উগ্রতা সৃষ্টিকারী বিভিন্ন ধরনের বই উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক ভাবে জানা যায় যে,ধর্মীয় উগ্রতাকে পুঁজি করে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষে সরকার বিরোধী ক্ষতিকারক বেআইনী  কার্যকলাপের প্রস্তুতিমূলক অংশ হিসেবে এই গোপন বৈঠকের  আয়োজন করা হয়েছিল। এ বিষয়ে আরও অনুসন্ধানসহ আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



পাংশা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস পালিত

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

সৈকত শতদলঃ পাংশা উপজেলা পরিষদের সন্মূখে জাতির জনকের প্রতিকৃতি সংলগ্ন স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পন, র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্যেদিয়ে পাংশা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৭ এপ্রিল সকালে ২০২২ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসটি পালিত হয়েছে।

সকালে বিভিন্ন সরকারী প্রতিষ্ঠান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, রাজনৈতিক ও  সামাজিক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর র‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন পাংশা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী, উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি খন্দকার সাইফুল ইসলাম বুড়ো, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বিশ্বাস, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুজহাত তাসনীম আওন, পাংশা মডেল থানার ওসি মাসুদুর রহমান, উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ প্রভাস চন্দ্র্র সেন, কৃষি কর্মকর্তা রতন কুমার ঘোষ, বীর মুক্তিযোদ্ধা উসমান গনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান ফজু খান  সহ উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা গণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান সজ্ঞালনা করেন উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল কুমান বিশ্বাস।ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবসটির তাৎপর্য  তুলে ধরেন বক্তাগণ। 


আরও খবর



কু‌মিল্লায় বাসের চাপায় দুই পথচারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

নিজস্ব প্রতি‌বেদক,কুমিল্লা

কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে বাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত দুই পথচারী হাসপাতালে চিকিৎসাধী অবস্থায় মারা গেছেন ।                      সোমবার (৯ মে) সকাল ৭ টায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের চৌদ্দগ্রা‌মের আটগ্রাম এলাকায় এ সড়ক দূর্ঘটনা‌টি  ঘটে ।

নিহতরা হলেন, আটগ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে  রিন্টু (৩০) ও বাতিসা গ্রামের মনা মিয়ার ছেলে রিপন(২৮)।

বিষয়টি  নিশ্চিত করে মিয়াবাজার হাইওয়ে থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক কাউছার  জানান, সকালে ঢাকামুখী সেজুতি পরিবহনের একটি বাস মোটরসাইকেলকে বাঁচাতে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুই পথচরীকে চাপা দেয় । এ সময় তারা গুরুতর আহত হয় । স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় ।

পরবর্তীতে সকাল ১১ টায় রিপন কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। বিকাল ৫ টায় ঢাকা মেডিকেল চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রিন্টু। পু‌লিশ বাসটি জব্দ করে থানায় আনা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।এ ব‌্যাপা‌রে এক‌টি মামলা প্রক্রিয়ার্ধীন র‌য়ে‌ছে।


আরও খবর



একই পরিবারের ৪ জন আটক

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মাত্র ১ শতাংশ জমির বিরোধে কুপিয়ে যুবককে হত্যা, আহত ৩

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

 নিজস্ব প্রতিবেদক , কুমিল্লা

মাত্র এক শতাংশ জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ইসরাফিল(২৮) নামে এক যুবককে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় ইসরাফিলের মা ও চাচাতো ভাইসহ তিনজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ নারী-পুরুষসহ একই পরিবারের চারজনকে আটক করেছে।                  রোববার দুপুরে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামেএ ঘটনাটি ঘটেছে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা। নিহত ইসরাফিল ওই গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে। তাঁর ঈশান নামে দশ মাস বয়সী এক শিশু সন্তান রয়েছে।   

স্থানীয় আকতার হোসেন ও পুলিশ জানায়, ইসরাফিলের পিতা হানিফ মিয়া ও পাশ^বর্তী মোক্তল হোসেনের সাথে মাত্র এক শতাংশ জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। রোববার দুপুরে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী মোক্তল হোসেনের ছেলে সজিব, বোন নাসরিন, আইরিন ও মা রহিমা বেগম বিরোধকৃত ওই জায়গায় খড়ের গাঁদা(ছিন) তৈরি করতেছিল। এ সময় ইসরাফিল ও তার ভাই সালমান বাধা দিলে কিছু বুঝে উঠার আগেই মোক্তল হোসেনের ছেলে সজিব ইসরাফিলকে হাতে থাকা কুড়াল দিয়ে গাঁড়ে ও মাথায় আঘাত করে। ইসরাফিলের চিৎকারে তার চাচাতো ভাই রামীম, মা রিনা বেগম ও চাচি আয়েশা বেগম এগিয়ে আসলে মোক্তল হোসেনের ছেলে ও মেয়েরা তাদেরকেও কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদেরকে উদ্ধার শেষে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসককে ইসরাফিলকে মৃত ঘোষণা করেন। 

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডাঃ রিফাতুল হক বলেন, ‘নিহত ইসরাফিলের গাঁড়ে ও মাথায় ভারী ধারালো অস্ত্রের গভীর ক্ষত রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়’।

