Logo
শিরোনাম

নিম্নবিত্তরা ১০০ টাকায় কবর দিতে পারবেন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নিয়ন্ত্রণাধীন কবরস্থানগুলোতে সাধারণ কবরের জন্য ৫০০ টাকা এবং দুস্থ, অসহায় ও নিম্নবিত্তের মানুষের ক্ষেত্রে কবরের রেজিস্ট্রেশন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১০০ টাকা।

মানুষকে কবর সংরক্ষণে নিরুৎসাহিত করার লক্ষ্যে ডিএনসিসির নিয়ন্ত্রণাধীন কবরস্থানগুলোতে শুধু পুনঃকবরের রেজিস্ট্রেশন ফি বাড়ানো হয়েছে। এর মধ্যে বনানী কবরস্থানে ৫০ হাজার ও অন্য কবরস্থানে কবরের ওপর পুনঃকবরের জন্য ৩০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে সাধারণ কবরের জন্য ৫০০ টাকা এবং দুস্থ, অসহায় এবং নিম্নআয়ের মানুষের ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশন ফি ১০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সম্প্রতি ডিএনসিসির দ্বিতীয় পরিষদের ১৪তম করপোরেশন সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

ডিএনসিসির নিয়ন্ত্রণাধীন বনানী কবরস্থান ছাড়াও রয়েছে—উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থান, মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান, রায়ের বাজার বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধসংলগ্ন কবরস্থান, উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টর কবরস্থান এবং উত্তরা ১৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থান।


আরও খবর

ই-টিকেটিংয়ে কমেছে ভাড়ার নৈরাজ্য

মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২

ই-টিকেটিংয়ে বন্ধ অতিরিক্ত ভাড়া

শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২




মুম্বাইয়ের রেডিসন এমআইডিসিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল

মিস্টার মিস এন্ড ইন্টারন্যাশনাল আইকন ২০২২ সিজন থ্রি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

শাহ আলম ইসলাম নিতুলঃ 

গত ৯ নভেম্বর মুম্বাইয়ের রেডিসন এমআইডিসিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল মিস্টার মিস এন্ড ইন্টারন্যাশনাল আইকন ২০২২ সিজন থ্রি। বাংলাদেশসহ মালয়েশিয়া, ইউএসএ এবং ইন্ডিয়া অংশ গ্রহন করে।

এই প্রোগ্রামটির কোরিওগ্রাফি করেছিলেন বাংলাদেশের ছেলে (স্পারকেল রেমো) এবং মালয়েশিয়ার কোরিও গ্রাফার মালা।

বাংলাদেশের ছেলে হিসেবে কোরিওগ্রাফি করে সবাইকে মুগ্ধ করেছেন, এবং কোরিওগ্রাফার হিসেবে অ্যাওয়ার্ড নিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী আমিশা পেটেলের হাত থেকে, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আমিশা প্যাটেল।

রেমো বলেন একটি প্লাটফর্মে কাজ করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত ভারতের সব নামিদামি মডেলরা উপস্থিত ছিলেন এবং আমার কাজ দেখে সবাই মুগ্ধ হয়েছেন। স্পার্কেল রেমো এর মধ্যে দেশে বিদেশে কর্পোরেট শো বিভিন্ন অ্যাওয়ার্ড শো গুলোতে কোরিওগ্রাফি করে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। বিনোদন ধারা পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ড বাবিসাস অ্যাওয়ার্ড মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৯,মিস্টার এন্ড মিস ফটোজোনিক অ্যাওয়ার্ড, face of Asia অ্যাওয়ার্ড শো  গুলোতে সুনামের সাথে কোরিওগ্রাফি করেছেন।

বর্তমানে মিরপুর ১১ এবং নিকেতনে একটি  মডেল গ্রুমিং  এবং ডান্স ইনস্টিটিউট রয়েছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় মিডিয়াতে রিমনের স্কুল থেকে অনেক ছেলে মেয়েরা কাজ করছে।

স্পার্কেল রেমো হিসাবে মিডিয়াতে পরিচিত,ডাক নাম রিমন কাউসার, রিমন এর বেড়ে ওঠা মিরপুর ১০ নম্বর সেনপাড়া পর্বতা, স্কুল  আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় এবং কলেজ ঢাকা স্টেট কলেজ, নিউ মডেল ডিগ্রী কলেজ থেকে মার্কেটিং বিভাগ থেকে স্নাতক পাস করেছেন। ছোটবেলা থেকেই রিমনের ক্রিকেট খেলা  এবং মিডিয়ার পতি ফ্যাসিনেশন ছিল। ধীরে ধীরে মডেলিং  এবং ডান্সের প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেকে কোরিওগ্রাফি  হিসেবে গড়ে তোলেন।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসাবে ইন্টারন্যাশনাল প্লাটফর্মে আরো বড় বড় কাজ করা।


আরও খবর

নোরাকে অশালীনভাবে স্পর্শ !

বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২




বাংলাদেশে দুর্ভিক্ষের শঙ্কা দেখছে না..ডব্লিউএফপি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ |
Image

বিশ্বের অনেক দেশে এখন খাদ্য সংকটের পরিস্থিতি থাকলেও বাংলাদেশে দুর্ভিক্ষের শঙ্কা দেখছে না বলে বাংলাদেশ বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি বা ডব্লিউএফপির প্রতিনিধি ডমেনিকো স্কালপেলি। বিষয়টি রাজনৈতিক বলে তিনি সরাসরি গণমাধ্যমের কাছে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাননি।

১৭ নভেম্বর সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ডব্লিউএফপির প্রতিনিধিদল। তাদের সঙ্গে আলোচনা শেষে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে এখন আমন কাটা চলছে। তিনি (ডমেনিকো) আমাকে বলেছেন, তাদের কাছ তথ্য আছে, কোনো ক্রমেই বাংলাদেশে খাদ্য সংকট বা দুর্ভিক্ষ হওয়ার সামান্যতম আশঙ্কা নেই। তবে যেহেতু এটি একটি রাজনৈতিক ইস্যু তাই তিনি এটা নিয়ে সরাসরি কথা বলবে না। আমি জানতে চেয়েছিলাম, তাকে রেফার করতে পারব কিনা। তিনি সম্মতি দিয়েছেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘ, বিশ্বব্যাংকসহ বিভিন্ন মাল্টিলেটারাল ডোনার অনুমান করছে পৃথিবীতে একটি খাদ্য সংকট হওয়ার আশঙ্কা আছে অতিসত্বর। কাজেই এটাকে বিবেচনায় নিয়েই সরকার কাজ করছে। কৃষি মন্ত্রণালয়ও কাজ করছে। তিনি বলেন, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির কান্ট্রি রিপ্রেজেনটিটিভ আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। সংকটের কথা অনেকেই বলছে। পরিস্থিতিতে বাংলাদেশকে তারা কীভাবে দেখছে এবং কীভাবে ভবিষ্যতে এখানে তারা কাজ করবে, এসব অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

স্বাধীনতার পর থেকেই খাদ্য নিরাপত্তার জন্য বিডব্লিউএফপি বাংলাদেশকে সহযোগিতা করলেও এখন সামান্য সাহায্যই দেয় জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা গত ১৫ বা ১২-১৩ বছর ধরে নেইনি। ইউএসএইড বছরে এক লাখ টনের মতো গম আমাদের দেয়। এটা ছাড়া আমরা কোনো খাদ্য সহযোগিতা বিদেশ থেকে গ্রহণ করিনি। তবে গত ছয় বছর ধরে রোহিঙ্গাদের জন্য যে খাদ্য প্রয়োজন, সেটিও বিশ্ব খাদ্য সংস্থার মাধ্যমেই দেয়া হয় বলে মন্ত্রী জানান।