নিহত ইসরাফিলের চাচাতো ভাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রামীম বলেন, ‘ঘাতক সজিব পূর্ব থেকে পরিকল্পনা করে বিরোধকৃত জায়গায় খড়ের ছিন দিচ্ছিল। আমরা বাধা দিই এবং পুলিশকে খবর দিই। পুলিশ আসার আগেই ঘাতক সজিব ইসরাফিলকে কুপিয়ে হত্যা করেছে’। 

ইসরাফিলের ছোট ভাই সালমান বলেন, ‘এ জায়গা নিয়ে আমাদের সাথে ঘাতক সজিবের বাবা মোক্তল হোসেনের বিরোধকে কেন্দ্র করে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। রোববার পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা আমার ভাই ইসরাফিলকে কুপিয়ে হত্যা করে এবং মা, চাচাতো ভাই ও চাচিসহ আরও তিনজনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে’। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইসরাফিলের মা রিনা বেগম বলেন, ‘আমি ঘরের বাইরের চিৎকার শুনে গিয়ে দেখি ঘাতক সজিব আমার ছেলেকে কুড়াল ও তার বোনেরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাচ্ছে। আমার চোখের সামনে তারা আমার কলিজার টুকরো কুপিয়ে হত্যা করেছে’। 

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডাঃ আবুল হাশেম সবুজ বলেন, ‘আহত রামীম, আয়েশা বেগম ও রিনা বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে’। 

এদিকে ইসরাফিলের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত গ্রামবাসী ইসরাফিলের চাচা মোক্তল হোসেন, তার মেয়ে নাসরিন, আইরিন ও মা রহিমা বেগমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। 

কনকাপৈত ইউপি চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল বলেন, ‘মোক্তল হোসেনের সাথে নিহত ইসরাফিলের বাবা হানিফ মিয়ার সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতে একাধিকবার শালিশী সভা হয়। মোক্তল হোসেন শালিশী অমান্য করে এবং নকল দলিল সৃজন করে। বিরোধটি নিষ্পত্তির লক্ষ্যে আমরা উচ্চতর আদালতে আমরা বিষয়টি প্রেরণ করি। রোববার পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী মোক্তল হোসেনের সজিব ওই জায়গাতে খড়ের ছিন তৈরি করছিল। বাধা দেয়ায় তারা ইসরাফিলকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে’। 

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, ‘জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে হামলায় ইসরাফিল নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। লাশ উদ্ধার শেষে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় আমরা মোক্তল হোসেন, তার স্ত্রী ও মেয়েসহ চারজনকে আটক করি। এছাড়া প্রধান অভিযুক্ত সজিবকে গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে’। অনলাইনের জন্য।


আরও খবর



শ্রীনগরের পাটাভোগ ইউনিয়ন বিএনপির আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ১০০জন দেখেছেন
Image

 শ্রীনগর প্রতিনিধিঃ.   মুন্সীগঞ্জ  জেলার শ্রীনগর উপজেলার পাটাভোগ ইউনিয়ন এর আয়োজনে রবিবার সন্ধ্যায় আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।ইক্ত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন পাটাভোগ ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক  মোঃতোফায়েল আহমেদ তপন। 

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোঃশহিদুল ইসলাম মৃধা,আহবায়ক শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোঃ হাফিজুল ইসলাম খান, সদস্য সচীব-শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি, মোঃ সিদ্দিক মোল্লা,সাধারন সম্পাদক- মুন্সিগঞ্জ জেলা সেচ্ছাসেবক দল।

এছারা আরও বক্তব্য রাখেন মোঃ আশরাফ হোসেন,  যুগ্ন আহবায়ক শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি, মোঃ ফারুক মোড়ল, যুগ্ন আহবায়ক শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি, মোঃ জহিরুল ইসলাম মামুন, আহবায়ক কমিটির সদস্য-শ্রীনগর উপজেলা বিএনপি, মামুনুর রশীদ মামুন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সিগঞ্জ জেলা ছাত্রদল,  মোঃ নুরুল ইসলাম পার্থ, শ্রীনগর উপজেলা সেচ্ছাসেবক দল, মোঃ মামুনুর রশীদ মামুন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সিগঞ্জ জেলা ছাত্রদল, মোঃ মোশারফ হোসেন,সাবেক কোষাধ্যক্ষ -মুন্সিগঞ্জ জেলা যুবদল, এইচ এম এনায়েত হোসেন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক -মুন্সিগঞ্জ জেলা সেচ্ছাসেবক দল, শুভ আহমেদ, সদস্য সচিব শ্রীনগর উপজেলা সেচ্ছাসেবক দল 

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন আইয়ুব খান, আকাশ,মোঃ রজিন আহমেদ মোঃ বাবু,এস এম মিরাজ,হালিম খান, টিপ,মোঃ শহিদুল, মোঃ হাবিব,রিয়াজ,সেন্টু, মোঃ ইলিয়াস, লিংকন সহ অসংখ্য নেতাকর্মী। আলোচনা সভা শেষে মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দলের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট জনাব তারেক রহমানে  রোগ মুক্তি কামনা করা হয়।

অনুষ্ঠানের শেষে সকলের মাঝে ইফতার প্রদান করা হয়।


আরও খবর