মন্ত্রী গণমাধ্যমকর্মীদের মুখোমুখি হওয়ার দিন সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ১২ টাকা আর চিনির দাম কেজিতে ১৩ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা এসেছে। তবে রাজ্জাক দাবি করলেন, এই মুহূর্তে দেশে খাদ্যের দাম বাড়ার প্রবণতা নেই। গত তিন-চার দিনে শীতকালীন সবজির দাম অর্ধেক হয়ে গেছে দাবি করে তিনি এও বলেছেন, আগামীতে দাম আরো কমে আসবে। মন্ত্রী বলেন, খাদ্যের দাম কমেছে বলেই মুদ্রাস্থীতি গত মাসে কমে এসেছে। তবে আমি মনে করি এখন আমনের মৌসুম, ধান কাটার মাস, দাম আরো কমা উচিত ছিল। আমি বলি, গরিব মানুষ আছে, তাদের কষ্ট হচ্ছে, সীমিত বা নিম্ন আয়ের মানুষের কষ্ট হচ্ছে। তবে টাকা নিয়ে খাবার কিনতে পারছে না এমন পরিস্থিতি হয়নি।

শঙ্কার মধ্যেও এবার আমনের ভালো ফলন হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। বলেন, শ্রাবণ মাসে মাত্র একদিন বৃষ্টি হয়েছে। আমরা ভেবেছিলাম কৃষকরা হয়তো ধান লাগাতেই পারবে না, উৎপাদন কমে যাবে। কিন্তু এই প্রতিকূলতার মধ্যেও সেচ দিয়ে কৃষকরা ঠিকই ধান লাগিয়েছে। সবাই বলছে যে, স্মরণাতীতকালে সবচেয়ে ভালো ধান হয়েছে।

বর্ষায় বৃষ্টি কম হওয়ার কারণে আমন চাষ বেশি হয়েছে বলেও জানান রাজ্জাক। বলেন, অনেক নিচু এলাকায় অন্য সময় ধান লাগান যেত না। কারণ, বিলে পানি এসে যায়, ডুবে যায়। বছর বৃষ্টি না হওয়ায় এই বিলের জমিতেও ধান লাগিয়েছে। তারা বলে যে, অতীতে যে কোনো সময়ের চেয়ে ভালো আমন পাবে। আমাদের এবার যে লক্ষ্যমাত্রা ছিল, তার চেয়েও ভালো ধান হয়েছে। আগামী মৌসুমের জন্য দেশে পর্যাপ্ত সার মজুদ আছে বলেও জানান মন্ত্রী। বলেন, আগামী আলু বোরোর জন্য যে সার দরকার আমাদের তা আছে। আমাদের সর্বাত্মক প্রস্তুতি আছে।

ডলার সংকটের কারণে খাদ্য আমদানিতে সমস্যা হচ্ছে কি না এমন প্রশ্নে জবাব আসে, আমরা বলেছি সার আমদানিতে কোনো সমস্যা তৈরি করা যাবে না। এটার পেমেন্ট স্মুথ করতে হবে। খাদ্য আমদানিতে কিছু প্রভাব পড়ছে। গত জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত গত বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পরিমাণ খাদ্য আমদানি হয়েছে। এই যে এত সংকটের কথা বলা হচ্ছে, এত কম আমদানির পরেও কি দেশে খাদ্য নিয়ে কোনো কথা আছে ? হয়নি তো।

 


আরও খবর

নওগাঁয় বেগুন গাছে টমেটো চাষে সফল কৃষক বাদল

বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২

কাগজ সংকটে বই প্রকাশ অনিশ্চিত

বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২




রাণীনগরে ইউনিয়ন বিএনপির কাউন্সিলে

হামলার অভিযোগ আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ |
Image

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) :

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার খট্রেশ্বর রাণীনগর ইউনিয়ন বিএনপি’র কাউন্সিলে ভোট চলাকালে হামলার অভিযোগ ওঠেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে। ওই হামলায় শতাধীক চেয়ার,দুইটি মটরসাইকলে ও মাইক ভাংচুরসহ অন্তত ১০জন নেতা-কর্মী আহত হওয়ার দাবি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সদরে বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে এঘটনা ঘটে।

রাণীনগর উপজেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্নআহ্বায়ক আতিকুজ্জামান জাপান বলেন,উপজেলার খট্রেশ্বর ইউনিয়ন বিএনপি’র কমিটি গঠনের লক্ষে সভাপতি,সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোট সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিল। ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি গঠনের লক্ষে বৃহস্পতিবার উপজেলা সদরের বিএনপি’র দলীয় কার্যালয়ে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহন চলছিল।এসময় হঠাৎ করেই আওয়ামীলীগের বেশ কিছু নেতা-কর্মী এসে হামলা চালিয়ে মারপিট ও ভাংচুর করে।ওই হামলায় শতাধীক চেয়ার,দুইটি মটরসাইকলে,ভাংচুর করে। হামলায় নয়ন খাঁন লুলু,মোহন আলী,আবেদ হোসেনসহ আন্ত:ত ১০জন বিএনপি’র নেতা-কর্মী আহত হয়েছে বলে দাবি করে জাপান বলেন এর মধ্যে ৩জনকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর খবর পেয়ে থানাপুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। 

হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে রাণীনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ দুলু বলেন,যেখানেই বিএনপির সমাবেশ হচ্ছে সেখানেই তাদের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব হচ্ছে। বিএনপির কাউন্সিলে আওয়ামীলীগের কোন লোকজন হামলা করেনি বলে দাবি করেন তিনি। 

রাণীনগর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন বিএনপি’র দলীয় অফিসে একটা গোলমাল হয়েছে। তবে এঘটনায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে বোঝা যাবে কারা গোলমাল করেছে । তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর



মোরেলগঞ্জে ডিসি, ইউএনও এসিল্যান্ডসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

এম.পলাশ শরীফ, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি স-মিলের মালিকানাধীন জমি নিয়ে জেলা বিজ্ঞ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে ৪ জনকে বিবাদী করে বুধবার মামলা দায়ের করেছেন মিল মালিক আবুল বাশার শেখ ( মামলা নং-দেওয়ানি ৩৮৮/২০২২)। 

এ মামলায় বিবাদী করা হয়েছে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক, মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও মোরেলগঞ্জ ভূমি অফিসের সার্ভেয়ারকে। বিজ্ঞ আদালত বিবাদীগনকে আগামী ২১ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য আদেশ প্রদান করেছেন। 

  মামলার বিবরনে জানাগেছে, উপজেলার পুটিখালী ইউনিয়নের মঙ্গলেরহাট এলাকার “জনতা রাইস এন্ড স-মিল” মালিক মো. আবুল বাশার শেখ পুটিখালী মৌজার এসএ ৩৫৩ খতিয়ানে ১৪৫১, ১৪৫২ ও ১৪৫৩ দাগের বিআরএস ৩৪৫২ দাগের ০.৫২ একর জমি গত ১৫.১০.২০১২ ইং তারিখে ৫৭৭১ নং দলিলে ইসাহাক আলী হাওলাদারের কাছ থেকে ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছেন। জমির এক অংশে তিনি স-মিল স্থাপন করে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। 

গত ১৩ নভেম্বের উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার কোন প্রকার নোটিশ না দিয়ে জমির মালিক এ মামলার বাদী আবুল বাশারের অনুপস্থিততে জমিতে লাল নিশান টানিয়ে দেন এবং তার স-মিলটি সরিয়ে নেয়ার জন্য বলেন। কারণ হিসেবে বলেন, 'তার স’মিলটি চরের সরকারি জমিতে স্থাপিত'।

 পরের দিন জমির মালিক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে স্বাক্ষাৎ করে জানা, তার জমি সিএস রেকর্ডীয় দাগে রয়েছে। যা বিআরএস ৩৪৫২ দাগে পূর্বের মালিক ইসাহাক আলী হাওলাদারের নামে ৭৯৩ নং খতিয়ানে রেকর্ড হয়। 

এক পর্যায়ে আবুল বাসার তার ক্রয়কৃত জমি পরিমাপ করে সঠিক সিমানা নির্ধারনের জন্য নির্বাহী কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন। কিন্তু নির্বাহী কর্মকর্তা সে বিষয় কর্নপাত না করে স-মিলটি সরিয়ে নিতে বলেন এবং বিদুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। 

এতে নিরুপায়  হয়ে জমির মালিক আবুল বাশার শেখ বাগেরহাট বিজ্ঞ সহকারী জজ আদালতে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সার্ভেয়ারকে বিবাদী করে আদালতে মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে বাদির আবেদনের প্রেক্ষিতে বিবাদী গনের বিরুদ্ধে তফসিল বর্নিত জমিতে মামলা চলাকালিন কেন অস্থায়ী ও অর্ন্তবর্তীকালীন নিশেধাজ্ঞার আদেশ প্রদান করা হবে না তা অত্র নোটিশ প্রাপ্তির ২১ দিনের মধ্যে বিবাদী পক্ষকে কারণ দর্শানোর জন্য আদেশ প্রদান করেন। 

এ সর্ম্পকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, পুটিখালী মঙ্গলেরহাট এলাকায় এসএ রেকর্ড অনুযায়ী উক্ত স-মিলের জমিতে পূর্বে খাল ছিলো। খালটি ভরাট করে বে-দখল করে নিয়েছে, খালের জমি কখনও মালিকানাধীন হতে পারে না।  বিআরএস রেকর্ড কারো নামে হয়ে থাকলে তা কর্তন করা হবে। 


আরও খবর



নওগাঁয় মোটরসাইকেল খাদে পড়ে এক যুবক নিহত দু' যুবক আহত

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২ |
Image

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, স্টাফ রির্পোটারঃ


নওগাঁয় মোটরসাইকেল খাদে পড়ে মানিক কুমার (২০) নামে একজন যুবক নিহত হয়েছেন। একই দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী আরো দু' জন আহত হয়েছেন।

এসড়ক দূর্ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাত ৮টারদিকে নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়কের রাণীনগর উপজেলার গোনা খানপাড়া এলাকায়।

নিহত মানিক কুমার আত্রাই উপজেলার সুবর্নকুন্ড গ্রামের লঘুনাথ চন্দ্রের ছেলে। আর আহত শীবেন হালদার (২৩) একই উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের শিখিল হালদারের ছেলে ও গুপি (১৯) সুবর্নকুন্ড গ্রামের খোকার ছেলে।

নিহত ও আহতের সত্যতা নিশ্চিত করে রাণীনগর থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম রেজা জানান, একটি মোটরসাইকেলে মদ্যপ অবস্থায় ৩ জন বেপরোয়া গতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে নওগাঁ-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়ক দিয়ে আত্রাইয়ের দিকে যাচ্ছিল। এমতবাস্থায় আঞ্চলিক মহাসড়কের রাণীনগর উপজেলার গোনা খানপাড়া এলাকায় পৌঁছালে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ছিটকে সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী মানিক, শীবেন ও গুপি গুরুত্বর আহত হন। স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের ৩ জনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানের তাদের অবস্থার অবনতি হওয়ায় নওগাঁ সদর হাসপাতালে রেফার্ট করা হয়। সেখানেও তাদের অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকের কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত ১১টারদিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মানিককে মৃত ঘোষণা করেন। আর আহত শীবেন ও গুপি রাজশাহী মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


আরও খবর